এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • স্ট্রাইক দা পয়েন্ট - ৭ 

    Anjan Banerjee লেখকের গ্রাহক হোন
    ৩০ আগস্ট ২০২২ | ২৩৫ বার পঠিত | রেটিং ৪.৫ (২ জন)
  • ফ্ল্যাটের আসল মালিক সরোজ ভরদ্বাজের ফোন নম্বরটা পাওয়ার পর কলতান বলল, ' রাকেশ মিশ্র, মানে যে এসে মাঝে মাঝে থাকে তার ফোন নাম্বারটাও দিন ... '  
    ভদ্রলোক রেজিস্টার হাতড়ে ফোন নম্বরটা বার করে কলতানকে দিলেন । কলতান ফোন নম্বরটা সঙ্গে মিলিয়ে দেখল সূর্য শ্রীবাস্তবের নম্বরের সঙ্গে মেলে কিনা । নম্বর মিলবে আশা করেনি এবং মিললও না । 
    কলতান বলল, ' বিল্ডারের নাম এবং ফোন নম্বর দিন ' 
    ভদ্রলোক বাধ্য বালকের মতো চুপচাপ একটা কার্ড বার করে কলতানকে দিল । পুলিশে ছুঁলে ছত্রিশ ঘা... । কার্ডে চারটে ফোন নম্বর রয়েছে । রিয়্যালটর কোম্পানির নাম নিলাদ্রি বিল্ডার্স । 

        অভিরূপবাবু বললেন , ' মিস্টার গুপ্ত এখানে তো আপাতত আর কোন কাজ নেই ... চলুন থানায় গিয়ে একটু বসবেন নাকি । এত এক্সহসশান গেল .... '
    ----- ' না না .... আমি একদম এক্সহস্টেড নই। আমাকে বাড়ি ফিরে যেতে হবে । অনেক কাজ বাকি । আপনাকে একটা রিকোয়েস্ট করব ... একটা বাইক যদি সার্চ করতে পারেন ... বাইকের নাম্বারের লাস্ট দুটো ডিজিট হল সিক্স নাইন ।  বাকিটা দেখার সুযোগ পাইনি । এখানে আসার সময় হাডকোর ক্রসিং-এর কাছে আমার বাইকে ক্র্যাশ করার অ্যটেম্পট নিয়েছিল বাঁ পাশ দিয়ে ঢুকে এসে ....'
    ----- সেকি ! এতক্ষণ বলেননি তো ... কেন ট্রাফিক ছিল না হাডকোয় ? তারা কিছু দেখেনি ? ' 
    ----- ' হ্যা বিজি ছিল ... মোড়ের কাছে । অত খেয়াল করেনি ... ব্যাপারটা হয়েছে একটু  এগিয়ে এসে ... ফেটাল কিছু হতে পারত কিন্তু বাইকওয়ালা ভীষণ তাড়াহুড়ো করে কাজটা কমপ্লিট করে বেরিয়ে যাবার ধান্দায় থাকায় কাজটা ঠিকমতো করতে পারেনি । আমার ধারণা সেই নিয়ে ও টেনশানে আছে । ওর ওপরওয়ালা তো ওকে স্পেয়ার করবে না । তাই আমার অনুমান ও আবার একটা অ্যটেম্পট নেবে আমরা ফেরার সময়... '
    অচিন্ত্য একেবারে ভয়ে সিঁটিয়ে আছে । সে সারাক্ষণ কলতানের কাছ ঘেঁষে ঘোরাফেরা করছে । যেখানে কলতান যাচ্ছে সেখানে যাচ্ছে। কলতানের কথাবার্তা শুনে তার চোখ কপালে উঠে গেল । 
    তার মুখ দিয়ে বেরিয়ে গেল , ' আঁ .... সেকি ! এ.. ই মরেচে ... কি হবে তা'লে ? ' 
    ----- ' কি আর হবে ... হয় মরবে, নয় তো বাঁচবে... ' কলতান বলল । 
    অভিরূপবাবু বললেন, ' জোকস অ্যপার্ট .. লেটস বি সিরিয়াস .... এসব শোনার পর আপনাকে তো এইভাবে ছাড়তে পারিনা ... কিছু হয়ে গেলে নিজেকে ক্ষমা করতে পারব না .... আপনার আগে পিছে আমাদের দুজন সিভিল ড্রেসে যাবে দুটো বাইকে ... যদি ফারদার অ্যসাল্টের চেষ্টা করে , ওকে ধরে ফেলারও চান্স থাকবে .... '
    ----- ' দেখুন যা ভাল বোঝেন ... তবে একটু তাড়াতাড়ি ... '
    ----- ' হ্যা ... আমি দশ মিনিটের মধ্যে অ্যরেঞ্জ করছি .... ' 
    এসকর্টের ব্যবস্থা হল । তারা কলতানের বাইকের আগে পিছে থেকে তাদের বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিল । না... কোন আততায়ীর অতর্কিত 
    আক্রমণের মতো কিছু ঘটেনি । থানা থেকে আসা দুজন ' আমরা তা'লে আসি দাদা ... কোন দরকার হলে স্যারের সঙ্গে যোগাযোগ করে নেবেন ' বলে ফিরে যাবার জন্য তৈরি হল ।
    ----- ' আরে, ওপরে চলুন ... একটু বসে যান ... '
    ----- ' না দাদা... আজ না । অন্য আর একদিন আসব'খন .... '
    ওরা বাইক চালু করে আমহার্স্ট স্ট্রীটের দিকে চলে গেল । 

        বাড়ি ফিরে অচিন্ত্য বলল, ' ও : ... ধড়ে প্রাণ এল এতক্ষণে .... খুব বাঁচান বেঁচে গেছি ... হাত পা কালিয়ে যাচ্ছিল একেবারে .... একটু চা বলুন না স্যার ... '
    ----- ' তা বলছি .... কিন্তু এভাবে হাত পা কালিয়ে গেলে চলবে কি করে .... যাক, আসল ব্যাপারটা বেশ বুঝতে পারছি । অম্বরীশবাবুর ব্যাপারটা এই অপরাধ পর্বতের একটা ছোট্ট পাথরখন্ড মাত্র । এখন রাকেশ মিশ্রকে একটা ফোন লাগাতে হবে .... কোনটা যে আসল নম্বর , কোনটা যে নকল বোঝা দায় ... তবু টোকা মেরে মেরে দেখতে হবে ... আর টার্গেট করলে মাথাটাকেই টার্গেট করতে হবে ... এর  তলারগুলোর কাছ থেকে কিছু পাওয়া যাবে না..... তোমার অফিসের লোকগুলোর পিছনে সময় নষ্ট করে কোন লাভ নেই .... '
    অচিন্ত্য দলুই চেয়ারে শরীর এলিয়ে দিয়ে চায়ের জন্য অপেক্ষা করছিল ।
    সে বলল, ' হ্যা.... তা যা বলেছেন .... খাঁটি কথা।  তবে... আমি ছোটখাটো মানুষ ... যদি কিছু মনে না করেন... আমি একটা কুলু দিতে পারি ... '
    ----- ' কুলু মানে ক্লু ? '
    ----- হ্যা ... ওই আর কি ... '
    ---- ' শুনি কিরকম ... '
    ---- ' যে মাছের যে চার ...
    ---- ' তো ? '
    ----- ' অনেক রাঘববোয়ালই কিন্তু মেয়েমানুষের টোপ গেলে ... একমাত্র ওই টোপটাই গেলে ... আমি ঠিক জানিনা অবশ্য .... চেষ্টা করে দেখতে পারেন ... যদি ভুল বলে ফেলে ফেলি মাফ করে দেবেন ... '
    অচিন্ত্য কথাগুলো বলে ফেলে সলজ্জ মুখে মাথা নীচু করে বসে রইল ।
    কলতান চমকে উঠল । অচিন্ত্য  মনস্তত্ত্ববিজ্ঞানের একটা বিশেষ দিক অনায়াসে বলে ফেলল । 
    কলতান বলল, ' থ্যাঙ্ক ইউ অচিন্ত্য । তোমার এতে লজ্জা পাওয়ার কিছু নেই । দারুন বললে কিন্তু তুমি । ভেবে দেখা যেতে পারে ... । '
       চা আর বসন্ত কেবিনের ফিস ফ্রাই এল । অচিন্ত্যর চোখ চকচক করে উঠল । গরম ফিস ফ্রাইয়ের মন মাতানো গন্ধে সে তার সব ভয় ভাবনা ভুলে গেল । 
    কলতান গভীর চিন্তায় ডুবে গেছে ।  সূর্যকুমার,রাকেশ মিশ্র , সরোজ ভরদ্বাজ , মধুজা রায় ... সবই কি এক সুতোয় বাঁধা ? তার মনে পড়ে গেল মোটাসোটা,টাকমাথা , ফর্সা লোকটার কথা । সেই সুর ইন্ডাস্ট্রিজের গেট দিয়ে ভিতরে ঢুকছিল । সে কি এদের মধ্যে কেউ ? কত লম্বা এদের চেন, মানে শৃঙ্খল ? 
    খুব দ্রুত গোড়ায় পৌঁছনোর দরকার । মাথাটা ধরার দরকার । কলতানের মনে হতে লাগল চরিত্রগুলো আশেপাশেই ঘোরাঘুরি করছে । সে ছুঁতে পারছে না । 
    সে কুলচাকে একটা ফোন করল ।
    ---- ' হ্যা... কলতানদা বল ... '
    ---- ' এখন কিছু বলব না .... কাল সকালে একবার আসতে হবে ... '
    ----- ' ইমারজেন্সি কেস মনে হচ্ছে । সকালে কখন ? '
    ----- 'অ্যজ আর্লি অ্যজ পসিবল .... নটার মধ্যে হলে ভাল হয় ... '
    ---- ' ওক্কে ... ওক্কে ... '

        পরদিন সকালে নটা বাজার আগেই কুলচা চলে এল । অচিন্ত্য ঘুম থেকে উঠে এক কাপ চা খেয়ে খবরের কাগজ নিয়ে বসেছিল । একটু পরে সে অফিসে বেরোবে । কলতান মোবাইলে কি সব ঘাঁটাঘাঁটি করছিল । কুলচাকে ঢুকতে দেখে বলল, ' আয় ... আয় তোর জন্যেই বসে আছি । অচিন্ত্য খবরের কাগজটা রেখে দিয়ে উঠে দাঁড়াল । কলতান বলল, ' আরে বস বস ... এ আমার ভাগ্নী কুলচা । আমার অ্যসিস্ট্যান্টও
    বটে ... '
    অচিন্ত্য সবিনয়ে বুকের কাছে হাত এনে হাতজোড় করে বলল, ' নমস্কার ম্যাডাম ... '
    কুলচাও হাত জোড় করে বলল, ' নমস্কার ... '
    কলতান কুলচাকে আবার বলল, ' এদের কেসটাই ডিল করছি এখন ... ' 
    ----- ' ও আচ্ছা । বল কি ব্যাপার ? '
    ----- ' যদি দরকার পড়ে একজনকে সিডিউস করতে পারবি ? '
    ---- 'মানে ? '
    ---- ' মানে ফুসলোতে পারবি ... একটু ফ্লার্ট টার্ট করে ? অবশ্য পুরোটাই ভার্বালি ... স্রেফ কথা বলা আর কি ... ফিজিকাল প্রেজেন্সের কোন দরকার হবে না । তোর ইনটোনেশান তো খুব সুইট অ্যন্ড সিন্টিলেটিং তাই .... তবে  এক্সিকিউশানটা ঠিক জায়গায় লাগবে কিনা শিওর নই । আবার পুরোপুরি ওয়াইল্ড গুজ চেজও বলা যায় না । একটা কথা না বললেই নয়, এটা কিন্তু এই অচিন্ত্যর ব্রেন চাইল্ড ... '
    কুলচা হাঁ করে তাকিয়ে ছিল কলতানের মুখের দিকে । বলল, ' কি সব বলছ ... কিছুই বুঝতে 
    বুঝতে পারছি না ... সুইট, সিন্টিলেটিং কি সব বলে যাচ্ছ ? ' 
    ----- ' বলছি বলছি ... সেকেন্ড ওয়ার্ল্ড ওয়ারের সময়ের বিখ্যাত ফ্রেঞ্চ স্পাই মাতাহারির নাম শুনেছিস ? অনেক কীর্তি আছে তার ... ক্যান ইউ জাস্ট ডু ইউ আ মাতাহারি উইদাউট ফিজিক্যাল প্রেজেন্স  ? ' 
    ----- ' মাতাহারি ...সেকেন্ড, না ফার্স্ট ওয়ার ? এনিওয়ে ... কি বলবে এবার বলে ফেল তো .... কি সব বলছ তখন থেকে ... আর ধৈর্য থাকছে না ... ' 
    ওদের কথাবার্তা শুনে অচিন্ত্য বেশ মজা পাচ্ছিল । মনে নানারকম উদ্বেগ থাকা সত্ত্বেও সে মিটিমিটি হাসছিল ।
        কলতান আর ধৈর্যের পরীক্ষা নিল না কুলচার। আগাগোড়া খুলে বলল সব । কুলচাকে অনেকক্ষণ ধরে প্র্যাকটিস করালো কোন নাটকের পরিচালকের মতো । 
    ----- 'দেখা যাক, ব্যাপারটা লাগে কিনা ... জাস্ট থ্রো অ‌্যন্ড ওয়াচ ... আমার মোবাইলে সেকেন্ড সিমটা ভরে দিচ্ছি ... এটা থেকে কল  দিবি ...রাকেশ মিশ্রকে... নে ধর ... স্পীকার অন রাখবি ... হ্যালো ট্যালো বলবি না ... একটু ফ্লার্টি গিগল করে বলবি ... হরি ওম .... মনে থাকবে তো ? যদি কোন কোড টোড বলে আবার একটা ফ্লার্টি গিগল ছাড়বি .... ছেড়ে সিডাকটিভ ইনটোনেশানে বলবি .... ধ্যাৎ ! ব্লু ফক্স বার ... ঠিক আছে ? ঘাবড়াবি না একদম । যদি কিছু মাথায় না আসে ফন্ডলিং ভয়েসে উঁ ..উঁ .. উঁ  করে চুপ করে থাকবি ... ঠিক আছে ? ডোন্ট বি টেনসড ... মনে রাখতে হবে নাম্বারটা ফেকও হতে পারে ... সেক্ষেত্রে এরকম কোন রেসপন্স পাবি না ... শুধু ফোনটা ধরে থাকবি ... '
    এরপর কলতান ফিল্ম ডিরেক্টরের মতো ... 'স্টার্ট ক্যামেরা ... অ্যকশান' স্টাইলে বলল ---- নাউ স্টার্ট অ্যকশান ... ডায়াল দা নাম্বার ... গো ... '
     ( ক্রমশঃ ) 
    ************************************************************************************

        

     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Mousumi Banerjee | ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:০৪511792
  • খুব ভালো এগোচ্ছে। 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আলোচনা করতে প্রতিক্রিয়া দিন