Muhammad Sadequzzaman Sharif RSS feed

Muhammad Sadequzzaman Sharifএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা... বাংলাদেশের রাজনীতির গতিপথ পরিবর্তন হওয়ার দিন
    বিএনপি এখন অস্তিত্ব সংকটে আছে। কিন্তু কয়েক বছর আগেও পরিস্থিতি এমন ছিল না। ক্ষমতার তাপে মাথা নষ্ট হয়ে গিয়েছিল দলটার। ফলাফল ২০০৪ সালের ২১ আগস্টে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড মেরে হত্যার চেষ্টা। বিরোধীদলের নেত্রীকে হত্যার চেষ্টা করলেই ...
  • তোমার বাড়ি
    তোমার বাড়ি মেঘের কাছে, তোমার গ্রামে বরফ আজো?আজ, সীমান্তবর্তী শহর, শুধুই বেয়নেটে সাজো।সারাটা দিন বুটের টহল, সারাটা দিন বন্দী ঘরে।সমস্ত রাত দুয়ারগুলি অবিরত ভাঙলো ঝড়ে।জেনেছো আজ, কেউ আসেনি: তোমার জন্য পরিত্রাতা।তোমার নমাজ হয় না আদায়, তোমার চোখে পেলেট ...
  • বার্সিলোনা - পর্ব ২
    বার্সিলোনা আসলে স্পেনের শহর হয়েও স্পেনের না। উত্তর পুর্ব স্পেনের যেখানে বার্সিলোনা, সেই অঞ্চল কে বলা হয় ক্যাটালোনিয়া। স্বাধীনদেশ না হয়েও স্বশাসিত প্রদেশ। যেমন কানাডায় কিউবেক। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই মনে হয় এরকম একটা জায়গা থাকে, দেশি হয়েও দেশি না। ...
  • বার্সিলোনা - পর্ব ১
    ঠিক করেছিলাম আট-নয়দিন স্পেন বেড়াতে গেলে, বার্সিলোনাতেই থাকব। বেড়ানোর সময়টুকুর মধ্যে খুব দৌড় ঝাঁপ, এক দিনে একটা শহর দেখে বা একটা গন্তব্যের দেখার জায়গা ফর্দ মিলিয়ে শেষ করে আবার মাল পত্তর নিয়ে পরবর্তী গন্তব্যের দিকে ভোর রাতে রওনা হওয়া, আর এই করে ১০ দিনে ৮ ...
  • লাল ঝুঁটি কাকাতুয়া
    -'একটা ছিল লাল ঝুঁটি কাকাতুয়া।আর ছিল একটা নীল ঝুঁটি মামাতুয়া।'-'এরা কারা?' মেয়েটা সঙ্গে সঙ্গে চোখ বড়ো করে অদ্ভুত লোকটাকে জিজ্ঞেস করে।-'আসলে কাকাতুয়া আর মামাতুয়া এক জনই। ওর আসল নাম তুয়া। কাকা-ও তুয়া বলে ডাকে, মামা-ও ডাকে তুয়া।'শুনেই মেয়েটা ফিক করে হেসে ...
  • স্টার্ট-আপ সম্বন্ধে দুচার কথা যা আমি জানি
    স্টার্ট-আপ সম্বন্ধে দুচার কথা যা আমি জানি। আমি স্টার্ট-আপ কোম্পানিতে কাজ করছি ১৯৯৮ সাল থেকে। সিলিকন ভ্যালিতে। সময়ের একটা আন্দাজ দিতে বলি - গুগুল তখনও শুধু সিলিকন ভ্যালির আনাচে-কানাচে, ফেসবুকের নামগন্ধ নেই, ইয়াহুর বয়েস বছর চারেক, অ্যামাজনেরও বেশি দিন হয়নি। ...
  • মৃণাল সেন : এক উপেক্ষিত চলচ্চিত্রকার
    [আজ বের্টোল্ট ব্রেশট-এর মৃত্যুদিন। ভারতীয় চলচ্চিত্রে যিনি সার্থকভাবে প্রয়োগ করেছিলেন ব্রেশটিয় আঙ্গিক, সেই মৃণাল সেনকে নিয়ে একটি সামান্য লেখা।]ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে কীভাবে যেন পরিচালক ত্রয়ী সত্যজিৎ-ঋত্বিক-মৃণাল এক বিন্দুতে এসে মিলিত হন। ১৯৫৫-তে মুক্তি ...
  • দময়ন্তীর সিজনস অব বিট্রেয়াল পড়ে
    পড়লাম সিজনস অব বিট্রেয়াল গুরুচন্ডা৯'র বই দময়ন্তীর সিজনস অব বিট্রেয়াল। বইটার সঙ্গে যেন তীব্র সমানুভবে জড়িয়ে গেলাম। প্রাককথনে প্রথম বাক্যেই লেখক বলেছেন বাঙাল বাড়ির দ্বিতীয় প্রজন্মের মেয়ে হিসেবে পার্টিশন শব্দটির সঙ্গে পরিচিতি জন্মাবধি। দেশভাগ কেতাবি ...
  • দুটি পাড়া, একটি বাড়ি
    পাশাপাশি দুই পাড়া - ভ-পাড়া আর প-পাড়া। জন্মলগ্ন থেকেই তাদের মধ্যে তুমুল টক্কর। দুই পাড়ার সীমানায় একখানি সাতমহলা বাহারী বাড়ি। তাতে ক-পরিবারের বাস। এরা সম্ভ্রান্ত, উচ্চশিক্ষিত। দুই পাড়ার সাথেই এদের মুখ মিষ্টি, কিন্তু নিজেদের এরা কোনো পাড়ারই অংশ মনে করে না। ...
  • পরিচিতির রাজনীতি: সন্তোষ রাণার কাছে যা শিখেছি
    দিলীপ ঘোষযখন স্কুলের গণ্ডি ছাড়াচ্ছি, সন্তোষ রাণা তখন বেশ শিহরণ জাগানাে নাম। গত ষাটের দশকের শেষার্ধ। সংবাদপত্র, সাময়িক পত্রিকা, রেডিও জুড়ে নকশালবাড়ির আন্দোলনের নানা নাম ছড়িয়ে পড়ছে আমাদের মধ্যে। বুঝি না বুঝি, পকেটে রেড বুক নিয়ে ঘােরাঘুরি ফ্যাশন হয়ে ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনঃ আদার ব্যাপারির জাহাজের খবর নেওয়া...

Muhammad Sadequzzaman Sharif

ভারতের নির্বাচনে কে জিতল তা নিয়ে আমরা বাংলাদেশিরা খুব একটা মাথা না ঘামালেও পারি। আমাদের তেমন কিসছু আসে যায় না আসলে। মোদি সরকারের সাথে বাংলাদেশ সরকারের সম্পর্ক বেশ উষ্ণ, অন্য দিকে কংগ্রেস বহু পুরানা বন্ধু আমাদের। কাজেই আমাদের অত চিন্তা না করলেও সমস্যা নেই খুব একটা। তবে যেহেতু প্রতিবেশী রাষ্ট্রের নির্বাচন, তিন দিক দিয়ে পরিবেষ্টিত আমরা যে দেশ দিয়ে তার নির্বাচন নিয়ে কেউ যদি একটু মাথা ঘামায়ও খুব একটা দোষ দেওয়া যাবে না মনে হয়।

এবার আমি একটু মাথা ঘামাই। বিজেপিকে সমর্থন দেওয়া কোন সুস্থ মানুষের পক্ষে সম্ভব কী? এমন কী উন্নয়নের পাহাড় করে ফেললেও? উন্নয়ন দিয়ে উপকৃত হবে হয়ত ভারতের জনগণ কিন্তু আমরা যারা একটু দূর থেকে দেখছি তারা উন্নয়নের সাথে বিজেপির অন্য যে চেহারা দেখছি তা নিঃসন্দেহে ভীতিকর। ধর্মীয় উন্মাদনা গত পাঁচ বছরে ভারতের অবস্থা কোথায় গিয়ে পৌঁছেছে তা অকল্পনীয়। মানুষকে গরুর মাংস খাওয়ার জন্য মেরে ফেলা হয়েছে এই বিংশশতাব্দীতে, ভাবা যায় কোথায় দাঁড়িয়ে সমাজ? ধর্মীয় উন্মাদনা জিয়ায়ে রাখা, অল্প আঁচে গরম করে রাখা পরিস্থিতি, এই সব অবস্থা কোনদিনই ভাল কিছু, শুভ কিছু বয়ে আনবে না। আজকে পশ্চিমবঙ্গবাসী যে বিজেপিকে জায়গা করে দিল, এর মূল্য কী দিয়ে চুকাতে হয় তাই দেখার বিষয়। নির্বাচনের সময় শুধু বিদ্যাসাগর মাটিতে গড়াগড়ি খেয়েছে, তৈরি থাকা দরকার পশ্চিমবঙ্গবাসীর আর কে কে গড়াগড়ি খায় সামনে তা দেখার জন্য। বিজেপি এমন একটা দল, পুরো মেয়াদ সুস্থ স্বাভাবিক থাকলেও মানুষকে ‘কখন জানি কী হয়’ এই চাপ নিয়ে চলতে হবে! মোটামুটি ডিনামাইটের ওপরে ঘর সংসার করার মত পরিস্থিতি। উগ্রবাদীদের কারনে যারা প্রাণ হারিয়েছে তারা যে কবরের মাঝেও শিউড়ে উঠবে না তা কে বলতে পারছে? এই মেয়াদের আরও কতজনের রক্ত ঝরবে শুধু মাত্র ধর্মীয় উন্মাদনায় তার কোন হিসেব থাকবে কী? রক্তের গঙ্গা বইয়ে দেওয়াওর ইতিহাস তো এই দলের আছেই। ম্যাজিক মোদীর হাতই কতটুকু পরিষ্কার? ইতিহাস তো কথা কয়!

আপাত বাংলাদেশের মূল আশঙ্কার জায়গা হচ্ছে আসামের জনগণনা। মোদি সরকার এবার কোন পথে হাঁটে তা গভীর ভাবে দেখার আছে আমাদের। ৪০ লাখ মানুষকে হুট করে ঠিকানা বিহীন করে দেওয়ার পরবর্তী পদক্ষেপ আমাদের জন্য শঙ্কট তৈরি করতে পারে। খুব ভাল সম্পর্ক দিয়ে পানি খাব না আমরা যদি পুশ ব্যাক করতে চায় বিজেপির উগ্রবাদীরা। বাংলাদেশের জন্য মহা দুশ্চিন্তার কারন হতে পারে সামনের বিজেপির মেয়াদ শুধু মাত্র এই ইস্যুতে।

লাভের লাভ হতে পারে তিস্তা পানি চুক্তির বিষয়ে আমরা এবার হয়ত ভাল কিছু আশা করতে পারব।মোদি সরকার গত মেয়াদে যে ভাবে ছিটমহল সমস্যার সমাধানে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিল তাতে আমরা আশা করতেই পারি এবারও ভাল কিছু থাকবে আমাদের জন্য। তিস্তা পানি চুক্তি, সীমান্তে প্রাণঘাতী অস্ত্র ব্যবহার না করা, অন্যান্য যে পানি চুক্তি গুলো আছে তার সঠিক বাস্তবায়ন, রোহিঙ্গা সমস্যায় আমাদের পাসে থাকাসহ অন্য সব নানা বিষয়ে আমাদের প্রত্যাশা থাকবে মোদি সরকার আমাদের পাসে থাকবে।

ভারতবাসীদের জন্য শুভ কামনা। ভোট দিয়ে এমন দলকে ক্ষমতায় এনেছেন আপনারা যে এবার আর যাই হোক বিজ্ঞানের অগ্র যাত্রা আর কেউ রুখতে পারবে না। ভারতের বিজ্ঞান চর্চা আর বিজ্ঞানের শৈন শৈন উন্নতি দেখতে পাচ্ছি দিব্য দৃষ্টিতে। গোমাতার জয় জয়কার অবশ্যম্ভাবী হলেও মাতার সন্তানের বেলায় কিছুই পাকা বলা যাচ্ছে না…

231 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন



আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন