ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • টইপত্তর  অন্যান্য

  • সন্ত্রাসবাদীর কোন ধর্ম হয় কী ?

    রুদ্র
    অন্যান্য | ১৭ ডিসেম্বর ২০১৪ | ২৩৩০ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • সিকি | ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪ ২৩:৪৫655775
  • সব ইটালিক্স হয়ে গেল কী করে? নাকি আমিই দেখছি?
  • শ্রী সদা | 212.142.100.188 | ১৯ ডিসেম্বর ২০১৪ ২৩:৫০655776
  • a_x রাইট। এগুলোর সাথে ধর্মের কোনো সম্পর্ক নেই। কিন্তু আইসিস, তালিবান, বোকো হারামের সাথে বিলক্ষণ আছে।
    আমেরিকাকে ধোয়া তুলসীপাতা কেউই বলছে না, কিন্তু এত ভালনারেবল কেন বাকী ধর্মগুলো নয় সেটাও একটা বড় প্রশ্ন।
  • r2h | 172.136.192.1 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:০২655777
  • সবকিছুর মূলে ধর্ম নয়, কিন্তু সেইঅন্যকিছুগুলিকে তো কাটিয়ে দেওয়ার উপায় নেই। ভাষা গায়ের রং টাকাকড়ি রাজনীতি এগুলো তো কে কাটিয়ে দেওয়া এই মূহুর্তে যাবে না। ধর্মটা যাবে- তো এই একটাই যাক।।

    অবশ্য গায়ের জোরে ধর্মকে কাটিয়ে দিয়েও নানা জায়গায় নানা অসুবিধে হয়েছে, কিন্তু সে যখন হবে তখন দেখা যাবে।

    অক্ষদার লেখা উদাহরনগুলির ক্ষেত্রে, এই সবই জঘন্য অপরাধ, কিন্তু এগুলি যে অপরাধ তা নিয়ে দ্বিমত নেই। হ্যাঁ, হুডি পরা কালো ছেলেকে মারার সমর্থক জোটে, কিন্তু বর্ণবিদ্বেষ যে অপরাধ তা নিয়ে দ্বিমত নেই। কেউ বলতে আসেনা বাছারা তোমরা ভুল রেসিস্ট, রেসিজমের অভিধানের ভুল ব্যাখ্যা শুনে দুষ্টু করো না। কিন্তু ধর্মের ক্ষেত্রে হাজারগন্ডা লোক প্রকৃত আর বিকৃত ব্যাখ্যার প্যাচাল পেড়ে সর্বশক্তিমানকে আরো কিছু রক্ত খাওয়ার সুযোগ করে দেন। এই জিনিস ধর্মে নেই, ধর্মে আছে কি নেই সেই প্রশ্ন আসার ই প্রয়োজন নেই - এরা নিতান্তই সাইকো খুনে যাদের মৃত্যুভয় নেই। হয় এসবের সঙ্গে ধর্মের এসোসিয়েশন পুরোপুরি বন্ধ হোক (সেটা জাস্ট হবে না, গুজরাট দাঙ্গা বাবরি মসজিদ ভাঙার সমর্থক, রাজাকারদের সমর্থক আমি নিজে দেখেছি, এইসবেরও নিশ্চয় আছে), না হয় ধর্ম ব্যাপারটাকে তুলে দেওয়া হোক। জেহাদ কিংবা ধর্মযুদ্ধ ঘর বাপসী আর অন্যসব ধর্মান্তর, নাঃ, এ মেডুসার মাথা, কেটে ফেলাই ভালো।
  • Arpan | 125.118.106.163 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:০৫655778
  • সুন্নিরা শিয়া বা খ্রিশ্চান যুদ্ধবন্দী মহিলাদের যৌনদাসী করে রাখবে এটাও আমেরিকা বলে দিয়েছে?

    আমেরিকা এককালে আগুন নিয়ে খেলেছে। সেটা মাথায় রেখেও বলতে হয় ঠাণ্ডা যুদ্ধ অবসানের পরে নয় নয় করে দু দশক কেটে গেছে। কিউবা আর আমেরিকা বৈদেশিক সম্পর্ক নতুন করে স্থাপন করছে। এখনো আইসিস বা বোকো হারামের দরকার পড়ে কেন?
  • a x | 138.249.1.206 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:১৩655779
  • সদা,

    ধর্মই কেন? জিও-পলিটিক্সের কো-রিলেশনটা চোখ এড়িয়ে যাবে কেন?

    হুতো, ধর্ম কাটিয়ে দেওয়া যাবে, এটা একটি উইশফুল থিংকিং বই কিছু না।

    কে বলল অন্য জিনিসের বিভিন্ন ইন্টার্প্রিটেশন হয়না? মার্ক্সের লেখার চুল চেরা করেই তো লোকে কখনও তৃণমূলের অ্যালাই হয়, আবার তারাই পরে সিপিএমের অ্যালাই হয়।

    একই নয়া উদারিকরণ অর্থনীতির স্কুলের লোক বিবিধ ইন্টার্প্রিটেশনের জেরে মেক্সিকো থেকে আফ্রিকার দেশগুলোতে আধিপত্য কায়েম করে।

    এটা ধর্ম না, এটা তুমি যদি আমার থেকে আলাদা রংএর হও, আলাদা ভাষা বল, আলাদা গান শোনো, আলাদা ভাবে হাঁটো, আলাদা খাবার খাও, তুমি শত্রু।

    তালিবানদের শিশু হত্যার সমর্থক আর ইসরায়েলের শিশু হত্যার সমর্থক মধ্যে পরেরটা অনেক বেশি সংখ্যায় পাবে।
  • r2h | 172.136.192.1 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:১৭655780
  • 'ধর্ম কাটিয়ে দেওয়া যাবে, এটা একটি উইশফুল থিংকিং বই কিছু না।' এটা মেনেই নিচ্ছি যদিও। সত্যিই এটা হবে না দুর্ভাগ্যজনকভাবে।
  • একক | 24.99.80.63 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:২৪655781
  • "দরকার পরে কেন" মানে কী এটা তো ক্ষমতার উত্থান । টেররিসম এর শ্রমিক থেকে টেররিসম এর এন্টারপ্রেনীয়র এর দিকে এগিয়ে যাওআ । এরা নিজেদের ইকনমি মডেল করছেতো । কয়েন স্টেবল করাবার চেষ্টা করছে । দাস ব্যবসা করে দ্রুত ফান্ড জেনেরেট করছে । আমেরিকা হাত গুটোলেই ব্যবসা গুটবে নাকী । আইসিস রা সোশালিস্ট তো । ওরা যদি একটা বাজে লেভেলের ইকনমি ও কিছুকাল ক্লোস্ড ওয়েতে সাকসেসফুলি রান করাতে পারে তাহলে কিহবে বরং ভাবো :) তেলের ব্যবসা প্রথমদিকে মার খেলেও গরিবদের উদমা খাটিয়ে অজানা কারনে জেইলে পুরে যেভাবে হোক একটা রিগ্রেসিভ সোশালিস্ট স্টেট বানিয়ে নেবে । এত ক্ষমতার লড়াই । চিরকাল থাকবে ।
  • Arpan | 125.118.106.163 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৩৫655782
  • একজ্যাক্টলি, তালে মেনে নিচ্ছ রিগ্রেসিভ ক্লোজড স্টেট বানাবার উপাদান ছিলই। একজন সাদ্দাম বা একজন মুবারক বা একজন গদ্দাফিকে ক্ষমতাচ্যুত করে তাতে সলতে দিয়েছে।
  • r2h | 172.136.192.1 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৩৭655783
  • পরিচয়ের ভিন্নতা থেকেই খুনোখুনি সেটা মানি। কিন্তু অন্যসব ক্ষেত্রে, কার্যকারন, ইতিহাস, ষড়যন্ত্র, কাব্যনাট্য না নাট্যকাব্য সেইসব বিচারে মানুষ এত সময় ব্যয় করে না, সেগুলি মূলত অপরাধ হিসেবেই দেখা হয়, রেসিজম, এথনিক ভায়োলেম্স এইসব নাম দিয়ে। কিন্তু ধর্ম চলে এলেই আমারা অগণিত মুন্ডহীন মনুষ্যশরীরের সেন্টিমেন্টের কথা ভেবে থমকে যাই।

    আমি আশাবাদী, নাস্তিকতা বাড়ছে পৃথিবীতে, শখানেক বছর পর হয়তো চৈতন্য হবে কিংবা খুনোখুনি করার অন্য কোন অজুহাত বেরুবে, কিংবা ধংস হয়ে যাবে মানবজাতি। কিন্তু ততদিনে, বড্ড বেশী মানুষ মরে যাচ্ছে।

    ইজরায়েলের শিশুহত্যার সমর্থকদেরও তো ধর্মের অনুসঙ্গ বেশীরভাগ সময়ই থাকে।

    সত্যি বলতে কি এই জিনিস গুলি দেখলে খুবই দিশেহারা লাগে। ধর্ম গেলে জাতীয়তাবাদ থাকবে, কিছু নাকিছু তো থাকবেই। ধর্ম কাটিয়ে দিলেই সমাধান হবে তা নয়।
  • - | 109.133.152.163 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৪৭655785
  • @১২টা৩৭, "কিংবা ধংস হয়ে যাবে মানবজাতি। কিন্তু ততদিনে, বড্ড বেশী মানুষ মরে যাচ্ছে।"
    সব মানুষ না মরে গেলে মানবজাতি ধংস হবে কেমন করে? বাক্যটা বা লজিকটা কেমন গোলমেলে মত
  • r2h | 172.136.192.1 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৫১655786
  • আর ধ্বংস বানানটাও ভুল লিখেছি।
  • - | 109.133.152.163 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৫৬655787
  • তা নয় ধ্বংসই হল।
    কিন্তু "ততদিনে" শব্দটা কেমন "যাবে" আর "গেছে"র মধ্যে কার্য-কারণ সম্পর্ক নিয়ে একটা অদ্ভুত ভাব সৃষ্টি করছে।
    বস্তুত, এইরকম ভাববার মত বাক্য বহুদিন দেখি নাই।
    অ্যাপ্রিশিয়েটই করছি, হুতেন্দ্রবাবু। সত্যিই।
  • Rit | 213.110.246.230 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০১:১৪655788
  • কনসেপ্ট টা এভাবে বোঝানো যায়। ধরা যাক লোক আছে ১০০ জন। ১০০ জনকেই মেরে দিলে মনুষ্যজাতি ধ্বংস।
    কিন্তু সেটা না করে ১০ জন করে মারা হল। এদিকে আরো কিছু মানুষ জন্মে যাচ্ছে। ধ্বংস হতে হতে দেখা গেল হাজার খানেক মানুষ মারা গেছে।
    কবি বোধ হয় এই মিছিমিছি জন্ম মৃত্যুর বিরুদ্ধে। মারতে হলে ঐ ১০০ কেও এক সাথে মেরে দাও।

    চিন্তা নেই। ইবোলা আসছে।
  • lcm | 118.91.116.131 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৭:৫৭655789
  • সুদান আফ্রিকার একটি দেশ। পপুলেশন বেশী না - ৬০ লাখ। এর মধ্যে প্রায় ১০০ গোষ্ঠী/ট্রাইব আছে। সবাই মুসলিম। এই গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে বিরোধ আছে। সুদানে গত ১০ বছরে প্রায় ৪ লাখ মানুষ (শিশু, নারী... সব মিলিয়ে) খুন হয়েছে - নিজেদের মধ্যে খুনোখুনি করে।

    একটা দেশের প্রায় ৭% মানুষ খুন হয়ে গেল দশ বছরে। কিন্তু আফ্রিকার কালো মানুষ তো, তাই কারো কোনো গা নাই। সাদা, পীত, বাদামী - এরা ফার্স্ট প্রেফারেন্স (এই অর্ডারে)। তারপরে কালোদের কথা ভাবা যাবে - সে মুসলিম হোক, আর খ্রিস্চান হোক। ফেসবুকে/নেটে এ নিয়ে তেমন তক্কো নাই। মনুষ্য জাতি উবে যাবে বলে কেউ ভয়ও পাচ্ছে না।
  • SC | 34.3.17.255 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ১১:৩০655790
  • কবির সুমন নিজের ইচ্ছেমত যা লিখেছেন, ইতিহাস তার চেয়ে অনেক জটিল। উনি যা লিখেছেন তা আংশিক সত্য হয়ত।
    তালিবান এর জন্ম হয়েছিল ১৯৯১ সালে। নাজিবুল্লা সরকারের পতন হয় ১৯৯২ সালে। নাজিবুল্লা সরকারের বিরুদ্ধে যারা লড়েছিল, তারা সকলেই তালিবান ছিল না। আর নাজিবুল্লাহ সরকার=ভালো, মুজাহিদিন=অসভ্য বর্বর যাদের কোনো লোকাল সাপোর্ট ছিল না, এটা কবির কষ্টকল্পনা।
  • মৌ | 24.99.109.255 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ১২:৫৭655791
  • মগজ ধোলাইয়ের বয়সটা যে কোন লেভেল থেকে শুরু করা হয়, তা বলা অসম্ভব ফেবুতে এই ভিডিওটা দেখার পর। এদের মধ্যে কী হুর পরীর লোভ বা অন্য কোনও ধর্ম বা জাতের প্রতি চরম হিংসা জুগিয়ে ধোলাই চলছে! এদের তো ভয় দেখিয়ে অপরকে ভয় দেখানোর খেলনায় পরিণত করা হচ্ছে।

    https://www.facebook.com/video.php?v=10152557463331376&set=vb.139684631375&type=2&theater
  • ছাগল | 24.99.70.216 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২০:৪৩655792
  • ডিডির মতো লোক এই লোককে বিপথগামী করার খেলায় নেমেছেন অথচ এককালে যৌবনে ব্রেনওয়াশড হয়ে নকশালরা কত লোক মেরেছেন সে'ক্থা কেন ভুলে যাচ্ছেন। নাকি তখন অন্যের অঙ্গুলি নির্দেশে চলাটা চোখে পড়েনা । "ছাগল" থিয়োরীর কত বিরোধিতা!!
    আর নইলে স্বীকার করুণ হিন্দুদের মধ্যেও কি ভায়োলেন্স, শুধুমুধু পুলিশ আর ভিসি খুনের মেলায় মেতে উঠেছিল একদল বিপথগামী উচ্ছৃঙ্খল যুবক!!
  • a x | 60.171.26.111 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২১:৫২655794
  • এলসিএমের কথায় মনে পড়ল। নাইজেরিয়ার প্রায় অর্ধেক খ্রিস্চিয়ান, অর্ধেক মুসলিম। ক্রিস্চিয়নদের বোধহয় ২০% মত ক্যথলিক, বাকি প্রোটেস্ট্যান্ট। ক্যাথলিকরা, মুসলিমদের অনেক বেশি শ্রদ্ধা ও বিশ্বাসের জায়গা থেকে দেখে, প্রোটেস্ট্যান্টদের একেবারে সহ্য করেনা। এটা হয়েছে স্রেফ কো-এক্সিস্টেন্সের জন্য।

    আমাদের গল্প উপন্যাসেও (দয়াবতীর কথা মনে পড়ে) এই কো-একিস্টেন্সের প্রভাব বুঝতে পারি। যারা এই একসাথে থেকেছে এবং দাঙ্গাও দেখেছে, তাদের চেয়ে পরবর্তী প্রজন্ম যারা একসাথে পাশাপাশি থাকাটা কোনোদিনও করিনি, দাঙ্গার গল্প শুনেছি খালি, তাদের মধ্যেই বিদ্বেষ অনেক বেশি খেয়াল করেছি।
  • সিকি | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২১:৫২655793
  • ছাগল প্রমাণ করল সে ছাগল :)
  • | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২২:০৬655796
  • দয়াময়ী?
  • তাপস | 126.203.169.158 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২২:০৯655797
  • আচ্ছা, সুদানের ব্যাপারে কারো কোনো প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতা আছে? আমার একটু কৌতূহল আছে - আমি কিছুদিন সুদানিজ কমুনিস্ট পার্টির সদস্য এমন দুই ভাইয়ের সঙ্গে থেকেছিলাম । তারা কম্যুনিস্ট পার্টির সক্রিয় কর্মী ছিল সে দেশে, কিন্তু ধর্মাচরণ করত । এ নিয়ে প্রশ্ন করায় মনে হয়েছিল যে এরকম প্রশ্ন তারা প্রথম শুনল l ব্যক্তিগত বিষয় আর দূরতর সম্পর্ক বলে ঘাটাইনি । কেউ কিছু জানেন?
  • a x | 60.171.26.111 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২২:২৪655799
  • আগের পোস্ট দ কে।
  • a x | 60.171.26.111 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২২:২৪655798
  • হ্যাঁ ঃ-)। সক্কাল সক্কাল লিখতে নেই এইজন্য।
  • | 183.17.193.253 | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২২:৫৮655800
  • অক্ষ, ভিটেমাটি ছেড়ে যারা উদ্বাস্তু হয়ে এদেশে এসে মনুষ্যতর জীবন যাপন করেছিলেন, তাদের সঙ্গে কিছুক্ষণ কথা বল্লেই টের পাওয়া যেত তাদের মধ্যেও কি অসম্ভব তিক্ততা লুকিয়ে আছে।আর সবাই খুব মিলেমিশে ভাইভাই হয়ে বাস করতো এমনও না। চাপা বিদ্বেষ ছিলই।
    আর রাতারাতি যারা সব হারিয়েছে,তারা পরবর্তী প্রজন্মকে না চাইতেও হয়তো ভালোবাসার সঙ্গে বিদ্বেষ ,সন্দেহ ইত্যাদি দিয়েছে।
  • সিকি | ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ২৩:১৪655801
  • মনুষ্যেতর*
  • | 183.17.193.253 | ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:২৭655802
  • হ্যাঁ, মনুষ্যেতর।
  • SC | 34.3.17.255 | ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৯:১৯655803
  • এখানে অনেকেই অনেক রকমের সরল generalization এ গেছেন। তালিবান, তালিবান করে অনেকে অনেক কিছু বলেছেন, সুমন তো
    তালিবান মুজাহিদিনে পার্থক্য করে উঠতে পারেননি ফেবু তে।
    তালিবান মানে যদি মুল্লা উমরের আফগান তালিবানের কথা বলেন, তারা এই কান্ড তো করেইনি, উল্টে নিন্দা করেছে।
    http://www.longwarjournal.org/archives/2014/12/afghan_taliban_relea.php
    এই কান্ড করেছে পাকিস্তানি তালিবান।
  • dd | 132.172.26.135 | ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৯:৩৭655804
  • আরে এই জংগী পলিটিক্সে অ্যাতো ইনার কনফ্লিক্ট আর উপদল আছে যে হিসেব করা যায় না। সর্ব ভারোতীয় ভিত্তিতে নকশালদের কটা শাখা প্রশাখা আছে কেউ হিসেব রাখেন?
    ইমার্জেন্সীর সময় সব কটি নকুটে দলকে ব্যান করা হয় - মনে হয় তখনই ২৬টা দল ছিলো।

    এয়ার্কি নয় - এরকম ভাগ ছিলো প্রো চারু প্রো লিন বিয়াও আর আরেকটা দল ছিলো প্রো চারু অ্যান্টি লিন বিআও।। তেমনি অ্যাণ্টি চারু অ্যান্টি লিন বিয়াও ও ছিলো ইঃ।

    ভামেদের মনে থাকবে। এক প্রজন্ম আগে সাধের পশ্চিম বংগে না ছিলো সিদিকুল্লা না ছিলো মোহোন ভাগবত। আর যাই অসুখ থাকুক, এই ক্যান্সারটা ছিলো না।

    এখন তো সিদিকুল্লা এক কথায় দু লাখ ফেজ টুপি কোলকতায় হজির করে পুলিশের বড়ো সাহেবদের রাস্তায় দৌড় করান। আর ত্রিশুল আর তিলক সেঁটে তোগাড়িয়া ময়দানে পঞ্চাশ হাজার রাম ভক্ত হাজির করেন।

    তবে একটাই ভালো যে সিদিকুল্লা মেরেকেটে ঐ সমীর পুততুন্ড ছাড়া আর কোন বামদের মরাল সমর্থনো পায় নি, আর তোগাড়িয়ার তো কথাই নেই। অদুর ভবিষ্যতে কলকাতার রাস্তায় দাংগা বাঁধলেও অবাক হবো না। এটাই ভবিতব্য ছিলো।
  • jhiki | 121.95.121.24 | ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৯:৩৮655805
  • তহরিক-ই-তালিবান
  • SC | 34.3.17.255 | ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ ১০:৪২655807
  • সিদ্দিকুল্লাহ মোহন ভাগবত দের একটা রাজনীতি আছে, সেই রাজনীতির একটা প্রয়োজন আছে এই সময়ে, তাই তারা বড়
    সাহেবদের রাস্তায় দৌড় প্রাকটিস করছেন। এই সময়ে তারা রেলেভান্ট। কে কোথায় দাঙ্গা করেছে, তাই এদের পুরো রাজনীতি তা কে
    ক্যান্সার বলাকে সমর্থন করতে পারলাম না।
    তাহলে কাম্বোডিয়া তে কমিউনিস্ট রা লোক মেরেছিল বলে সব বামপন্থী দের গনহত্যাকারী ট্যাগ করে তাদের রাজনীতিটাকেও ক্যান্সার বলতে হয়,
    বুদ্ধ, জ্যোতি, সমীর সকলকেই।

    ধর্ম নিয়ে রাজনীতির বিরুদ্ধে যে স্লোগান উঠছে, সেটা একটা খুব বামপন্থী জায়গা থেকে উঠছে আমার মনে হচ্ছে।
    ধর্ম মানুষের জীবনের একটা অঙ্গ, তাই নিয়ে রাজনীতি হওয়াটাই স্বাভাবিক। বরং না হলেই একটা সমস্যা হতে পারে।
    প্রবীন তগাদিয়া, মোহন ভাগবত, সিদ্দিকুল্লাহ রা কলকাতার রাস্তায় এক ডাকে এত লোক যোগাড় করতে পারলে বুঝতে হবে এতদিনের বাম সচতনার পরেও সেই রাজনীতির একটা প্রয়োজনের জায়গা আছে, কিছু মানুষ মনে করছেন, 'এই তো, এরাই আমাদের কথা বলতে পারে'।
    সেই লোকগুলোর কিছু চাহিদা নিশ্চয় অপূর্ণ ছিল, এতদিনের সেক্যুলার রাজনীতির আঙ্গিনায়। সেইটা আজকে ভাবা প্রয়োজন। সেই লোকগুলোকে ছাগল মনে করে 'ওই দেখো সিদ্দিকুল্লাহ লোক খেপাচ্ছে বললে সেটা ওই পি টি র 'নন্দীগ্রামে বাইরে থেকে এসে ছাগল ক্ষেপিয়ে দিলো' সমকক্ষ viewpoint হবে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। হাত মক্সো করতে প্রতিক্রিয়া দিন