এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • প্রলয় আপাতত বন্ধ আছে 

    সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায় লেখকের গ্রাহক হোন
    ১১ এপ্রিল ২০২৩ | ৯৩৯ বার পঠিত | রেটিং ৫ (২ জন)
  • বিশ্বভারতীতে যা চলছে, সে নিয়ে আমরা ঠিক কি জানি? কিসুই না। মাঝে অমর্ত্য সেনকে জমিচোর আখ্যা দেওয়া হয়েছিল, এইটুকু জানি। সেও তামাদি হয়ে গেছে। উপাচার্য বলেছিলেন, অমর্ত্য সেন নোবেল পাননি, এটাও জানা। বসন্তোৎসব, পৌষ মেলা, সবই বস্তুত বন্ধ করে বা লাটে তুলে দেওয়া হচ্ছে, মনে হয়, এক আধবার পড়েছি-টড়েছি। কিন্তু আস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটা যে হিন্দুত্ববাদী আধা-ফ্যাসিস্ত অচলায়তনে পরিণত করে ফেলা হচ্ছে, ট্যাঁফো করলেই ছাত্র থেকে শিক্ষক সবাইকে সাসপেন্ড-বহিষ্কার করে দেওয়া হচ্ছে, এবং এটা যে বেশ কয়েক বছর ধরে চলছে, সে নিয়ে বিশেষ নড়াচড়া নেই। যদিও না জানলেও আন্দাজ করতে অসুবিধে নেই, স্রেফ রাজনৈতিক কারণে, অমর্ত্য সেনকে যারা "উনি তো নোবেল পাননি" আর চমস্কিকে "উনি না বুঝে লেখায় সই করেছেন" বলতে পারে, তারা ঠিক কতদূর যেতে পারে।

    পুরোনো বিই কলেজ, নতুন আইআইইএসটিতে কী চলছে, আমরা সে নিয়ে কিছু জানি? কিসুই না। প্রতিষ্ঠানটার মান-ইজ্জত অনেক কাল আগেই গেছে। কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় হবার পরপরই। আরেকখানা হিন্দুত্ববাদের আখড়া তৈরি করার চেষ্টা হচ্ছে, সেও নতুন না। ট্যাঁফো করলেই শোকজ। এই কদিন আগে, 'আইআইইএসটি বাঁচাও' পোস্টার সহ শোভাযাত্রা করায়, শোকজ করা হয়েছে কয়েকজন শিক্ষককে। তাঁরা নাকি কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে ব্যানার টাঙিয়েছেন, পদযাত্রা করেছেন। বিশ্বের কোথায় ব্যানার লাগানোর আগে অনুমতি নিতে হয়, আমার জানা নেই। বড় মিছিল করতে গেলে পুলিশের অনুমতি লাগে জানি, কিন্তু কর্তৃপক্ষের? সেও জানা নেই। তবে শিবপুরের কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে এসব একুশে আইন চালু আছে, দেখাই যাচ্ছে। 

    এইসব যে হচ্ছে, সেটা বড় কথা না। বর্গী-রাজত্বে এসব তো হবেই। বড় কথা হচ্ছে, এসব নিয়ে বাঙালির বিশেষ হেলদোল নেই। বাঙালির শ্রম-সাধনা-অর্থ-স্বপ্নে তৈরি প্রতিষ্ঠানগুলোতে তেড়ে 'হিন্দি-দিবস' হচ্ছে, 'রাজভাষা' চালু হচ্ছে, গরু নিয়ে সেমিনার হচ্ছে, যেকোনোদিন জ্যোতিষচর্চা আর জলপড়ার কোর্সও হইহই করে চালু হয়ে যাবে, বাঙালি তখনও নাকে সর্ষের তেল দিয়ে ঘুমোবে। গণমাধ্যমগুলো খবর করবেনা, টিভি দেখলে জানার উপায় থাকবেনা বিশ্বভারতীতে বা শিবপুরে কিছু ঘটছে, ওগুলো আদৌ আছে, ফলে পঁচিশে বৈশাখ পাঞ্জাবি পরবে, আর রবীন্দ্রসঙ্গীত শুনে চোখের জল ফেলবে, কিন্তু রবীন্দ্রনাথের প্রতিষ্ঠানের হাল নিয়ে তার বিশেষ বক্তব্য থাকবেনা। 

    হ্যাঁ, এগুলো আলাদা কিছু না। সব কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠানেই এগুলো হচ্ছে। একদম নিখুঁত হিসাবমাফিক আগ্রাসী হিন্দুত্বের আজ্ঞাবাহী দাসে ভরিয়ে দেওয়া হচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলো। একদা বৌদ্ধিক জগতে বামপন্থীদের আধিপত্য ছিল, সেই দিকটা এখন বোদা, চর্বিতচর্বণ ছাড়া আর কিছু হয়না, দক্ষিণপন্থী শক্তি মাপজোক করে পরিসরটার দখল নিচ্ছে। গণতন্ত্র সেখানে স্রেফ বাহুল্য, বহুমতের কথা বলাই অপরাধ, তৈরি করা হচ্ছে স্রেফ গরুপুজোর আদিগন্ত দালান, আন্দোলন-টান্দোলন করতে গেলে তো স্রেফ ছুঁড়ে ফেলা হবে। সমস্ত কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠানেই এগুলো হচ্ছে, ঠিক কথা। কিন্তু সেগুলো তো রবীন্দ্রনাথের তৈরি না, যিনি অচলায়তন বা রক্তকরবীর মতো এক-আধটা খুচরো লেখা লিখেছিলেন। সেগুলোতে তো মাইকেল মধূসুদনের স্মৃতি জড়িয়ে নেই, যিনি রামকে ভিলেন বানিয়ে মেঘনাদবধ কাব্য লিখেছিলেন। এই জমি, এই ঐতিহ্য আমাদের। এগুলো লুঠ হচ্ছে। আমরা করতে দিচ্ছি। 

    ১৭৫৭ সালে ক্লাইভ যখন মুর্শিদাবাদে হাতে-গোণা সৈন্য নিয়ে ঢোকেন, লোকে তখন ভিড় করে তামাশা দেখছিল। তামাশাও ঠিক না, কী করতে হবে তাদের জানা ছিলনা। এরকম তো রাজা-রাজড়া বদলায়ই, আমরা কী করব? এই ছিল হাবভাব। তাদের জানা ছিলনা, এই লালমুখোদের রাজত্বে এর বছর-পনেরোর মধ্যেই সোনার বাংলার এক তৃতীয়াংশ লোক স্রেফ মরে যাবে মন্বন্তরে। আমাদেরও সেই দশা। আমরা প্রচুর অণতান্ত্রিক আন্দোলন করছি, আন্দোলিত হচ্ছি, কিন্তু যেখানে গণতন্ত্র ব্যাপারটাকেই ইয়ার্কি করে দেওয়া হচ্ছে, সেগুলো একটু দূর থেকে দেখছি। পাশ কাটিয়ে যাচ্ছি। এই হিন্দি-হিন্দু-হিন্দুস্তান জিগিরের সুদূরপ্রসারী ফলগুলো, আমাদের জানা নেই। বা জানা থাকলেও চক্ষু বুজে আছি। কে না জানে, অন্ধ হয়ে থাকলেই প্রলয় বন্ধ থাকে। 
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • &/ | 151.141.85.8 | ১১ এপ্রিল ২০২৩ ২৩:৫৪518554
  • একদম তাই। শনৈঃ শনৈঃ, তাও ঠিক না, বেশ কদম কদম ফেলেই গ্রাস করে নিচ্ছে। কেউ কিছুই বলেও না, শোনেও না, মিডিয়া অন্য সব হাটকুল ফাটকুল উনকোটি চৌষট্টি জিনিস নিয়ে সার্কাস দেখায়। এই একটা লেখা তবু পেলাম। অন্ততঃ কিছু মত বিনিময় তো হোক! তারপরে, লড়তে যারা পারে, তাদের কাছে বার্তা পৌঁছে দেওয়া যায়। রাজনৈতিক কারণে যাঁরা গুর্চ থেকে সরে গেছেন, তাঁদের ফেরানো যায় না? এটা তো শুধু একটা সংকীর্ণ দলের রাজনীতির ব্যাপার না, গোটা রাজ্য গোটা দেশ গোটা গোটা ভাষার ব্যাপার। শিক্ষাদীক্ষা ইত্যাদি সিরিয়াস জিনিসের ব্যাপার।
  • Ranjan Roy | ১৩ এপ্রিল ২০২৩ ০৬:৫১518581
  • Link খুলছে না.  দেখাচ্ছে sorry @
  • ?? | 2405:8100:8000:5ca1::165:81f9 | ১৪ এপ্রিল ২০২৩ ০৬:৩১518624
  • অমর্ত্য আবার নোবেল পেল কবে? ও অস্কার ওয়াইল্ড ফাউন্ডেশন থেকে অস্কার পেয়েছিল না ৯২তে?
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খেলতে খেলতে প্রতিক্রিয়া দিন