এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • চতুর্থ দফা

    সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায় লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৫ মে ২০২৪ | ৫২৩ বার পঠিত
  • সময়টাই যখন অন্ধকার, তখন মানুষ কি আর খিল্লি করবেনা? অবশ্যই করবে, তারা তখন উনিজিকে নিয়ে খিল্লি করবে। 
    - বারটোল্ড খ্রেশট 


    বিশেষ প্রতিবেদনঃ চতুর্থ দফার পর, জয়-বাংলার তিনজন অবাঙালি প্রার্থী স্বস্তিতে। কীর্তি আজাদ ঘনিষ্ঠ মহলে বলেছেন, সব দলই তো দেখা হয়ে গেল, এখনই নতুন চাকরি ছাড়ার কোনো কারণ দেখছেননা। শত্রুঘ্ন সিনহা, শোনা যাচ্ছে, সাম্মানিক বাঙালিত্বের জন্য বাংলা পক্ষর কাছে আবেদন করবেন। ইউসুফ পাঠান কিছু নিয়েই চিন্তিত নন, সমস্ত প্রশ্নের উত্তরেই বলছেন, আমি তো কেকেআরে খেলেছি। রাজ্যের শাসকদলের ​​​​​​​সূত্রে ​​​​​​​খবর, ​​​​​​​এটাকেই তাঁরা নতুন স্লোগান হিসেবে ব্যবহার করবেন। দুর্নীতি-গুন্ডামিসহ যেকোনো ​প্রসঙ্গ এলেই এতদিন ট্রাকে উঠে হরিবোল বলা হচ্ছিল, এবার ​​​​​​​ইউসুফ ​​​​​​​পাঠানের ​​​​​​​পথ ​​​​​​​ধরে ​​​​​​​বলা হবে, ​​​​​​​কেকেআরে ​​​​​​​খেলা ​​​​​​​হবে। এতদিন  ভদ্রলোকের-এক-কথাটা  শুধু অন্য পক্ষেরই অস্ত্র ছিল। সূর্য-কেন-পূব-দিকে-​​​​​​​ওঠে থেকে শুরু ​​​​​​​করে গ্যাসের-দাম-কেন-বেশি সবকিছুর ​​​​​​​উত্তরেই ​​​​​​​হিন্দুবীররা ​​​​​​​বলেন, বাংলাদেশে ​​​​​​​​​​​​​​হিন্দুরা-বিপদে। ​​​​​​​ইডি-সিবিআই থেকে খুন-জখম পর্যন্ত সর্বত্রই বামপন্থীরাও একটাই কথা ​​​​​​​বলে ​​​​​​​থাকেন, বাইনারি। ​​​​​​​বাংলার সবাই তো বলেনই, দিল্লির ​​​​​​​এক বিখ্যাত ​​​​​​​নেত্রীও ​​​​​​​সম্প্রতি এক স্টিং ভিডিওয় হিন্দুবীররা বিপদে পড়ায়  ​​​​​​​জানিয়েছেন, ​​​​​​​যে ​​​​​​​বাইনারিরা ​​​​​​​ভিডিও ​​​​​​​নিয়ে ​​​​​​​খেলছে। ​​​​​​​

    সেটাও ​​​​​​​অবশ্য ​​​​​​​তিনি ​​​​​​​টিভির ভিডিওতেই ​​​​​​​বলেছেন। কিন্তু ​​​​​​​টিভির ​​​​​​​সঙ্গে ​​​​​​​অন্য ​​​​​​​ভিডিওকে ​​​​​​​গুলিয়ে ​​​​​​​ফেললে ​​​​​​​হবেনা। কারণ, রাম্মিডিয়ার জমানায় সবাই মোটামুটি একমত, যে, টিভি যা দেখায়, তাই পৃথিবীর একমাত্র সত্য। তাছাড়া কেরিয়ার হিসেবে টিভি ব্যাপারটা এমনকি ওকালতির চেয়েও ভালো। ওকালতিতে একজন সওয়াল করেন, আরেকজন রায় দেন, আর টিভিতে যিনিই উকিল, তিনিই বিচারক, তিনিই উনিজি। এই সুবিধার জন্য, শোনা যাচ্ছে মুর্শিদাবাদের এক দোর্দন্ডপ্রতাপ নেতা কেরিয়ার বদলে পুরো সময় টিভিতে আসবেন ভাবছেন। পশ্চিমবঙ্গের আরেকজন অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্বও, কাজ খোয়ানোর আশঙ্কায় আবেদন করেছিলেন বলে খবর। কিন্তু  "এটা সিভি? আমরা আনন্দ" বলে তাঁকে ​​​​​​​এমনকি ​​​​​​​টিভিও ​​​​​​​খারিজ ​​​​​​​করে ​​​​​​​দিয়েছে। ফলে ​​​​​​​তিনি ​​​​​​​কম ​​​​​​​গুরুত্বপূর্ণ ​​​​​​​রাজ্যপাল পদেই ​​​​​​​​​​​​​​জীবনের বাকি দিনগুলি  ​​​​​​​অতিবাহিত ​​​​​​​করবেন ​​​​​​​স্থির ​​​​​​​করেছেন। 
     
    সেটাও অবশ্য খারাপ ব্যাপার না, কারণ, এরই ​​​​​​​মধ্যে, ​​​​​​​জানা ​​​​​​​গেছে, ​​​​​​​পশ্চিমবঙ্গের ​​​​​​​রাজ্যপাল শুধু ​​​​​​​রাজনীতি ​​​​​​​নন, ​​​​​​​শ্লীলতাহানি, ​​​​​​​রাহাজানি ​​​​​​​সব ​​​​​​​কিছুরই ​​​​​​​ঊর্ধ্বে, কারণ তাঁর গুরুত্ব কম।  ​​​​​​​ইতিপূর্বে ​​​​​​​এক বিখ্যাত সংবিধানবিশেজ্ঞ ​​​​​​​উকিল ​​​​​​​জানিয়েছিলেন, ​​​​​​​এত ​​​​​​​ভাল ​​​​​​​যার ​​​​​​​কেরিয়ার, ​​​​​​​সে ​​​​​​​কখনও ​​​​​​​এরকম ​​​​​​​ছোটো ​​​​​​​কাজে ​​​​​​​জড়াতে ​​​​​​​পারেনা। ​​​​​​​শোনা ​​​​​​​যাচ্ছে, ​​​​​​​সেই ​​​​​​​উক্তি ​​​​​​​অনেকের ​​​​​​​চোখ ​​​​​​​খুলে ​​​​​​​দিয়েছে। ​​​​​​​প্রগতিশীল ​​​​​​​ও ​​​​​​​নারীবাদী ​​​​​​​সমাজের ​​​​​​​এক ​​​​​​​গুরুত্বপূর্ণ ​​​​​​​মুখপাত্র ঘনিষ্ঠ ​​​​​​​মহলে ​​​​​​​জানিয়েছেন, ​​​​​​​যে, ​​​​​​​পশ্চিমবঙ্গের ​​​​​​​সবচেয়ে ​​​​​​​প্রভাবশালী ​​​​​​​ব্যক্তির ​​​​​​​নাম আসলে ​​​​​​​সুদীপ্ত ​​​​​​​চট্টোপাধ্যায়। ​​​​​​​​​​​​​​সুদীপ্ত একজন ​​​​​​​নাট্যব্যক্তিত্ব, ​​​​​​​যিনি নারীনির্যাতনের ​​​​​​​অভিযোগে ​​​​​​​কিছুদিন ​​​​​​​হাজতবাস ​​​​​​​করে ​​​​​​​এসেছেন, ​​​​​​​এখনও ​​​​​​​সেই ​​​​​​​মামলা চলছে, অপরাধী প্রমাণিত ​​​​​​​হলে ​​​​​​​জেলও ​​​​​​​খাটবেন। কিন্তু তাঁর ​​​​​​​অপরিসীম স্থানীয়, ​​​​​​​রাষ্ট্রীয় ​​​​​​​এবং ​​​​​​​আন্তর্জাতিক ​​​​​​​প্রভাবের ​​​​​​​কারণে, যাতে আর কোনোদিন নাটকের মঞ্চেই উঠতে না পারেন,  ​​​​​​​সেজন্য ​​​​​​অনেকেই ​​​​​​​একজোট ​​​​​​​হয়েছিলেন। ​​​​​​​এছাড়াও প্রভাবশালী ব্যক্তির ​​​​​​​তালিকায় ​​​​​​​দ্বিতীয় ​​​​​​​ও ​​​​​​​তৃতীয় ​​​​​​​স্থানে ​​​​​​​আছেন, ​​​​​​​যথাক্রমে ​​​​​​​মমতাশঙ্কর এবং ​​​​​​​সৌরভ ​​​​​​​গাঙ্গুলি। ​​​​​​​এবং ​​​​​​​যিনি ​​​​​​​একেবারেই ​​​​​​​প্রভাবশালী ​​​​​​​নন, ​​​​​​​তিনি ​​​​​​​হলেন ​​​​​​​পশ্চিমবঙ্গের ​​​​​​​রাজ্যপাল। ​​​​​​​ফলে ​​​​​​​তাঁর ​​​​​​​বিরুদ্ধে ​​​​​​​কথা ​​​​​​​বলার ​​​​​​​আদৌ ​​​​​​​কোনো ​​​​​​​প্রয়োজন ​​​​​​​নেই। ব্যপারটা ​​​​​​​এত ​​​​​​​ছোটো, যে, ​​​​​​​টিভিতেও ​​​​​​​তেমন ​​​​​​​করে ​​​​​​​দেখায়না। ​​​​​​​ফলে ​​​​​​​অভিযোগকারিণীর ​​​​​​​​​​​​​​কথায় গুরুত্ব দেবার ​​​​​​​ব্যাপারটাই ​​​​​​​এক্ষেত্রে অপ্রাসঙ্গিক। এর চেয়ে ল্যাম্পপোস্ট, শাঁখাপলা ইত্যাদি বড় বড় ব্যাপারে নজর দেওয়াই তাই জরুরি ও যথাযথ।

    ফলে রাজনৈতিক জয় যারই হোক, নৈতিক জয়ে এখনও পর্যন্ত রাম্মিডিয়াই অপ্রতিহতভাবে এগিয়ে। 

    ছবিঃ যদুবাবু 

    ** এই প্রতিবেদন সম্পূর্ণ কল্পিত। লিখে দিতে হচ্ছে, কারণ, চাড্ডিভাইরা রসিকতা ঠিক বুঝে উঠতে পারেননা। 
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • যদুবাবু | ১৫ মে ২০২৪ ০৮:১১531746
  • ছবি - 



    (ফেসবুক পোস্ট থেকে "কপি ইমেজ অ্যাড্রেস" করেও হচ্ছে দেখছি।) 
  • dc | 2402:e280:2141:1e8:38f2:23aa:73fa:7794 | ১৫ মে ২০২৪ ০৮:২১531748
  • ছবিটা এক ঘর হয়েছে, বসে দেখার মতো laugh
  • পাপাঙ্গুল | ১৫ মে ২০২৪ ১৩:২৬531756
  • বারটোল্ড খ্রেশটের উক্তি আর যদুবাবুর ছবি laughlaugh
  • kk | 172.58.241.244 | ১৫ মে ২০২৪ ২০:২৪531762
  • ইয়াপ! ছবিতে দুজন লোকেরই এক্সপ্রেশন দারুণ! এমনকি ঐ তিলক পরা ড্রয়ারটির এক্সপ্রেশনও খাসা! যদুবাবু কি জ্যায়। সিরিয়াসলি।  
  • :|: | 174.251.161.118 | ১৫ মে ২০২৪ ২০:৫১531765
  • বারে বসে করা উক্তি বারটোল্ড। মধ্যপদলোপী কর্মধারয় -- নির্ঘাৎ। 
    কর্মী মহিলাও সিভি নিয়ে এসেছিলেন। যাঁর কাছে এনেছিলেন তিনিও সিভি। বারে বারে একই কথা (সিভি) বলার কারণেও বারটোল্ড। এটি হয়তো বহুব্রীহি। 
  • | ১৬ মে ২০২৪ ১৩:০৭531803
  • আমার কেন্দ্রে প্রার্থীদের সম্পত্তির পরিমাণ 
     
  • সিএস | 2405:201:802c:7815:391e:f9a9:29a0:8b1c | ২১ মে ২০২৪ ২১:৫৮532090
  • পিকে চ্যানেলে চ্যানেলে বক্তিমে দিয়ে যাচ্ছে, বিজেপি বাড়ছে বাড়বে বলে, আজও দিয়েছে। ওদিকে যোগেন্দ্র যাদব বলছে মেজরিটি পার হবে না, চাণক্য টিভি না কী একটা আছে, তারা নাকি খুব হিসেব মেলায় সেও বলছে ভাজপার চিন্তা নেই, এক্সিট পোল করা যাচ্ছে না বলে বম্বের সাট্টা বাজারও যে ভাজপাকেই দেখতে পারছে সে খবরও ভাসছে। যতভাবে নিরপেক্ষ হিসেবদক্ষ লোকেদের দিয়ে বলানো যায় চলছে। পরে না মিললে সে কোথায় আর ও কোথায়।
  • সিএস | 2405:201:802c:7815:391e:f9a9:29a0:8b1c | ২১ মে ২০২৪ ২২:০২532091
  • তবে এদের নয় হিসেবপত্তর বোঝাতে হচ্ছে, যুক্তি সাজাতে হচ্ছে, মোদীজী ওসবে নেই, ওনার সোজা কথা, একটাই কথা যে মুসলমানরা সব নিয়ে নেবে।
  • | ২১ মে ২০২৪ ২৩:০৫532092
  • এদিকে কাল ইভিএম মেশিনের সামনে দাঁড়িয়ে আবিষ্কার কল্লাম্ম আমার কেন্দ্রে 'দিল দিল নওশাদভাই'ও প্রার্থী দিয়েছে। এসইউসিয়াই তবু দু চারটে দেওয়ালের কোণায় প্রার্থীর নাম লিখেছে,  এ তো কিছুই লেখে নি কিছু প্রচারও করে নি। অন্তত আমাদের এলাকাটায়। ভোট কাটতেই দাঁড়িয়েছে আর কি।
  • dc | 2402:e280:2141:1e8:531:87ac:6910:fe96 | ২১ মে ২০২৪ ২৩:১৭532095
  • দুদিন ধরে এন্ডিটিভিতে মোদির ইন্টারভিউ প্রচার করে চলেছে। আদানীর খুব চিন্তা, যদি মেজরিটি না পায়! 
  • সুজিত মন্ডল | 173.208.98.12 | ২১ মে ২০২৪ ২৩:১৮532096
  • এবার ভোট ডিক্টেটরশিপকে দিলুম। হ্যাঁ, মোদীজিকেই চাই। গরুচন্ডালি নিপাত যাক।
  • pm | 2a0b:f4c2:1::1 | ২১ মে ২০২৪ ২৩:৩৫532097
  • পাপ্পুর কথা কেহ তো বলে না? হ্যাঁ? ক্কেউ না?
  • পাপাঙ্গুল | ২১ মে ২০২৪ ২৩:৫৫532101
  • এসইউসিয়াই কলকাতা উত্তরেও দিয়েছে। সিপিএম আর এসইউসিয়াইর প্রতীক আবার একই , রংটা উল্টো। অনেকে ভুল করে ভোট দিয়ে দিতে পারে। 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লাজুক না হয়ে মতামত দিন