ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • শুরু হোক অসুর পূজা | 132.252.251.244 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১০:৫৩575159
  • 2 ঘণ্টা পূর্বে নবায়িত
    দাশাই পরব অসুর-আদিবাসীদের একটি শোকপালনের পরব। পাঁচদিন ধরে চলে এই শোক পালন। কারণ বিদেশী দেবতারা তাদের প্রিয় রাজাকে নারীকে দিয়ে হত্যা করেছে অথবা বন্দী করে নিয়ে গেছে গোপন ডেরায়। তাই নারীর ছদ্যবেশে যোদ্ধারা তাদের রাজাকে খুঁজতে বেরিয়ে পড়ে। হাতের শস্ত্রগুলিকে বাদ্যযন্ত্রের আদল দেওয়া হয়। যাতে সন্ধিক্ষনে যুদ্ধ বিজয়ে সেগুলো কাজে লাগে। মুন্ডা,কোল আদিবাসীরা দাবী করেন দুর্গা তাদের মেয়ে। দেবতারা তাকে বেশ্যা বানায়। হাঁড়ি সম্প্রদায়ের দাবী চণ্ডী তাঁদের মেয়ে। দেবতারা তাকে দিয়ে তাঁদের রাজাকে হত্যা করে। আজও বুক চাপড়ে ও হায়রে-ও হায়রে আওয়াজ করে ভুয়াং নাচের মাধ্যমে আদিবাসীরা তাঁদের রাজাকে খুঁজে বেড়ায়। বেশ্যা দুর্গার হাতে বৃহৎ বঙ্গের রাজা বঙ্গাসুরের হত্যা কাহিনী এভাবেই লোকায়ত হয়ে আছে আদিবাসীদের মধ্যে। আদিবাসী সত্তায় রাজত্ব হারানোর স্মৃতি এখনও সমান ভাবেই বর্তমান। বিদেশী দেবতারা এখনো মানব হত্যার মন্ত্রগুলি বিজয় উল্লাসে উচ্চারণ করে চলছে। মানুষ মারাকে ধর্মীয় মোড়কে পরিবেশন করছে। আশার কথা। ধ্বংস হয়ে যাওয়া ইতিহাস আবার সবলে উঠে আসছে। কিফিয়ত আদায় করে ছাড়ছে। জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুরুলিয়ার সরডিহার ইতিহাস সচেতন আত্ম মর্যাদা সম্পন্ন মূলনিবাসীরা অসুর পূজা শুরু করে দিয়েছে। এবছর সেটা বিস্তারিত হয়ে মালদা, দিনাজপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ছড়াতে শুরু করেছে। এ পূজা মানবতার পূজা। অসুরের (সুরাপায়ী নয়) পূজা । অসুরের জয় হোক।
    http://www.facebook.com/media/set/?set=a.359868497433302.85518.100002304633392&type=1
  • কল্লোল | 111.63.159.162 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১১:১৯575160
  • এটা দারুণ। আমি অন্য একটা গল্প জানতাম। মধ্য মেদিনীপুরে (ডেবরা অঞ্চলে) দূর্গা পূজার সময় ওখানকার আদিবাসীরা (মূলতঃ সাঁওতাল) গান গায়, আমাদের রাব্ণরাজা ভালো ছিলো, মা তুই রামকে দিয়ে মারালি কেন ভালো রাজারে।
    এটা নিয়ে কারুর কিছু জানা আছে?
  • সুশান্ত | 127.203.163.66 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১২:৩৮575161
  • ব্রাহ্মণ্যবাদীরা খুব বড়াই করে ধর্মান্তরণ করে না বলে। আসলে তারা করত গোটা সমাজকে। একে সামাজিক বৈধতা দেবার একটা কুশলি উপায় ছিল আবিবাসি বা জনজাতিদের দেবদেবীকে নিজেদের দেবতা বা দেবীর অন্যরূপ বলে গল্প চালিয়ে দেয়া। রামায়ন , মহাভারতের গল্পের চরিত্রে সঙ্গে এইসব জনগোষ্ঠিকে জড়িয়ে দেয়া। মাতৃদেবীরা মূলে এই সব অস্ট্রিক সমাজেরই দেবী বটে। কিন্ত সেই দেবীকেই কেমন অসুর নিধনকারী সাজিয়ে দিল। এই সব অসুর আর কেই বা, একই সমাজের সেই অংশ যারা ব্রাহ্মণ্যকরণের বিরোধিতা করত, করত প্রতিরোধ। সুতরাং প্রথমে চরিত্র হনন করো, পরে বধ কর্মকে বৈধ কর। তার পরেও এরা প্রচার করে নিজেদের ধর্মটা বুঝি অহিংসার ধর্ম। অসমে নরকাসুর বধের গল্পও তাই। এখনও পূর্বোত্তরের সমাজে এই ব্রাহ্মণ্যিকরণ এবং প্রতিরোধ সমানেই দেখা যায়।
  • সুশান্ত | 127.203.163.66 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১২:৫৭575162
  • রাবন পুজা নিয়ে এখানে বেশ কিছু ভালো কথা পাওয়া গেলঃRavana Temples
    Thotsakan (Ravana)'s sculpture as a guardian of Wat Phra Kaew, Thailand

    There are several temples where Ravana is worshipped.[15][16][17] Ravana is considered most revered devotee of Lord Shiva. The images of Ravana are seen associated with lord Shiva at some places.

    There is a huge Shivalinga in Kakinada, Andhra Pradesh, supposedly installed by Ravana himself, with a statue of Ravana near by. Both Shivalinga and Ravana are worshiped by the fishermen community there.

    Thousands of Kanyakubja Brahmins of the village Ravangram of Netaran, in the Vidisha District of Madhya Pradesh, perform daily puja (worship) in the Ravan temple and offer naivedyam / bhog (a ritual of sacrifice to the Gods. Centuries ago King Shiv Shankar built a Ravana temple at Kanpur, Uttar Pradesh. The Ravana temple is opened once in a year, on Dashehra Day, to perform puja for the welfare of Ravana.

    A Jain temple in Alwar, Rajasthan is called the Ravan Parsvanath Temple. The legend says that Ravana used to worship Parsvanath daily. While Ravana was on tour to Alwar he realized that he forgot to bring the image of Parsvanath. Mandodari, Ravana's wife, is said to have made an image of Parsvanath immediately. And hence the Ravan Parsvanath temple at Alwar.[18]

    Ravana is said to have married Princess Mandodari at a place about 32 kilometers away from Jodhpur, which is now called Mandor. There is a mandap (altar or pavilion) where Ravana is said to have married Mandodari, and which the local people call Ravan Ki Chanwari.

    At the altar can also be found the images of Saptamatri (Seven Mothers) flanked by Ganesha and Veerabhadra. The Saptamatri images are said to precede the time of the Pratihara Dynasty (founded in the 6th Century AD) and are in fact reminiscent of the images of seven female deities of Harappa - the oldest civilization in India. In the nearby stepwell, a stone bears a script that resembles the Harappan script.

    The Dave Brahmins of Mudgal Gotra, Jodhpur/Mandor who were originally from Gujarat, claim to be the descendants of Ravana. The say that since time immemorial they are performing the shraddh (death anniversary) of Ravana on Dashehra Day every year. They offer pind daan and take a bath after that ritual. They recently erected a Ravan temple in Jodhpur, where daily puja is performed.

    There is a theory proposed by Sinhalese nationalists that points to the southern part of Sri Lanka as the capital of Ravana, hence the name Ruhuna came to existence. "Ruhuna" is claimed to be derived from the word's Ravana Pura or Rohana Pura, despite the liguistic improbability of 'va' becoming 'ha' in Prakrit. This is probably an attempt to tie Ravana with the history of that other national hero: Duttagamini, who was a king from that region.

    Murudeshwara temple, dedicated to Lord Shiva, lies in the holy beach town in the Bhatkal Taluk of Uttara Kannada district in the state of Karnataka, India. It is situated between the Honnavar and Bhatkal town (about 12 km) and it lies on the coast of the Arabian Sea. The significance of this holy town dates to the time of Ramayana. Ravana wanted to attain immortality by penance dedicated to the Atmalinga(the divine Lingam of Shiva procures invincibility and immortality to the Hindu Gods). Lord Shiva appeared before Ravana and asked him what he wanted. Lord Vishnu with the help of Narada changes Ravana's mind. As a result of this plot, Ravana asks for Goddess Parvathi, and Lord Shiva offers him. On his way back to Lanka Narada tricks Ravana that the real Parvathi was in Pathala(Underworld). So Ravana lets off Parvathi, went to Pathala and marries the king's daughter thinking that she was Parvathi. When he returns back to Lanka his mother then asks for Atmalinga. Ravana knowing that he was tricked, meditates to please Lord Shiva. Ravana asks for his forgiveness and this time, Ravana requests the Atmalinga as his boon. Lord Shiva agreed to give him the boon with a condition that it should never be placed on the ground. It is believed that the Atmalinga was ever placed on the ground, all the powers would return to Lord Shiva again. Having obtained his boon, Ravana started back on his journey to Lanka. Sage Narada, realised that with the Atmalinga, Ravana may obtain immortality and create havoc on earth, approached Lord Ganesh to help him. As Ravana was nearing Gokarna, Lord Vishnu blocked the sun to make it appear as dusk. Ravana had to perform his evening rituals but was worried because with the Atmalinga in his hands, he would not be able to do his rituals. Lord Ganesh, disguised as a Brahmin boy approached Ravana. He requested him to hold the Atmalinga until he performed his pooja, and told him not to place it on the ground. Ganesh struck a deal with him saying that he would call Ravana thrice, and if Ravana did not return within that time, he would place the Atmalinga on the ground. As predicted, before Ravana could return after completing his rituals, Ganesh had already placed the Atmalinga on the ground. Vishnu then removed his illusion and it was daylight again. Ravana got really angry that he was tricked again and tried to uproot the Atmalinga and destroy it but could not. In a fit of rage he threw the case covering it to a place called Sajjeshwara, 23 miles away. Then he threw the lid of the case to a placed called Guneshwara (now Gunavanthe) and Dhareshwara, 10–12 miles away. Finally, he threw the cloth covering the Atmalinga to a placed called Mrideshwara in Kanduka-Giri (Kanduka Hill). Mrideshwara has been renamed to Murudeshwara.http://en.wikipedia.org/wiki/Ravana#Ravana_Temples
  • সুশান্ত | 127.203.163.66 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১৩:০০575163
  • এটাও মজারঃThe Ramayana is not part of the mainstream Sinhala religious and cultural tradition in Sri Lanka, because Buddhism has been the religion of the majority of Sinhalas for long. But ancient Sinhala works like Rajavaliya and Ravanavaliya identify Ravana as a Sinhala king and extol him as a great
    related stories

    Where Ravana is worshipped
    Valmiki Samaj worships Ravana?

    one.

    In modern Sri Lanka, there has been a movement to revive Ravana as a cult figure, who represents Sinhala or Sri Lankan nationalism because he was among the first in the island's history to have resisted an alien/Indian invader. <b1>

    Scholar Arisen Ahubudhu is the current representative of the ultra nationalistic Hela movement founded by the renowned Sinhala litterateur, the Late Munidasa Kumaratunga. The Hela movement has been urging the Sinhalas to go back to their roots shunning Indian, Hinduistic and other alien influences.ঃhttp://www.hindustantimes.com/world-news/SriLanka/Ravana-is-a-hero-for-Sinhala-nationalists/Article1-249335.aspx
  • b | 135.20.82.164 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১৩:৩৫575164
  • রাবণের করা শিবস্তুতি তো রেকর্ডেডঃ

    জটাটবীগলজ্জ্বল প্রবাহপাবিতস্থলে
    গলে'লম্বলম্বীতম ভুজঙ্গতুঙ্গমালিকাম
    [...]
    চকারচন্ডতান্ডবম তনোতু নঃ শিবঃ শিবম।

    থার্ড লাইনটি ভুলে গেছি। বেশ ওজস্বীতা মাখো মাখো স্তোত্র।
  • শ্রাবণী | 134.124.244.107 | ১৫ অক্টোবর ২০১২ ১৭:১২575165
  • দক্ষিণে অনেক জায়গাতেই রাবণ, মহিষাসুর এদেরকে ভালো ভক্ত রাজা মনে করে, যাদের অন্যায় ভাবে মারা হয়েছিল, আর্য অনার্য অ্যাঙ্গল। নর্থের দশেরায় এই রাবণ জ্বালানো উৎসবকে ওরা অনেকে খুব অপছন্দ করে!
    রাবণের পুজোটুজোও হয় অনেক জায়গায়, বড় মন্দির ছাড়াও ছোটখাটো গ্রামে।
    কেরালায় তো রামেশ্বরমের মতো রাবণেশ্বরম শিবও আছে।
    তবে এই রাজস্থানের রাবণ আর রামায়নের লঙ্কার রাবণ এসব কী এক? বিভিন্ন জায়গায় এই সব রামায়ণ মহাভারতের চরিত্রের নামে এত গাথা চালু আছে যে অনেকসময় মনে হয় একই নামের সব বিভিন্ন লোক হয়ত বা একই গোষ্ঠীর লোকেরা বিভিন্ন জায়গায় মাইগ্রেট করে গেছে........এরকম কিছু থিওরিও বোধায় আছে!
  • বিপ্লব রহমান | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:৫২734939
  • সংযোজন : 
    এই নিয়ে ওপারে বন্ধুজন, গবেষক শরদিন্দু উদ্দীপন দীর্ঘদিন ধরে অনুসন্ধান করছেন। বিবিসি বাংলার এক বিশেষ প্রতিবদনে বলা হয়, 
     
    "(অনার্য রাজা অসুর) তিনি ছিলেন অত্যন্ত বলশালী এবং প্রজাবৎসল এক রাজা। আদিবাসীদের (সাঁওতাল, মুন্ডা, কোল) প্রচলিত লোকগাথা অনুযায়ী এক গৌরবর্ণা নারীকে দিয়ে তাদের রাজাকে হত্যা করা হয়েছিল।"
     
    "এক গৌরবর্ণা নারীই যে মহিষাসুরকে বধ করেছিলেন, তা হিন্দু পুরাণেও আছে। দেবী দুর্গার যে প্রতিমা গড়া হয়, সেখানে দুর্গা গৌরবর্ণা, টিকলো নাক, যেগুলি আর্যদের শারীরিক বৈশিষ্ট্য। দুর্গার আরেক নাম সেজন্যই গৌরী। অন্যদিকে মহিষাসুরের যে মূর্তি গড়া হয় দুর্গাপূজায়, সেখান তার গায়ের রঙ কালো, কোঁকড়ানো চুল, পুরু ঠোঁট। এগুলো সবই অনার্যদের বৈশিষ্ট্য," ব্যাখ্যা তথ্যচিত্র নির্মাতা সুমিত চৌধুরীর।
     
    মি. (শরদিন্দু) উদ্দীপন আরও বলছিলেন যে আর্যরা ভারতে আসার পরে তারা কোনোভাবেই মহিষাসুরকে পরাজিত করতে পারছিল না। তাই তারা একটা কৌশল নেন, যাতে এক নারীকে তারা ব্যবহার করেন মহিষাসুরকে বধ করার জন্য।"
     
    বছর তিনেক আগে শান্তি নিকেতন ঘেঁষে গড়ে ওঠা প্রাচীন সাঁওতাল গ্রামে সরেজমিনে অসুর পূজা সম্পর্কে জেনেছি। এপারে উত্তরবঙ্গে কিছু সাঁওতাল গ্রামে সীমিত আকারে অসুর পূজার চল ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে বলে জেনেছি। 
     
    জয় হোক আদিবাসীর সংগ্রাম! 
  • বিপ্লব রহমান | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১:১০734941
  • *খেরো খাতা নয়, হরিদাস পাল হবে, লেখক দেবব্রত মন্ডল। ধন্যবাদ 
  • S | 2605:6400:30:f00f:1854:a31c:7871:2582 | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১:৪৫734942
  • পোস্ট ট্রুথের বাজারে আসল ঘটনাটাও থাক। তমাল দাশগুপ্তের লেখা
    "মহিষাসুরকে বধরত দুর্গামূর্তি আর্য আগ্রাসনের প্রতীক। এটা সত্যি নয়।
    মাতৃকা উপাসক হরপ্পা সভ্যতায় মহিষমেধ প্ৰচলিত ছিল, প্রত্নসাক্ষ্য থেকে জানা যায়। মায়ের উৎসবে মহিষবলি দেওয়া হত। এখান থেকে মহিষমর্দিনী এসেছেন, মহাভারতে অর্জুনের দুর্গাস্তবে মাকে মহিষসৃকপ্রিয় বলা হয়েছে, অর্থাৎ মহিষের রক্ত যাঁর প্রিয়।
    এই মহিষ পরবর্তী কালে anthropomorphic পরিবর্তনে মহিষাসুর হয়েছে, মোষটাকে অসুর কল্পনা করা হয়।"
  • দীপ | 2402:3a80:a6c:2136:90c1:8e2f:1fa2:f4cf | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:২৯734964
  • এর আগেও এই গবেষককে(!!) বহুবার তাঁর দাবির সপক্ষে প্রমাণ চাওয়া হয়েছে। যদিও কিছু গালগল্প ছাড়া প্রমাণ দিতে পারেননি, তারপর মনুবাদী, খাইবার পাস দিয়ে খেদিয়ে দেবেন বলে গালাগালি দিয়েছেন! একমাত্র তিনিই জানেন কে মূলনিবাসী আর কে নয়! সবার বংশের ঠিকুজি নিয়ে বসে আছেন! এইসমস্ত ধান্দাবাজিকে গবেষণা বলে চালানো হচ্ছে!
  • দীপ | 2402:3a80:a6c:2136:90c1:8e2f:1fa2:f4cf | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:৪৪734965
  • আর গবেষক (!!) মহোদয়ের জানা নেই, প্রথমদিকে দেবীমূর্তির কল্পনায় একাধিক জায়গায় তাঁকে নীলবর্ণা, কৃষ্ণবর্ণা, ধূম্রবর্ণা প্রভৃতি বিশেষণে বিশেষায়িত করা হয়েছে! মহাভারতোক্ত দুর্গাস্তবে দেবীকে "কালি! কপিলে! কৃষ্ণপিঙ্গলে!" বলে বন্দনা করা হয়েছে! চণ্ডীর পঞ্চম অধ্যায়ে দেবীবন্দনায় দেবীকে গৌরবর্ণা, ধূম্রবর্ণা, কৃষ্ণবর্ণা বলা হয়েছে! দেবীমূর্তিকল্পনায় "তপ্তকাঞ্চনবর্ণাভা" বিশেষণ বরং পরে এসেছে! 
    গবেষণা আর ধান্দাবাজি এক নয়!
  • দীপ | 2402:3a80:a6c:2136:90c1:8e2f:1fa2:f4cf | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:৫০734966
  • আবার এই গবেষককে(!!) চ্যালেঞ্জ করছি! যদি ক্ষমতা থাকে, উপযুক্ত প্রামাণ্য তথ্য এনে নিজের দাবি প্রমাণ করুন! 
    ফেসবুকের গপ্পকে গবেষণা বলে চালানোর চেষ্টা করবেন না!
     
     
  • ??? | 2001:bc8:1820:614::1 | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৫:০৮734967
  • কোন গবেষককে  তাল ঠুকে চ্যালেঞ্জ করছে দীপচাড্ডি? অনেকেই ত যার যার মত তথ্য রেখেছে এখানে। দীপচাড্ডির চুলকাচ্চে কোথায়?
  • প্রমাণ | 2405:8100:8000:5ca1::2be:406c | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২০:১২734968
  • দীপচাড্ডির মগজে ঢোকেনি। বিভিন্ন আইডেন্টিটিকে লড়িয়ে দিয়ে ভারতকে টুকরো করার গেমপ্ল্যান আজকের নয়। এটি সেই গ্যাঙ্গের নতুন সংযোজন।
  • দীপ | 2402:3a80:a6b:a47:90dd:2e6e:9a97:2cab | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২২:০৭734969
  • এটাই আসল কথা। কেউ বলবে হিন্দুরাষ্ট্র চাই, কেউ আবার দলিত-মুসলিম ঐক্য নিয়ে নাচানাচি করবে! আসল কথা , "Divide and Rule"! ইংরেজ আমাদের দেশের রাজনৈতিক নেতাদের খুব ভালোভাবেই এটা শিখিয়ে দিয়েছে!
  • দীপ | 2401:4900:3146:d6c3:1f75:a91c:a9fa:d075 | ১২ অক্টোবর ২০২১ ০০:৩২735035
  • ফেসবুক থেকে প্রাপ্ত অন্তরীপ মন্ডলের লেখা।  এত রসিকতার মধ্য দিয়ে হুদুড়দুর্গা ও নবকৃষ্ণদেবের প্রোপাগান্ডার ভুষ্টিনাশ করতে আর কেউ পেরেছেন বলে মনে হয়না!
     
    অগত্যা দুর্গাপুজা নিয়ে সবকটি বাজারচলতি অভিনবত্বের সার করলে যেটা দাঁড়ায়, সেটা হল: 
     
    আনুমানিক ১৫০০ খ্রীষ্টপূর্বাব্দ নাগাদ দুর্গা নাম্নী এক আর্যা নারী মহিষ নামক এক অনার্য অসুরকে ছলায়কলায় ভুলিয়ে বধ করেছিল। তাই, প্রায় সাড়ে তিনহাজার বছর পরে, ১৭৫৭ খ্রীষ্টাব্দে রাজা নবকৃষ্ণ ইংরেজের সাথে ষড়যন্ত্র করে পলাশীর যুদ্ধে সিরাজুদ্দৌলার পরাজয়কে উদযাপন করতে ও ইংরেজকে খুশী করতে বাংলায় দুর্গাপুজার প্রবর্তন করেন। অতএব একবিংশ শতকের দ্বিতীয় দশক থেকে বাঙালীর দুর্গাপুজার বদলে মহিষাসুরপুজা করা উচিৎ ও যত শীঘ্র সম্ভব ঈদকে বাঙালীর জাতীয় উৎসব বলে মান্যতা দেওয়া উচিৎ। 
     
    আচ্ছা, বেশ! মতপ্রকাশের স্বাধীনতা বঙ্গীয় হিন্দুসমাজে স্বীকৃত। পরে কি হয় বলা যায়না, তবে পান থেকে চুন খসলে ধর্মদ্রোহিতার দায়ে কল্লা ফেলার সংস্কৃতি পশ্চিমবঙ্গে এখনো পর্যন্ত নাই। এবং সেই না থাকাটা খারাপ কিছু নয়। এসব হিংসাত্মক প্রবৃত্তি বর্জন করাই শ্রেয়। কিন্তু কথা হচ্ছে যে, আমাগো জুলফিকার নাই বলিয়া কি মুড়োঝ্যাঁটাটিও নাই! ঝ্যাঁটার বাড়িকে কী হিংসাত্মক বলা চলে? মানবাধিকার সংস্থাগুলির রায় জানতে মুঞ্চায়!
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। সুচিন্তিত মতামত দিন