এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • এই বসবাস

    Atanu Datt লেখকের গ্রাহক হোন
    ৩০ জুন ২০২৩ | ২৬৬ বার পঠিত
  • এই বসবাস
    ধীরে ধীরে সত্য হয়। গেঁথে বসে খুঁটির মতন
    জমাট দিনলিপি হাত ধরে
    ফাঁকফোকর বেয়ে শিকড় নামে
    গভীরে, আরো গভীরে
    ভারসাম্য অথবা জীবনের সুলুক সন্ধানে।
    তথাপি
    যে সব মায়াবী কোটর লুকিয়ে ছিল
    পাতার ফাঁকে, সেগুলোয় বেমক্কা ইচ্ছের বান 
    উপড়ে ফেলতে চায় অস্তিত্ব।
    ছায়ার সাথে যুদ্ধ
    চোখের কোলে কালি
    সুদুরে শাঁখ বাজে, বিপত্তারিণীর পুজো হয়
    তুলসী তলার প্রণামে পরবাসী নাম 
    স-নিষ্ঠা গাঢ় হয়, শুদ্ধ হয়

    উজ্জ্বল আলোর নিচে ছড়ানো থাকে বিচিত্র নকশা
    রকমারি বাহারি রঙের খেলা।
    ম্যানিকুইনের মুন্ডহীন ধড়ে সেজে ওঠে 
    ফ্যাশনের আবোল তাবোল
    নিষ্কৃতি আটকে থাকে রং চটা দেয়ালে
    অথবা 
    উটকো অভিভাবকের চোখ রাঙানিতে
    সময় এসে জানান দেয়
    সব ব্যথা বারোমাস্যা হয় না
    কিছু কিছু হয়।

    সুখবাগানের আলুক ঝালুক মাটিতে
    রুগ্ন চারার আকুলি বিকুলি বড় হয়। স্বপ্ন বড় হয়
    লাল নীল হলুদ সবুজের স্বপ্ন।
    কোমল ফুলের স্বপ্ন, অযত্নের অপুষ্টির বাস্তব
    রুগ্ন শাখায় তবু ফুল ফোটে
    পরাগ ছড়ায় তালিসমানি খুশির মত। 
    চোখে মুখে দৃষ্টিতে পরাগ মেখে কে যেন অপেক্ষায় থাকে
    ডাকপিওনের অপেক্ষায়
    চিঠি আর আসে না। চিঠির কুঠুরিতে দুটো করে নীল দাগ
    সব কিছু তছনছ করে দেয়। 

    স্বপ্ন আসে স্বপ্ন যায়
    এই বসবাসে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে শালপাতার মত 
    রেশমি চাদরের মত
    বেশ লাগে ভাঁজ করে সাজিয়ে রাখতে কুলুঙ্গিতে
    ভাঁজ হলে দেখেছি সব স্বপ্ন একই রকম লাগে
    এমন কি ঝুলে থাকা রোঁয়া গুলো পর্যন্ত
    ঘুমন্ত বিছানায় 
    অনাবশ্যক কামনার মেলা। নির্লোম উরু, 
    সরে যাওয়া আঁচল
    এ জীবনে আবশ্যক আর কত টুকুই বা থাকে
    তবু ইচ্ছে তো হয়ই
    এই সব অনাবশ্যক ভালোবাসাদের ভাঁজ করে তুলে রাখি
    তেমন শীত এলে নামিয়ে আনা যাবে, ওম খোঁজা যাবে
    বুঝি না, সময়ের সাথে এরাও
    বেমানান, বেঢপ, বে সাইজ হয়ে ওঠে।

    সেই কোনকালে লোমকূপে তৃষ্ণা মাখতাম
    ভোরের সাথে কোলাকুলির আশায়
    দেখতাম কি ভাবে যেন 
    লজ্জাবতীর শাখা প্রতিবার জিতে যেত।
    অবহেলায় খাতা বইয়ের পাতা
    উড়ত ফরফর করে।
    স্কুলের মাঠে মহল ফুল নেশার পাঠ দিত আনখাই
    শব্দরা তখন দুগ্ধপোষ্য, 
    শব্দরা তখন অস্বীকৃত।
    তাই শব্দরা তখন পশ্চিমে যেতে চায়
    রুখা শুখা উঁচু নিচু রাস্তায় ঠাঁই ছেড়ে বেলাগাম হয়।
    শব্দের প্রদীপ দু হাতে জ্বালিয়ে চরৈবতি হতে কি
    একটা জীবন লাগে, সকাল থেকে সন্ধে?

    তেমন কিছুই হয়ে ওঠে না শেষমেষ
    প্রতিবাদ, বিপ্লব, বিশুদ্ধ ধৈবত, গোধূলির গান
    নিদেন পক্ষে হাত ছুঁয়ে রাখা।
    কত প্রতিজ্ঞা বেলাশেষে মুলতুবি থাকে, কত প্রেম শুষ্ক
    সেই ম্যানিকুইন গুনগুন করে "কথা দিয়ে এলে না..."
    বৃষ্টির মত সন্ধ্যা নেমে আসে
    পার্কের অর্ধমৃত আলোতে অন্ধকার জড়ো হয়, পাশ ফেরে
    ভেসে ওঠা ছবি জুড়ে জুড়ে
    ধীরে ধীরে সত্য হয়ে ওঠে। এই পরবাস।
    এই বসবাস
    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খেলতে খেলতে মতামত দিন