আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • সায়ন্তন মাইতি | 55.124.7.253 | ১৯ নভেম্বর ২০১৫ ১৪:০৫687180
  • সাংবাদিক আর গল্পকারের মধ্যে ভাবনা, মোটিভের পার্থক্য কোথায়? উভয়েই তো গল্প খোঁজেন। পার্থক্যটা তাঁদের ব্যক্তিগত সৃজনশীলতায়। সাংবাদিকরা সংবাদ পরিবেশন করেন, আর গল্পকাররা তাকে গল্পের ছাঁচে ফেলেন। এই পার্থক্য। কিন্তু ভাবনাচিন্তায় কোনো পার্থক্য আছে কি? ধরুন একটা সমাজসেবামূলক (আপাত) সংস্থা বা এন.জি.ও., বা হোটেল বা নাট্যদল, পত্রিকা গোছের কোনো সাংস্কৃতিক চক্র -এদের ফুটলাইটের ব্যাকফুটে অনেক ধামাচাপা পড়া দুর্নীতির গল্প আছে। এবার, এটা জানার পর সাংবাদিক আর গল্পকার উভয়েই তো খুঁড়ে বের করার চেষ্টা করবেন কী আছে। সাংবাদিক তাকে ছাপবে ডায়রেক্ট এভিডেন্স সমেত খবরের কাগজে, আর গল্পকারের ডায়রেক্ট এভিডেন্সের প্রয়োজন নেই, তিনি ঘটনাটা একটু অদলবদল করে একটা গল্প বা উপন্যাস লিখে দেবেন। পার্থক্যটা শুধু সেখানে। কিন্তু সেই যে যখন তাঁরা তথ্য জোগাড় করতে শুরু করলেন, তখন দুজনের মোটিভের পার্থক্য কোথাও ছিল কি?

    আমি বাস্তববাদী উত্তর চাই। এমন উত্তর নয় যে, সাংবাদিকের তো সমাজ পরিবর্তনের কোনো উদ্দেশ্য নেই, শুধু 'watchdog role'টা ফুলফিল করলেই হল। একখানা চোখটানা স্টোরি ছেপে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করবে আর সেনসেশনের চোটে সব হইহই করবে। গল্পকার (বড় অর্থে সাহিত্যিক) সেখানে সমাজের বিশাল দায়িত্বে ন্যস্ত, তাঁরা অমুক-তমুক ...(গুচ্ছের মর্যাদাসূচক বিশেষণ ডট ডট ডট ডট)। নাহ, এসব উত্তর কেউ দেবেন না প্লীজ। কারণ, বাস্তবের দিকে তাকিয়ে দেখলে সমাজ সংস্কার কোনো শিল্পীরই প্রাইম মোটিভ নয় (মোটিভের আগে প্রাইম কথাটা খেয়াল করবেন)। শিল্পী নিজের কাজে নিজের মত করে যান, আদ্যোপান্ত প্রফেশনালিজম মেনে, কোনো বার্তা-ফার্তা নিয়ে তাঁদের মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে নেই। এটাকে আমি ঘোর বাস্তব বলে বিলাপ করছি না, এটাই প্রকৃত পেশাদারিত্ব। এবং এটাই হওয়া উচিত। এটাই একজন শিল্পীর কাজকে পূর্ণতা দান করে। এবার, সেই প্রফেশনালিজমের বিচারেই বলুন, সাংবাদিক আর গল্পকারের পার্থক্য কোথায় কোনো ঘটনা খোঁজার ক্ষেত্রে?

    একটা পার্থক্য কি ভাবা যেতে পারে? যে, সাংবাদিকের অবসেশনটা আবর্তিত হয় ঘটনা জানায়। নির্মাণ কৌশল সেখানে গৌণ। আর, গল্পকারের অবসেশনটা প্রাপ্ত তথ্য থেকে গল্পের রূপান্তরকরণে, ঘটনা জানা সেখানে গৌণ। কী, ঠিক বললাম?
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত