এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • ছয়ে রিপু 

    যদুবাবু লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৪ জানুয়ারি ২০২৩ | ৪৪৬ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)
  • মাঝে মাঝে একটা অদ্ভুত স্মৃতি ফিরে আসে। মনে হয় একটা তিনতলা বাড়ির প্যালপিটে কারা যেন আমার চোখ বেঁধে ঠেলেঠেলে নিয়ে গেছে, সামনে পা বাড়িয়ে জমি পাওয়া যাচ্ছে না, এবং পেছন থেকে মুহূর্মুহু চিৎকার ‘লাফা, লাফা, লাফা’। লাফটা আপনি দিয়েই দিলেন, তবে সেই স্মৃতির মত-ই আধ ফুট নিচেই হুমড়ি খেয়ে পড়লেন না পড়তেই থাকলেন সেই র‍্যাবিট-হোল দিয়ে – সে হিসেব নেই। কোত্থেকে যে এই ভয় আসে আর কোথায় ফিরে যায় জানি না। খালি ঘুমের মধ্যে একটা দমবন্ধকরা বিষম খেয়ে উঠে বসি।

    হ্যাঁ, একচুল-ও মিথ্যে না। ঠিক এটাই হ'লো। যেদিন পড়লাম রাত্রে, স্বপ্ন দেখলাম ঠিক ঐ রবি আর ডাক্তারের পাশেই আমিও ঢুকে পড়েছি একটা সদ্য পড়া ভয়ের গল্পে, যার থেকে আর পালানোর পথ নেই। সেই গল্পে একটি ঋতুঃ হরর, একটি রিপুঃ মদ।

    আসলে, আমাদের অবচেতন নিমজ্জিত হিমশৈল নয়, ডুবে-থাকা আটলান্টিস না, টোয়েন্টি-থাউজ্যাণ্ড লীগসের অলৌকিক জলযান-ও না। অবচেতন আসলে সেই বিশাল মহাসমুদ্রটাই, সেই তিনভাগ জল এবং কখন যে তার ভেতর থেকে কি-ই যে ঘাই মেরে উঠে আসবে তা জানতে রাষ্ট্রযন্ত্রের ঢের বাকি আছে। সৈকতদার কৃশকায় এই বইটার গল্পগুলো সেই অতিকায় জলরাশির উপর একটি শীর্ণ সাঁকো। যার অপর পারে একজন আপনার মত-ই দাঁড়িয়ে।

    অবশ্য রাষ্ট্রযন্ত্র-ও আছে। বুটজুতো পরে সশব্দে সে হেঁটে যাচ্ছে পাতার উপর নোংরা পায়ের ছাপ ফেলে। কেঁপে কেঁপে উঠছে তার পায়ের তলার পোকামাকড়, প্ল্যানেটরি ব্যাসিলি। যাদের স্মৃতি কলুষিত, সত্তা প্রমাণসাপেক্ষ ও যৌনতা একটি রাজনৈতিক টিপছাপ।

    শুরুতেই এজাহার, কৃশকায় এই গল্পসংকলনের “প্রতিটিই আদ্যন্ত রাজনৈতিক”, তবে আমাদের ছকেবাঁধা অলীক কুনাট্য রঙ্গ নয়, নয় ব্যানালিটি অফ ইভল, বরং সেই আদিম আর্কেটাইপ রিপু - পুতুলের সুতো যার হাতে। ছয়টি ঋতু, বাংলা সাহিত্যের ছটি ঘরানা, ছটি রিপু মিলে গেছে গদ্যে, যেমন একটি রোগের উপসর্গ মেশে অন্যে, কিছুটা আবছা হয়ে। যেমন হত্যাকাণ্ডের দিন আকাশ অংশত মেঘলা ছিলো না রৌদ্রকরোজ্জ্বল, সে বিষয়ে একমত হতে পারবেন না কোনো সাক্ষীই।

    ঠিক যেমনটা হয়েছিলো ‘ক্রনিকল অফ আ ডেথ ফোরটোল্ড’-এ। যার শুরুর লাইনটির চমক ভোলা যায় নি আজ-ও।

    “On the day they were going to kill him, Santiago Nasar got up at five-thirty in the morning to wait for the boat the bishop was coming on.”

    ঠিক তেমনি ভোলা যাচ্ছে না ‘সুনাগরিক রঞ্জন দত্তর মৃত্যুর দিন', গল্পটার প্রথম লাইনঃ

    "নিজের মৃত্যুসংবাদটা রঞ্জন প্রথম পেল ডাক্তার রায়ের চেম্বারে।"

    মার্কেজের গল্পের শুরুতেই আপনি জানেন সান্তিয়াগো নাসারকে খুন করা হয়েছে, এবং শেষে অবশ্যম্ভাবী হত্যাদৃশ্য, মাঝে একটি টাইমলাইন-ঘাঁটা ট্রিপ এবং এবম্বিধ হ্যানত্যান। সুনাগরিক রঞ্জন দত্তের?

    সে সব জানার একমাত্র উপায় এই বিপজ্জনক গল্পের বইটাই হাতিয়ে ফেলা, যার নাম ‘ছয়ে রিপু’। সৈকত বন্দোপাধ্যায়ের।

    যাঁরা গুরুর এই বইপ্রকাশের পদ্ধতিটা জানেন, তাঁরা এ-ও নিশ্চয়ই জানেন যে, গুরুর বই বেরোয় সমবায় পদ্ধতিতে। যাঁরা কোনো বই পছন্দ করেন, চান যে বইটি প্রকাশিত হোক, তাঁরা বইয়ের আংশিক অথবা সম্পূর্ণ অর্থভার গ্রহণ করেন। আমরা যাকে বলি দত্তক। এই বইটি যদি কেউ দত্তক নিতে চান, আংশিক বা সম্পূর্ণ, জানাবেন [email protected] এ মেল করে।

    পুনঃপ্রকাশ সম্পর্কিত নীতিঃ এই লেখাটি ছাপা, ডিজিটাল, দৃশ্য, শ্রাব্য, বা অন্য যেকোনো মাধ্যমে আংশিক বা সম্পূর্ণ ভাবে প্রতিলিপিকরণ বা অন্যত্র প্রকাশের জন্য গুরুচণ্ডা৯র অনুমতি বাধ্যতামূলক। লেখক চাইলে অন্যত্র প্রকাশ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে গুরুচণ্ডা৯র উল্লেখ প্রত্যাশিত।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ঠিক অথবা ভুল প্রতিক্রিয়া দিন