ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • পরমাণু গল্প - চরিত্র  

    Amlan Sarkar লেখকের গ্রাহক হোন
    ২২ জানুয়ারি ২০২২ | ১৪০ বার পঠিত
  • 1968 সালে যখন শেষমেষ গাছতলা নিম্ন বুনিয়াদি শিক্ষায়তনে তৃতীয় শ্রেণীতে ভর্তি হলাম তখন বছরের প্রথম তিনমাস অতিক্রান্ত হয়ে গেছে। স্কুলের আসা যাওয়ার পথের নিত্যসাথী একই পাড়ার সুনীল ভৌমিক ছাড়াও রাহুল, সম্রাট, বুদ্ধদেব আদি একদল নতুন সহপাঠীর ভিড়ের মধ্যেও আলাদা করে লক্ষ্য করেছিলাম চকচকে কালো রঙের এক এথলেটিক চেহারার সহপাঠী শচীন মন্ডলকে। আর ছিল বিহারী লছমন সাহানী। সেই সময় আমাদের পাঠক্রমে অন্তর্ভুক্ত ছিল হরপ্পা মহেঞ্জোদারো পুনরাবিস্কারের ইতিহাস এবং এই পুনরাবিস্কারের অন্যতম কারিগর ছিলেন পুরাতত্ত্ববিদ দয়ারাম সাহানী। লছমন সাহানীর পদবির সঙ্গে মহান এই দয়ারাম সাহানীর পদবির মিল আমাদের যার পর নাই আমোদিত ও আহ্লাদিত করতো এবং এই সূত্র ধরেই আমরা লছমনকে একটু আধটু খেপাতেও ছাড়তাম না।

    ফিরে আসি শচীন মন্ডলের কথায়। কুচকুচে কালো রঙের এই ছেলেটিকে মৃনাল সেনের মৃগয়ায় মিঠুন চক্রবর্তী অভিনীত চরিত্রের সঙ্গে বাহ্যিক অথাৎ কিনা চেহারার দিক থেকে তুলনা করা যেতে পারে। তৃতীয় শ্রেণী থেকে নবম শ্রেণী - দীর্ঘ এই সাত বছর আমরা এক সঙ্গে পড়াশোনা করেছি। পড়াশোনায় নিতান্তই সাধারণ মেধার শচীন নবম শ্রেণী পর্যন্ত কোনো মতে টেনেমেনে পাস করে যাওয়ার পর নবম থেকে দশম শ্রেণীর বাঁধা অতিক্রম করতে গিয়ে প্রথম বার হোঁচট খেলো। পরবর্তী কালে সহপাঠী আর না থাকলেও ওর সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্কটা এই জ্যেষ্ঠ নাগরিকের মর্যাদা পাওয়ার দীর্ঘ সময় পর্যন্ত কিভাবে যেন অক্ষুন্ন রয়ে গেছে। পাঁচ সাত বছর পর পর একবার হয়তো দেখা হয় গ্রামের বাড়ির দিকে গেলে এবং অদ্ভুত ভাবে আবিষ্কার করি যে সম্পর্কটা এখনও পর্যন্ত এত বছর পরেও একই রয়ে গেছে।

    গরিব ছুতোর মিস্ত্রীর সন্তান শচীনের দারিদ্র্যের সঙ্গে লড়াইটা চিরন্তন ও নিত্যনৈমিত্তিক। সারা জীবন এই সংগ্রাম চালিয়েও ছেলেটা কিন্তু খুব একটা পরিবর্তিত হয়নি। একটা সময় হস্তরেখা বা palmistry নিয়ে সামান্য পড়াশোনা করেছিলাম। হস্তরেখা বিশারদ কিরোর মত অনুযায়ী যাদের হাতের তালুর রং ঘোর কৃষ্ণবর্ণের তারা নাকি খুনী হয়। শচীনের ছিল এই প্রকার ঘোরতর কৃষ্ণবর্ণের হাত। কাজেই একটা সময় পর্যন্ত বহুদিন মনের মধ্যে এই আশঙ্কা পুষে রেখেছিলাম যে কবে হয়তো শচীনের হাতে কারোর খুনের খবর শুনতে পাবো। সৌভাগ্যক্রমে আজ পর্যন্ত সেরকম কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি এবং বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে আশঙ্কার সেই কালো মেঘটিও ধীরে ধীরে কেটে গেছে। আমার এই বন্ধুটিও বহাল তবিয়তে দারিদ্র্যের সঙ্গে তার দৈনন্দিন লড়াই চালিয়ে নিজের অস্তিত্ব বজায় রেখে চলেছে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • বিপ্লব রহমান | ২৩ জানুয়ারি ২০২২ ০৫:৫৯503005
  • গল্পের সূচনা মনে হলো।  ইংরেজি হরফের ব্যবহার চোখে লাগছে। 
     
    আরও লিখুন। শুভ 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। যা খুশি মতামত দিন