এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • ইনফ্লুয়েন্সার 

    আফতাব হোসেন লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৪ এপ্রিল ২০২৪ | ১২৫ বার পঠিত | রেটিং ২ (১ জন)
  • শুরুটা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কে দিয়েই করি। উনি একদা মন্তব্য করেছিলেন - " বাঙলা দেশে জন্মিয়াছে বলিয়াই যে সে বাঙালি তা নয়, বরং সে বাঙলা ভাষা ও সংস্কৃতির মধ্য দিয়া চিত্তলোকে যাতায়াত করিতেছে বলিয়াই, তাহারা বাঙালী " ...

    বলার উদ্দেশ্য এই যে বাংলা ভাষা বাঙালি অনেকদিন আগেই উচ্ছন্নে পাঠিয়েছে এটা প্রমাণিত, বাকি যেটা রইলো তা হল বাঙালি সংস্কৃতি। এই বাঙালি সংস্কৃতি যা নিয়ে কিনা বাঙালি গর্ব করতো, যা নিয়ে বিদেশ থেকে স্বয়ং অস্কার দেবতা সাত সমুদ্র তেরো নদী পেরিয়ে এ বঙ্গে এসে নিজে ধন্য হয়েছিলেন, সেই বাঙালি কি এখন বাংলা সংস্কৃতি বাঁচিয়ে রাখতে পেরেছে ? প্রশ্ন থাকলো।

    বাঙালির কাছে এখন সংস্কৃতি মানে রিল ভিডিও। ছোট ছোট চটুল হিন্দি গানের পনেরো সেকেন্ড কিম্বা এক মিনিটের কোমর দোলানো বাঙালি এখন গ্লোবাল খুব। পাড়া কালচার আর সামাজিকতা এখন সোস্যালেই সীমাবদ্ধ। লাইক শেয়ার আর কমেন্ট রোগে আক্রান্ত আবাল বৃদ্ধ বনিতা। শুধু কি তাই ? অস্থির এই অপসংস্কৃতির দৌড়ে নেমেছে ছোটরাও। স্মার্ট ফোন ব্যবহারের কোন বয়স ভেদ না থাকায় কখনো শিশুরা নিজেই এই লাইক শেয়ার দৌড়ে শামিল তো কখনো তাদের অভিভাবকরাও রাতারাতি লাইম লাইটে আনার লোভে শিশুদের বাধ্য করছেন এই দৌড়ে নামাতে। ফল সরুপ পাড়ার মোড়ের ছেলে মেধাবী বিজ্ঞানীকে কেউ না চিনলেও মহানগরের ফুটপাতের খাবার দোকানির নাম লোকের মুখে মুখে। মা ঠাকুমারা যে মেয়েকে রান্নাঘর দেখাতে হিমসিম খেয়ে গেছেন সেই মেয়েই কোন এক ঝলমলে দিদির হেঁসেল রান্নায় রোজ লাইক কমেন্ট দেয় নিয়ম করে। কারন নাকি ওনারা ভাইরাল। বিদ্যাসাগর কে ভিদ্যাসাগর একসেন্টে উচ্চারন করা বাঙালির এখন বি টি এস এর গানের সুর মুখস্থ। মান্না দে বা শাস্ত্রীয় সংগীত এখন সেকেল খুব, উচ্চারনে অসুবিধা, বিট নাকি নেই তাই বাঙালি RAP বেছেছে সুর খুঁজতে। ভাষা অপভ্রংসে আইডিওলের নাম হয়েছে ইনফ্লুয়েন্সার। সৃজনশীলতা এখন ব্লগিং নামেই মার্কেটে হিট। যেখানে মেধার চেয়েও গালির চলন বেশি। জনপ্রিয়তার এখন নতুন নাম ভাইরাল।

    বাকি রইলো পোশাক পরিধান। ইংরেজ আর মোঘলদের কয়েকশো বছরের শাসনকালেও যে বাঙালি নারী শাড়ি ছাড়েনি সে আজ শাড়ি এলার্জির নতুন নাম দিয়েছেন কমফোর্টনেস। আর ছেলেদের ধুতি পাঞ্জাবি যদিও বা কেঁদেকেটে বিয়ের দৌলতে রয়ে সয়ে ছিল জানিনা শেরওয়ানি আর কুর্তা এর দৌলতে আর কদ্দিন টেঁকে। যেমন ভাবে চপ মুড়ি, ঘুগনি পাউরুটি, আর পান্তা আলুভাত কে মো মো, পিৎজা আর বিরিয়ানি গিলে খেয়েছে সেই অম্বল ঢাকতে শেষ পাতের লেবুর রস এখন নিজেও প্যান্টপ্রাজলের উপর নির্ভরশীল।

    এ জগতে সংস্কৃতি হলো একটি জাতির পরিচয়বাহক, যা অন্যান্য জাতি থেকে নিজেকে পৃথক করে রাখে। যদিও বিশ্বায়নের এ যুগে আইন করে বা বাধ্য করে কাউকে সংস্কৃতি বা অপ সংস্কৃতির পার্থক্য বোঝানো সম্ভব নয় তবে খারাপ কিছু হলে তার দায় বাঙালির নিজেরই নেওয়া উচিত। তাই শেষ করি নীরদ চৌধুরীর ব্যজ্ঞ দিয়ে। উনি একদা বলেছিলেন

    - বাঙালিই বাঙালির প্রতিদ্বন্দ্বী। সে সাবানের মধ্যে যেটি নিকৃষ্টতম সেটির নাম দিয়েছে ‘বাংলা সাবান’, মদের মধ্যে যেটি নিকৃষ্টতম সেটির নাম দিয়েছে ‘বাংলা মদ’, অতএব দুর্মুখেরা বলাবলি করবেই।

    এর পরেও বাঙালি যদি নববর্ষে শুভ দেখতে পায়,
    তাহলে সে বাঙালির চোখে ' ধোঁয়া ' হয়েছে ...

    তাও

    #শুভ বাংলা নববর্ষ
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। কল্পনাতীত মতামত দিন