এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • টইপত্তর  আলোচনা   সমাজ

  • বিশ্বমানব বাঙালী(!!!)

    দীপ
    আলোচনা | সমাজ | ১৮ মে ২০২৪ | ৩৪৪ বার পঠিত
  • বাঙালী বিরাট আঁতেল। সে সারা পৃথিবীর বিষয় নিয়ে চিন্তিত। মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ, মধ্যপ্রাচ্য, লাতিন আমেরিকা নিয়ে সে জ্বালাময়ী ভাষণ দেয় অথবা প্রবন্ধ লেখে। তাই তার নিজের অবস্থার কথা তার মনে থাকেনা।
    তার দেশভাগ হয়, তাকে ছিন্নমূল হয়ে পশ্চিমবঙ্গে আসতে হয়। এনিয়ে অবশ্য সে কিছু বলেনা। বরং এনিয়ে কেউ তথ্যনিষ্ঠ আলোচনা করলে তাকে হিন্দুত্ববাদী, সাম্প্রদায়িক বলে গাল পাড়ে!
    এক‌ইভাবে গোর্খারা দার্জিলিং অঞ্চল দখল করে পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবি জানায়, বাঙালি নির্বিকার থাকে।
    জনৈক ধর্মোন্মাদ ভিন্নধর্মীর মাথা কেটে ফেলার হুমকি দেয়, কাউকে গাছে বেঁধে পেটাতে চায়! বাঙালির গলা দিয়ে কোনো আওয়াজ বের হয়না! কেউ আবার একে সাব‌অল্টার্ন রাজনীতি বলে চালাতে চায়!
    খোদ কলকাতায় ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে নোটিশ দেওয়া হয়, স্কুলে বাংলাভাষায় কথা বলা যাবেনা, বললে ফাইন হবে। শিক্ষিত মধ্যবিত্ত বাঙালি চুপ করে বসে থাকে। (ব্যতিক্রম অবশ্য‌ই আছে, তাঁরা নিশ্চিতভাবেই শ্রদ্ধেয়।) বরং অনেক অভিভাবক মিষ্টি হেসে বলেন, আজকের দিনে ইংরেজি না শিখলে তো চলেনা! ইংরেজির গুরুত্ব কেউ অস্বীকার করেনি, কিন্তু তারজন্য মাতৃভাষার অসম্মান কেন হবে? এনিয়ে অবশ্য কেউ কোনো কথা বলেনা! মহারাষ্ট্র বা তামিলনাড়ুর কোনো স্কুলে এইরকম নোটিশ পড়লে পরেরদিন সেই স্কুলে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হতো!
    আসলে বাঙালি বিশ্বমানব হতে চেয়েছে। সেটা দোষের কিছু নয়, তবে নিজের দেশের ও সমাজের সভ্যতাকে অস্বীকার করে করতে গেলে খুবই বিপজ্জনক হয়ে ওঠে! রবীন্দ্রনাথ, বিবেকানন্দ নিজের দেশের সভ্যতা, সংস্কৃতির উপর ভিত্তি করেই আন্তর্জাতিক স্তরে প্রকাশিত হয়েছেন, প্রাচ্য ও পাশ্চাত্য সভ্যতার মহৎ চিন্তারাশিকে আত্মস্থ করেছেন! আর তথাকথিত শিক্ষিত বাঙালি সমাজ নিজেদের সমাজ-সংস্কৃতিকে অস্বীকার করে বিশ্বমানব হতে গেছেন! স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের অবস্থা ময়ূরপুচ্ছধারী বায়স অপেক্ষা বিশেষ ভালো নয়!
    এঁদের মধ্যে এখন অনেকে আবার একটি চূড়ান্ত দুর্নীতিগ্রস্ত দলের শরণ নিয়েছেন, অথবা প্রাণপণে ভিরাট হিন্দু হবার চেষ্টা করছেন! তবে কোনোটাতেই বিশেষ লাভ হবে বলে মনে হয় না!
    নিজের সভ্যতা, সমাজকে অস্বীকার করে বিশ্বমানব সাজতে গেলে চতুর্দিক থেকে মার‌ই জোটে! এটাই সেই জাতির ভবিতব্য!
    বাঙালীর এখন সেই দশাই চলছে! নিজে না জাগলে এই বিপদ থেকে ঠেকায় কে?
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • kk | 172.56.32.178 | ১৮ মে ২০২৪ ১৮:১৫742990
  • দীপ,
    আমাকে এই লেখা পড়ে মন্তব্য করতে বলেছেন, তাই লিখছি -- এতে আপনি আপনার যেমন মনে হয় তা লিখেছেন। এবার সেটা হয়তো সবার সাথে না মিলতেও পারে। তবে সে ঠিক আছে। সবার মত এক হতে হবে তেমনও না। এই লেখাতে আপত্তি করার মত আমার কিছু মনে হয়নি। যতক্ষণ না কেউ কারুর ওপর কিছু চাপিয়ে দিতে চাইছেন, ততক্ষণ তাঁর মত, অমত, বিশ্বাস, ও পার্স্পেক্টিভে আমি আপত্তির কিছু খুঁজে পাইনা (যদি কারুর স্প্যাম বা ট্রোল করার ইচ্ছে থাকে তাহলে সেটা আলাদা কথা)। অবশ্য আমি কোনো কেষ্ট-বিষ্টু নই, কাজেই আমার মনে হওয়া দিয়ে দুনিয়া চলেনা। এমনিতে আপনার অন্যান্য লেখার মতই এই লেখাটাও আমার কিছুটা তিক্ত ও রুড ভাবে বলা হয়েছে মনে হয়েছে। তবে সেটা আপনার স্টাইল হয়ে থাকতে পারে। কাজেই আবারও, সে নিয়ে আমার কোনো আপত্তি নেই। সৎ ওপিনিয়ন চেয়েছিলেন, তাই যা মনে হয়েছে তাইই লিখলাম। নমস্কার নেবেন। ভালো থাকবেন।
  • দীপ | 2402:3a80:198b:d67c:678:5634:1232:5476 | ১৮ মে ২০২৪ ১৮:১৮742991
  • এই লেখাটা মুছে দেওয়া হয়েছিল। 
    যাঁরা গণতন্ত্র ও ব্যক্তিস্বাধীনতা নিয়ে কথা বলেন, তাঁরাই মুছে দিয়েছিলেন। 
  • dc | 2402:e280:2141:1e8:7858:ea03:9b0d:73ca | ১৮ মে ২০২৪ ১৯:২৭742992
  • এই লেখাটা কি ডিলিট বা হাইড করা হয়েছিল? এটা দীপের নিজের লেখা হলে আর বারবার এই একটাই পোস্ট নানান টইতে করে স্প্যাম না করে থাকলে তো ডিলিট করার কথা না! (দীপ বেশীর ভাগ সময়ে এই দুটোই করে বলে বললাম) 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। সুচিন্তিত প্রতিক্রিয়া দিন