• মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • সৌমিত্র বসু | 2403:8600:c10:529a:99a9:7efa:2040:56c5 | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৪:২৭732606
  • মার্ক্সের সময়ে বসে প্রযুক্তি বনাম শ্রম বা শ্রম-শক্তির নজর টাই প্রধান হিসেবে সামনে হাজির হওয়ার বেশি এগোনো একটু দুরূহ।  শ্রম সম্মন্ধে মার্কস বলেছেন সামাজিক প্রয়োজনে শ্রমশক্তি যা বাজারে বিক্রিযোগ্য , তবেই তা পুঁজি হয় এবং তখনি তা উৎপাদন-বিতরণ-কংসাম্পশন এর চক্রে প্রবেশ করে আর মূল্য উৎপন্ন করে।  তিনি grundrisse  তে দেখিয়েছেন কি করে অ্যাবসলিউট শ্রম-সময় নিজেই এক দৃষ্টি তে আপেক্ষিক আর কি ভাবে আপেক্ষিক শ্রমসময় নিজেই অ্যাবসলিউট হিসেবে প্রতিপন্ন হয়, . কিন্তু প্রযুক্তি উন্নয়নে শ্রম-শক্তি নিয়োজনের কথা বোঝাতে গিয়ে যা লিখেছেন তাতে কিছুতেই এরকম ঠাহর হয় না যে শ্রম বা শ্রম-শক্তির প্রয়োজন নেই , [ডেভিড হার্ভে সাহেবের ১২ টি বক্তৃতা শুনে নেওয়া কাজে দেয়] শ্রম-শক্তির  সেখানে এক আপেক্ষিক গুরুত্ব বাড়ে  , আর এই বৃদ্ধির পরিমাপে মজুরির দাবি  তাই সমাজে শ্রমিকের আপেক্ষিক মূল্য এবং সম্মানের পরিমাপ।  এক সময়ে পুঁজি মজুরি নির্ধারণ করতো এই নিরিখে  যে পরের দিন যেন শ্রমিক ফিরে এসে কাজে যোগ দিতে পারে, মার্কস এই প্রসঙ্গে শ্রমিকের সামগ্রিক মানবিক এবং সামাজিক চাহিদা কে চিহ্নিত করেছেন এবং উল্লেখ করে দেখিয়েছেন যে উন্নত সমাজে শ্রমিক ক্রমশ সামাজিক গুরুত্বহীন হয়ে পড়লে উৎপাদন বা উৎপাদনশীলতা ক্ষুন্ন , রুদ্ধ হয় এবং সমাজ শুকিয়ে মরে বা মরবে।  সমাজ প্রযুক্তির দ্বারা উন্নত হলে তার সামগ্রিক সামূহিক এবং সার্বিক উন্নতির প্রয়োজন হয়।  এই বিষয় টি কে মার্কস grundrisse  তে "টোটালিটি আখ্যা দিয়েছিলেন [ উফফ মার্ক্সের জর্মন আর অনুবাদক এর ইঞ্জিরি তে ফারাক টা এতই প্রকট কে দিন কে রাত করতে বাকি রেখেছে] . সুতরাং বুঝতে হবে যে উৎপাদনশীলতার বৃদ্ধিতে যদি মজুরি একই রাখা হয় তাহলে সমাজে সেই মজুরির "প্রকৃত" পরিমান বা রিয়েল wage  আপেক্ষিক ভাবে কমে যায় , তাই মজুরি কে বাড়াতেই হবে , কারণ প্রযুক্তির উন্নতি তে যদি প্রোডাক্ট বা উৎপাদিত দ্রব্য বা পরিষেবার দাম কমে তাহলে কিন্তু গ্রাহক বা ভোক্তার সংখ্যাভিত্তি বাড়ে এবং এই বৃদ্ধি দাম কমানোর সঙ্গে রৈখিক সমানুপাতিক নয়, অনেক বেশি।  আর ভিত্তির এই exponential বৃদ্ধি সামগ্রিক পুঁজি র পরিমান বা ভলিউমের ও এক্সপোনেনশিয়াল বৃদ্ধি ঘটায় , আর এখানেই আছে মজুরি বৃদ্ধির যৌক্তিকতা এবং যথার্থতা , . মজুরি বৃদ্ধির প্রশ্নাতীত যৌক্তিকতার পাশাপাশি শ্রমেরকোয়ালিটি বা মূল্য আজকের যুগে খুব জরুরি , শুধুই শ্রমের শারীরিক বা জৈবিক শক্তি নয় [কারণ অশৈল  শ্রম-শক্তি নয়] বরং সামগ্রিক লেবার-কোয়ালিটি-পাওয়ার বা শ্রমের গুণগত-শক্তির ইঙ্গিত তিনি করেছিলেন , সেখানেই শ্রমিকের সামাজিক প্রয়োজনীয় শিক্ষা এবং প্রশিক্ষা র প্রশ্ন সামনে এসে হাজির হয়।  এই প্রসঙ্গ কে বিস্তারিত করতে গিয়েই শ্রমিকের সার্বিক বিকাশের কথা মার্কস grundrisse  তে উত্থাপন  করেছেন। grundrisse  তাই কোয়ালিটি-লেবার-পাওয়ার এর উদযাপন বা সেলেব্রেশন।    

  • রঞ্জন | 122.162.96.204 | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৪২732611
  • @সৌমিত্র বসু,

      চমৎকার সংযোজন ও আলোচনা। এই জায়গাটা থেকে কি নিও-লিবেরালদের "মার্জিনালিস্ট অ্যাপ্রোচের" ---- অর্থাৎ শ্রম, পুঁজি সবাইকে সমগ্র উৎপাদনে তাদের মার্জিনাল কন্ট্রিবিউশনের হিসেবে মূল্য দিলে তা ন্যায্য হবে--  ক্রিটিক দাঁড় করানো যায় ?

  • | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২২:৪৬732613
  • ৪ ঘন্টা হাহ!
    wfh এর ঠ্যালায় ১১-১২ তো যাকে বলে নিউ নর্মাল।
  • কল্লোল | 110.225.19.46 | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:১৩732813
  • দ - নিউ নর্মাল ???? তুই বলহিস এ কথা ??? আইটিতে এটাই তো বহু বহু ওল্ড নর্মাল। 

আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। চটপট মতামত দিন