এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • জেনেটিক জেনিয়ালজী ( Genetic Genealogy ) : অপরাধী শনাক্তকরণে এক সম্পূর্ণ নতুন পদ্ধতি

    AR Barki লেখকের গ্রাহক হোন
    ০৫ অক্টোবর ২০২২ | ৭২ বার পঠিত
  •  

    কার্টিস রজার্স নামে এক অবসরপ্রাপ্ত ব্যবসায়ী ও জন ওলসন নামে এক ট্রান্সপোর্ট ইঞ্জিনিয়ার লেক ওয়ার্থ , ফ্লোরিডায় 2010 সালে জেডম্যাচ ( ZedMatch ) নামে একটা ডিএনএ প্রোফাইলিং কোম্পানি খোলেন।
    .
    তাদের প্রাথমিক উদ্দেশ্য ছিল নতুন গবেষকদের জেনেটিক গবেষণায় সাহায্য করা এবং এতিম , দত্তক বা পরিত্যক্ত শিশুদের বাবা-মা অথবা আত্মীয়-স্বজনদের খুঁজে বের করতে সাহায্য করা।
    .
    জেড ম্যাচে রেজিস্ট্রেশনকৃত ব্যবহারকারী স্বেচ্ছায় নিজের ডিএনএ তথ্য ওয়েবসাইটে আপলোড করে রাখতেন। নতুন কোন ডিএনএ আপলোড হলেই একটা সফটওয়্যার সবার সাথে মিলিয়ে দেখে ম্যাচকৃত ব্যবহারকারীকে ইমেইল করে দিত। এভাবেই লক্ষ লক্ষ ব্যবহারকারীর তথ্য নিয়ে একটা বেশ বড়সড় ডাটাবেজ তৈরী হয়ে যায়।
    .
    ওদিকে ক্যালিফোর্নিয়ার পুলিশ 1974 সাল থেকেই গোল্ড স্টেট কিলার নামে এক সন্দেহজনক সিরিয়াল কিলার ও ধর্ষকের পরিচয় উদ্ধার করতে হিমশিম খাচ্ছিল।
    .
    ক্রাইম সিন থেকে পাওয়া ডিএনএ সম্ভাব্য সন্দেহভাজনদের সাথে মিলছিলো না। এফবিআই ডাটাবেজ অপরাধীর পরিচয় শনাক্ত করতে ব্যর্থ হয়। পুলিশ অনেকটাই হাল ছেড়ে দিয়েছিল।
    .
    একজন ইনভেস্টিগেটর অনেকটা কৌতূহলবশত 2018 সালে ক্রাইম সিনে পাওয়া ডিএনএ তথ্য জেড ম্যাচের ওয়েবসাইটে আপলোড করেন। আশ্চর্যজনকভাবে দশ থেকে বিশ জনের মত দূরসম্পর্কীয় আত্মীয় খুঁজে পাওয়া যায়।
    .
    একজন জেনিয়ালজিষ্টের সাহায্য নিয়ে পুলিশ এই 10 থেকে 20 জনের ভেতর থেকে জেমস ডি এঙ্গোলো নামে এক অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসারকে শনাক্ত করে।
    .
    পরে সন্দেহভাজনের বাড়ি থেকে ফেলে দেওয়ার জিনিসপত্রের ভেতরে পাওয়ার ডি এন এর সাথে পুলিশের হাতে থাকা ডিএনএ সম্পূর্ণ ম্যাচ করে। জেরার মুখে এঙ্গোলো তের জনকে হত্যার কথা স্বীকার করে। এভাবেই দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে থাকা কেসের মীমাংসা হয়।
    .
    জেনিয়ালজীর সাহায্য নিয়ে এভাবেই পুলিশ অনেকগুলো দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে থাকা চাঞ্চল্যকর কেসের মীমাংসা করতে সক্ষম হয়।
    .
    তবে জেডম্যাচের গ্রাহকগণ পুলিশ ও কোম্পানির বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা ভঙ্গের অভিযোগ করতে থাকেন।
    .
    এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ক্যালিফোর্নিয়া জাষ্টিস ডিপার্টমেন্ট 2019 সালে ডিএনএ তথ্য ব্যবহার করার ব্যাপারে নতুন আইন প্রণয়ন করেন।
    .
    এই নতুন প্রযুক্তি ও পদ্ধতির সাহায্যে ধীরে ধীরে ছোট হয়ে আসছে অপরাধীদের পৃথিবী।
     
     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লাজুক না হয়ে মতামত দিন