• টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। যে কোনো নতুন আলোচনা শুরু করার আগে পুরোনো লিস্টি ধরে একবার একই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে কিনা দেখে নিলে ভালো হয়। পড়ুন, আর নতুন আলোচনা শুরু করার জন্য "নতুন আলোচনা" বোতামে ক্লিক করুন। দেখবেন বাংলা লেখার মতো নিজের মতামতকে জগৎসভায় ছড়িয়ে দেওয়াও জলের মতো সোজা।
  • অনুকূল ঠাকুর উবাচ- এক হিন্দু শরিয়তবাদির উপাখ্যান

    bip
    অন্যান্য | ২২ নভেম্বর ২০১৪ | ৬৮৯ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা

  • পাতা : 1 | 2 | 3 | 4
  • sch | 192.71.182.106 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১২:৩০651892
  • না এই জায়গাটাই বুঝতে চাইছি। ক'টা উদাহরণ দিলে মনে হয় সহজ হবে -

    ১) ট্যাক্সি ড্রাইভার সার্ভিস ড়িফিউজ করলে সেটা ইললিগ্যাল কাজ। মানে সে যদি আমায় বলে গড়িয়া যাবো না - আর তারপর একজনকে বলে হ্যা আমি চেতলা যাব, বলে নিয়ে চলে যায় তাহলে আমি পুলিশে কমপ্লেন করলে তার শাস্তি হবে। অর্থাৎ এখানে ডিনায়াল অফ সার্ভিস এলাউড না

    ২) একজন আইনজ্ঞ বলতেই পারেন আমি এই কেসটা নেব না - মেরিট অফ দ্য কেস দেখে আমার মনে হচ্ছে জেতার কেস নেই - আমি এমন কেস লড়ি না। সেটা মনে হয় শাস্তিযোগ্য না

    ৩) একজন বিশেষজ্ঞ দাক্তারকে (হাসপাতালের বাইরে) একজন নোন ক্রিমিন্যাল (ধরা যাক শ্রীনিবাসন, বা মদনা বা সুশান্ত) দেখানোর জন্য বুকিং চাইল তিনি চান না এমন রুগী দেখতে, এবার দুটো ঘটনা ঘটল -

    ক) তিনি সরাসরি জানালেন ব্যক্তিগত কারণে তিনি এই রোগীকে দেখবেন না (আমার কিন্তু এরকম অভিজ্ঞতা আছে - ডাক্তারের ম্যাল্প্রাকটিস চ্যালেঞ্জ করার পর তিনি রুগিকে পরবর্তী কালে দেখতে অস্বীকার করেছেন)

    খ) তিনি পরীক্ষা করে জানালেন এই রোগীকে আমার বদলে একুন অন্য দাক্তার চিকিৎসা করলে ভালো হয় - আমি ঠিক মতো বুঝতে পারছি না

    এই দুটোর কোনো কেস কি MCI বা আদালতে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন এফেক্টেড পার্সন

    ৪) আমি একটা দোকানে চুল কাটতে গেলাম বা তোয়ালে কিনতে গেলাম, দোকানদার আমায় একটা জিনিস দিল - সেটা নিয়ে কোন সমস্যা হল - আমার আর দোকানদারের মধ্যে বিশাল ঝামেলা হল - দোকানদার বলল আপনাকে এই দোকানে আর কোনোদিন ঢুকতে দেব না। এটা কি আদালতে চ্যালেঞ্জ করা যায়?

    ৫) আমার দোকানে দাউড জিনিস কিনতে এল - একটা জিনিস পছন্দ করল, আমি বললাম ওটা বিক্রির জন্য না। কিন্তু পরক্ষণেই আরেকজনকে বিক্রি করলাম।
    এটা কি আদালতে চ্যালেঞ্জ করতে পারে?>
  • de | 24.139.119.172 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:০৭651893
  • পৈতে তো শুধু পুরুষ দের - মহিলারা তো এনিওয়ে বাহ্মণ নন!
  • sch | 192.71.182.106 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:২৮651894
  • ব্রাহ্মণের ডেফিনিশান কি? পৈতে ধারী পুরুষ? না কি গায়ত্রী মন্তের অধিকারী?

    প্রথমটা হলে গল্প শেষ - হাইলি গেন্ডার বায়াসড ব্যাপার। আর শেষটা হলে মেয়েদের প্রবলেম কি
  • sosen | 24.139.199.11 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:৩১651895
  • ১,২,৩,৪,৫ সব ক্ষেত্রেই মামলা করা যায়।
    ২) এ মামলা হারার সম্ভাবনা অধিক, কারণ উকিল যতক্ষণ না আগাম না নিচ্ছেন ততক্ষণ আপনার উকিল তিনি নন কেবলমাত্র অ্যাডভাইসর। অ্যাডভাইস ও দিয়েছেন। সুতরাং মামলা জিতবেন না। তা সত্ত্বেও যতদূর মনে পড়ছে এই গ্রাউন্ডে একজন মারোয়ারী গৃহবধূ মামলা করে জিতেছিলেন-পারিবারিক উকিল তাঁর এবং দেওরের মধ্যে মামলা লড়তে না চাওয়ায়। কলকাতায়। রঞ্জনদা জানতে পারেন।
    ৩) ঐ।
    ৪) চুল কাটা আর তোয়ালে কেনার মধ্যে ফারাক থাকলেও মামলা আপনি জিতবেন। যদি না দোকানদার প্রমাণ করে দেয় আপনাকে ঢুকতে দেওয়ার ফলে অতীতে তার ক্ষতির ইতিহাস আছে।
    ৫) পারে। ঐ
  • তাপস | 233.29.204.178 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:৩২651896
  • দাউদ মানে যদি ইব্রাহিম ওয়ান্টেড হয়, তাহলে ওই অর সামনেই অন্য একজনকে বিক্কিরি করে বাওয়াল করে, ওকে অন্যমনস্ক রেখে এনাইএ পুলিসে খবর দিয়ে ধরিয়ে দিলে, কোনো মামলা তো হবেই না, বরং পুরস্কার পাওয়া যাবে ।

    কিন্তু অন্য কোনো দাউদ হলে, ডিসক্রিমিনেশনের মামলা হবে ।

    আর সেলুনের ঝামেলায় ঢুকতে না দেওয়ার হুমকি দিলে মামলা হবে, তবে দোকানদারের আইনজীবী শিখিয়ে দেব, কোর্টে গিয়ে বলতে যে, "ধর্মাবতার রাগের মাথায় বলেছি, খদ্দের লক্ষ্মী, উনি যদি আসেন আবার তাহলে তো ওনাকে আমি সার্ভিস দেবই, তার সঙ্গে বিনি খরচে এক্সট্রা প্যাকেজও দেব ।"
  • de | 69.185.236.52 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:৩৫651897
  • গায়ত্রী মন্ত্রের অধিকারী মেয়েরা হয় না জানতাম তো -

    ব্রাহ্মণ একমাত্র কাস্ট যা মহিলাদের কোন অধিকার দেয় না - বাকিরা সবাই দেয়!
  • সিকি | 132.177.155.172 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:৪৮651898
  • আমি চিরদিনই জানতাম, গায়ত্রী মন্ত্র উচ্চারণে মেয়েদের অধিকার নেই। পরে লতা মঙ্গেশকরের গলায় টি সিরিজের ক্যাসেটে এক ঘন্টার সুর করে করে ওং ভুর্ভুব স্বহ্‌ গান শুনে বেশ চমকে গেছিলাম।
  • sch | 192.71.182.106 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:৫৩651899
  • গার্গী, মৈত্রেয়ী এনারা মনে হয় গায়ত্রী মন্ত্র জানতেন - সব ঋষিকন্যারাই জানতেন সে যুগে মনে হয়। আর বেদে তো নারীদের অধিকার ছিল - তাহলে গায়ত্রী মনত্রে থাকবে না কেন?
  • hu | 188.91.253.22 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৪:০৪651900
  • কুমীর ছানার মত গার্গী, মৈত্রেয়ী দেখানো যে কবে বন্ধ হবে! ঃ-(
  • Ekak | 24.99.210.229 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৪:০৬651902
  • সরকার মাথা গলানোতে কী হয় তারই প্রমান এসব কনফিউশন । আমি চাই দিস্ক্রিমিনেসনের অধিকার থাকুক । ইগালিটেরিয়ান নই। ডিসক্রিমিনেশন না থাকলে রেসিস্ট দের খিস্তি করবো কী করে !
  • de | 69.185.236.52 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৪:১০651903
  • ব্যাদে মেয়েদের অধিকার! ডিডিদা আর দমদি বলুক! ব্ল্যাংকিও বলতে পারে! এ নিয়ে কোথাও টইও ছিলো বোধহয়!
  • jhiki | 149.194.228.58 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৪:৪৩651904
  • একটা প্রশ্ন করব কীনা কদিন ধরে ভাবছিলাম, শেষে ভাবলাম করেই ফেলি ঃ)

    আচ্ছা একটি মোটা মতন ভদ্রলোক যিনি পাশবালিশসহ ছবি তোলেন, তিনিই কী অনুকূল ঠাকুর? ঐ ছবিটা একটু অসইভ্য মতন।
  • কল্লোল | 125.240.7.55 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৫:০১651905
  • নারী, বামনা বা মুসলমান বিষয়ে লালন আলটোমেট।
    সুন্নত হলে হয় মুসলমান / নারীর তবে কি হয় বিধান / বামন চিনি পৈতে প্রমান / বামণী চিনি কি প্রকারে?
  • কল্লোল | 125.240.7.55 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৫:১১651906
  • কেউ এরকম লুটিস দিতে পারে না = "এখানে মুসলমানেদের/ব্রাহ্মণদের, মাল বিক্কিরি করা হয় না।" বা উল্টোটা - "এখানে নমঃশূদ্র ও সুফিদের, মাল বিক্কিরি করা হয় না।"

    আপনি এটুকু লিখতেই পারেন - "নিরামিশ ভোজনালয়" বা "আমিশ ভোজনালয়" বা "এখানে শূকর মাংশ পাওয়া
    যায়" বা "এখানে হালাল মাংস পাওয়া যায়/যায়না" বা "নো বিফ" - এবার সাধু সাবধান।

    কিন্তু এবার শুকর মাংসের দোকানে একজন দৃশ্যতঃ মুসলমান বা গরুর মাংসের দোকানে একজন দৃশ্যতঃ হিন্দু এসে খরিদ করতে চাইলে দোকানদার "না" করতে পারে না।
  • একক | 24.99.210.229 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৫:২৫651907
  • "না" করার অধিকার ও দেওয়া হোক । এতে সাময়িক ভাবে ফ্রি ট্রেড ক্ষতিগ্রস্ত হবে কিন্তু লং টার্মে এরাই পিছিয়ে পরবে । ইউনিসেক্স ডেফিনিশন যেমন মার্কেট নিড থেকে উঠে এসেছে তেমনই ওপেন ফর অল পলিসি নিয়েও অনেক ব্যবসাদার এগিয়ে আসবে । বরং দিনের শেষে হতদরিদ্র "ব্রাহ্মন ভোজনালয়" এ গিয়ে মাথা নীচু করে জাত বজায় রাখছে কিছু লোক আর বাকিরা তাদের পাবলিক প্লেসে হ্যাটা দিচ্ছে,বুলি করছে ,ডিসক্রিমিনেট করছে ,বাড়ির ছেলেমেয়েকে বলছে এদের সঙ্গে মিসিশ না এইরকম কালচার দেখতে চাই । ওপেন খিল্লি দেখতে চাই ব্রাহ্মণ্যবাদ ,ধর্ম নিয়ে । সরকারী সমাজ সংস্কার নয় ।
  • সিকি | 132.177.155.172 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৭:০৭651908


  • de | 24.139.119.171 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৭:৪৯651909
  • ভদ্রলোকের কি জামা পরার বদভ্যাস ছিলো না?
  • সিকি | 132.177.155.172 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৭:৫১651910
  • ছিল, তবে আদুড় গা আর পৈতে ফ্লন্ট করায় বেশি উৎসাহী ছিলেন তিনি।

  • jhiki | 149.194.228.58 | ২৫ নভেম্বর ২০১৪ ১৮:৩৫651911
  • থ্যাংকু থ্যাংকু, আমি একদম ওপরের ছবিটার কথা বলছিলাম :)
  • = | 79.64.39.206 | ২৬ নভেম্বর ২০১৪ ১২:২৭651913
  • অনুকূল=অনুলোমশ।

    রাক্ষসেস রক্স!
  • Abhyu | 118.85.89.126 | ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ০৫:২৭651914
  • "আদিত্য বর্মা বৃহস্পতিবার সকালে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের পুরোহিতকে যখন ফোনটা করেছিলেন, তখন তাঁকে বলা হয় সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার সময় পকেটে হলুদ কাপড় জাতীয় কিছু নিয়ে ঢুকতে। গত সোমবার যেমন বিহার ক্রিকেট সংস্থার সচিবকে বলা হয়েছিল পকেটে লাল কিছু একটা যেন থাকে। আদিত্য এ দিন অনেক ভেবেছিলেন সাই বাবার প্রসাদী একটা ফুল নিয়ে যান। যার রংটা হলুদ ছিল।"

    ওদিকে দেশের মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী হাত দেখিয়ে বেড়াচ্ছে - এই তো অবস্থা।
  • adhuli | 190.148.69.210 | ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ০৫:৪৪651915
  • এই অন্ধ বিশ্বাস থেকেই মুলোবাদ-এর শুরু। শেষ টা কোথায় কে জানে। একটা বিশাল সংখ্যক মানুষ অন্ধ বিশ্বাস-এ ভর করে জীবন কাটাচ্ছে। এদের-কে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখালেও এরা চোখ খুলবে না। বরং বেশি দেখাতে গেলে পুনে-র সেই অধ্যাপক-এর গতি হবে। অন্ধ-বিশ্বাস, ব্যবস্যা, অপরাধ আর রাজনীতি এত বেশি হাত ধরা ধরি করে থাকে যে সুস্থ চিন্তা-র মানুষদের টিকে থাকাই দুস্কর।
  • | 183.17.193.253 | ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ০৬:৩১651916
  • একি! ওনার ছায়া পড়েছে কেন!!!!
  • kiki | 125.124.41.34 | ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ১৫:২৮651917
  • কেন কেন!! উনি কি ভুত নাকি??????????? মিঠুর ও কিসব পোশ্নো!!!
  • সিকি | 132.177.73.231 | ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ১৫:৪৯651918
  • ছায়াসমেত ব্যাকগ্রাউন্ডটা তো হাতে আঁকা।
  • | 183.17.193.253 | ২৯ নভেম্বর ২০১৪ ১২:৪৯651919
  • মাতায় যাদের জ্যোতির্বলয় থাকে , তাদের ছায়া পড়ে বলে জানা নেই। দেবতার অংশ। ছায়া আবার কিসের জন্যে!!

    এইবার সরল করে বুঝিয়ে দিলাম। আশা করি আর অসুবিস্তা হবে নাঃ)
  • kiki | 125.124.41.34 | ২৯ নভেম্বর ২০১৪ ১৩:৪০651920
  • ঃ)
  • Mmu | 102.90.20.184 | ৩০ নভেম্বর ২০১৪ ০০:৩৮651921
  • siki 25 NOV 1-48 pm
    ওটা অভিনয়। অমিতাভ বচ্চন কত মার খেয়েছে?? সত্যি কি তাই?
    ওটা লতা দিদিমনি কে দিয়ে গাওয়ানো হয়েছিল। actually যত টুকু জানি ওটা ছেলেদেরই। যেমন
    আর একটা কথা বলে যাই.... হিন্দু ঘরে জন্ম না নিলে হিন্দু হওয়া যায় না। কেউ যানেন কি না বলতে পারব না। তাই তো হিন্দু ধর্মের কোন প্রচার নেই। হিন্দু ধর্মের কোন মহপুরুস বা কোন ধর্ম গুরু বলে না- বাবা এস হিন্দু হও।
    যদিও একদল আছে খোল কত্তাল নিয়ে.............
    তাদের সনাতন হিন্দু ধর্ম মানে না। কেউ পৈতে লাগিয়ে মাথা নেড়া করে ভগবানের নাম করলে কি হবে, আসলে তারা কিন্তু হিন্দু নয়।যতটুকু যানি আর কি।
  • | 183.17.193.253 | ০১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৩২651922
  • অনুকূল চন্দ্রের 'নাকি' চারটি বিবাহ। সবই হিন্দু বিবাহ আইন পাশের আগে- কাজেই ..
    ওনার পুত্র বড়দার 'তিনটি' বিবাহ। সেই শেষ।
    এখন ঐ বংশতিলকদের সবার একটা করেই বিয়ে।

    এটাও শুনলাম ঠাউর এবং তস্যপুত্রের সবাই বৈধ স্ত্রী। এমন নয় যে অন্য স্ত্রীদের না জানিয়ে আরেকটা সংসার পেতে ফেলেছেন।
  • Atoz | 161.141.84.164 | ০১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৩৬651924
  • মনে হয় ডিসেন্ডিং অর্ডারে চতুর্বর্ণের স্ত্রী গ্রহণ করেছিলেন বায়োডাইভার্সিটির উৎকর্ষ সঞ্চারকল্পে। মহান কর্তব্যের প্রেরণা।
    ঃ-)
  • | 183.17.193.253 | ০১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০০:৪৮651925
  • ঠাউরের মতে সমানে সমানে যদি না হয় ক্ষেত্রবিশেষে উচ্চবর্ণের পুং নিম্নবর্ণের নারীকে ঘরে আনলে দোষ নাই, কিন্তু উচ্চবর্ণের নারী বিবাহ করা অনুচিতঃ)

    শীর্ষেন্দুবাবু র শুনেছি,ভালোবাসার বিয়ে, ওনার স্ত্রী সঙ্গে মোলাকাত নিয়ে চমৎকার লেখাও আছে। প্রশ্ন হলো স্বজাতি জানার পরে প্রেম হয়েছিলো না কি উনি প্রেমের পরে জানতে পারেন স্ত্রীও বামুনকন্যা?
  • Abhyu | 118.85.89.126 | ০১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০১:৪৬651926
  • আমাদের মায়ের স্কুলে এক দিদিমনি ছিলেন, তিনি অব্রাহ্মণের হস্তে খাদ্যগ্রহণ করিতেন না। সেই কারণে এমনকি সরস্বতী পূজাতেও কেহ তাঁহাকে স্কুলে খেচরান্ন খাইতে দেখেন নাই। তো, এক শুভ দিবসে তাঁহার একমাত্র সন্তান রেজিস্ট্রি বিবাহ করিয়া এক (বিশেষ নিম্নবর্ণের) ভদ্রমহিলাকে ঘরে আনিলেন। বাপের হোটেল ছাড়া অন্যত্র যাইবার উপায় ছিল না, কারণ সুপুত্র নিয়মিত উপার্জনে বিশ্বাস করিতেন না। তারপর একদিন স্কুলে নিম্নলিখিত কথোপকথন শোনা শ্রুত হইল -
    - কি গো বামুনদিদি, এখন তো রোজ একেবারে এসটির হাতে ভাত খাচ্ছ, স্বাদ কিছু আলাদা লাগছে?
    - তোরা কিছুই জানিস না, এসসি-এসটি-যাই হোক, বিয়ের পরে তো ব্রাহ্মণ হয়েই গেছে, হুঁঃ
  • Atoz | 161.141.84.164 | ০১ ডিসেম্বর ২০১৪ ০২:৪৮651927
  • এ তো একেবারে স্বয়ং ব্যাসপিতা পরাশরের ভাবশিষ্যা। ঃ-)
  • হুতোর হয়ে | 22.185.22.253 | ০১ ডিসেম্বর ২০১৪ ২৩:০১651928
  • name: r2h mail: country:

    IP Address : 172.136.192.1 (*) Date:01 Dec 2014 -- 10:52 PM

    তা আমাদের এক বন্ধু, তাদের পরিবারে অব্রাহ্মণ কে বিয়ে করার জন্যে ত্যাজ্যকন্যা ইত্যাদি আগেও ঘটেছে, অব্রাহ্মণকে ছেলেকে বিয়ে করে, সেই নিয়ে তুমুল বাওয়ালি। তো বন্ধুর বাবা খুবই ভোজনরসিক ছিলেন, আর অব্রাহ্মণ জামাতার রান্নার খ্যাতি শত শত মাইল বিস্তৃত।
    তো তিনি অব্রাহ্মণের বাড়ি অন্নগ্রহণ করবেননা সে কড়ারে মেয়ের কাছে একমাসের জন্যে এসে ক্রমাগত ঘৃতপক্ক লুচি পরোটা মৎসমাংসাদি খেয়ে খেয়ে পেটের পীড়ায় কাবু হয়ে হপ্তাখানেক হাসপাতালে কাটিয়ে শেষে অব্রাহ্মণের অন্নগ্রহণ করতে সম্মত হন। অন্ন না খেয়ে লুচি খাওয়ার রিস্কটা নেওয়া একটু চাপ হত, এদিকে সেই জামাইয়ের রান্না বর্জন করার মত আত্মপীড়ণ (ন না ণ?) ধর্মসম্মত নয়। অনুকূল ঠাকুরের টইয়ে লিখে আর কি হবে, তাই এখানেই লিখে দিলাম আরকি।
  • bip | 83.200.4.3 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০২:৩৮651929
  • Anukul Thakul was furious, when Neheru stopped polygamy :
    ***********Hindu Marriage Act prohibits Polygamy. But Hindu scriptures mention its practice and lays down certain guidelines on polygamy. Sri Sri Thakur Anukul Chandra has advocated polygamy with scientific basis. The objective is better and higher progeny and upward social mobility.

    A nation is considered to be progressive and civilized if its sex ratio at birth (number of females per 1000 males at birth) is more than 1000. It is also a fact that natural survival capability and longevity of females is more than males. So, unless a society wants a sizeable number of females to remain unmarried lifelong, it is a simple logic that a society has to practice polygamy. This bears more significance as motherhood symbolizes a successful womanhood.

    Polygamy was banned since the period of Raghunandan, a scholar of 16th Century AD. Sri Sri Thakur observes, ‘I sometimes think that Raghunandan was forced to do so under conspiracy and pressure from opposing forces. As a result of ban in polygamy, the expansion and power of absorption of Hindu society got hampered and there had been opportunity for some classes to grow in numbers. There had been many invasions on India before, but there is no way to trace them today as the invaders have been integrated into Aryan society through anuloma (hypergamous) marriage according to their traits. The path of divine integration has not been hampered but widened in the process.’ (Alo. Pra.Vol.11: 24-2-48).

    Sri Sri Thakur tells, marrying even a thousand times is not a sin if the male does not become wife-centric. But even a monogamous relation becomes a sin where the male is wife-centric. Marriage means to carry on (bahana) wife. Marriage is for females (bibaaha) and carrying up (udbaaha) for males. The males being adhered to Ista will carry the Ideal forward. (Alo. Pra.Vol.22: 10-3-53).

    Just promotion of polygamy is not enough. It has to be hypergamous in nature so that superior progeny increases. Alo. Pra.Vol.14: 29-10-48). But, it must be kept in mind that hypergamous marriage between two varna is not allowed unless the first marriage has been solemnized in the same varna. The aim is to retain the original homologous hereditary trait. That is why, our scriptures praise and recommend so much in favour of marriages in similar clan and varna. If a Bipra marries a Bipra, he will have the progeny of same varna. Then, if he has a Kshatriya wife, the progeny will have a happy blending of Bipra instinct and Kshatriya temperament. Like this, through different combinations, new specific varieties will evolve which will make nation richer and more varied. But in such cases, it will be a good practice to write the identity of the hypergamous progeny in bracket while mentioning the father’s title. If the father is Chattopadhyay and mother Baishya, the child will write Chattopadhyay (Ambostha). Otherwise, there could be a chaos in matters related to marriage and food hygiene (Alo. Pra.Vol.12: 27-5-48).

    Commenting upon the ban of polygamy, Sri Sri Thakur tells—we are thus inviting catastrophe. This will make some females wretched who would become easy prey for all. Muslims have been able to retain polygamy by abiding to the sayings of Hazrat Rasul. But no one lends an ear to our Rasuls and rishis. In polygamy, the first wife of the husband and the husband combined becomes the swami (husband). Swami means satta (soul) — life. The meaning of swami is not the same as that of the word ‘husband’ which actually means landlord. Even the word ‘satin’ also means satta. The rule in polygamy is that husband can’t remarry without the consent of first wife. The implication is that Lord Ramachnadra could have remarried only after being consented by Sita. In the past, when marriage of a girl of higher varna used to be solemnized, 2-3 girls of lower varna used to be given as dowry who were known as maid-wives. But how vigorous used to be their children! The aim behind the system was to push for higher genetic enrichment through all possible ways (Alo. Pra.Vol.12: 9-7-48).

    Adultery is not good both for males and females. If females do not maintain chastity, they can never ever be mother of good progeny even though polygamy aims at increasing efficient persons in society. Therefore, such a climate needs to be created that the females never step into adultery even at the cost of their life. (Alo. Pra.Vol.12: 26-5-48)

    Polygamy is to be practiced in the manner it is prescribed in our scripture. (Alo. Pra.Vol.20: 24-1-52). Sri Sri Thakur says, ‘if you consider polygamy is justified, then it has to

    be practiced. Though this will lead you to jail, still you have to adhere to it and embrace jail. If competent males do not practice polygamy and good progeny do not increase, then there will be a scarcity of cultivated cultured souls. The inferior will outnumber and will be the cause of ruin to nation. If we desire eminent progeny, then it is essential to solemnize the savarna and anuloma marriages for deserving males. Then only the nation will be enlivened again.’ (Alo. Pra.Vol.21: 11-1-53)

    The underlying thought in this discussion is that marriage is a sacred institution (sanskar) meant for fulfillment of two souls, through mutual sharing and caring, leading to upward mobility of self and society, through progeny. This is better achieved by principles of eugenics and varnashram based social structure. It is to be understood that each stage in the life of an individual and particularly marriage is significant from the point of view of refinement, elevation and satisfaction. Therefore, polygamy is not to be mistaken as a license for reckless sensual enjoyment with multiple partners, rather a tool to bring completeness into life of individual while putting him/her at an elevated mode.
  • Bhagidaar | 216.208.217.6 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৩:০২651930
  • আমার ভাইপো আধো আধো গলায় ঠাকুর কে টাকুল বলে
  • Atoz | 161.141.84.164 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৩:১১651931
  • মনে হয় অনেক হিসেব নিকেশ করে তবে প্রেমে পড়েছেন শীর্ষেন্দু। একেবারে ক্যালকুলাস কষে, ডাইনে বাঁয়ে নানা সমীকরণ সাইমালটেনিয়াসলি সমাধান করে তারপরে। ঃ-)
    প্রেমে পড়া কি পুকুরে ঝাঁপ দেওয়া নাকি, যে ঝপ করে লাফিয়ে পড়লাম আর ডুবে গেলাম? ঃ-)
  • Bhagidaar | 216.208.217.6 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৫:০০651932
  • এতজ, সেরকম হয়ে থাকলে আমি আশ্চর্য হবনা মোটেই। আমার পিসিরবাড়িতে (ব্রাহ্মণ) পিসির ভাসুরপো-ভাসুর্ঝি নিজের সন্তান মিলিয়ে নজন।তার মধ্যে একজনের মাত্র সম্বন্ধ করে বিয়ে, কিন্তু আশ্চর্য, বাকিরা সবাই কিন্তু ব্রাহ্মণ বিয়ে করেছে, কারণ মনে হয় তারা জানে অন্যথা হলে ঝামেলা হবার সম্ভবনা। ইন ফ্যাক্ট, আমার পিসতুতো বোন আমাদের বাড়ি এসে পাশের বাড়ির ছেলেতাকে দেখে খুব ভালো লাগলেও এগোয়নি শুধু সে ব্রাহ্মণ নয় বলে, বলল " ইস এত হ্যান্ডসাম ছেলেটা "--" ধুর, বাবা মেরে ফেলবে আমাকে" ।
  • | 183.17.193.253 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৫:০৮651933
  • ঘটনাটা যতদূর মনে পড়ছে, শীর্ষেন্দু একদিন সন্ধ্যের পরে ট্রামে করে কোথায় যাচ্ছিলেন। পথে কিছু একটা হওয়ায় ট্রাম-বাস সব বন্ধ হয়ে যায়। সহযাত্রী এক মহিলাকে উনি পদব্রজে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছিলেন- যিনি পরে ওর স্ত্রী হয়েছেনঃ)

    গল্পটা আদ্যন্ত রোমান্টিক ছিলো।এখন আর সেসব মনে নাই।তবে এই ঘটনাটা উনি নিজের কোনো একটা লেখায় উল্লেখও করেছেন।
  • Atoz | 161.141.84.164 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৫:২৮651935
  • অলক্ষ্যে শ্রী শ্রী ঠাকুর (অথবা ওনার স্পিরিট) শীর্ষেন্দুর হাত ধরে ঐ মহিলার কাছে নিয়ে যান। হুঁ হুঁ।
  • Atoz | 161.141.84.164 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৫:২৯651936
  • ভাগীরাজ,
    আপনার পিসির বাড়ীর লোকেরা ক্যালকুলাসে পারদর্শী। ঃ-)
  • Atoz | 161.141.84.164 | ০২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৫:৩৪651937
  • সুনীল গঙ্গো যখন স্বয়মাগতা ব্রাহ্মণ প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন, তখন লিবেরাল বন্ধুরা বললেন, "কী হে সুনীল, এত যে বড়ো বড়ো কথা, বিয়ে করার বেলা তো সেই ব্রাহ্মণ।"
    তখন সুনীল বললেন "তোমরা যে কী বলো! এক বাড়ুজ্জেকন্যার (?) যদি এই গাঙ্গুলিপুত্রকে ভালো লেগে যায়, সে প্রেমে পড়ে যায়, তবে কী অপরাধে তাকে নেবো না?" ঃ-)
    শীর্ষেন্দু তখন নিশ্চয় আনন্দে উদ্দাম নৃত্য করছিলেন আর একে তাকে ডেকে মিষ্টি খাওয়াচ্ছিলেন। ঃ-)
  • Abhyu | 85.137.12.226 | ০৪ ডিসেম্বর ২০১৪ ১৬:৫০651938
  • বালক ব্রহ্মচারীর কথা মনে পড়ে?
  • সুমনা সান্যাল | 57.11.1.73 | ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১৮:৪১651939
  • ক্রমশ আত্মহারা হয়ে পড়ছি। এই বাণীর গভীরতা মাপার শক্তি আমার নেই। আমরা বামুন। বারিন্দির। এখন থেকে বামুন ছাড়া বাড়িতে কেউ এলে আলাদা বাসনপত্তর, আলাদা জায়গার ব্যবস্থা করবো। গুরুবাক্যি বলে কথা। স্বামীর কাছে নত হবার কিচ্ছা টা মা'কে শোনাবো, কাজ হবে কিনা জানিনা। গুরুর কৃপা থাকলে সবই সম্ভব।
  • PJ Roy Jit | 212.134.9.130 | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১০:০৪651940
  • আপনারা বিজ্ঞানের জানেন ঘোড়ার ডিম
  • বিজ্ঞানে | 75.49.14.80 | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১০:১২651941
  • বাঁচা বাড়া নিয়ে কি বলেছে? দয়া করে কয়েক ছত্র লিখুন
  • lcm | 109.0.80.158 | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১২:২০651942
  • অনুকূলবাবু সম্বন্ধে বিশেষ জানতাম না - এতগুলো টই দেখে ভবলাম দেখি সার্চ করে কি ব্যাপার। তো, উইকিপেডিয়ায় দেখলাম লিখেছে - God man, physician - কোন কলেজের ডাক্তারি ডিগ্রি দেখতে গিয়ে দেখলাম হোমিওপ্যাথি ডাক্তার - কোনো কলেজ নন, সেল্ফ টট হবেন। যাই হোক, তারপরে দেখলাম এক জায়গায় লিখেছে - his social movement, called Satsang। এটা পরেও ঘাবড়ে গেলাম, সতসঙ্গ নামের সোশ্যাল মুভমেন্ট - শুনি নি তো। অবশ্য, কত কিছুই তো শুনি নি। তবে হালে, সতসঙ্গ কথাটা শুনেছি, পাঞ্জাবের রাম-রহিম-বাবার, তার লাভ-চার্জার গানটি তো একটি যুগান্তকারী ভারতীয় ইংরেজি রক গান, একটি জঁরা তৈরি করেছে প্রায়।

    ইউটিউবে অনুকুলবাবুর একটা চান করার ভিডিও দেখলাম, প্রয়াগ বা গঙ্গাসাগরে নয়, একটি চৌবাচ্চায় - দেখে মনে হল একজন বেশ আয়েশি লোক চান-টান করে আরাম করে ঠেস দিয়ে বসে গপ্পো করছেন। বেশ অলস টাইপের লোক মনে হল।

    যাই হোক, এই অনুকূলবাবুর নাম তো বিখ্যাত সাধকদের লিস্টে দেখলাম না। "বাংলার সাধক"-এর চার-পাঁচ খন্ড বা "ভারতের সাধক"-এর ১২ খন্ডে কোথাও এর উল্লেখ নেই - এই বই সমগ্রগুলোকে তো মোটামুটি এই বিষয়ে রেফারেন্স ধরা হয়।

    তাহলে ইনি বোধহয় তেমন উল্লেখযোগ্য কেউ নন।
  • PP | 159.142.103.12 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ০২:৫০651943
  • 'হোমিওপ্যাথি ডাক্তার' আজকাল কি রকম অক্সিমোরন শোনায় না?
  • lcm | 109.0.80.158 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১১:১১651944
  • কিন্তু কয়েকটি গভর্নমেন্ট হোমিওপ্যাথি কলেজ ছিল না? সেখান থেকে পাশ করে বেরোলে, তাদেরকে কি বলা হয় - ডক্টর অফ্‌ অল্টারনেটিভ মেডিসিন - নাকি সেটা বোধহয় অন্য কিছু।
  • Du | 182.58.107.75 | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ২০:৫৯651946
  • পুরোনো কমেন্টগুলো পড়ছিলাম। যাহা অনুকুল তাহাই মার্ক্স, ধর্মবিশ্বাস প্রচার আর ইজম প্রচার সবই এক সকল রকম চিন্তাই আসলে তুল্যমূল্য --- কি সুন্দর এক মুক্তচিন্তায় পূর্ন ইউটোপিয়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলাম আমরা। একদা।
  • করোনা

  • পাতা : 1 | 2 | 3 | 4
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত