• ভাটিয়ালি
  • এ হল কথা চালাচালির পাতা। খোলামেলা আড্ডা দিন। ঝপাঝপ লিখুন। অন্যের পোস্টের টপাটপ উত্তর দিন। এই পাতার কোনো বিষয়বস্তু নেই। যে যা খুশি লেখেন, লিখেই চলেন। ইয়ার্কি মারেন, গম্ভীর কথা বলেন, তর্ক করেন, ফাটিয়ে হাসেন, কেঁদে ভাসান, এমনকি রেগে পাতা ছেড়ে চলেও যান। এই হল আমাদের অনলাইন কমিউনিটি ঠেক। আপনিও জমে যান। বাংলা লেখা দেখবেন জলের মতো সোজা।

  • commentঅরিন | 198.41.238.121 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:২৩
  • @অপু: "রাজামশাই একটি বালক/বালিকা চাইলো"
    "কোন বালক/বালিকা চাইলো?"

    "অমুক বালক/ বালিকা চাইলো "

    এটি কোন খেলা?"

    যে খেলাই হোক, সাংঘাতিক রকম পলিটিকালি ইনকারেক্ট খেলা অপু!

    রাজামশাই কেনই বা চাইবেন, কার কাছে চাইবেন, তাকে নিয়ে কি করবেন কিছুই না জেনে অমুক বালক/বালিকার ওপর ডিসিশন নেওয়া হয়ে গেল, এ জাস্ট চলতে পারে না!

    ;-)

  • commentঅপু | 162.158.167.193 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:০৭
  • " রাজামশাই একটি বালক/বালিকা চাইলো"
    "কোন বালক/বালিকা চাইলো?"

    "অমুক বালক/ বালিকা চাইলো "

    এটি কোন খেলা?
  • commentS | 108.162.246.244 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:০৬
  • গোবরের এপিঠ ওপিঠ।
    একদল গরু দেখিয়ে ভোট চায়। আরেকদল ভোটারদের দুধেল গরু ভাবে।
  • commentPT | 162.158.158.180 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:০৪
  • ঐশী প্রসঙ্গে রাজনৈতিক অবস্থানের কি আশ্চর্য সমাপতন !!
    ১৭ জানুয়ারি ২০২০।
    'ওটা রক্ত না রং? জানতে হবে।' -বিজেপি
    ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০।
    'মাথায় একটা বাড়ি পড়েছে, তাতেই এত কথা, এত রাজনীতি!'- তিনো
  • commentS | 108.162.246.244 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১১:৪৭
  • একটু সময় নিয়ে এই ভিডিওটা দেখুন। আউট অব দ্য ওয়ার্ল্ড। কুডোস এই মহিলাকে।

  • commenti | 162.158.118.133 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১০:৩৬
  • এক্কা দোক্কায় খোপের লাইনে পা পড়ে গেলে আউট ছিল না?
    আর একটা কী যেন খেলা-বন্ধুগণ (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) তোমরা কী ভাই (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) বলতে পারো (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) কয়েকটি (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) ফুলের নাম? যেমন ধরো (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) গো -লাপ (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) বী কুইক। এইবারে পরের জন বলল-যেমন ধরো (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) প -দ্ম (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) বী কুইক; পরের জন ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে কিছুই মনে করতে পারছে না-তখন হয় সে আউট বা বলবে- যেমন ধরো (ক্ল্যাপ ক্ল্যাপ) পালটে ফ্যালো-

    আরো কত যে খেলা-
    কান ফিসফিস খেলতাম খুব । তাকে নাকি ব্রোকেন টেলিফোন খেলা বলে-বুড়ো বয়সে জেনেছি।
  • commenti | 162.158.118.61 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১০:২৮
  • আরে.. গ্রেট তো-
    অভিনন্দন কুমুদিদি।
  • commentDu | 172.69.70.58 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৯:৩৫
  • ’’ চা বাগানের অধিগ্রহণ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগের জবাবে মনোজের বক্তব্য, ‘‘কেন্দ্র অধিগ্রহণের চেষ্টা করেছিল। বিজ্ঞপ্তিও জারি হয়েছিল। কিন্তু রাজ্য সরকার ডানকানকে উস্কানি দিয়ে হাইকোর্টে পাঠিয়েছে। তাই অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া আটকে পড়েছে।’ eta ki satyi?
  • commentpi | 162.158.165.249 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৯:২২
  • আরে! এখানে বেস্টসেলার লিস্টে দেখি দিদি আর আমাদের কুমুদির বই পাশাপাশি!

    https://www.collegestreet.net/
  • comment:-D | 162.158.255.249 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৯:০৫
  • আহা, একলহমা দেখছি গুণী মানুষ। খাতির করতে হয়!
    ঠিক খোখো। কী যে শান্তি লাগছে নামটা মনে পড়ে। এই নিন দুটি ল্যাবেঞ্জুস!
    তাইলে, এক্কাদোক্কাই চুকিতকিত, তাই কিনা?
    যাগ্গে এখন নিশ্চিন্দে কাজে লাগি।
    ধন্যবাদ, একলহমা!
  • commentএকলহমা | 108.162.237.45 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৮:৪২
  • কবাডির আর একটা নাম ছিলো - হা-ডু-ডু
  • commentএকলহমা | 108.162.237.45 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৮:৪০
  • খোপাবলীতে সার দিয়ে মাটিতে উবু হয়ে বসে থাকতে হত আর পিছন থেকে এসে কিল মারত ... - খো-খো
  • commentএকলহমা | 108.162.237.45 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৮:৩৯
  • এক্কাদোক্কাতেও কিতকিত বলতে হত। - ঠিক। :-)
  • comment:-0) | 172.69.22.85 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৮:৩৬
  • কিন্তু কেন জানি মনে হচ্ছে ঐ এক্কাদোক্কাতেও কিতকিত বলতে হত। ঘুঁটি বেরবার আগে কিতকিত বলতে বলতে দম শেষ হয়ে গেলেই আউট। ফের এক নং ঘর থেকেশুরু করতে হত। না?
    আর কবাডির মত আর একটা খেলা ছিলো হ দিয়ে নাম। কোর্টে খোপ খোপ থাক্ত, সেই খোপাবলীতে সার দিয়ে মাটিতে উবু হয়ে বসে থাকতে হত আর পিছন থেকে এসে কিল মারত ... ঠিকঠাক মনে পড়ছেনা! মেমরি ফুটিফাটা হয়ে গ্যাসে!
    তবে পিকনিকের খেলা গুলো ছিলো অনেক কম পরিশ্রমের — রুমালচোর, পাসিং দ্য পার্সেল বা মিউসিক্যাল চেয়ার।
  • commentএকলহমা | 162.158.187.184 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৮:০১
  • @আতোজ
    ধন্যবাদ!
  • commentঅরিন | 198.41.238.123 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৭:৪৬
  • কি ও রাহি বা টোকা টোকা এইরকম কিছু একটা নাম। এখন মনে নেই, পিট্টুর সঙ্গে অদ্ভুত রকমের মিল। এমনিতেও মাওরিদের সঙ্গে বাঙালিদের নানারকম সামাজিক কাজকর্মের মিল আছে। দুটো উদাহরণ: যেমন রান্নাঘরে (হেঁসেলে) চটি পরে মাওয়া চলবেনা, কেউ মারা গেলে সৎকার করে আসার পর বাড়ির সিনিয়র লোকজন গায়ে জল ছেটালে বা হাতে জল দিয়ে তারপর ঘরে ঢোকা, এরকম, এছাড়াও, বহু মিল। এই মিলের ব্যাপারটা মার্ক টোয়েন Around the equator(?) নামে একটা বইতেও লক্ষ্য করে লিখেছিলেন।  

  • commentঅরিন | 198.41.238.123 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৭:৩২
  • আমি যেমন নিউ জিল্যাণ্ডে এসে মাওরিদের মধ্যে অবিকল পিট্টু খেলা দেখে স্তম্ভিত হয়ে গেছিলাম। এদেরো প্রায় একরকম নিয়ম, পাথর সাজাতে না দেওয়ার জন্য বল ছুঁয়ে মারা আর দৌড়ন। লোকাল নামটা এখন মনে পড়ছে না ।

  • commentAtoz | 162.158.187.116 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৬:৪৭
  • কতরকম খেলা ছিল দেশে গাঁয়ে। বিলাতী খেলা এসে সব হারিয়ে গেছে। এখন শুনেছি কোচিং এ ভর্তি হয়ে ক্রিকেট খেলতে হয়, টেনিস খেলতে হয়। মাঠও তো একটা দুটো ছাড়া সব ভ্যানিশ, খোলামেলা খেলার জায়্গাও তো খুব কম আজকাল।
  • commentAtoz | 162.158.187.116 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৬:৪৩
  • আট ন ঘর তো এক্কা দোক্কা। এক পায়ে লাফিয়ে লাফিয়ে ঘুটি ঠেলে খেলা।
    চু কিতকিত তো কবাডি, দুই গ্রুপের খেলা, কবাডি-কবাডি বা কিতকিত বলতে বলতে দম রেখে অন্য কোর্টে ঢুকতে হবে, অনেকে জাপ্টে ধরবে, সেই সবশুদ্ধ টেনে নিজের কোর্টে আনতে হবে। দম ফুরিয়ে গেলে আউট। টেনে আনতে পারলে ওরা যারা ধরেছিল, সবাই আউট।
  • comment:-/ | 162.158.255.249 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৬:২৫
  • লিখতে লিখতে *চোখের সামনে ভেসে উঠছে কাঠি দিয়ে আঁকা কোর্ট।
  • comment:-?! | 162.158.255.21 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৬:২৩
  • নাঃ চু কিতকিতটা ঠিক হলো না। কাঠি দিয়ে ৮ ঘর ৯ ঘর কোর্ট কাটত আর ছোট্ট একটা ঢিলের টুকরো ঘুঁটির কাজ করত। লিখতে লিখতে। চটি দিয়ে অত বড় কোর্ট হবে কি করে? নাকি অন্য কোনও খেলার সঙ্গে গোলাচ্ছি?
  • commentAtoz | 162.158.186.155 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৫:৫৯
  • একলহমা,
    দারুণ অনুবাদ। মূল লেখা তো পড়তে পারবো না, সেই ভাষা জানা নেই।
    বসরাই গোলাপের দেশের কবিতা-আহ।
  • commentএকলহমা | 162.158.186.35 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৫:৪০
  • বসরাই গোলাপ-এর দেশের কবিতা

    কলঙ্ক ধুয়ে ফেলতে

    - নাজিক আল-মালাইকা

    মা - , থরথর করে কেঁপে উথল একবার,
    চোখের জল আর নিকষ আঁধার
    গলগলিয়ে রক্তের স্রোত,
    ছুরি-বেঁধা শরীর কেঁপেকেঁপ উঠল তার।
    “ওঃ মাগো!”
    জল্লাদ ছাড়া আর কেউ শুনতে পেলনা।
    কাল আবার আসবে একটা ভোর,
    জেগে উঠবে গোলাপেরা
    নবীন পুলকে আশারা খুঁজবে তাকে
    মাঠ জুড়ে ফুটে থাকা ফুলেরা বলবে তাদেরঃ
    সে চলে গেছে তার কলঙ্ক ধুয়ে ফেলতে।

    নির্মম ঘাতক ফিরে এসে বলবে তার
    অপেক্ষায় থাকা কাছের মানুষদের
    “কলঙ্ক একটা!”
    ছুরিটা মুছে নেবে ভালো করে
    “নিকেশ করে দিয়েছি আমরা।”
    আর এইভাবে সে ফিরে আসবে তার
    পবিত্র শুভ্র গৌরবে সমুজ্জ্বল।

    (নিউ ইয়র্ক টাইমস-এ ২০০৭-এ প্রকাশিত Alissa J. রুবিন-এর লেখা থেকে আমার অনুবাদ, এইমাত্র)
    (https://www.nytimes.com/2007/06/27/arts/27malaika.html)
  • commentAtoz | 162.158.186.23 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৫:৩৮
  • ভালো লিংক, অরিন। ধন্যবাদ। আমাদের ছোঁয়াছুয়ি খেলা বিশাল খোলা মাঠে হত, একেবারেই মেঠো দৌড়াদৌড়ি। পড়ে গিয়ে হাঁটু ছড়ে যেত, ওটা প্রায় নর্মাল ছিল। আর দৌড়োনোর ফলে বেশ এক্সারসাইজও হয়ে যেত, খোলা মাঠে ফ্রেশ হাওয়ায় প্রচুর অক্সিজেনও নেওয়া হত।
    একটাই অসুবিধে ছিল, মাঝে মাঝে টেট ভ্যাক দিইয়ে আনাতো অভিভাবকরা, ওই পড়ে হাঁটু ছড়ে টড়ে যেত বলে।
  • commentঅরিন | 198.41.238.119 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৪:৪৪
  • @Atoz: "এমনি নর্মাল ছোঁয়াছুয়ি খেলা যেখানে দৌড়ে গিয়ে ছুঁয়ে আউট করা হয়, সে তো খেলা হতই ",

     ছোঁয়াছুঁয়ির চেস ট্যাগ ওয়ার্লড চ্যামপিয়নশিপ:

    হাই-টেক, এই যা। আলমারি টেবিলের ওপর আমরাও  খেলেছি, যদি জানতেম ;-)


     
     

  • commentAtoz | 162.158.186.23 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৩:১৪
  • একেবারে। দুনিয়া জুড়ে জেলেমাছ। ঃ-)
    ছোটোবেলাতেই একটা ট্রেনিং হয়ে গিয়েছিল আমাদের। ঃ-)
  • commentএকলহমা | 162.158.186.23 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:৩৪
  • এই জেলেমাছ খেলাটাই ত সবাই মিলে খেলে চলেছে! :)
  • commentAtoz | 162.158.186.23 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:২১
  • জেলেমাছ ও ছোটাছুটি খেলা। যে চোর, সে ছুটে প্রথমে যাকে আউট করবে, তার হাত ধরে দুইজনে মিলে পরেরজনকে, তারপরে তিনজনে মিলে, তারপরে চারজনে---এইভাবে জাল বড় হতে থাকবে, আর মুক্ত মাছেরা ধরা পড়ে পড়ে জালের অংশ হয়ে যেতে থাকবে। শেষজন ধরা পড়ে গেলে খেলা শেষ।
  • commentএকলহমা | 162.158.186.251 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:১৬
  • @Atoz
    হৈল। জেলেমাছ খেলাটা কি? :-)
  • commentএকলহমা | 162.158.186.251 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:১৩
  • @ pinaki
    ভালো বলেছেন, মনে রাখব।
  • commentpinaki | 162.158.134.141 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:১০
  • কিন্তু মাথায় রাখবেন ঐ পুরোনো টইয়ের লিংকগুলো কিন্তু এখন কাজ করবে না। ঐ টইগুলো সার্চ করে খুঁজে পেলে নতুন লিংকসহ একটা টই খুলে রাখতে পারেন।
  • commentAtoz | 162.158.187.90 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:০১
  • একলহমা, তোমরা এই খেলাটা খেলতে না? আমাদের সময়ে ছোটাছুটি খেলার মধ্যে এই কাকজোড়া আর জেলেমাছ খুব পছন্দের খেলা ছিল। এমনি নর্মাল ছোঁয়াছুয়ি খেলা যেখানে দৌড়ে গিয়ে ছুঁয়ে আউট করা হয়, সে তো খেলা হতই। আর কোর্ট তৈরী করে খেলা হলে সেই চু-কিতকিত। কোর্ট তো ছিল না আমাদের, সবার স্যান্ডেল দিয়ে মেকশিফট কোর্ট বানানো হত। খেলার শেষে যে যার চটি পরে বাড়ি, কোর্ট ভ্যানিশ। ঃ-)
  • commentএকলহমা | 162.158.187.204 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:৪৮
  • @ Atoz
    দিদি-রে কি যে আনন্দ হচ্ছে! কাল সারা রাত জেগে তোমাদের গোছা গোছা মন্তব্য, টই পড়েছি। ভোর পাঁচটায় ঘুমাতে গেছি (সেই, সেই লেখাটায় লাস্টাইম জেগেছিনু)।

    আগে যাঁরা দুইবেলা হানা দিতেনঃ
    অনেকগুলো কারণ একসাথে কাজ করছে বলে মনে হয়। দুঃখের, খুব-ই দুঃখের। (এইপারেও কিন্তু আকাশে দুর্যোগের ঘনঘটা।)

    কাকজোড়া খেলা - বর্ণনাটা খাসা হয়েছে। চোখের সামনে দেখতে পেলাম। জানো, কাল রাতে কতবার যে আন্তর্জাল ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে গেছি খেলাটার বিবরণ-এর খোঁজে। তোমার মন্তব্য-টা একবার পেয়েছিলাম কিন্তু পরশপাথর হারিয়ে ফেলার মতই সেটাও হারিয়ে ফেললাম আর সেটাতে যে কি লেখা ছিল সেটাও মনে করতে পারলাম না। অন্য কারও কোন লেখাও পেলাম না। খুব ভালো হল তুমি এইখানে এটা লিখে রাখায়। :-)
  • commentAtoz | 162.158.186.35 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:৪৩
  • গোলাপের ব্যাপারে কেউ বসরা র কথা কইলেন না? এককালে খুব বিখ্যাত ছিল বসরাই গোলাপ।
  • commentAtoz | 162.158.186.35 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:৩৬
  • বসন্তকালে মাংস না খেয়ে নিমবেগুন খান, সজনেডাঁটার তরকারি খান, করোলাভাজা খান। অসুখ বিসুখ হবে না।
  • commentঅরিন | 198.41.238.121 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:২৮
  • @সে: "অরিনকে বলছি। সোলার প্যানেল জারমানির প্রচুর বাড়িতে এবং দোকানপাটে রয়েছে। তবে শুধু গ্রীষ্মেই এটা পুরোপুরি কাজে দেয়। শীতকালে কার্বনফ্রি হবার সম্ভাবনা কম। সেক্ষেত্রে হাওয়া থেকে এনার্জি "

    তা তো বটেই। উত্তর ইউরোপ/নিউজিল্যাণ্ডে শীতকালের ব্যাপারটা অন্যরকম যে।

    একে আলো কম থাকে, তায়  এই সময়টাতেই সবচেয়ে বেশী  ইলেকট্রিসিটি খরচা হয় -- সারাদিন গরম জলের হিটার চলে, যাঁরা বাড়ি গরম করে রাখার জন্য হিট পাম্প ব্যবহার করেন তাঁদের ক্ষেত্রে প্রায় সারা রাত হিটার,  ইলেকট্রিক ব্ল্যানকেট, আলো, সব মিলিয়ে যে সময়টাতে সূর্যালোক -নির্ভর  ইলেকট্রিসিটি জেনারেশন হলে সবচেয়ে সুবিধে হত, সেই সময়টাতেই বিদ্যুৎবাবুকে সেই সূত্রে পাওয়া যাবে না। এখন ব্যাটারী থাকলে  কিছুটা সুবিধে হতে পারে হয়ত, কিন্তু সে সাংঘাতিক খরচসাপেক্ষ। আবার এদিকে যে সময়টুকুতে সূর্যের আলোয়  ইলেকট্রিসিটি জেনারেট হবে সেটা কিন্তু দারুণ এফিশিয়েন্ট কারণ, ঠাণ্ডা কিন্তু সূর্যের আলো পাওয়া যাচ্ছে, ফলে প্যানেলগুলো খুব গরম না হয়ে গিয়ে হইহই করে পাওয়ার জেনারেট করতে পারবে। 

    আমাদের এদিকটায় শীতকালে হাওয়া থেকে এনার্জি পাওয়ার সম্ভবনা নেই বললে চলে, কারণ গোটা শীতকাল হয় বরফ পড়ে, না হলে বৃষ্টি। কাছাকাছি একটা ঝরণা কি নেহাৎ ছোটখাট একটা জলপ্রপাত থাকলেও ছোট টারবাইন চালানো যেতে পারে অবশ্য। আমি একবার একটি গহণ অরণ্যে পাহাড়ের মাথায় এক ভদ্রলোকের একটি hut-এ দু'রাত ছিলাম, সেখানে অন্য কোনভাবে ইলেকট্রিসিটি পৌঁছনোর কোন গল্পই নেই -- তিনি বাড়ির কাছাকাছি একটা খুব ছোট জলপ্রপাত, ঝোরাই বলা চলে, সেখান থেকে টারবাইন চালিয়ে দিব্যি পাওয়ার জেনারেট করতেন। সে টারবাইনটা তিনি নিজে ডিজাইন করেছিলেন। বাকীটা সোলার থেকে।  ওরকম একটা সাংঘাতিক বিপজ্জনক পাহাড়ের মাথায় তায় অরণ্যসঙ্কুল সরু পথ দিয়ে কি করে প্যানেল আর টারবাইন টেনে তুলেছিলেন জিজ্ঞেস করাতে বলেছিলেন ঘোড়ায় চড়ে। লোকে পারেও বটে!

    কার্বন ফ্রি নিদেন পক্ষে কার্বন লঘু প্রায় সম্বৎসর একটু চেষ্টা করলেই হওয়া যায় অবশ্য, সেক্ষেত্রে বসন্তদিনে দিল খুশ করে দোকান থেকে মাংস কিনে কষে রান্না করে হাত চুবিয়ে না খেলে দেখবেন স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারে নিজের থেকে অনেকটা কার্বন কম ঢাললেন, ;-), কাব্যি হবে না, এই যা । 

  • commentAtoz | 162.158.186.35 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:২৬
  • আরে অরিন, আপনার লেখার সূত্রে কী ভালো জিনিসই না এল! বিয়াঙ্কা কাস্তাফিয়োর! "ভালোবাসা মোর লাল, গোলাপেরই মত", সেই পান্না কোথায় কাহিনিতে। সেইখানে একটা চমৎকার লাইন আসতো, বিয়াঙ্কা মাঝে মাঝেই বলে উঠতেন, "ইর্মা আ আ, আমার গয়না?" ঃ-)
  • commentAtoz | 162.158.186.35 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:২২
  • একলহমা,
    চিনেছেন দেখছি। ঃ-) কিন্তু আমার গল্পেরা নাহয় পালিয়ে যাচ্ছে, কিন্তু অন্যদেরও তো দেখা পাওয়া যায় না। আগে যাঁরা দুইবেলা হানা দিতেন, এখন কালেভদ্রে দেখা দেন। ঘটনা কী?

    "কাকজোড়া" খুব জনপ্রিয় খেলা ছিল আমাদের ছোটোবেলা। বড় বড় খেলার মাঠ ছিল কিনা! রাম দুই সাড়ে তিন করে গুনে যে বাকী থাকতো, সে ছুটে এসে ছুঁয়ে অন্যদের আউট করবে, কিন্তু কাকজোড়ায় একটা প্যাঁচ আছে, যদি দুইজন হাত ধরাধরি করে থাকে, তাহলে ছুঁলেও আউট হবে না। তাড়া করে যে আসছে তার সামনে একা পড়ে গেলে মুশকিল। আবার খেলার নিয়মে সবসময় হাত ধরাধরি থাকলেও হবে না, আলগা হয়ে ছুটতে হবে সবাইকে। তাই নানা তুঙ্গমুহূর্ত আসতো খেলায়, একজনকে তাড়া করে যাচ্ছে , সে ছুটে পালাচ্ছে, অন্যদিক থেকে বিদ্যুতের মতন আরেকজন ছুটে গেল রক্ষা করতে। প্রায় শেষ মুহূর্তে পলায়নকারীর হাত ধরে ফেলে দুজনে প্রায় উড়ে যেতে লাগলো, পিছনে আউট করতে যে ছুটে আসছিল সে আস্তে আস্তে গতি কমিয়ে ফেলতে লাগল। একেবারে সেই ই টি সিনেমায় মতন, সিকিউরিটির লাইনের কাছ থেকে প্রায় ধরা পড়ে পড়ে অবস্থায় সমস্ত সাইকেল সমেত গোটা দল উড়ে গেল। ঃ-)
  • commentঅর্জুন | 162.158.118.73 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:১৫
  • *Prof. P Lal র Writers Workshop 

  • commentঅর্জুন | 162.158.118.191 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৫৭
  • @Du, P Lal'র Writer's Worshshop র রবীন্দ্রনাথের ইংরেজি অনুবাদের বইগুলোয় (বিভিন্ন জনের কৃত) পাবেন। আমাকে  (কবি) রাজলক্ষ্মী দেবী তাঁর করা অনুবাদের বইটি দিয়েছিলেন কিন্তু সেটা এই মুহূর্তে খুঁজে পেলামনা । সেখানে মনে হয় 'যখন পড়বে না মোর পায়ের....' onubad ache. 

  • commentlcm | 172.68.141.129 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৫২
  • হা হা, আকার সঙ্গে একমত
  • commentরৌহিন | 162.158.158.180 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৪১
  • সারাদিন হাসপাতাল হাসপাতাল করে ফোনেফ চার্জ রাখার চক্করে নেট অন করিনি। এখন একটু পড়তদ গিয়ে দেখছি ইন্টারেস্টিং সব আলুচানা মিস করে গেছি।

    বাঁশী নিয়ে দু পয়সা -

    ক্লাস নাইনে পড়তে এক্সটেম্পোর এর বিষয় পেলাম " যদি বাঁশী আর না বাজে" - কবিতাটা তখন শুধু জানা তাই না, রীতিমত মুখস্থ বলতাম, সব্যসাচীর ভঙ্গী নকল করার চেষ্টা করে। তা সত্ত্বেও প্রথম যে সেন্টেন্সটা আমার মাথায় এল আর বলেও ফেললাম, সেটা হল "যদি বাঁশী আর না বাজে তবে দেখতে হবে সেটা ফেটে গেছে কিনা"। এটা বলে নিজেই বিপদে পড়ে গেলাম - এখান থেকে কবিতাটার প্রসঙ্গে কিভাবে আসব সে আর ভেবে পাইনা। প্রচুর আমতা আমতা করে গোঁজামিল দিয়েছিলাম

  • commentaka | 162.158.186.23 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৩৪
  • এহে এক্কালে কি তক্কোটাই না করতাম, ভাবলেও অবাক লাগে। বুড়ো হয়ে গেলাম মনে হয়।
  • commentএকলহমা | 108.162.238.232 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৩০
  • pi,
    টই(গুলো) পড়তে শুরু করেছি। ধাক্কাও খেয়েছি। :)
    আমার এর আগে চন্দ্রিল-এর কিছু ইউটুব ভিড্যু দেখা আছে, ভাল লেগেছে।
    এবার কাটাছেঁড়াগুলোও পড়ি। :D
  • commentচশমা | 162.158.118.107 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:১৭
  • হ্যাঁ ছেষট্টির ওপর প্যাঁচা বসে আছে তো।

  • commentpi | 172.69.135.153 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:১২
  • আর একলহমা, রমিতবাবু, অনেকগুলো টই তোলা আছে দেখুন, লসাগুদাও দিয়েছেন। এগুলোতেই ছিল সেসব কাটাছেঁড়া!
  • commentpi | 172.69.135.153 | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:১১
  • এটা গুরুরই উদ্যীগ আর এক পুরানো গুরুভাইয়ের নেওয়া ঃঃ) গুরুতে অবশ্য অন্য অবতারে ছিলেন!

  • গুরুর মোবাইল অ্যাপ চান? খুব সহজ, অ্যাপ ডাউনলোড/ইনস্টল কিস্যু করার দরকার নেই । ফোনের ব্রাউজারে সাইট খুলুন, Add to Home Screen করুন, ইন্সট্রাকশন ফলো করুন, অ্যাপ-এর আইকন তৈরী হবে । খেয়াল রাখবেন, গুরুর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করতে হলে গুরুতে লগইন করা বাঞ্ছনীয়।
  • হরিদাসের বুলবুলভাজা : সর্বশেষ লেখাগুলি
  • জাগ্রত শাহিন বাগ
    (লিখছেন... বিপ্লব রহমান, আজ সুপ্রিম কোর্টে, Anjan Banerjee)
    জনসন্ত্রাসের রাজধানী
    (লিখছেন... র, pi, রঞ্জন)
    কোকিল
    (লিখছেন... দেবাশিস ঘোষ)
    বিনায়করুকুর ডায়েরি
    (লিখছেন... ^&*, একলহমা , pi)
    মিষ্টিমহলের আনাচে কানাচে - দ্বিতীয় পর্ব
    (লিখছেন... দীপক দাস , দীপক, দীপক)
  • টইপত্তর : সর্বশেষ লেখাগুলি
  • আগামীর অবয়ব
    (লিখছেন... দ্রি, দ্রি, দ্রি)
    নিমো গ্রামের গল্প
    (লিখছেন... সুকি , সুকি , সুকি)
    যুক্তরাস্ট্র নির্বাচন ২০২০
    (লিখছেন... )
    প্রেমিকাকে কোলকাতাতে ফুল পাঠাবো কিভাবে?
    (লিখছেন... pi, pi, সুকি)
    পুরোনো লেখা খুঁজছেন, পাচ্ছেন না - এখানে জিজ্ঞেস করুন
    (লিখছেন... lcm, r2h, দু:শাসন)
  • হরিদাস পালেরা : যাঁরা সম্প্রতি লিখেছেন
  • শ্রী রামকৃষ্ণ : কিছু দ্বন্দ্ব : Sumana Sanyal
    (লিখছেন... রঞ্জন, এলেবেলে, Anjan Banerjee)
    যুদ্ধ : Swapan Majhi
    (লিখছেন... )
    গাধা সময়ের পদাবলী : রোমেল রহমান
    (লিখছেন... Du)
    জোড়াসাঁকো জংশন ও জেনএক্স রকেটপ্যাড-৮ : শিবাংশু
    (লিখছেন... dd, i, শিবাংশু)
    তিরাশির শীত : কুশান গুপ্ত
    (লিখছেন... anandaB, ন্যাড়া, Apu)
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তত্ক্ষণাত্ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ যে কেউ যেকোনো বিষয়ে লিখতে পারেন, মতামত দিতে পারেন৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
  • যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত