ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • গঙ্গাসাগর মেলা vs স্কুল কলেজ খোলা

    Manab Mondal লেখকের গ্রাহক হোন
    ০৯ জানুয়ারি ২০২২ | ৫৪৭ বার পঠিত | রেটিং ৫ (২ জন)
  • ব্যাংকে কয়েকটি শাখা বন্ধ, কর্পোরেশন পরিসেবা বন্ধ লোকজনের অভাবে। তবে আসল সমস্যাটা হল কেউ ইমিউন হচ্ছে আর কেউ হচ্ছে না, তাই আমি লকডাউন বিরোধী এবং সঙ্গে সমাজের যাবতীয় স্বাভাবিক সবকিছুর পক্ষে, হ্যাঁ মেলারও পক্ষে তার কারণ সব মানুষকে একইসঙ্গে ইমিউন হতে হবে তবেই ভাইরাসের বিরুদ্ধে সঠিক সামাজিক গণপ্রতিরোধ গড়ে উঠবে। 
    তবে বলে রাখি গঙ্গাসাগর মেলার বিরোধিতা করাই আমার মূল উদ্দেশ্য। বহু গ্রামীণ মেলা বন্ধ। বিষ্ণুপুরের পোড়া মাটির মেলা বন্ধ। বন্ধ film festival। আচ্ছা বলতে পারেন লক্ষ লক্ষ বহিরাগত সাধু সন্ন্যাসী, ভক্তদের নিয়ে গঙ্গাসাগর মেলা হলে আজ আমাদের বাঙালি সংস্কৃতির ঐতিহ্য বাহী পৌষ মেলা গুলো বন্ধ থাকবে কেন?

    ভোটের আগে দেওয়ালে দেওয়ালে লেখা হয়েছিল বাংলা ঘরের মেয়ে কে চায়। অর্থাৎ বাঙালির ভোটেই নির্বাচিত আজকের সরকার হঠাৎ গো-বলয়ের সেবায় নিয়োজিত করছেন কেন নিজেদের। কিছুদিন রাজের মানুষের জন্য টীকা ছিলো না। আজ বহিরাগত সাধু সন্ন্যাসীদের টিকাদান কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। 

    কোন ধর্মীয় বিশ্বাস আঘাত করতে নয়। একটু আধটু খোঁজ খবর নিয়ে দেখুন আপনিও তো কোনো না কোনো ভাবে যে ধর্মীয় সংগঠনের সাথে যুক্ত আছেন তারা কী বলছে গঙ্গাসাগর মেলা নিয়ে। আমার চেনা জানা গুরুরা তো বলছে, সাধুর বেশে ভিক্ষারিরা আজকাল হাজির হয় গঙ্গাসাগর মেলাতে। তা যাইহোক ও নিয়ে মাথা ব্যাথা নেই। এ দেশে ময়দানে বইমেলা বন্ধ হয়ে যায় দুষণের অজুহাতে, আর করোনা মহামারীর চোখ রাঙানি উপেক্ষা করে গঙ্গাসাগর মেলা চলতে পারে। উপযুক্ত পরিকাঠামো তৈরি করেছে নাকি সরকার। কিন্তু যে হাসপাতালগুলোর কথা বলা আছে তার সিংহভাগ তো কলকাতাতে।

    গঙ্গাসাগর মেলা যখন চলছে তখন স্কুল কলেজ বন্ধ থাকবে কেন? জানেন পৃথিবীতে একটি সময় মানুষ একটা উদ্দেশ্য ছিল খাদ্য সংগ্রহ, তখন মানুষ শিকার করত। তখন সমাজে শক্তিশালী মানুষের কদর ছিল। তারপর তারা অস্ত্র তৈরি শিখল, তখন অস্ত্র বানানোর কারিগর এর একটা মুল্য হল। কিন্তু তারপর চাষবাস শিখে যায় মানুষ। আজ আমরা কিন্তু কোন শক্তিশালী ভালো শিকার করতে পারা মানুষকে নিজেদের দলপতি করা চিন্তা করি না। কারণ এটা এখন অপ্রয়োজনীয়।

    আমার কথাগুলো অপ্রয়োজনীয় মনে হতে পারে কিন্তু আমি একটা অশনিসংকেত দেখছি। স্কুলজীবন কিন্তু কোনো না কোনো ভাবে আমাদের জীবন গঠনে একটা ভূমিকা পালন করে। জীবনে একটা শৃঙ্খলা বোধ এনে দেয়। ভালো মন্দ বিচার করার ক্ষমতা দেয়, বন্ধুত্ব গড়ে তুলতে সাহায্য করে বৈষম্যময় এই সমাজেও।  স্কুল বন্ধ রাখা মানে তো এই নয় যে এই তিন বছর ছেলেমেয়েরা স্কুল কলেজ গেল না তারা না খেতে পেয়ে মারা যাবেন। বাংলায় কোনো শিল্প বা বিনিয়োগ আসে নি গত দশ বছরে। তা বলে কি বাংলার ছেলেমেয়েরা না খেয়ে মরে যাচ্ছে। তারা বহির্বঙ্গে চাকরি বাকরি ঠিকই জোগাড় করে নিচ্ছে। নুন্যতম শিক্ষা নেবার একটা চাহিদা আছে এখনও আমাদের সমাজে। কিন্তু এইভাবে স্কুল কলেজ বন্ধ থাকলে নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান আর স্কুলকলেজ মুখী হবে না। কারণ ডিগ্রি দিয়ে চাকরি জোটে না এখন সবাই জানে। এখন স্কুলে যাওয়ার অভ্যাসটা সরকার যদি শেষ করে দেয় তাহলে সমাজ থেকে স্কুলে যাবার সংস্কৃতি বন্ধ হয়ে যাবে। সব কিছু যদি ৫০% নিয়ে খোলা থাকে তাহলে স্কুলগুলো খোলা থাকছে না কেন। গঙ্গাসাগরের যোগ দেওয়া মানুষগুলো তো আপনার ভোটারও না। কিন্তু এরা তো আপনার ভবিষ্যৎ এর  ভোটার।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • dc | 122.174.155.194 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ০৭:৪৮502567
  • নুনুতম শিক্ষা? ইয়ে...মানে...হুমম........নাঃ 
  • ar | 173.48.167.228 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ০৯:০১502570
  • পুরোনো খবর, কিন্তু আবার ভাবা যাক!!! মেলা বন্ধ হলে টুপাইসও বন্ধ!!
    "আমাদের বাঙালি সংস্কৃতির ঐতিহ্য বাহী পৌষ মেলা গুলো..... " টার্নওভার গঙ্গাসাগর মেলার ধারে কাছেও আসে না।

    https://timesofindia.indiatimes.com/city/kolkata/govt-eyes-share-of-sagar-offerings/articleshow/5425717.cms
  • Manab Mondal | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ১০:০৬502571
  • মে অজুহাতে মদের দোকান খোলা হয়। তাহলে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধ করে দিক, ওতে সরকার আয় হয় না।
  • অমিত তাঁতী | 223.191.23.48 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ১০:২৩502572
  • ঠিক বলেছেন। তবে এভাবে সবাই ভাবতে চায়না। আসলে গণ্ডীর বাইরে গেলে ব্যক্তিস্বার্থে আঘাত লাগে।
  • Manab Mondal | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ১০:৩৮502573
  • আসলে যারা আজ কাল বামপন্থী রাজনীতির সাথে যুক্ত তাঁরাও আসলে উচ্চ শ্রেণীর মানুষ ।
  • a | 61.68.216.245 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ১৮:৪২502575
  • নুনুতম কিন্তু গুরু ভোক্যাবে চিরকালীন জায়গা পাবার যোগ্য 
  • হ্যা হ্যা | 2a0b:f4c0:16c:3::1 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ১৯:৪৬502576
  • এ মাল নিচ্চয় নুনুতম ই উচ্চারন করে ওইটেই লিখে দিয়েছে। মগজে নুনু আর কি করবে?
  • Manab Mondal | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ২১:২৫502579
  • বর্তমান বুদ্ধি জীবিরা আসলে, সরকারের বিপ্ টা বেশি চুসছেন বোধহয়। তাই মূল বিষয় নিয়ে আলোচনা করে। ছোট্ট ছোট্ট খাটো বিষয়ে দৃষ্টি কেড়েছে বেশি করে। ্
  • :-)))) | 2a04:52c0:105:48bf::1 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ২১:৪৫502580
  • লেখায় ত সারবস্তু কিস্যু নেই আর বক্তব্যও ঘিসাপিটা এদিক ওদিক থেকে খাবলে আনা। রাজ্য সরকার  কেন্দ্র সরকার আর কপিল মুনির আখড়া কে কত টাকা পায় সেসব খোঁজ আগে নিয়ে তবে দু কলম লিখলে তাও পড়া যেত। 
     
    বুদ্ধিজীবি একটাই শব্দ। ওর মধ্যে ফাঁক নেই বাওয়া। তা নিজেকে কি বুদ্ধিজীবি মনে করছ নাকি নুনুতম শিক্ষাধারী?এ হে হে তাহলে যে একটু বানান টানানগুলো শিখতে হবে।
  • @Manab | 2a03:e600:100::19 | ০৯ জানুয়ারি ২০২২ ২২:৪৫502582
  • গঙ্গাসাগর নিয়ে আপত্তি করলে পাবলিক কেমন খিল্লি করে বুঝছেন তো? কোন পলিটিকাল নেতা এই জনমতের বিরুদ্ধে যাবে না, গেলে হারাকিরি হবে।
  • Manab Mondal | ১০ জানুয়ারি ২০২২ ০৮:৫৮502588
  • বুঝলাম আজ বাঙালির কাছে বইমেলা চেয়ে গঙ্গা সাগর মেলা প্রিয়। আসলে ধর্মনিরপেক্ষতার মুখোশ আড়ালে আমরা ধর্মীয় ভোট ব্যাঙ্কের উপর নির্ভরশীল।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভ্যাবাচ্যাকা না খেয়ে প্রতিক্রিয়া দিন