বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

Wong Kar Wai’s In the Mood for Love – একটি রমন্যাস

রাজু রায়চৌধুরী

হংকং নব্য তরঙ্গ সিনেমার পুরোধা ওং কার ওয়াই । তার ছবি নিয়ে হাজারো আলোচনা হয়েছে সে আলোচনা শুরু করলে তার শেষ হয় না। ওং কার ওয়াই এর সিনেমার কথা বলতে গিয়ে প্রথমেই মনে পড়ছে চলচ্চিত্র সমালোচক ল্যারি গ্রসের একটি বিখ্যাত উক্তির কথা

“The first time you see Wong Kar-Wai’s movies,  you feel you are watching the work of a delicious visual mannerist indifferent to narrative structure……The sheer hedonistic absorption in architectural surfaces, in light sources, in décor of  every possible fabric and material, and the absence of overtly literary seriousness in the plots, make you feel trapped in the world of a super-talented hack. Then you go back and take another look, and the movies change, more drastically  than any I know of. They seem  richer, more intricately organized, more serious………”

<দালি ও সুরিয়্যালিস্ট সময়>

পথ চলতে চলতে হঠাৎ দেখা সেই লাস্যময়ী নারীটির সাথে, যার নাগরটি গোপনে প্রণয়াবদ্ধ হয়েছে আমার দয়িতার সাথে। হ্যাঁ, এরকম তো হতেই পারে, তখন আমরা কি করবো? “কি করি আজ ভেবে না পাই, পথ হারিয়ে কোন বনে যাই”। বাধনহীন যৌনকামনা আমাকে প্রতি মুহূর্তে আচ্ছন্ন করে, কখনো বা ভাবি আমাদের দুজনের এই উভয়সঙ্কট বুঝি জন্ম দেবে এক মৌন অমর ভালবাসার। হয়তো কাল আমাদের ক্ষমা করে দেবে আমাদের মত এমন দুটি ব্যথিত হৃদয়ের গল্প শুনে সবাই হর্ষাবিষ্ট হবে। নিভৃত হৃদয় যুগলে লুকিয়ে থাকা বিষাদসিন্ধুর সন্ধান কারই বা জানা আছে? এমন দুটি ব্যকুল হৃদয়ের দৌর্মনস্য, নিবিড় গোপনীয়তা আবার আলিঙ্গনাবদ্ধ হয়ে নতুন করে প্রেমের ইতিহাস লেখার যে ক্ষণস্থায়ী সুযোগ রচিত হয়েছিল Wong Kar-Wai এর “In the Mood for the Love” ছবিতে, তা দেখে এক কথায় হতচকিত না হয়ে উপায় নেই। একজন অর্কেস্টার নির্দেশক যেমন, Wong Kar-Wai ও ঠিক তেমনভাবেই সেই ব্যথিত যুগলের মনের মণিকোঠা থেকে উদ্ধার করেছেন এক আবেগবিহ্বলতা, এক চেতনাময় সংগীত, যা ধরা পড়েছে ছবিটির পরতে পরতে, প্রত্যেকটি শটে। Andrei Tarkovosky যাকে বলেছেন “Time Pressure”  তার সঠিক ব্যবহারই চলচ্চিত্রটির অনুযাত ইমেজগুলির মধ্যে এনেছে এক অদ্ভুত ছন্দ বা লয়। আবার একই সাথে যেন কোন এক চিত্রকর কালিক অনির্দিষ্টতার রং দিয়ে এক রূপক রচনা করেছেন সমস্ত ছবি জুড়ে। হ্যাঁ, সত্যিই ইমেজগুলো কথা না বলেও কত কথা বলে “যেন আমার না বলা বানীর ঘনযামিনীর মাঝে”। আবেগমথিত হৃদয়ে দীর্ঘায়িত হয় Mr. Chow (Tony Leung) এবং Mrs. Chan (Maggie Cheung) এর অবস্থান। তাদের প্রাত্যহিক সাক্ষাৎ, ক্ষণিক দৃষ্টিপাত, পরস্পরের প্রতি গভীর আসক্তি এক প্রণয়রসের জন্ম দেয়, সময়কেও যা দ্রবীভূত করে। আর এই আকস্মিক সামীপ্য বা সম্ভাবনাময় নৈকট্যই জন্ম দেয় “What if”  কিছু স্মৃতিমেদুর প্রতিবিম্বর যেগুলি Space and Time এ নিলম্বিত। এই চারিত্রিক আত্মনিষ্ঠ প্রতিমূর্তিগুলি দীর্ঘায়িত হয়, গতানুগতিক তুচ্ছতার ঊর্ধ্বে সময়ের এক সংজ্ঞা রচিত হয়। কালিক নিয়মের বাইরে গিয়ে ‘filmic image’  গুলো যেন চিরস্মৃতিস্থাপক, সময়ের স্মারক হয়ে ওঠে।