এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • দারিদ্র্যের স্বপ্নভঙ্গ। অনুগল্প।

    লেখক শংকর হালদার লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৪ আগস্ট ২০২৩ | ১৯৯ বার পঠিত
  • গল্প নাম্বার :- ৫
    দারিদ্র্যের স্বপ্নভঙ্গ।
    লেখক :- শংকর হালদার শৈলবালা।
    ◆ রচনার শ্রেণী :- বিপর্যয় করোনা ভাইরাসের অনুগল্প।
    ~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
    ◆ সুবীর রাতে স্ত্রী ও ছেলে মেয়েদের নিয়ে মাটির ঘরের মেঝেতে গরিবের খেজুরের পাটির উপর কয়েকটি কাঁথা বিছিয়ে শুয়ে চালের দিকে তাকিয়ে ভাবে, দারিদ্র্যের সংসারে অনেক স্বপ্ন ছিল কিন্তু সেই স্বপ্ন করোনা নামক ভাইরাসে ভেঙে দিয়েছে। বর্ষা আসার আগেই ঘরের চাল মেরামত করার দরকার, রাতে চাঁদের আলো দেখতে বাইরে যেতে হচ্ছে না।

    ◆ জীবন জীবিকার কর্মসংস্থান হারিয়ে ফেলেছি। দিন আনা দিন খাওয়া সংসার আর চলছে না। ভবিষ্যতের কথা ভেবে জমানো টাকা বসে বসে খাওয়া দাওয়া করতে করতে শেষ হয়ে গেছে। ঘর খানা মেরামত করার স্বপ্ন দেখেছিলাম।

    ◆ করোনা ভাইরাসের কারণে মহা বিপদে পড়ে স্বপ্ন দেখা ভুলে গিয়েছি। কর্মের জন্য ঘুরে বেড়ায় কেউ দেয় না কাজ। লোকে বলে কাজ করাতে গিয়ে যদি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়ি।

    ◆ ভয়ে আতঙ্কে সবাই মুখে লাগিয়ে মুখ পট্টি বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহির হয় না।
    তারপর আবার পুলিশের অত্যাচার, মুখ পট্টি ও দলবদ্ধ ভাবে চলা জমায়েত করা নিষেধ।

    ◆ সরকারি চাকরি করে যারা শতকরা আশি জন কর্ম না করে বেতনের টাকা অ্যাকাউন্ট সরাসরি আসে। আর সাধারণ জনগণের সপ্তাহে কয়েক এক কিলো চাল গম আটা দিয়ে করছে সন্তুষ্ট।

    ◆ ধনী ও মধ্যবিত্তের মানুষেরা রেশনের জিনিস খায় না, কিন্তু গরু, ছাগল, হাঁস মুরগির খাবার হয়েছে। আমার মত হতদরিদ্রদের নেই কোন উপায়, সরকারের দান মনে করে করি তা আহার।

    ◆ চারদিকে কর্মহীন ছেলে-মেয়ে আর গৃহিণী, বাজারে দোকান গুলো, গাড়ি-ঘোড়া, অফিস-আদালত, ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সব বন্ধ হয়ে আছে । টাকার অভাবে ছেলে মেয়েদের ব্যক্তিগত পড়ানোর মাস্টারের আসা-যাওয়া বন্ধ।

    ◆ গৃহিণীর রান্না ঘরে চাল, ডাল, তেল, লবণ ও কাঁচা সবজি নেই কিছু কিন্তু সরকার দান খয়রাতের মাধ্যমে চলবে আর কতদিন।

    ◆ দারিদ্রতা শ্রেণীর মানুষগুলো ভীষণ ভাবে অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে। ব্যাংকে জমানো টাকা বহুদিন আগে পেটের মধ্যে গিয়ে হজম হয়ে গেছে।

    ◆ দেনার দায়ে জর্জরিত লোনের কিস্তি ফেল, ঋণদাতা সংস্থার দিদিমণি বলে, কিস্তির টাকা পরিশোধ না করলে আগামী সপ্তাহে এসে ছাগল, গরু,হাঁস মুরগি, সাইকেল ও মোবাইল যা পাবো তুলে নিয়ে যাবো।

    ◆ খাদ্যের অভাবে মানুষ মরতে বসেছে লোন সংস্থা বাড়াবাড়ি সরকার ও প্রশাসনের চোখে পড়ে না। পঞ্চায়েতে অভিযোগ জানিয়ে হয়নি তার কোন সুরাহা। ঋণের দায়ে সব তুলে নিয়ে যায়, জলের দামে বিক্রি করে তবুও ঋণ হয় না শোধ। মরলেও নাকি সব টাকা হবে না শোধ।

    ◆ এই মুহূর্তে মরলেও নাকি শান্তি নাই, মৃতদেহ সৎকার করার কোন লোক নাই। মোটা অংকের টাকা দিয়ে আনতে হবে সরকারি লোক। সাধারণভাবে মৃত্যু হলেও কিন্তু করোনা ভাইরাসের দোষ।

    ◆ সবাই যেন বড় অসহায় করোনা ভাইরাসের কাছে, দেশের অর্থনৈতিক ভেঙ্গে পড়েছে ।
    অর্থনীতি কবে হবে চাঙ্গা হবে আমরা হারিয়ে যাওয়া কাজ ফিরে পাবে।

    ◆ দেশের সরকার কিছু দিন খাবার দিয়েছে কিন্তু মানুষের হয়নি সমস্যার সমাধান, মানুষকে করেছে পঙ্গু । ভিক্ষা নয় কাজ চাই উঠেছে তার স্লোগান।

    ◆ কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ও সরকারের দুর্নীতিগ্রস্ত আমলাদের কারণে খাদ্য কেলেঙ্কারি সহ অর্থ কেলেঙ্কারি হয়েছে। চোরে চোরে মাসতো তো ভাই তার হয়নি কোনো বিচার। গরীব আরো গরীব হয়েছে আর ধনীরা আরো ধনী হয়েছে, এই তো দেশের হালচাল।

    ◆ করোনা ভাইরাস বিপর্যয়ের মধ্যে আবার বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের বড় বড় বক্তৃতা আর প্রতিশ্রুতি ও ভোট ব্যাংকের লড়াই।

    ◆ এভাবেই যদি চলতে থাকে করোনা ভাইরাস, তাহলে স্বপরিবারে আত্মহত্যা করতে হবে। গরিবের স্বপ্ন কখনো হবে না সফল।

    ------------------------------------------~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
    ◆ রচনা কাল :- ২৫ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রিস্টাব্দে। দত্তপুলিয়া বাড়ি থাকাকালীন, নদীয়া।
    ◆ সংশোধনের তারিখ :- ৫ আগস্ট ২০২৩ সালে। আশ্রম খাটুরা-দোলন ঘাটা, মাঝদিয়া, নদীয়া।
    ----------------------------------------------------------~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • ইইক্কক্ক | 2405:8100:8000:5ca1::27b:27d5 | ১৪ আগস্ট ২০২৩ ১৭:৩৯522461
  • এটা গল্প? প্রবন্ধ হিসেবেও পড়া যায় না এত বাজে।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভ্যাবাচ্যাকা না খেয়ে মতামত দিন