বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • ভয়ানুভুতি

    subhamoy bhattacharyya লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৪ আগস্ট ২০২২ | ১০০ বার পঠিত
  • ভয় জিনিসটা বরাবরই ছিলো, আছে, থাকবে, তাই ভয় দেখানোর অধিকারও ছিলো, আছে, থাকবে, তা সে বাচ্চা কে একানড়ের ভয় হোক বা ধেড়েদের অন্য ভয়, ভয় পাওয়ার অধিকার তাই আছে, ছিলো, থাকবে, তবে স্থানকালপাত্র ভেদে ভয়ের কারণগুলো বদলে যায়। সুন্দরবনে আইলার ভয়, শহরে উড়ালসেতু ভেঙে পড়ার ভয়,  কিছুকাল আগে মানুষ ম্যালেরিয়াকে ভয় পেতো এখন আর পায় না, হালের করোনা তো এখন ভেতো ঘরজামাই গোছের।
    একটা নতুন ভয় এসেছে, বড়ো তীব্র সে ভয়, এই ভয়াতঙ্ক ঘাপটি মেরে রয়েছে মগজের কোষে কোষে, এ ভয়ের নাম ভাবানুভুতি বা ধর্মানুভুতি, বড্ড সুক্ষ্ম এ ধর্মানুভুতি, এতোই সুক্ষ্ম এবং সুপ্ত যে তার কোপ তিরিশ বছর রুশদির শরীর টের পায় অথবা টুকরো হয় আখলাখের শরীর, তান্ডবে টুকরো হয় বিগ্রহ মূর্তি। স্থান ভেদে এর রং গেরুয়া বা সবুজ,  সংখ্যাগুরুদের বোঝানো হয় একদিন সংখ্যালঘুরা সব কেড়ে নেবে, আর সংখ্যালঘুদের বোঝানো হয় "............  খৎরেমে হ্যায়" ব্যাস ধর্মানুভুতি, খিদে ছাড়িয়ে চাগাড় দেয় মগজে, শরীরে...। আর ভয়ের কারবারিরা মুনাফা লুটে কিনে নেয় তখতের অধিকার -  
    সলমন রুশদি,  মুক্তমনার ব্লগার, শার্লি হেবদোর কার্টুনিষ্ট,, কালবুর্গি এসবই ধর্মানুভুতির সুক্ষ্মতার শিকার।
    এরপর আসে রং বিচার সবুজ না কি গেরুয়া -
    ঘটনাপেক্ষিতে যদি সবুজ রং এর বিষ থাকে তাহলে তো পোয়াবারো, আরেক শিবির সেজে ওঠে রণসাজে, অবশ্য এক্ষেত্রে অবশ্য সবুজ হিংসাকে ক্ষমার চোখে দ্যাখা বুদ্ধিজীবিদের ভূমিকাও প্রশ্ন এনে দেয়,  প্রশ্ন আসে রুশদির জন্য মানব বন্ধনের, রাজস্থানের দর্জির জন্য মানব বন্ধনের, উত্তর সাইলেন্ট মোডে ঘুমায়( এ অভিযোগ ভুল প্রমানে সবথেকে বেশি খুশি হবো আমি), এই নিরবতা ক্ষতি করে দেয় শুভ চেতনার বিকাশে, রাজপথে প্রকাশ্যে গোমাংস খাওয়া,  প্রশ্ন তুলে দেয়, কেন শুয়োরের মাংস নয়, উত্তর এড়িয়ে গেলেও দায় এড়ানো যায় কি?
    দেশের হাজার হাজার কোটি টাকা মেরে বিদেশে পালানো ব্যবসায়িরা দেশদ্রোহী নন, কিন্তু সংখ্যালঘুদের সন্দেহের চোখে দ্যাখা প্রাক্টিস করানোর প্রজেক্টের রূপকার" দেশপ্রেমী"র বুকের ছাতি ছাপ্পান্ন ইঞ্চি চওড়া হয়ে এ দেশের অতীতের গৌরবের সুঘ্রানে আগামীর রসদ তৈরি করেন। সেই রসদে এ দেশের বহুরঙা রামধনু সৌন্দর্য কতটা টিকে থাকবে তা নিয়ে ভয়টা থেকেই যায়..
     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আদরবাসামূলক মতামত দিন