Prativa Sarker RSS feed

Prativa Sarkerএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ইন্দুবালা ভাতের হোটেল-৬
    চিংড়ির হলুদ গালা ঝোলকোলাপোতা গ্রামটার পাশ দিয়ে বয়ে চলেছে কপোতাক্ষ। এছাড়া চারিদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে খাল বিল পুকুর। সবুজ জংলা ঝোপের পাশে সন্ধ্যামণি ফুল। হেলেঞ্চার লতা। উঠোনের কোন ঘেঁষে কাঠ চাঁপা। পঞ্চমুখী জবা। সদরের মুখটায় শিউলি। সাদা আঁচলের মতো পড়ে থাকে ...
  • যৌন শিক্ষা মহাপাপ...
    কিছুদিন ধরে হুট করেই যেন ধর্ষণের খবর খুব বেশি পাওয়া যাচ্ছে। যেন হুট করে কোন বিষাক্ত পোকার কামড়ে পাগলা কুকুরের মত হয়ে গেছে কিছু মানুষ। নিজের খিদে মিটাতে শিশু বৃদ্ধ বাছ বিচার করারও সময় নাই, হামলে পড়ছে শুধু। যদি বিষাক্ত পোকার কামড়ে হত তাহলে এই সমস্যার সমাধান ...
  • ইতিহাসবিদ সব্যসাচী ভট্টাচার্য
    আধুনিক ভারতের ইতিহাস চর্চায় সব্যসাচী ভট্টাচার্য এক উল্লেখযোগ্য নাম। গবেষক লেখক শিক্ষক এবং শিক্ষা প্রশাসক হিসেবে তাঁর অবদান বিশেষ উল্লেখযোগ্য। সবসাচীবাবুর বিদ্যালয় শিক্ষা বালিগঞ্জ গভর্মেন্ট হাই স্কুলে। তারপর পড়তে আসেন প্রেসিডেন্সি কলেজের ইতিহাস বিভাগে। ...
  • পাগল
    বিয়ের আগে শুনেছিলাম আজহারের রাজপ্রাসাদের মতো বিশাল বড় বাড়ি! তার ফুপু বিয়ে ঠিকঠাক ‌হবার পর আমাকে গর্বের সাথে বলেছিলেন, "কয়েক একর জায়গা নিয়ে আমাদের বিশাল বড় জমিদার বাড়ি আছে। অমুক জমিদারের খাস বাড়ি ছিল সেইটা। আজহারের চাচা কিনে নিয়েছিলেন।"সেইসব ...
  • অশোক দাশগুপ্ত
    তোষক আশগুপ্ত নাম দিয়ে গুরুতেই বছর দশেক আগে একটা ব্যঙ্গাত্মক লেখা লিখেছিলাম। এটা তার দোষস্খালন বলে ধরা যেতে পারে, কিন্তু দোষ কিছু করিনি ধর্মাবতার।ব্যাপারটা এই ২০১৭ সালে বসে বোঝা খুব শক্ত, কিন্ত ১৯৯২ সালে সুমন এসে বাঙলা গানের যে ওলটপালট করেছিলেন, ঠিক সেইরকম ...
  • অধিকার এবং প্রতিহিংসা
    সল্ট লেকে পূর্ত ভবনের পাশের রাস্তাটায় এমনিতেই আলো খুব কম। রাস্তাটাও খুব ছোট। তার মধ্যেই ব্যানার হাতে একটা মিছিল ভরাট আওয়াজে এ মোড় থেকে ও মোড় যাচ্ছে - আমাদের ন্যায্য দাবী মানতে হবে, প্রতিহিংসার ট্রান্সফার মানছি না, মানব না। এই শহরের উপকন্ঠে অভিনীত হয়ে ...
  • লে. জে. হু. মু. এরশাদ
    বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের একটা অধ্যায় শেষ হল। এমন একটা চরিত্রও যে দেশের রাজনীতিতে এত গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে থাকতে পারে তা না দেখলে বিশ্বাস করা মুশকিল ছিল, এ এক বিরল ঘটনা। মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে যুদ্ধ না করে কোন সামরিক অফিসার বাড়িতে ঘাপটি মেরে বসে ছিলেন ...
  • বেড়ানো দেশের গল্প
    তোমার নাম, আমার নামঃ ভিয়েতনাম, ভিয়েতনাম --------------------...
  • সুভাষ মুখোপাধ্যায় : সৌন্দর্যের নতুন নন্দন ও বামপন্থার দর্শন
    ১৯৪০ সালে প্রকাশিত হয়েছিল সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘পদাতিক’। এর এক বিখ্যাত কবিতার প্রথম পংক্তিটি ছিল – “কমরেড আজ নবযুগ আনবে না ?” তার আগেই গোটা পৃথিবীতে কবিতার এক বাঁকবদল হয়েছে, বদলে গেছে বাংলা কবিতাও।মূলত বিশ্বযুদ্ধের প্রভাবে সভ্যতার ...
  • মৃণাল সেনের চলচ্চিত্র ভুবন
    মৃণাল সেনের জন্ম ১৯২৩ সালের ১৪ মে, পূর্ববঙ্গে। কৈশোর কাটিয়ে চলে আসেন কোলকাতায়। স্কটিশ চার্চ কলেজ ও কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিদ্যায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরে পড়াশুনো করেন। বামপন্থী রাজনীতির সাথে বরাবর জড়িয়ে থেকেছেন, অবশ্য কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

এই মিছিল

Prativa Sarker

এখানে বৃষ্টি থামলেও, ওখানে চলছেই। দিল্লীতে, রামলীলা ময়দানে, সংসদ ভবনের সাজানো গাছগুলোর ওপর সর্বত্র। সেই বৃষ্টিতেই পথ হাঁটছে লাখো জনতা। বৃষ্টি অগ্রাহ্য করেই বর্শামুখের মতো আকাশ ফুঁড়ে দেওয়া লাখো লাল নিশান।

কারো ব্যানারে লেখা কৃষক শ্রমিক সংঘর্ষ সমিতি, কারো বা শুধুই সি আই টি ইউ। কিন্তু এমন জোর গলায় , যে শাসকের মুর্দাবাদ ধ্বনিতে ভেজা আকাশেই পাখি উড়ে যাচ্ছে কাতারে। নাসিক থেকে আসা বালু শঙ্কর, বেতিয়া জেলার গরহন রাম, রাজস্থানী কৃষক মডু রাম, বরদি রাম সবাই হাঁক দিচ্ছেন, খবরদার / মোদি সরকার। অথবা শুধুই ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে তিনবার লাল সেলাম। তারা উদারা মুদারা ছুঁয়ে আরো উঁচুতে উঠে যাচ্ছে সেই স্বর। আহা, আদর্শের কি মৃত্যু আছে, গণতন্ত্রের মূল অস্ত্রই তো এই সংঘবদ্ধ স্বতস্ফূর্ত প্রতিবাদ !

তাই কালো চুলের মুশকো জোয়ানের পাশাপাশি পথ হাঁটেন আশি বছরের বিঠঠলরাম। একই লয়ে না হলেও, একই প্রত্যয়ে। সাধারন মানুষের জোট না হলে অত্যাচারীর আসন টলে না। কৃষকের ন্যায্য পাওনা তাকে মিটিয়ে দিতে হবে। ভিখ নহি, ইয়ে মাঙ হ্যায়। তেলেঙ্গানার মিছিলের সামনে স্লোগান ওঠে মহিলাকন্ঠে। বাকীরা গলা মেলায়।
মেয়েদের অংশগ্রহণ দেখবার মতো। কারো পিঠে বা মাথায় বোঝা। আঙুলে জড়ানো শিশুর আঙুল। শুধু অঙ্গনওয়াড়ি আর আশা কর্মীই অনেক। চাষীঘরের মেয়ে বৌ, মহিলা শ্রমিক আরো অনেক বেশি। প্রথম গ্রুপ নিজেদের দাবী দাওয়া অনেকটা এগিয়ে নিলেও জমির লড়াই চলছে সর্বত্র। কিষাণীরা তাতে সামিল। মির্জাপুরে জমির পাট্টার লড়াই তো দেওরিয়াতে সিলিং বহির্ভূত জমির আইনি অধিকার আদায়। ফসলের ন্যায্য দর, জঙ্গলের জমির পাট্টা, আদিবাসীর জমির অধিকার, ন্যায্য ক্ষতিপূরণের লড়াই লড়বেন বলে আসমুদ্রহিমাচলের লক্ষ লক্ষ মানুষ হাঁটছেন দিল্লীর রাজপথে।
দক্ষিণ ভারতীয়দের আর একটি দল গান গাইছেন চলতে চলতে। দেখতে পাইনি তাদের ব্যানার। শুধু লাল টি শার্টের বুকে গোল করে লেখা সি আই টি ইউ। যখন সমে ফিরে আসছে সুর, সবার হাত উঠে যাচ্ছে মাথার ওপর। সুদর্শনচক্র ঘোরাবার মতো তর্জনী ঘুরছে। আর ছড়িয়ে পড়ছে সুরে মাখা শ্লোগান লাল সেলাম। ভাষাটি জানা নেই বলে নিজেকে বড় দুখী লাগলো।
যখনই মনে হচ্ছে শেষ হয়ে আসছে এই মহা মিছিল, তখনই শুনি পায়ের আওয়াজ। নতুন মুখ। পতাকার চেনা হিল্লোল। শোনা গেল এখনও ট্রেনে আসছেন হাজার হাজার। বন্যাবিধ্বস্ত কেরালা থেকেও সাইকেলে মাঝপথ পেরিয়ে গেছেন কিছু যুবক।

মিছিলের ছবি চোখ থেকে সরিয়ে নিলেও, কানে হাতচাপা দিলেও ভেসে আসছে মহারাষ্ট্রীয় সেই তরুণী আশাকর্মীর স্লোগান, যিনি স্বরাজ্যের শাসক সম্বন্ধে গভীর অশ্রদ্ধায় উচ্চারণ করেন,
মামা নেহি, কসাই হ্যায় / কংস কা ছোটা ভাই হ্যায়।

437 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: Pi

Re: এই মিছিল

সকালে লাইভ যা দেখেছি, গায়ে কাঁটা দেওয়ার মত। লেখাটাও একই কাজ করল।
Avatar: সিকি

Re: এই মিছিল

ধুর, এই সময়ে আমি অফিসে বসে।

এদিকে আরেকটা জমায়েত আছে আজ বিকেল চারটে থেকে, ঐ জন্তর মন্তর পার্লামেন্ট স্ট্রীট এলাকাতেই হবে। কিস কিস কো কয়েদ করোগে, হম সব আরবান নকশাল হ্যায় - এই শিরোনামে। কোথাওই যাওয়া হবে না। :(
Avatar: কুশান

Re: এই মিছিল

প্রতিভাদির প্রায় সব লেখাই সময়ের দাবী মানে, সময়ের কন্ঠস্বর তুলে ধরে। ভাল লাগল।
Avatar: মণিশংকর

Re: এই মিছিল

গায়ে কাঁটা দেয়!
Avatar: Du

Re: এই মিছিল

একটা চ্যানেলও স্রেফ দেখালো না!!!
Avatar: খ

Re: এই মিছিল

https://www.indiatvnews.com/video/news/delhi-thousands-gather-for-farm
ers-rally-at-ramlila-maidan-traffic-advisory-issued-461564


একটা পাওয়া গেল ভিডিও। আমি ফেবু তে নেই।
Avatar: খ

Re: এই মিছিল

Avatar: Du

Re: এই মিছিল

আজ ও কাল তিনঘন্টা টিভি দেখেও পাইনি। যাক এখন বিভিন্ন প্রতিবাদকে ইগ্নোর করে শেষে ইলেকশনেত মুখে সার্ভে করবেন তারা ওপিনিওন পোল করবেন নিশ্চিত।
Avatar: pi

Re: এই মিছিল



আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন