• মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • নিরুপমা | 42.110.140.229 | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:২৬97380
  • স্মৃতি,  তোমার এই লেখা গুলি ভীষণ মন ছুঁয়ে যায় । মনে হয় যেন সব ছবির মত দেখতে  পাচ্ছি ।

  • নিরুপমা | 42.110.140.229 | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:২৬97379
  • স্মৃতি,  তোমার এই লেখা গুলি ভীষণ মন ছুঁয়ে যায় । মনে হয় যেন সব ছবির মত দেখতে  পাচ্ছি ।

  • hu | 2600:1009:b14b:873c:84d4:5304:ae8a:f6cb | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:৫৩97382
  • খুব ভালো লাগছে এই সিরিজ    

  • শামীম আরা বেগম... কচিদি..... | 119.30.35.228 | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:৫২97385
  • স্মৃতি বা মণি যে নামেই ডাকি না কেন,  তুমিই যে তোমার সেই কুয়াশামোড়া  স্বপ্নমাখা জীবনের জলছবির অব্যর্থ রুপকার সন্দেহ নেই... 


    আমি একথা মানি যে  আমরা সবাই কোন এক পরিণত  সময়ে নিজ নিজ জীবনের " নায়িকা"   হয়ে যাই। তখন এমনটি হয় যে, জীবন বা জীবনপ্রবাহের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ  সবকিছুই যেন সেই "আমিত্ব" কে ছাপিয়ে উঠতে পারে না.... 


    কিন্তু তোমার সবকিছুই যেন অন্যরকম.... অন্য কথা কয়।... 


    তাই তোমার সেই সোঁদাগন্ধমাখা শিউলিভেজা অস্পষ্ট  অথচ চিরন্তনী গল্পের নায়িকা কিন্তু "ঠাকুমা".....!!!                  


                       

  • i | 203.166.253.205 | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০৬:৪০97388
  • মায়াময় । বড়  সুন্দর লেখা - অক্ষরেই ঘ্রাণ আসে, নিরামিষ রান্নার আস্বাদ। বাটি ধোয়া জলের ডিটেইলিং মুগ্ধ করে। 


    বাঘু বেকারের সিরিজ , ইন্দুবালার ভাতের হোটেল, যদি এই ভাবে সিরিজ করে ধরে রাখা যায় - না হয় পুনর্দর্শনই  হল -

  • জয়দীপ | 42.110.163.27 | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:০৭97408
  • কত পুরানো কথা মনে পড়ে গেল।আমার ঠাকুমাকে আমি দেখিনি। আমার বড় পিসিমা অল্প বয়সে বিধবা। বছরের বেশিটা থাকত আমাদের বাড়ী। উনি আমার বড়োমা বনাম ঠাকুমা

  • Susmita Mukherjee | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:৫৩97409
  • বড্ড মায়াভরা লেখা।

  • Saoni Mandal | ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:৫৫97435
  • বড়ো ভালো লাগলো ।শীতের রাতে গ্রামের বাড়ী তে আমি ওমনি  চারটে  বেড়াল নিয়ে  দিদুন কে জড়িয়ে  ঘুমাতাম  আর দিদুন আবছা  অন্ধকারে উঠে  মুড়ি ভাজতে চলে  যেত .

  • reeta bandyopadhyay | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২০:০২97668
  • পুরোনো দিনের কথা মনে পড়ে গেল 

  • কৌশিক বন্দ্যোপাধ্যায় | 2405:201:a001:ca5e:199c:e576:40f3:9932 | ১৯ অক্টোবর ২০২০ ১৪:৪৮98631
  • স্মৃতি দেবীর স্বাদু গদ্য শৈলীতে এক অনন্য চলমান ছবিতে মূর্ত রূপ পেলো এক বিশেষ দেশ ও কাল। সেই চিরকালের মতো হারিয়ে যাওয়া ভূখণ্ড ও সময়ের জন্য এক অন্তর্লীন বেদনা ভিতরে বাজতে থাকে। তখনকার মানুষগুলির  জীবনে সরলতা ও আন্তরিকতা লক্ষ্যণীয়।

  • অমিতাভ চক্রবর্ত্তী | ১১ নভেম্বর ২০২০ ০৫:২৬99884
  • জমিয়ে রেখে আজ পড়তে শুরু করলাম। জানতাম কি পেতে চলেছি, তার পরেও ভালো লাগা উপচে পড়ে আমায় ভাসিয়ে নিয়ে গেল। নিজের ছোটবেলাটিকে ফিরে পাওয়ার আনন্দও হয়ত এই উপভোগে তার ভূমিকা রেখেছে।

  • মিত্রা মুখোপাধ্যায় | 202.142.104.37 | ০৭ ডিসেম্বর ২০২০ ২৩:১১101002
  • প্রথম বার প্রথম পরবো পড়েই  মন জুড়িয়ে গেল। কী অনবদ্য ।এ জীবন যেন গাছপালা, পাখপাখালি,উঠোনে লতানো পুঁই,কুমড়ো লতা, আম-কাঁঠালের ছায়ায় কোলে মেটে রঙা তুলসী মঞ্চ আরো অসংখ্য হারিয়ে যাওয়া যাপনের নিপুণ ছবিটি।চোখ বুঁজলেই দেখতে পাই।


    তারপর অন্য লেখা গুলি র জন্যে খুঁজতে গিয়ে আর পেলাম না।আজ হঠাৎই নিবেদিতা র পোস্টে চোখ পড়তেই খুঁজে পেলাম।আবার বলি অপূর্ব।আরো লিখুন।ভালোবাসা।

  • manimoy sengupta | ০৮ ডিসেম্বর ২০২০ ১৮:১৪101013
  • চোখে জল আসে। কেন ? ব্যাথামেশা একটা ভালোলাগায় মন ভরে যায়। জমিয়ে রাখছি, আবার, বারবার, পড়বো। 

  • raju Sengupta | ০৯ ডিসেম্বর ২০২০ ০৬:৫৬101018
  • কি অনবদ্য লেখনী! লেখার কি অসামান্য গতি। আমি baakaruddh.

  • Paramita | 71.202.35.85 | ০৩ জানুয়ারি ২০২১ ০২:২১101476
  • বাইরবাড়ি, শিম-সর্ষে, নগরকীর্তন - সবই খুব চেনা লাগে। আমার নিজস্ব কথকঠাকুরটির কথা মনে পড়ে । 

  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আলোচনা করতে মতামত দিন