• টইপত্তর  অন্যান্য

  • সর্ষেবাটা মোচাকাটা চিতলের মুইঠ্যা ইত্যাদি ইত্যাদি (২)

    Ishan
    অন্যান্য | ০৬ নভেম্বর ২০০৬ | ৯০০৪ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Rajdeep | 59.160.220.131 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ১৬:০০695162
  • SB :))
  • dipu | 207.179.11.216 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ১৬:০২695163
  • হোস্টেলের খাবারটা SB হেব্বি দিয়েছেন :-)
  • SB | 114.31.249.105 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ২০:৪৭695164
  • হাসলে কি হবে, এটাই সত্যি, তাহলে এই সুযোগে আরেকটা সত্যি কথা বলে নিয়।

    চার বছর হোস্টেলের পরে আমরা একটা অডিট করার চেষ্টা করেছিলাম। তাতে রেসাল্ট যেটা বেরিয়েছিল:

    চার বছর হোস্টেল লাইফের পরে আমরা এই চার বছরে টোটাল যা যা খেয়েছি তা হল:

    ১। এক ট্রাক মত পাউরুটি
    ২। গোটা পাঁচেক ঝুড়ি ডিম
    ৩। আর একটা মুরগী (কিন্তু ভুললে চলবে না আমাদের হোস্টেলে রাত্রের আহারের বাঁধা মেনু ছিল মুরগীর মাংসের ঝোল)

    এইসবের জন্যে আমি রান্না বান্না আর খাবারের সুতো এড়িয়ে চলি
  • d | 117.195.32.158 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ২০:৪৯695165
  • এই কি কান্ড! আমি আজকেই কোন একটা বাংলা কাগজে পড়লাম "আলু আর ডিমের স্যালাড'।
    :))))))
  • d | 117.195.32.158 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ২১:৩১695166
  • সোজাসাপ্টা চিকেন:

    চিকেন : ১ কেজি
    পেঁয়াজ: ৬ টা মাঝারী সাইজের
    টমেটো
    আলু
    আচারের তেল (লঙ্কার আচার হলে সবচেয়ে ভাল)
    রসুনের পেস্ট অল্প
    আদার পেস্ট ইচ্ছে হলে দিতেই পারেন। আমি দিই নি।
    কয়েক কুচি রসুন
    হলুদগুঁড়ো
    লঙ্কাগুঁড়ো
    কসুরি মেথি
    নুন

    মুর্গীর টুকরোগুলো ভাল করে গরম জলে ধুয়ে নিন। ৩টে পেঁয়াজ আধখানা করে কেটে নিন। এবারে একটা গভীর সসপ্যানে কিম্বা প্রেসারকুকারে মুর্গীর টুকরো আর দু আধখানা করা পেঁয়াজের টুকরো নিয়ে ঢাকনা দিয়ে সেদ্ধ করুন। প্রেসারে দিলে একটা সিটিতেই হয়ে যাওয়া উচিৎ। নামিয়ে স্টকটা আলাদা করে রেখে দিয়ে মুর্গী আর পেঁয়াজগুলো অল্প হলুদগুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো আর তেল মাখিয়ে রেখে দিন। আধঘন্টা রাখলেই হবে।

    এই ফাঁকে বাকী তিনটে পেঁয়াজ বেশ ঝিরিঝিরি করে কেটে ফেলুন দেখি। আলুগুলোও দু আধখানা করে কেটে নুন হলুদ মাখিয়ে হাল্কা করে ভেজে তুলে রাখুন।

    এবারে একটা কড়াইয়ে আচারের তেল দিন। আচারের তেল কম পড়লে এমনি তেল দিয়ে যতটা পারেন আচারের তেল মিশিয়ে দিন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচিগুলো ভাজতে থাকুন। জানেনই তো, বাদামীমত হলেই অন্যসব দিতে হয়। তা, রসুনের পেস্ট, রসুনকুচি, চাইলে একটু আদার পেস্ট, লঙ্কাগুঁড়ো দিয়ে কশাতে থাকুন। মশলা বেশ ভাজাভাজা হলে তাতে মুর্গী, সেদ্ধ পেঁয়াজ আর অল্প চিকেন স্টক, আন্দাজমত নুন দিয়ে কঢ়াইয়ে ঢাকা দিয়ে রান্না করুন ৮ - ১০ মিনিট। এবারে ঢাকনা তুলে আলুগুলো দিয়ে দিন। দেখুন মুর্গীগুলো নরম হয়েছে কিনা, দরকার হলে আরেকটু চিকেন স্টক দিতে পারেন। মুর্গী আলু সব আন্দাজমত নরম হয়ে গেলে দু চামচ গুঁড়ো কসুরি মেথি আর একচামচ আচারের তেল দিয়ে ঢাকনা বন্ধ করে আরো মিনিট খানেক রেখে নামিয়ে নিন।

    ব্যাস রেডি।
  • ei ekjan | 128.214.72.24 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ২১:৩৩695167
  • হোস্টেলের খাবার সব জায়গাতেই ভালো হয় - তিনতলা ডালটা কমন। কিন্তু গাঁদাফুলের বড়া কি সব জায়গায় পাওয়া যায়? ইন ফ্যাক্ট আমাদের সময় একবার ভাতের নৌকো থেকে টিকটিকি পাওয়া গিয়েছিল। সম্ভবত সেটা সুদ্ধই রান্না হয়েছিল। আমরা ভালো মানুষের মত সেইখানের কিছুটা ভাত ফেলে দিয়ে অন্য দিকের ভাত খেয়েছিলাম। কারো বড়ো কোনো অসুখ করেনি।
  • dd | 122.167.10.30 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ২১:৩৬695168
  • হুম।
    তবে লুরুর আলুগুলান ক্যামন জানি বদমেজাজী। অ্যাতো অল্পে ওঁয়ারা সেদ্ধপুরুষ হবেন্না। তাইলে হেথায় বোধয় আগে এলুগুলো দিয়ে তাপ্পরে মুগ্গী দিতে হবে।

    ট্রাই করে ফলাফল জানাবো। তবে এর সম্ভাবনা অতি ব্রাইট। কতো রকমের আচার আছে , তাদের প্রত্যেকটির জন্য মুগ্গীর আচার ব্যবহার পাল্টে যাবে।

    এটা জম্বে।
  • d | 117.195.32.158 | ২৬ নভেম্বর ২০০৯ ২১:৪৮695169
  • ওহো, বলতে ভুলে গেছি। টমেটোটা কুচি করে ঐ সব মশলা কষানোর সময়ে দিয়ে দেবেন।

    ঠিক কথা, আচারভেদে স্বাদ বদল হয়। আমের আচারের তেল দিয়ে আমার তেমন জুৎ লাগে নি। এবারে লঙ্কার আচারের তেল দিয়ে করলাম। বিয়াপ্পক লাগল।
  • SS | 128.248.169.47 | ২৮ নভেম্বর ২০০৯ ০৫:৫১695170
  • কলি,
    থ্যাংকু। zataar আর sumac দুটো মশলাই খুঁজে পেয়েছি। এখনকার মতো sumac কিনলাম কারণ অন্যটায় sesame seed ছিল। পরে দরকার পড়লে একটু thyme মিশিয়ে zataar বানিয়ে নেবো।
  • pipi | 78.52.239.91 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০০:৫০695172
  • নালী শাক বস্তুটি আসলে কি শাক? এদেশীয় নাম কি? রান্নাই বা করে কি করে? কেই একটু শীঘ্র শীঘ্র আলোকপাত করুন প্লীজ।
  • san | 123.201.53.2 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০০:৫৯695173
  • নালিতা শাক। সমস্কিতো সাহিত্যে আছে। সত্যি সত্যি।
  • tkn | 122.173.186.215 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:০৩695174
  • নালিতা শাক বর্ধমানের কিছু কিছু গ্রামে পাওয়া যায়। প্রচলিত নাম "নালতের শাক"। রান্না করলে একটু হড়হড়ে মত হয়। রসুন থেঁতো, সাদা সরষে ফোড়ন দেয়। একটু জলজল মত নামায়, তারপর একটা গোটা শুকনো লঙ্কা পুড়িয়ে ওর মধ্যে ছ্যাঁক শব্দ করে ফেলে দিতে হয়। গরমকালে খায়, সঙ্গে খেরোর তরকারী আর মুসুর ডাল। এই শাকই নালী শাক কিনা জানিনা যদিও
  • d | 117.195.38.191 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:০৫695175
  • চর্যাপদে আছে।
    ওগ্‌গর ভত্তা দুগ্‌ধ সজুত্তা
    নালিতা গচ্ছা মৈলি মচ্ছা
    ইত্যাদি

    পিপির সসেজ ভাজার প্রণালীটা হেবি কাজে দিয়েছে। পিপির মত করে, তারপর ঝিকির মত ভাজলাম।
  • d | 117.195.38.191 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:০৬695176
  • সেরেছে খেরো কী? খেরোর খাতা হয় তো। আবার তরকারীও হয়!
  • tkn | 122.173.186.215 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:১১695177
  • খেরো .. ধরো, চালকুমড়োর মামাতো ভাই। ঐভাবেই কাটে, সরু ঝিরি ঝিরি, কালোজিরে ফোড়ন দেয়, গরমের তরকারী.. শান্তিনিকেতনের একটা ঝুপড়িতে খেয়েছিলাম একবার, অমৃতের মত। শুধু কাঁচালঙ্কা কালোজিরে ফোড়নে রাঁধে, নামানোর আগে দুধ দেয় অল। বর্ধমান, বোলপুরেও বেশ পাওয়া যায়। আমি দেশের বাড়িতে খেয়েছি অনেকবার
  • san | 123.201.53.2 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:১২695178
  • খেঁড়োর তরকারি আর বিউলির ডাল - এই কম্বিটা আমি কোথায় যেন পড়েছি। গরমের সময় শরীর ঠান্ডা রাখে। তবে এই খেঁড়ো বা খেরো বা হোয়াটেভার , এ কি বস্তু? আম্মো জানতে আগ্রহী।
  • tkn | 122.173.186.215 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:১৩695179
  • অল্প।
    আর, খেরোতে মটরডালের বড়িও দেয় অনেক সময়। বেশ লাগে।
  • tkn | 122.173.186.215 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:১৬695180
  • হ্যাঁ, কলায়ের ডাল হিং মৌরী আদাবাটা ফোড়ন আর খেরোর তরকারী শরীর ঠান্ডা রাখে শুনেছি। আমি নিজে একবার শান্তিনীকেতন থেকেই ফেরার সময় রাস্তায় কোনো একটা জায়গায় খেরো দেখে কিনেছিলাম। তাকে রাঁধার সময় শেষ দুধের বদলে একটু সর্ষেবাটা দিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করেছিলাম, আর কাঁচা লঙা চিয়ে দিয়েছিলাম ওপর থেকে। সেও ভালো খেতে। মোদ্দা ব্যাপারটা ঐ চালকুমড়োরই মত। রাঁধতে জল লাগে না মোট্টেই
  • san | 123.201.53.2 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:১৬695181
  • মনে পড়েছে , কোয়েলের কাছে। অমন রোম্যান্টিক উপন্যাস মতান্তরে ন্যাকা উপন্যাস থেকে কিনা আমার সব ছেড়ে খেড়ো আর কলাই ডাল মনে রইল। উফ্‌ফ্‌ফ্‌ফ।
  • pipi | 78.52.239.91 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:৪২695183
  • বাবাগো!! খেঁড়োর তক্কারী আর জম্ম জম্মান্তরেও খাবনা গো। সেই দুটি বচ্ছর শান্তিনিকেতন রগড়ে ছেড়ে দিয়েছে! উফ্‌হ্‌হ!

    নালিতা নিয়ে এমন ঝমাঝম পোস্ট পড়ায় সক্কলকে থেঙ্কু। শুকনো লঙ্কা পোড়াতে গেলে পুলিশ এসে ধরবে। তাই ঐ ছ্যাঁকছোঁক বাদ দিয়ে নামাচ্ছি।
  • pipi | 78.52.239.91 | ০৬ ডিসেম্বর ২০০৯ ১৯:১৩695184
  • নালতে শাকের জঙ্গুলে গন্ধটাকে কিচ্ছুতেই ম্যানেজ করা গেল না। স্বাদে উতরালেও গন্ধে ডাহা ফেল। এক্সপেরিমেন্টের এখানেই ইতি। বেঁচে থাক আমার কলমী লাল নটে লাউ কচু ছোলা মটর পুঁই!
  • aka | 24.42.203.194 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:২২695185
  • কাল রাতে খুব রুটি আর ছোলার ডাল খেতে ইচ্ছে হল। শুনলাম ছোলার ডাল নাকি আছে। ঘেঁটে ঘুটে একটা বয়ামে দেখলাম অনেকটা ছোলার ডালের মতন একটা ডাল খানিকটা আছে। খুব করে রান্না করে ফেললাম ঐ যেমন করে ছোলার ডাল রাঁধে আর কি। তেজপাতা, শুকনো লংকা, জিরে, হলুদ ইত্যাদি ইত্যাদি। একটু ঝালও দিয়েছিলাম। নামানোর আগে ঘি, গরমমশলা। পরে জানা গেল আসলে ওটা তুর ওরফে অঢ়হড় ডাল। দিব্যি হয়েছিল কিন্তু। আজও আবার খাব।
  • tkn | 122.162.42.61 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:২৫695186
  • শোল মাছের কোনো রেসিপি দিতে পারো/পারেন কেউ?
  • aka | 24.42.203.194 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:৩৩695187
  • আরে না পারার কি আছে।

    পেঁয়াজ কাটুন ছোট ছোট করে। কষে ভাজুন, লাল লাল হয়ে এলে আদা দিয়ে দিন, তারপর বা আগেও দিতে পারেন রসুন, এবারে সব একসাথে ভাজুন। তেল একেবারে শুকিয়ে এলে একটু টমেটো দিয়ে দিন, আবার ভাজতে থাকুন। এবারে ওয়ান ইজ টু ওয়ান অনুপাতে হলুদ, জিরে, ধনের গুঁড়ো দিয়ে কষতে থাকুন। সাথে পরিমাণ মতন নুন ও চিনি (ঘটি নেমন্তন্ন করলে)। আবার কষতে থাকুন। তেল বেরুতে শুরু করলে খানিকটা গরম জল ঢেলে দিন। অন্যদিকে মাছ গুলো আগে ভেজে রাখুন। জল ফুটতে শুরু করলে মাছ ছেড়ে দিন। ব্যস নুন, মিষ্টি চেখে নিয়ে নামিয়ে নিন।

    ও হ্যাঁ বাঙালমতে চাইলে নামানোর আগে ঢেলে লংকার গুঁড়ো ঢেলে দিন। যেকোন আমিষ রান্নাই এই পদ্ধতিতে হতে পারে। এটা হচ্ছে রান্নার জেনারালাইজড ইন্টারফেস। গোপন কথাটি হল এই রান্নার মূল হচ্ছে নুন, মিষ্টি আর লংকার পরিমাণ, যদি ভাগ্যক্রমে ঠিক হয়ে যায় রান্না হিট হতে বাধ্য।
  • tkn | 122.162.42.61 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ০১:৫০695188
  • :-) থ্যাঙ্কু। শোলমূলো-টা কি বস্তু? শোল মাছ আর মূলোর কোনো প্রিপারেশন? সেটা কি জানা আছে আকাজী?
  • aka | 24.42.203.194 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ০২:৩৩695189
  • মূলো ইউ মিন র‌্যাডিশ। ও রান্নায় না দেওয়াই ভালো, আজকাল গ্রীন রান্নার চল হয়েছে খুব, আই মিন এনভায়রনমেন্ট ফ্রেণ্ডলি রান্না।
  • A | 99.183.185.250 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ১১:২৫695190
  • tkn পিসেমশাই,

    শোল-মূলো শোল মাছ ও মূলো দিয়ে করা হয়।
    মনে আছে পৌষ মাসে'র শনি অথবা মঙ্গল বারে মূলো দিয়ে পৌষ কালী'র দরবারে পূজো দিয়ে সেই মূলো দিয়ে শোল-মূলো খেতে হত প্রতি বছর পৌষ মাসে!! :(
  • tkn | 122.162.42.61 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ১১:৫৫695191
  • স্নেহের A
    শোল মূলোতে যে মূলো আর শোল থাকে ওটুকু এ বৃদ্ধের মাথায় ঢুকেছে নাম শুনেই। কিন্তু ক্যামনে বানায় তা যদি জানতুম তো তোমার পিসিমাকে দিয়ে রাঁধিয়ে এ বয়সে এই মূলো আর শোল ভরা বাজারে একবার চেখে দেখতুম, এই আর কি...

  • d | 117.195.36.173 | ০৭ ডিসেম্বর ২০০৯ ১৫:৫৯695192
  • শোল মুলো? দাঁড়াও দেখি।
  • dd | 122.167.52.115 | ০৮ ডিসেম্বর ২০০৯ ২২:৪৩695195
  • আইজ সিংগল ডি'র সোজাসাপ্টা চিকেন রাঁদলাম। খুব হাত্তালি পেলো। কয়েকটা কথা
    ১ প্যাঁজ আমি অতো গুলান দি নি।
    ২ আর তার সাথে চিকেনের স্টকের যে কিউব পাওয়া যায়, সেই একটা কিউব আর একটা প্যাজ কুচি কুচি করে কেটে চিকেন সেদ্দো কল্লাম। প্যাঁজ তো গলে ভুত।
    ৩ আর স্টাফড লংকার আচারের তেল কম থাকায় একটা লংকা সমেত রেঁঢে দিলাম, মানে যখন স্টকটা দিয় সেদ্দো কল্লাম তখন একটা আচারে লংকাও তাতে ফেলে দিলাম।
    ৪ আর সিংগল ডি গোলমরিচের কথাটা লিখতে ভুলে গেছিলো। আমি ভুলি নি।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ঠিক অথবা ভুল মতামত দিন