এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • খেলার মইধ্যে খেলা

    রোমেল রহমান লেখকের গ্রাহক হোন
    ২৩ এপ্রিল ২০২৪ | ১৭২ বার পঠিত | রেটিং ৫ (৩ জন)
  • বৈশাখ মাসে তাপমাত্রা ৪৩ ডিগ্রিতে ওঠার পর আওলাদ তার স্ত্রী আদিনাকে ডেকে বলে, আমি যাইতেছি! দোয়া রাইখো! তীব্র দাবদাহে অতিষ্ঠ আদিনা স্বামীর তাংফাং কথায় বলে ওঠে, আচ্ছা! তার কিছুক্ষণের মধ্যে দেখা যায় আওলাদ লুঙ্গিতে কাছা দিয়ে পুকুরের দিকে নেমে যায়! ঘন্টাখানেক পর আদিনা যখন পুকুর পাড়ে এসে জিজ্ঞাস করে আপ্নে পানির থ্যে উঠেন না ক্যান? আওলাদ বলে, আল্লাহ উপ্রে গোস্বা কইরা পানিতে নামছি! বৃষ্টি শুরু না হওয়ার আগে উঠবো না! তুমি বাড়িঘর দেইখা রাইখো! আদিনা আওলাদের এই জাতীয় কারবারে অভ্যস্ত হওয়ায় পাত্তা দেয় না। কিন্তু বিকেল বেলা দলে দলে লোকেরা এসে দেখতে থাকে! আর তারা বিচিত্র বুদ্ধি পরামর্শ দিতে থাকে আওলাদকে! কিন্তু কেউ তাকে জল থেকে ডাঙায় উঠতে বলে না! কয়েকজন কিশোর ফেসবুক লাইভ করে ব্যাপাটাকে ভাইরাল করার চেষ্টা করে! কন্টেন্ট বানায়ে কেউ কেউ তাদের চ্যানেলে দিতে থাকে! আওয়াল খিস্তি করে তাদের বিদায় করে!

    আরেকদল মাঝবয়েসীরা বলে, ফিলিস্তিনের মানষের জন্য দোয়া কইরো! আল্লা য্যান ইজ্রাইলের গোয়া মাইরা দেয় ইরানরে দিয়া! আওলাদ বিরক্ত হয়ে বলে, আপনেরা বিদায় হন! আমি ফিলিস্তিন ইজ্রাইল আম্রিকা ইউক্রেন নিয়া বসি নাই! আমি বসছি বৃষ্টির ফিকিরে! যতক্ষণ বৃষ্টি নাই ততক্ষণ আমি ডাঙ্গায় নাই! আমার দ্যাশের উপ্রে ক্যান এমন দোজখের রোইদ দিলো মাবুদ সেইটা আমার খেলা! তখন তারা বলে, তোমার মাথা গ্যাছে! তুমি তারছিড়া হয়্যা গেছো! আওলাদ ক্ষেপে গিয়ে বলে, এহন আমার জলবাস নাইলে ডাঙ্গায় উইঠা ঘেটি ধইরা আপনেগোরে বিদায় দিতাম! লোকেরা উঠে যেতে যেতে বলে, আল্লাহর সাথে মশকরা?  মুরতাদি ফালাও? গজবে গুষ্টি শুদ্ধা গায়েব হয়্যা যাবা! আওলাদের খুব বিরক্ত লাগে তার ব্যক্তিগত হিসাবের মধ্যে এইসব লোকেদের লাফায় পড়ায়! আওলাদ বলে, ভাই মন মেজাজ ভালো নাই! আপনেরা বিদায় হন! অন্তরে দুঃখ দিয়া থাকলে মাফ কইরা দিয়েন! খামাখা আরেকজনের ক্ষেতে আইসা শাক বাছেন ক্যান? তারা যেতে যেতে বলে, এলাকার মইধ্যে বইস্যা ঘেন্টি পাকাবা আর আমরা খোজ খবর নিবো না তাতো হয়না! সেদিন রাতে একটা হারিকেন জ্বেলে আর এক থাল ভাত রেখে যায় আদিনা! আওলাদ রাগে দুঃখে ভাত স্পর্শ করে না! ভোরে দেখা যায় আদিনা পুকুরে নামছে। আওলাদ বলে, কি ব্যাপার?  আদিনা বলে, আপনারে নিতে আসছি, চলেন! ঠান্ডা লাগায়া মরবেন! আওলাদ বলে, উহু! আমারে আমার খেলা খেলতে দাও গো বউ! মরা সবারই আছে! আদিনা বলে, আপনে কার উপ্রে কিসের রাগ দেখাইতেছেন? আওলাদ উত্তর দেয় না! বরং সেদিন থেকে তার অনুভব হতে থাকে নিজেকে একটা জলহস্তী!  সেদিন থেকে সে লম্বা নিশ্বাস নিয়ে জলে ডুব দিয়ে থাকার প্রাক্টিস করতে থাকে!  এবং সে ফিল করে ডুব দিয়ে লম্বা সময় থাকতে পারছে! কিন্তু পরদিন তার মনে হয় নিজেকে একটা কুমির! শুধুমাত্র একটা লম্বা লেজের অভাব! সেদিন রাত থেকে সে আবিস্কার করে তার ক্ষুধা পাচ্ছে এবং সে ছোট ছোট মাছ খেতে শুরু করে!  

    পরদিন ভোররাতে কালবৈশাখী হয়! চারদিক তোলপাড় করে ভিজিয়ে ঠান্ডা করে যায়! ভোরে বৃষ্টি ঝড় থামার পর আদিনা পুকুর পাড়ে এসে দেখে পুকুরে পানি নাই! ঝড়ে পুকুরের সব জল উড়ায়ে নিয়ে গেছে! ফলে তীব্র উদ্বেগ নিয়ে আদিনা তার স্বামীকে খুঁজতে লাগে! একদল জেলে বলে নদীতে একটা জলমানুষ দেখছে তারা! ফলে জলপুলিশ ফায়ারব্রিগেট মিলে নদীতে খোজাখুজি চলে। সন্ধ্যায় উদ্ধার অভিযান বন্ধ করা হলে, চোখ মুছতে মুছতে আদিনা যখন বাড়ি ফেরে, তখন উঠানের উপর আকশের চক্কর খেতে থাকা একটা ফটিক পাখি আদিনার মাথা ছুঁয়ে যায় কয়েকবার!  আদিনা উপরে তাকাতেই পাখিটা বলে, আর ফেরা হইলো না রে বউ! ফটিক পাখি হয়্যা গেছি এহন আমি! মেঘের জল ছাড়া তিয়াস মেটে না! জমিনে নামলেই ফুটুস! কালবৈশাখী এমন উপ্রে নিয়া তুল্লো যে শইলডা বাঁচতে ফটিক পাখির আকার নিলো! তুই বাড়িঘর দেইখা রাখিস!  মন চাইলে পাখি হইস! কিংবা মন যা চায় তাই হইস। আদিনার চোখে মায়ার কাজল ভর করে সন্ধার অন্ধকারে! 
    -*-

    ২০ এপ্রিল ২৪
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • অরিন | 119.224.61.73 | ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ০২:৩৪530904
  • মর্মস্পর্শী গল্প। 
    গল্প না বলে আখ্যান বলাই ভাল।
    প্রতিটি যুদ্ধ বিশ্বে কতটা উষ্ণায়ণ বাড়িয়ে দিচ্ছে ভাবলে রীতিমতন ভয় লাগে, কিন্তু হিসেব করা যাবে না, কারণ তার কোন তথ্য আপনি যুদ্ধবাজ দেশগুলোর কাছ থেকে পাবেন না। 
  • &/ | 151.141.85.8 | ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৬:৪৩530906
  • একটা সুপ্রাচীন উপকথা আছে 'নইদার চান কুমীর হইয়া যায় রে কুমীর হইয়া যায়।' নইদার চান (নদেরচাঁদ) নামে এক লোক মন্ত্রবলে কুমীর হত আবার মন্ত্রপড়া জল গায়ে দিলেই মানুষরূপ পেত। স্ত্রীকে এই ম্যাজিকটা দেখাতে গিয়ে গন্ডগোল হল, ভয়ে স্ত্রী আর কুমীরের গায়ে জল দিতে পারল না। নইদার চান কুমীর হয়ে নদীতে চলে গেল।
    মনে পড়ে গেল সেই অতিপুরাতনকালের ট্রাজিক কাহিনিটা। হয়তো সেটাও ছিল সিম্বলিক।
  • aranya | 2601:84:4600:5410:9d29:ffc7:adee:1960 | ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৭:০৯530909
  • ভাল লাগল 
  • kk | 172.58.190.241 | ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ২০:৩৪530941
  • খুব ভালো লাগলো এই লেখাটা।
  • বিপ্লব রহমান | ৩০ এপ্রিল ২০২৪ ২২:১৯531257
  • "লোকেরা উঠে যেতে যেতে বলে, আল্লাহর সাথে মশকরা?  মুরতাদি ফালাও? গজবে গুষ্টি শুদ্ধা গায়েব হয়্যা যাবা!"
     
    এই লোকেরা সবখানেই আছে! 
     
    রীতিমতো তেলেসমতি ল্যাখা! কীযেএক্টাবস্থা!! :)
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। সুচিন্তিত মতামত দিন