এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • শুধু একটু অঙ্কের জন্য

    Atanu Roy লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৬৭৭ বার পঠিত | রেটিং ৫ (৩ জন)
  • আসলে arithmetic, অন্যান্য ম্যাথ্স থেকে কঠিন। বুদ্ধি খরচ করতে হয় অনেক বেশি। অনেক টা ধাধার মতন। অনেক শিক্ষকই এটা ভাল জানেন না। কি করে করতে হয় জানেন, কেন করতে হয় জানেন না। 
     
    আমার এ ব্যপারে খুব করুণ অভিজ্ঞতা আছে।

    ক্লাস এইটে science পাব কিনা ঠিক হত। arithmetic, algebra আর geometry মিলিয়ে। সেটা আবার গড় করা হয়, 1st, 2nd আর 3rd term মিলিয়ে। সেটা St Lawrence স্কুলের  আরেকটা অঙ্ক।

    যাই হোক, আমি 1st term e arithmetic e 40 out of 100 পেলাম। অন্য গুলো আর কিছু বেশি।
     
    বাবা arithmetic এর একজন গৃহশিক্ষক ঠিক করলেন। প্রতি রবিবার তিনি আমার সকালে তিনটি ঘন্টা নস্ট করতেন। সব অঙ্ক উত্তর দেখে, back calculate করে বার করতেন। "why" জিগ্গেস করলে কোনো উত্তর দিতেন না, গম্ভীর মুখে চা খেতেন। 

    বাবা কে বলে কোন লাভ হল না। উনি হয়ত ভাবলেন, আমি আমার রবিবারের রাস্তা ক্রিকেট খেলার জন্য এসব বলছি।

    যাই হোক 2nd term এ শোচনীয়  ফল হল। আমি একশ তে দশ পেলাম। তবে, সেই back compute করা শিক্ষকের হাত থেকে আমি মুক্তি পেলাম। 

    সেই আমার জীবনে প্রথম এবং শেষ গৃহ শিক্ষক।
    জেদ চেপে গেল। যা পারি নিজে নিজে চেষ্টা করলাম। annual exam e Arithmatic  65+ পেলাম, Geometry, Algebra 70+. 

    কিন্তু সেই দশ গড় নম্বর, টেনে নামিয়ে দিল। Jesuit father ডেকে বললেন, তুমি 1% average  qualifying থেকে কম, Science দেওয়া যাবে না।

     আমি সাধারণত কিছু পাওয়ার জন্যে কাউকে অনুনয় করিনা। খালি explain করলাম কেন হঠাত্ দশ পেয়ে গেলাম।
     
     "একটা নম্বর দিয়ে আপনারা এক্জন 14 বছরের ছাত্র র ভবিষ্যত বদলে দিলেন। এটা ভুল, আমি additional subject Maths নিয়ে দেখিয়ে দেব, আপনাদের কঠিন নিয়ম কতটা ভুল।  সারাদিন যিশু যিশু করছেন, বাস্তবে তার প্রতিফলন নেই। ক্ষমা ব্যাপার টা একদম জানেন না।"
    কোন লাভ হলনা। উপরন্ত বাবাকে warning চিঠি দেওয়া হল।

    স্কুলের ঐ কঠিন নিয়মের প্রতিবাদে, অনেকেই St Lawrence ছেড়ে সাউথ পয়েন্ট,  বিজ্ঞান বিভাগে চলে গেল। আমি থেকে গেলাম,স্কুল কর্তৃপক্ষকে ভুল ধরাবার জন্যে।

    তারপর থেকে অঙ্ক আমার ভালবাসা। HS 1972 batch এ আমি class না করে, 3 নম্বরের,জন্য commerce  rank miss করি। তখন একটা rank একাধিক কেউ পেলে, পরের rank blank out হয়ে যেত। এখন অন্য হিসেব। দুজন 8th হয়েছিল, 9th কেউ না, আমি 11nth, on record just nothing, জাস্ট জিরো।

    Maths additional থেকে shorthand type নম্বর পাওয়া সোজা, যদিও সেখানেও নম্বর যোগ করার হিসেব অন্য রকম। 

    আমাকে শিক্ষক রা অনুরোধ করেছিলেন।  তাদের
    যুক্তিতে টেস্ট পরীক্ষার নম্বর, বেশ ভাল ছিল। additional subject বদলালে rank পেয়ে যাব। সেই অনুরোধে শুনিনি। আমার জেদ, St Lawrence কে দেখাতে হবে, তারা যেন একটু নমনীয় হয়, বাস্তবে নেমে আসে। যদিও আমি St Lawrence থেকে ইতিমধ্যে বহিষ্কৃত, উগ্র ছাত্র আন্দলনে যোগ দেওয়ার জন্য। 
     
    আমি সাউথ পয়েন্ট থেকে HS test আর Final পরীক্ষা দিলাম। Special Branch,  custody release দিয়েছিল with order as "out of West Bengal ". স্কুলে ক্লাস  করার অনুমতি দিল না। কলকাতা থেকে অনেক দূরে বসে, নিজে যত খানি পেরেছি, পড়েছি, শিখেছি।
     
     আমি অঙ্ক ছাড়িনি, অঙ্ক আমাকে ছাড়েনি। CA, ICWA , পাস  করেছিলাম, সেরকম  আর কিছুই করার ছিল না বলে। সেখানে অঙ্কের কিছু পেপার ছিল।

    নিজের হাতে দুই ছেলেকে অঙ্ক শিখিয়েছি, তার সঙ্গে তাদের ক্লাসের  সহপাঠী দের।

    এখনও দুটি রোজগার করছি, এই অঙ্কের দৌলতে। 
     
    প্রথম চাকরি Dunlops, computer division e as system analyst programmer. তার পর নিজের startup, কলকাতা দিয়ে শুরু, তারপর এদিক সেদিক ছড়িয়ে পড়া, গত 20 বছর সিঙ্গাপুরে পরিবার নিয়ে বসবাস করছি।

    Dunlops এবং পরবর্তিকাল মেধাবি ছেলে মেয়েদের সঙ্গে কাজ করে বুঝতে পেরেছি, একটা নম্বর কখনো, ভবিষ্যতের নির্ধারক হতে পারেনা।
     
     অনেকের যোগ্যতা আছে, সুযোগের অভাবে নষ্ট হয়।
    ভাল লাগে যখন শুনি, এখন বিষয় বস্তু, নামী university তে main subject হিসেবে নানারকম মিলিয়ে নেওয়া যায়, যেমন history, philosophy and computer science. 
    আশা করি আমাদের দেশে এটা তাড়তাড়ি শুরু হবে। নাহলে কত স্বপ্নভঙ্গ আরও দেখতে হবে, কে জানে।

    পুনশ্চ: একটু মন খুলে নিজের কথা বললাম, কখনো, এতটা নিজেকে খুলে ধরি নি। কোথাও যদি আত্মগরিমা থাকে, নিজ গুনে ক্ষমা করে দেবেন।

    সেদিন এক অফিস আড্ডাতে একজনের কথা খুব মনে দাগ কেটেছিল "Please..please  don't pour any more drinks, all my secrets will come out"
    তারপর সে মন খুলে তার অনেক কথা বলেছিল ।
     
    তার দিদিমার কথা,  যিনি সুদূর চীন দেশ থেকে তাকে যখন তখন ফোন করে, রোজ করে, web meeting চলছে, তার মধ্যে। উনি কিন্তু ফোন কেটে দেন না। 
     
    সিঙ্গাপুর বিশ্বাস করে, পরিবার সবার আগে। অন্যের এটা জানা। "তুমি কথা বলে নাও, আমরা কফি খেয়ে আসছি"।
     
    গল্প করল ওর "বিপ্লবী" ভাইয়ের কথা, যার প্রিয় বই, দ্রবের 
    "বিপ্লবের মধ্যে বিপ্লব"। university পাস করে যে গ্রাম ছাড়েনি। ইতিমধ্যে জমি আন্দলন করতে  গিয়ে  2 বছরের জেল খেটেছে। 
     
    তারপর মন খুলে বলল, ওর অগণিত পুরুষ বন্ধু র কথা, যাদের কাউকে তার মনে ধরেনি, সে একাই রয়ে গেছে।

    আমি আজ দু কাপ কফি খেয়ে নিজেকে উজাড় করে দিলাম। 

    আশা করি শুধুমাত্র একটা পরীক্ষার ফল, জীবনের দিক নির্ণয় করে দেবে না। একাধিক সুযোগ আসবে, জীবন পরিপূর্ণতা পাবে। 

    এই আশা নিয়ে লেখাটা শেষ করলাম। 
     
    কৃতজ্ঞতা স্বীকার: 

    1) আমার বাবা, মা, যারা সবসময় আমার পাশে থেকেছেন
     
    2) শ্রদ্ধেয় সুনীল বসু, যার আন্তরিক  প্রচেষ্টায় আমি  সাউথপয়েন্ট স্কুলের টেস্টে বসতে পেরেছি, আর HS পরীক্ষার সুযোগ পেয়েছি

    3)  সাউথপয়েন্ট প্রাক্তনী কল্লোল দাশগুপ্ত,  যার সাহায্য স্বীকার করতেই হবে
     
    4) শ্রদ্ধেয় সাউথপয়েন্ট স্কুলের অধ্যক্ষ সতীকান্ত গুহ, যিনি আমার রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কে অবগত ছিলেন, কিন্তু  মানবিক কারণে স্কুলে যুক্ত করেছেন।
     
    5) Golden Reunion SPHS 1972 whats up গ্রুপ, আমার প্রতিদিনের চলার পথে,  সাথী।

     

     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • যোষিতা | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:০৪512019
  • খুব সুন্দর লিখেছেন।
    তবে অনেক অনেক আগে শুনেছি আমাদের দেশেও ওরকম কম্বিনেশন নেওয়া যেত। আমার দিদিমার জেঠামশাই স্নাতকস্তরে হিস্ট্রি, কেমিস্ট্রি এইরকমের কম্বিনেশন নিয়ে কোলকাতায় পড়াশুনো করেছিলেন এবং পরবর্তীতে ওকালতি পাশ করে হাওড়া কোর্টের দুঁদে ক্রিমিনাল লইয়ার বনে যান।
    আমার ব্যক্তিগত মতামত হচ্ছে যে অঙ্কে প্রচণ্ড কাঁচা হয়েও চমৎকার পড়াশুনো করা যায়, জীবনে সফল হওয়া যায়, ভালো মানুষ হওয়া যায়।
  • Atanu Roy | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:৫৮512025
  • @ধন্যবাদ, ভাল থাকবেন
  • উজ্জ্বল | 2405:201:800b:5165:f8fe:ae8f:a4c9:e6cb | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:৩২512051
  • তোর লেখা পড়ে সেইসব দিনে ফিরে গেলাম আর এই বুড়ো বয়েসে পেট গুড়গুড় করতে শুরু করল।
     
  • Ranjan Roy | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:৫৫512103
  • আরে : আপনি কোন ব্যাচের HS? এ নিয়ম তো আমাদের সময়ে ছিল। আমি 1967।
    আমি এইট এ  ARITHMETIC এ ভুগছি দেখে কাকু গরমের ছুটিতে দুপুরে ছবি এঁকে ক্ষেত্রফলের সমস্যা,  মানে মাঠের চারদিকে বাঁধানো রাস্তা, bodmas রুল, ভালো করে বোঝালো । মিশনের হস্টেল এ  একজন শেখালেন জ্যামিতিক এক্সট্রা,  সেই external এবং internal angle নিয়ে যেসব। 
    Science পেলাম।  কিন্তু নিলাম আর্টস,  সঙ্গে elective maths। উদ্দেশ্য economics পড়া,  নইলে জীবন বৃথা। 
    ক্লাস eleven এ hunger strike করায় তাড়িয়ে দিল। 
    Naktala school থেকে  HS পাশ করে Economics নিয়ে ভর্তি হলাম । কিন্তু বিধি বাম। 
    Chhattisgarh এ গিয়ে পড়া শেষ করে ব্যাংকে চাকরি পেলাম। ওখানে তখন BA with higher maths আমি একা।  ফল  maths নিজে কর।  সে पार्टिकल dynamics হোক বা differential equation। ফল হল average। 
    কিন্তু MAতে Mathematical Economics এবং statistics নেওয়ায় প্রথম বছর merit list এ নাম এল। পরের বছর প্রেমে ব্যর্থ হয়ে অল্পের জন্যে মিস করলাম। 
    আসলে Co ed  এ পড়ার পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিল না। 
    ধাক্কা টা বেশি লেগেছিল। 
    ব্যাংক এ চাকরি,  CAIIB পাশ করা সব অঙ্কের জোরে। 
    আজও বাচ্চাদের trigonometry বা প্রাথমিক স্তরের calculus পড়াতে  ভালো লাগে। 
    নমস্কার। 
  • Atanu Roy | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:৪৪512111
  • @ Ranjan Roy 
    আমি 1972 ব্যাচ HS. আপনার সঙ্গে অনেক মিল দেখতে পারছি। আপনার সৌভাগ্য, কিছু মানুষ আপনাকে সাহায্য করেছে, আমার সেটা হয়ে ওঠেনি।
     
     তা ছাড়া, তত্কালীন শিক্ষা
     ব্যবস্থার ওপর আমার কোন ভরসা ছিলনা। 
    আমার বিশ্বাস হয়েছিল, যে যত পরবে, সে ততো মূর্খ হবে।
    ওটা আংশিক সত্য, একটা রোমান্টিক ভাবনার প্রতিফলন।
     
    ভাল থাকবেন।
  • Ranjan Roy | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:৫৮512120
  • Atanu
    তখন আমিও তাই ভাবতাম।  সেই romantic চিন্তা!
    তাই স্নাতক হলাম 25 বছরে। :)))
     
  • aranya | 2601:84:4600:5410:a8ef:829d:b485:25b6 | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:৫৯512122
  • ভাল লাগল 
  • প্রদোষ মাণিক্য সেন | 115.96.146.219 | ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২২:৩৯512169
  • সত্য বটে , শুধু মাত্র পরীক্ষার ফলের মানদণ্ডে যেমন জীবনের 
    ভলমন্দ  নির্ণীত হয় না,ঠিক তেমনি , যাঁরা এই পরীক্ষায় ছাত্রদের guide ক'রে থাকেন - ভালো বা মন্দ নির্বিশেষে - 
    তাঁরাও সেই গুনে মহীয়ান (বা গুনবান)বা দোষে দুষ্ট নহেন !
    Success বা failure একান্তই ছাত্র/ছাত্রীর  নিজেদের চেষ্টা এবং brillianceএর ওপর একান্তই নির্ভরশীল ! 
    তাই , ফলও তদ্রূপ ই হবে ! 
     
  • Atanu Roy | ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:০৭512173
  • @ প্রদোষ দা, আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভেবেচিন্তে মতামত দিন