এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • অবসাদের গল্প

    ইন্দ্রাণী লেখকের গ্রাহক হোন
    ২৬ আগস্ট ২০২৩ | ৭২৮ বার পঠিত
  • আটটি অবসাদের গল্প।
    গৌতম চক্রবর্তী
    কেতাব e
    দামঃ ২০০ টাকা

    শ্রী স্বপন পাণ্ডা ভূমিকায় যথার্থই লেখেন, "স্মৃতি চেতনা ও কল্পনার জগতের আলোছায়ায় তাঁর অতি নগণ্য ধুসর চরিত্ররা নড়াচড়া করে।"
     
    এই বইখানির প্রচ্ছদ, নাম, আটটি গল্পের শিরোনাম স্পষ্টই চেতাবনী দেয় যে পাঠক সম্ভবত এক অন্ধকার পুরীতে প্রবেশ করতে যাচ্ছে যেখানে আলো ঢোকে না, বাতাস খেলে না। বইটি শেষ করে আমারও মনে হল এতক্ষণ অন্ধকার জগতে ঘুরে বেরিয়েছি - মানুষ যেখানে তার যাবতীয় হতাশা বেদনা অবসাদ বহন করতে করতে ছায়াপিণ্ড - একের থেকে অপরকে আলাদা করা যাচ্ছে না। চরিত্রগুলি কথা বলে কম, যেটুকু কথা তাও অতি মৃদুস্বর, যেন নিজের কথা বলতে তাদের অস্বস্তি - অবসাদগ্রস্ত মানুষজন যেমন; বস্তুত যেন ইন্ফ্রারেড নাইট ভিসন মনোকিউলার চোখে লাগিয়ে চরিত্রদের দেহভঙ্গি থেকে  বুঝে নিতে হয় তাদের, পারস্পরিক সম্পর্কদের, - ঈশারাময়তা এখানে এমনই সূক্ষ্ম। কখনও মনে হয়, গোটা বইটি-ই একটি টানা গল্প যেন - তাতে ভিন্ন পর্ব শুধু - যেন কোনো পর্বের একটি চরিত্র ভিন্ন পর্বে ভিন্ন নাম নিয়েছে - হয়তো "বাবা মেয়ের দিনকালের" এর মেয়েটি বড় হয়ে "অয়ন শর্বরীর কোনো একটা দিন" এর শর্বরী, হয়তো "আবর্ত"র সীমান্ত  "রোহনের যেসব কথা কেউ কেউ জানে" র গ্রে হ্যাট হ্যাকার হয়ে গেছে, অথবা "হলুদ সমুদ্রে" পৌলমীর সঙ্গে সমুদ্রে এসেছে;  বিষাদ ও অবসাদের অনন্ত স্রোতে ভেসে যাওয়া কুটোর আলাদা করে বর্ণনের কী বা প্রয়োজন? 
     
    কখনও জীবনানন্দকে মনে পড়ে;  কখনও বিশ্বসাহিত্যের নানা লেখার ছায়াপাত ঘটে। 
    লেখকের ভাষা, ডিটেইলিং অনন্য। উদাহরণ দিঃ
    "অয়ন শর্বরীর কোনো একটা দিন" থেকে পড়ছিঃ
    "পা ফাঁক করে চেয়ারে বসে, মাথা ঝুঁকিয়ে সে মেঝের দিকে তাকায় আর এর দরুণ সে আজ প্রথমবার তাদের দেখতে পায়। একটা সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা অনুযায়ী মেঝে ও দেয়ালের সংযোগস্থল ধরে তারা তাদের তিন ভাগে বিভক্ত খুদে কালো শরীরগুলোকে ছয় পায়ের ওপর ভর দিয়ে দ্রুত লয়ে মুখে গুঁড়ো খাবার নিয়ে একটা সরলরেখা ধরে এগিয়ে চলেছে। মাথা তুলে সে একবার দেখে নেয়। শর্বরী এখন ক্যালেন্ডারের বুকে আঙুল চেপে দাঁড়িয়ে আছে। নিঃসাড়ে উঠে দাঁড়িয়ে সে বাঁ পায়ের চটি খোলে। বাঁ হাতের মোটা মোটা আঙুলগুলো চটির শরীরে সন্তর্পণে স্ট্র‌্যাপের তলা দিয়ে সেঁদিয়ে যায়। তারপর উবু হয়ে বসে আঙুলগুলো বেঁকিয়ে চুরিয়ে চপ্পলের চারপশ শক্ত করে ধরে, সে সরলরেখাটার ওপর চটির সামনের ভাগ দিয়ে চাপ দেয়।"
     
    ব্যক্তিগতভাবে, এক সাধারণ পাঠক হিসেবে এই নিকষ অন্ধকারে একটি বেদনাহত হৃদয় খুঁজে ফিরেছি - ঘা খাওয়া, রক্ত ঝরছে  অথচ জীবন দবদব করছে সেখানে -  অন্ধকারে যার আলো ছড়ানোর কথা ছিল। 
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • প্রতিভা সরকার | 2401:4900:314d:4938:0:25:f675:5d01 | ২৬ আগস্ট ২০২৩ ১২:২৮522961
  • বইটি পড়বার আগ্রহ জাগল।
  • Dipanjan Majumdar | 150.129.64.19 | ২৭ আগস্ট ২০২৩ ১৬:৪৯523003
  •  গদ্য চর্চার পরিসরে যারা নিয়মিত ও অনুরাগী তাদের স্মৃতিতে এই বইয়ের পাঠঅভিজ্ঞতা দীর্ঘতর হবে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আদরবাসামূলক মতামত দিন