এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • প্রাচ্য স্বৈরাচার (Oriental despotism) বিষয়ে অক্তিল বনাম মন্টেসকিউ / অ্যালেক্সান্ডার ডাও বিতর্ক

    upal mukhopadhyay লেখকের গ্রাহক হোন
    ১০ জুলাই ২০২৪ | ২৬৫ বার পঠিত | রেটিং ৪ (১ জন)
  • * কে ছিলেন মন্টেসকিউ (Montesquieu)?

    ফরাসি ওরিয়েন্টালিস্ট মন্টেসকিউ সতেরোশো আটচচল্লিশে একটা বই লিখলেন Spirit of the Laws  – আইনের মূল কথা, তাতে তিনি প্রাচ্য স্বৈরাচারের  প্রাচীন ধারণাকে স্বীকৃতি দিলেন তত্ত্বে, বললেন, ''প্রাচ্যে স্বৈরাচার হল স্বাভাবিক ব্যাপার''। তারপর থেকে এশিয়ার সমাজ নিয়ে সব ইউরোপীয় আলোচনায় এই মত গেঁড়ে বসে।

    * কে ছিলেন ডাও (Dow)?

    কর্নেল অ্যালেক্সান্ডার ডাও  ছিলেন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কর্মী। তিনি সতেরোশো বাহাত্তরে একটা বই লিখলেন হিস্ট্রি অফ হিন্দুস্থান আর তার সঙ্গে একটা নিবন্ধ প্রাচ্যের স্বৈরাচারের উৎস আর চরিত্র বিষয়ে। নিজস্ব কিছু মতামত সহ মোটের ওপর মন্টেসকিউর মতানুসারী বইটার নাম Origin and Nature of Despotism in Hindostan - প্রাচ্যে স্বৈরাচারের উৎস ও প্রকৃতি।
     
    * কে ছিলেন অক্তিল (Anquetil)?

    অক্তিল ছিলেন ফরাসি ওরিয়েন্টালিস্ট যিনি দুর্বল মোঘল শাসন কালে বেশ কিছুদিন ভারতে কাটান। তারপর সতেরোশো আটাত্তরে একটা বই লেখেন Législation Orientale প্রাচ্যের বিধি ব্যবস্থা বিষয়ে তাতে মন্টেসকিউ আর অ্যালেক্সান্ডার ডাওয়ের প্রাচ্য স্বৈরাচার বিষয়ক গেঁড়ে বসা মতের খণ্ডন হয়।

    ১) তিনি বললেন প্রাচ্য স্বৈরাচারের মূল ধারণাটা দাঁড়িয়ে আছে একটা বিভ্রান্তির ওপর। কোন আইন-কানুন ছাড়াই  রাজা বাদশাহর একার ইচ্ছেতে বা খামখেয়ালীপনায় একটা সরকার চলে না। কোন গোলমালের সময়, বিশেষ সময় এরকম দেখা যেতে পারে  কেউ আইনের তোয়াক্কা করছে না। আবার গোলমাল কেটে গেলে আবার এক ধরণের আইনের শাসনই প্রতিষ্ঠিত হয়। এই উদাহরণ শুধু  প্রাচ্যে কেন ইউরোপেও আছে। তাই খামোখা প্রাচ্যকে স্বৈরাচারের গাল পাড়া কেন বাপু।

    ২) দ্বিতীয় যে ব্যাপারটা অক্তিল জোর দিয়ে বললেন সেটা হল মন্টেসকিউ ক্ষমতার অপব্যবহারকেই ক্ষমতা ধরে বসে আছেন। তিনি ব্যতিক্রম আর নিয়মের মধ্যে তফাৎ করছেন না, ব্যতিক্রমী ক্ষমতার অপব্যবহার ইউরোপেও হয়েছে।

    এইভাবে অক্তিল প্রাচ্য স্বৈরাচারের নিশ্ছিদ্র তত্ত্বের আধারে ভারতের মোঘল শাসনকে দেখার বিরোধিতা শুরু করলেন ওরিয়েন্টালিজম বা প্রাচ্য বাদের উদ্ভবের প্রথম যুগেই (Proto Orientalism)।

    * নিজেদের মধ্যে খটামটি থাকলেও আলোচ্য তিনজনই ছিলেন কলোনির পক্ষে থাকা ওরিয়েন্টালিস্ট

    সাইদ বলছেন পাশ্চাত্য, প্রাচ্যের ওপর খবরদারি চালিয়েছে যে দৃষ্টিতে তা হল ওরিয়েন্টালিজম বা প্রাচ্যবাদ। তাঁর মতে এটা  চিন্তার ধরণ (style of thought) বা প্রতর্ক চালানোর পন্থা (mode of discourse) যা ছিল ইউরোপীয়দের প্রাচ্যকে দেখা ও দেখানোর উপায়। এভাবে ইউরোপ যতটা না প্রাচ্যকে দেখেছে তার থেকে বেশি নিজের দৃষ্টিতে সব ব্যাখ্যা করেছে। তারা নিজেদের সেরা মনে করে এসেছে আর পেছিয়ে পড়া প্রাচ্যে কলোনি বসানোর, প্রত্যক্ষ ইউরোপীয় শাসনের পক্ষে যুক্তি দিয়েছে। এই করতে গিয়েও দেখা যাচ্ছে তাদের মধ্যে এক পক্ষে হচ্ছেন অক্তিল যিনি ওরিয়েন্টালিস্ট হয়েও প্রাচ্য স্বৈরাচারের ধারণার বিরোধিতা শুরু করছেন সেই কবেই। প্রত্যক চিন্তাধারায় ফাঁক থাকে যার থেকে নতুন তত্ত্ব জন্মাতে পারে ।
     
    তথ্যসূত্রঃ  
    ORIENTAL DESPOTISM: ANQUETIL-DUPERRON'S RESPONSE TO MONTESQUIEU
    Frederick G. Whelan
    History of Political Thought, Vol. 22, No. 4 (Winter 2001), pp. 619-647 
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Jaya Choudhury | 202.8.114.150 | ১০ জুলাই ২০২৪ ২১:৪৭534483
  • এদের চিনতাম না। পড়ে জেনে ভাল লাগল।
  • Sanchari | 108.147.197.78 | ১৩ জুলাই ২০২৪ ০১:১৭534574
  • আরেকটু বিস্তারিত আলোচনা হলে ভালো হতো। 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। কল্পনাতীত প্রতিক্রিয়া দিন