• টইপত্তর  অন্যান্য

  • আগামীর অবয়ব

    dri
    অন্যান্য | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১১ | ৫৪৩৩০ বার পঠিত
  • জমিয়ে রাখুন
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • দ্রি | 11.39.85.28 | ১৭ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৪৫488067
  • এক সপ্তাহের মধ্যে অনেকগুলো বড় বড় ভূমিকম্প হল।

    আফঘানিস্তানে ৬.৬
    মায়ানমারে ৬.৯
    জাপানের বিভিন্ন যায়গায় ৬.০, ৬.২, ৭.০
    ইকুয়েডরে ৭.৮

    এর মধ্যে জাপানের কুমামোতো আর ইকুয়েডরেরটা বিধ্বংশী।

    জাপানে ৪০ জন মৃত, প্রায় লাখ খানেক ইভ্যাকুয়েটেড। ইকুয়েডরে এখনও পর্য্যন্ত এসে পৌঁছনো খবরে ২৮ মৃত।
  • S | 108.127.180.11 | ১৭ এপ্রিল ২০১৬ ০৯:৪৬488068
  • বিশ্বাস করুন, এক্খুনি খবরটা দেখেই আপনার কথা মনে পড়েছে।
  • PM | 233.223.159.2 | ১৭ এপ্রিল ২০১৬ ১৩:৩৪488070
  • দ্রি সাহেবের মিসন সাকসেসফুল ঃ) লোকে ভুমিকম্পের কথা শুনলেই কন্সপিরেসি ভাবছে ঃ)
  • S | 108.127.180.11 | ১৭ এপ্রিল ২০১৬ ১৩:৩৮488072
  • যতটা না কন্সপিরেসি ভাবছি, তার থেকে বেশি দ্রি সাহেবের কথা ভাবছি ঃ))
  • দ্রি | 87.247.181.163 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ১৮:৩৫488073
  • অক্সফ্যামের রিপোর্ট বলেছে, আমেরিকার কর্পোরেশান ট্যাক্স হ্যাভেনে 1.4 ট্রিলিয়ান ডলার লুকিয়ে রেখেছে। অ্যাপ্‌ল ১৮১ বিলিয়ান, জিই ১১৯ বিলিয়ান, মাইক্রোসফ্‌ট ১০৮ বিলিয়ান।

    Technology giant Apple, the world’s second biggest company, topped Oxfam’s league table, with some $181bn held offshore in three subsidiaries.

    Boston-based conglomerate General Electric, which Oxfam said has received $28bn in taxpayer backing, was second with $119bn stored in 118 tax haven subsidiaries.

    Computing firm Microsoft was third with $108bn, in a top 10 that also included pharmaceuticals giant Pfizer, Google’s parent company Alphabet and Exxon Mobil, the largest oil company not owned by an oil-producing state.

    পপুলার ডেস্টিনেশান, বৃটিশ ওভারসীজ টেরিটরি।

    Oxfam also singled out British overseas territories such as Bermuda for their popularity with US firms seeking to slash their tax bill by “profit-shifting”.

    In 2012, said Oxfam, US firms reported $80bn of profit in Bermuda, more than their combined reported profits in Japan, China, Germany and France, four of the world’s five largest economies.
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ১৮:৪৩488074
  • লুকিয়ে রেখেছে? অ্যাপেল যে ট্যাক্স কম দেয় সেতো সবাই জানে। অ্যাপেলের সেই বিখ্যাত ডাবল আইরিশ ডাচ স্যান্ডউইচ মেকানিজম।
  • দ্রি | 95.93.218.204 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ১৯:০৯488075
  • না, না, সবাই এত কথা জানে না। আর অ্যামাউন্টটা জানা গেল। ১৮১ বিলিয়ান।
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ১৯:২২488076
  • আমার তো মনে হয় প্রায় অনেকেই জানে। অ্যামাউন্ট টা তো আল্টিমেটলি এস্টিমেশন, নাকি? ঐ যবে ট্যাক্স হলিডে দেবে, তখন রেমিট করবে।

    বরন্চ অ্যাপেলের লেবার পলিসি নিয়ে লিখুন।
  • দ্রি | 72.210.129.246 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ১৯:৩৮488077
  • এস্টিমেশানটা তো একটা অর্গানাইজেশান বসে বসে করেছে। কোন এস্টিমেশান না করলে তো ১৮১ হাজার, না ১৮১ মিলিয়ান না ১৮১ বিলিয়ান সেটা বোঝা সম্ভব নয়। অর্ডার অফ ম্যাগনিটিউড বোঝাটা খুব জরুরী।

    অল দীজ ইন দা কন্টেক্সট অফ পানামা পেপার্স। ইন্ডিভিজুয়াল যখন টাকা লুকিয়ে রাখছে, সে ধরা পড়ে গিয়ে রিজাইন করে দিল। কিন্তু অর্গানাইজেশান অতি অনায়াসেই এইসব করে, এবং সেগুলো 'সবাই জানে' তাই নট সো শকিং। এই দুটো ব্যাপারকে জাস্ট জাক্সটাপোজ করলাম।
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২০:০২488078
  • প্রথম কথা হলো ট্যাক্স অ্যাভয়েড করা কি বেআইনী? অ্যাপেল অন্তত যেটা করছে সেটা বেআইনী নয়, ট্যাক্স কোডের লুপহোল বের করে সেটাকে ব্যবহার করছে।

    সেকেন্ড পয়েন্ট হলোঃ কে রিজাইন করেছেন? পলিটিশিয়ানরা। প্রথমত শুধুমাত্র রিজাইন করেছেন, কোনো আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে কী? এখন তদন্ত করা হবে, সেই তদন্ত যাতে প্রভাবহীন ভাবে করা যায় তাঅই তার রেজিগনেশন দাবী করা হয়েছে। মোর ইম্পর্ট্যান্টলি, পলিটিশিয়ানদের অ্যাকাউন্টেবিলিটি জনগণের কাছে। অতেব জনগণের টাকা আত্বসাৎ (বানান?) করার বা ট্যাক্স ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ থাকলে সেটা নিয়ে তদন্ত হবে। অন্যদিকে অ্যাপেলের ফিডুশিয়ারি ডিউটি তাদের শেয়ারহোল্ডারদের কাছে। ট্যাক্স অ্যাভয়েড করে অ্যাপেল সেই ডিউটি খুব সুন্দর ভাবে পালন করছে। বহু বড়লোকেরাই ট্যাক্স অ্যাভয়েড করে বিভিন্ন ভাবে - আইনী উপায়ই। তাঁদের নিয়ে কোনো কথা হয়না - আনলেস তারা পাবলিক অফিসের জন্য দৌঁড়য়।
  • দ্রি | 195.61.138.125 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২০:১৮488079
  • ট্যাক্স হ্যাভেনে টাকা রাখা বেআইনী নয় তো। ইন্ডিভিজুয়ালের জন্যও নয়, কর্পোরেটের জন্যও নয়।

    কিন্তু এটা ট্যাক্স ফাঁকির লুপহোল। এই লুপহোল সাধারণ মানুষ ব্যবহার করে না। তারা পুরো ট্যাক্সটাই গুণে আংকল স্যামকে দেয়। তারা যখন দেখে তাদের চেয়ে অনেক ধনী লোক এবং কর্পোরেট ঐ লুপহোল ব্যবহার করে তখন তারা বিট্রেড ফীল করে। সেইজন্য কেউ কেউ ট্যাক্স হ্যাভেন অ্যাবিউজ অ্যাক্ট আনার কথা বলছে।

    একটা দেশে বসে ব্যবসা করলে সেই দেশের ট্যাক্সটা দিতে হবে এটা এক্সপেক্টেড। শেয়ারহোল্ডারদের ইন্টারেস্ট সব নয়। একজন ট্যাক্সপেয়ার বলবে, আমি আমার পুরো ট্যাক্স দিই, অ্যাপ্‌ল কেন দেবে না।

    এটা লীগাল লুপহোলই। এই ট্যাক্স ফাঁকি দেওয়ার রুল আপনি আমি জানিও না, এক্সপ্লোরও করি না। চুরির অ্যামাউন্ট এই পর্যায়ে না পৌঁছলে জানতো পারতাম না।

    আর ভারতের মত দেশে তো আরো প্রবলেম। একজন সাধারণ নাগরিক তো দেশের বাইরে অত টাকা বেরই করতে পারবেন না। কিন্তু ডিএলএফের মালিক সেই পার্মিশান পেয়ে যান। এই অ্যাসিমেট্রিটাও কারো কারো ভালো লাগে না।
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২০:৩২488080
  • "এই লুপহোল সাধারণ মানুষ ব্যবহার করে না। তারা পুরো ট্যাক্সটাই গুণে আংকল স্যামকে দেয়। "
    তার কারণ এই লুপহোলগুলো ইউজের একটা ট্রানজাকশন কস্ট আছে। অ্যাকাউন্টেন্ট হায়ার করো, অন্যদেশে ব্যান্ক অ্যাকাউন্ট খোলো, মানি ট্রান্সফার করো ইত্যাদি। ফলে সাধারণ লোকেদের পক্ষে সেইটা ইউজ করা সম্ভব হয়না। তাছাড়া এইসব ট্যাক্স লুপহোলগুলো তো এমনি এমনি থাকেনা।

    অ্যাপল তো ট্যাক্স দেয়। অনেক অনেক কম দেয়। অনেক কোম্পানি দেয়না। কিন্তু এগুলো সব লিগাল। এমনকি এথিকালও। লুপহোল ব্যবহার করলে কোনো ঝামেলায় পড়বেনা, কিন্তু শেয়ারহোল্ডারদের ইন্টারেস্ট না দেখলে পরবে - ইহাই ক্যাপিটালিজমের সইত্য।

    ট্যাক্স লুপহোল কিন্তু অ্যাকাউন্টেন্টরা অনেকেই জানে ও বোঝে। একটু সিনিয়ার অ্যাকাউন্টেন্টদের জিগালেই বলে দেবেন। অতেব এইগুলো আপনার কাছে নতুন হতে পারে কিন্তু পলিসি মেকাররা অনেকেই জানে ও বোঝে।

    ট্যাক্স লুপহোল বন্ধ করতে বলতে পারেন। কিন্তু সেটাতো অ্যাপলের কাজ নয়, আর আমি আপনি আনফেয়ার মনে করলেই বা তারা কেন সেই সুযোগ ব্যবহার করবেনা সেইটাই ঠিক বুঝতে পারছিনা। পলিসিমেকারদের বলুন এইসব লুপহোলগুলো বন্ধ কারার জন্য। সেইখানে কিন্তু কবি নীরব।
  • দ্রি | 202.160.102.164 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২০:৫৩488081
  • তাছাড়া এইসব ট্যাক্স লুপহোলগুলো তো এমনি এমনি থাকেনা। কারেক্ট। এগুলো বড়লোক, কর্পোরেট এদের ট্যাক্স ফাঁকি দেওয়ার জন্যই হয়েছে।

    এথিকাল, একেবারেই নয়। শেয়ারহোল্ডারের ইন্টারেস্ট দেখতে গিয়ে দেশের ট্যাক্স বেস কমে যাচ্ছে, যেটা ফাইনালি দেশবাসীকে অ্যাফেক্ট করে।

    লুপহোল বন্ধ করার কথা উঠবে যখন লোকে আউটরেজ্‌ড হবে। কত ট্যাক্স ফাঁকি হচ্ছে সেটা পয়েন্ট আউট না করলে সেটা হবে না। আর অন্য ব্যাপারটা হল, পলিসিমেকাররা কর্পোরেটের কেনা। ঐ ফাঁকি দেওয়া ট্যাক্সের একটা অংশ দিয়ে লবিইং হয় গুছিয়ে। সুতরাং ট্যাক্স হ্যভেন বন্ধ করে দেওয়া আইন করতে গেলে প্রেশার আসবে কর্পোরেট থেকেই। তবে সে তো বটেই। প্রেশার দিতে হবে পলিসিমেকারকে। কিন্তু সবচেয়ে আগে তো আউটরেজ্‌ড হওয়া। সেটা না হলে কিছুই হবে না।

    Overall, the use of tax havens allowed the US firms to reduce their effective tax rate on $4tn of profits from the US headline rate of 35% to an average of 26.5% between 2008 and 2014.

    The charity said this had helped firms spend billions on an “army” of lobbyists calling for greater state support in the form of loans, bailouts and guarantees, funded by taxpayers.

    The top 50 US firms spent $2.6bn between 2008 and 2014 on lobbying the US government, Oxfam said.

    http://www.theguardian.com/world/2016/apr/14/us-corporations-14-trillion-hidden-tax-havens-oxfam
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২০:৫৮488083
  • এইতো বুঝে গেছেন।
  • দ্রি | 159.202.47.181 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২১:০৬488084
  • হ্যাঁ। তবে একটু বেশী সময় লেগে গেল।
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২১:১১488085
  • শুধু একটাই প্রবলেম। এটা দেখছি অনেকেই বুঝতে পারেন না। দেশের উপকার করার দায়িত্ব প্রাইভেট সিটিজেন বা কর্পোর্টের না - সরকারের। আর কেউ করলে সেটাকে চ্যারিটি বলে। সেইভাবেই ক্যাপিটালিজম চলে। এইটা ধরে ও মেনে নিয়ে বাকি আলোচোনা করলে সুবিধে নয়।
  • দ্রি | 159.202.47.181 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২১:১৯488086
  • কার কতটা উপকারের দায়িত্ব, সেটা ফাঁকি দেওয়া যায় না এরকম একটা ট্যাক্স সিস্টেম দিয়ে কোডিফাই করা উচিত।

    যেমন অ্যাপলের মত একটা কোম্পানীর 26.5% এর বদলে 35% ট্যাক্স দিয়ে সরকারের উপকার করা উচিত।

    সেটা যদি না হয় তাহলে সিটিজেনের সেটা নোটিস করা উচিত।

    সেটা বদলানোর উপক্রম করতে গেলে লমেকারদের ওপর অ্যাপ্‌লের লবির যে প্রেশান আসবে সেটা সামলাতে কী কী করতে হবে সেটা ভাবা উচিত।
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২১:২৩488087
  • একটা সলিউশান আছে। গুচতে এখন সলিউশন চলছে খুব। সাধারণ লোকেদের টাকা জড়ো করে (মিউচুয়াল ফান্ড টাইপের স্কিম করে) ট্যাক্স হেভেনে পাঠিয়ে দাও। দেখবেন সব লুপহোল বন্ধ হয়ে গেছে।
  • Robu | 11.39.36.78 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২১:৫২488089
  • S এর এই আইডিয়াটা ইনোভেটিভ ঃ-)
  • dc | 132.174.119.59 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২২:২১488090
  • দ্রির ট্যাক্স লুপহোল নিয়ে পোস্টগুলো কিন্তু বুঝলাম না। বহু বহু লোক আপেলের শেয়ার কেনাবেচা করে। এবার আপেল যদি দেখায় লিগালি PAT বাড়াচ্ছে, আর তার একটা উপায় হলো লিগালি ট্যাক্স কম দেওয়া, তাহলে তো আপেলের শেয়ার যারা কিনেছে তাদেরই লাভ! তাহলে আপেল কেন আগ বাড়িয়ে যতোটুকু ট্যাক্স দেওয়া দরকার তার বেশী দিতে যাবে? আইন যদি আপেলকে ট্যাক্স বাঁচানোর সুযোগ দেয় তো আপেল কেন সেটা নেবে না?

    "কিন্তু এটা ট্যাক্স ফাঁকির লুপহোল। এই লুপহোল সাধারণ মানুষ ব্যবহার করে না। "

    এটাও ঠিক বললেন না। সাধারন মানুষ ট্যাক্স বাঁচানোর জন্য লুপহোল ব্যাবহার করেনা? বলেন কি? আমার একটা বন্ধু আছে, কনসাল্টেন্সি করে বছরে পঁচিশ লাখ মতো ইনকাম করে। এবার ট্যাক্স বাঁচানোর জন্য এই ইনকামের একটা পার্সেন্ট দেখায় স্ত্রীকে প্রফেশনাল ফি হিসেবে দিয়েছে। কেন? কারন আমাদের ট্যাক্স আইনে আছে নিকটাত্মীয়কে প্রফেশনাল হিসেবে নিয়োগ করে তাকে ফি দেওয়া যায় (এই আইন চাকুরিজীবিদের জন্য না, প্রফেশনালদের জন্য)। ফলে দুজনেই ইনকাম ট্যাক্স দেয়, কিন্তু টোটাল ট্যাক্স অনেকটা কম হয়। তা সাধারন মানুষ যদি এরকম নানান লুপহোল ব্যাবহার করে তো আপেল বা অন্য কর্পোরেট করবে না কেন? বেআইনি কিছু না করলেই হলো, কিন্তু ট্যাক্স লুপহোল এক্সপ্লয়েট না করাটা কোন কাজের কথা না।
  • দ্রি | 99.234.157.254 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২২:৩৭488091
  • "এবার বোধায় ক্যামেরন ফেঁসেছে। "ক্যামেরন বেনিফিটেড ফ্রম পানামা", এরকম নানান জায়্গায় হেডিং আসছে। ভালোই, একটা একটা করে পড়লে মন্দ নয়। আইসল্যান্ড গেছে, ব্রিটেনে কি হয় দেখি।"

    আগে এই কথা বলেছিলেন।

    "আপেল কেন আগ বাড়িয়ে যতোটুকু ট্যাক্স দেওয়া দরকার তার বেশী দিতে যাবে? আইন যদি আপেলকে ট্যাক্স বাঁচানোর সুযোগ দেয় তো আপেল কেন সেটা নেবে না?"

    আর এখন এই কথা বলছেন।

    আপেল আর ক্যামেরন কেউই বেআইনি কিছু করে নি। শুধু আইনের ফাঁকের (যে ফাঁক রাখাই হয়েছে একা সিস্টেমের সুপার রিচদের সুবিধার্থে) সুযোগ নিয়েছে।

    তবে কেন ক্যামেরন ধরা পড়ায় আপনি আনন্দিত, কিন্তু আপেলকে রক্ষা করতে মরিয়া?

    বোঝার চেষ্টা করছি। এটা কি 'পলিটিশিয়ানরা খুব কোরাপ্ট, কিন্তু কর্পোরেটরা শুধু ক্যাপিট্যালিজ্‌মের পুজারী' এই মনোভাব থেকে আসছে?
  • dc | 233.187.70.87 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২২:৪৪488092
  • এই যাঃ :p
  • S | 108.127.180.11 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২২:৪৮488094
  • দ্রি বাবু গুলিয়ে ফেলছেন।

    প্রথান মন্ত্রী দেশ ও দশের ভালো করার স্বার্থ রক্ষার শপথ নেন। কোম্পানি নেয়্না।
  • দ্রি | 119.163.234.7 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২৩:১০488095
  • কিন্তু ইউজুয়ালি কোম্পানীরা এমন প্রিটেন্ড করে যেন সবার খুব ভালো করছে। চাকরীর সুযোগ করছে, কনজিউমারদের আনন্দ দিচ্ছে ... তাই যেন মাঝে মাঝে এই সিস্টেমের জয়ধ্বনি দেওয়া হয়।

    কিন্তু এই ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে যে কোম্পানী দেশের এবং দশের ক্ষতি করছে। তখন ডিফেন্স প্রস্তুত করা হচ্ছে এই বলে যে, 'আমরা তো সপথ নিই নি যে দেশ এবং দশের ভালো করব'।

    ফাইন। শুধু এইটেই বলার যে এরা ট্যাক্সপেয়ারের ক্ষতি করছে। দেশকে ট্যাক্স থেকে বঞ্চিত করছে। এর পর থেকে দে উইল বি জাজ্‌ড বায় দিস অ্যাকশান।
  • sm | 53.251.91.253 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২৩:৩১488096
  • S ,ব্যাপারটা বোঝার চেষ্টা করছি। একটা আর্টিকেল এ পড়েছিলাম,বড় বড় কোম্পানি গুলো, ট্যাক্স হ্যাভেন এ কোম্পানির মূল অফিস শো করে।এতে করে মোট নীট টাক্স খুব কম দেওয়া যায়।
    আবার ধরুন, গুগল বা স্টারবাকস ব্রিটেন এ ব্যবসা করে প্রচুর লাভ করলো; কিন্তু যেহেতু গ্লোবাল কোম্পানি; তাই ওভার অল প্রফিটের খুব কম অংশ ব্রিটেন পেল।
    মোদ্দা কথা হলো, একটি কোম্পানি কোনো একটি নির্দিষ্ট দেশে যত লাভ করবে;তার চুলচেরা হিসেব থাকে; ও আইন অনুযায়ী উক্ত দেশে ট্যাক্স দিতে বাধ্য.
  • dc | 233.187.70.87 | ১৯ এপ্রিল ২০১৬ ২৩:৫৮488097
  • নানা কোম্পানির লক্ষ কখনো দেশের ও দশের অপকার বা উপকার করা না। কোম্পানির লক্ষ প্রফিট ম্যাক্সিমাইজেশান। এটাই একটা কোম্পানির পারফরমেনস জাজ করার উপায়। প্রফিট ম্যাক্সিমাইজেশান ছাড়া আর কোন প্যারামিটার দিয়ে জাজ করতে গেলে ভুল হবে।
  • SS | 160.148.14.3 | ২০ এপ্রিল ২০১৬ ০১:০৫488098
  • কোম্পানির লক্ষ্য প্রফিট ম্যাক্সিমাইজেশন হতে পারে, কিন্তু তার কোল্যাটারাল ড্যামেজ হল দেশের বা দশের অপকার।
    আর এই কোম্পানি হেড কোয়াটার্স অন্য জাগায় সরিয়ে নিয়ে গিয়ে ট্যাক্স ফাঁকি বা ইনভার্শন এবারের ইলেকশনেও গুরূত্বপূর্ণ। ওবামা এই রকম ইনভার্শনকে আনপ্যাট্রিয়টিক ইত্যাদি বলে থাকেন। তবে ইলেকশনের পর ডেমোক্র্যাটিক প্রেসিডেন্ট আর ডেমোক্র্যাটিক সেনেট আসলে এই ইনভার্শন লুপহোল বন্ধ করা হলেও হতে পারে। রিসেন্টলি, ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট কিছু ট্যাক্স রুল চেঞ্জ করার জন্যে ফাইজার আর অ্যালার্গেন মার্জার ওয়াজ কলড অফ। ফাইজার অ্যালার্গেনের সাথে ১৬০ বিলিয়নের মার্জার করে আয়ার্ল্যান্ডে হেড কোয়ার্টার সরিয়ে নেবার তালে ছিল কিন্তু রুল চেঞ্জের জন্যে এখন মার্জার বাতিল। তাতে ৪০০ মিলিয়ন ক্ষতিপূরণ দিয়েও ইউএসেতে থাকা ফাইজারের পক্ষে লাভজনক।
  • S | 117.151.152.210 | ২০ এপ্রিল ২০১৬ ০৩:২৮488099
  • ক্যাপিটালিজমে সবথেকে বড় চালিকা শক্তি হলো ওয়েল্থ বা বাংলা ভাষায় "ট্যাকা"। আর আম্রিগা, ওয়েস্টার্ণ ইউরোপ, জাপান ইত্যাদি দেশগুলো মুলতঃ ক্যাপিটালিস্ট উইথ কম বেশি সোসালিস্ট প্রোগ্রামস। এইটা খুব ভালো করে বুঝতে হবে।

    অতেব লুপহোল থাকলে সেটাকে কোম্পানিগুলো ইউজ করবেই। কিচ্ছু বলার নেই। সমালোচোনা করতে গেলে পলিসিটার করুন।

    একটা সহজ উদাহরণ দিইঃ এসিজি। ইনফি এসিজিতে কোম্পানি চালালো - কম ট্যাক্সো দিলো। এইবারে আপনি যদি বলেন যে এসিজিতে থেকেও ইনফির বেশি ট্যাক্সো দেওয়া উচিত ছিলো, তাহলে সেটা বোকা বোকা শোনায়। এইখানে দুটো ব্যাপার আছে। এক যেটা এসেস বলেছেন যে ট্যাক্স কালেকশন কম হয়। কিন্তু তার জন্যে কি ইনফিকে দায়ী করা যায় নাকি এসিজি পলিসিটাকে। আর দুই, এই এসিজিও তৈরী করা হয়েছিলো একটা বিশেষ কারণে। দেখতে হবে এইসব লুপহোলগুলো কি এমনি এমনিই রাখা হয়েছে নাকি কোনো বিশেষ লজিকাল কারনে আছে।

    আর যে কোম্পানির যেখানে যতটুকু ট্যাক্সো দেওয়ার কথা আইন মেনে সেটুকু তারা দেয়।
আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। হাত মক্সো করতে প্রতিক্রিয়া দিন