Sakyajit Bhattacharya RSS feed

Sakyajit Bhattacharyaএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • গাম্বিয়া - মিয়ানমারঃ শুরু হল যুগান্তকারী মামলার শুনানি
    নেদারল্যান্ডের হেগ শহরে অবস্থিত আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস—আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে করা গাম্বিয়ার মামলার শুনানি শুরু হয়েছে আজকে। শান্তি প্রাসাদে শান্তি আসবে কিনা তার আইনই লড়াই শুরু আজকে থেকে। নেদারল্যান্ডের হেগ শহরের পিস ...
  • রাতপরী (গল্প)
    ‘কপাল মানুষের সঙ্গে সঙ্গে যায়। পালানোর কি আর উপায় আছে!’- এই সপ্তাহে শরীর ‘খারাপ’ থাকার কথা। কিন্তু, কিছু টাকার খুবই দরকার। সকালে পেট-না-হওয়ার ওষুধ গিলে, সন্ধেয় লিপস্টিক পাউডার ডলে প্রস্তুত থাকলে কী হবে, খদ্দের এলে তো! রাত প্রায় একটা। এই গলির কার্যত কোনো ...
  • রাতপরী (গল্প)
    ‘কপাল মানুষের সঙ্গে সঙ্গে যায়। পালানোর কি আর উপায় আছে!’- এই সপ্তাহে শরীর ‘খারাপ’ থাকার কথা। কিন্তু, কিছু টাকার খুবই দরকার। সকালে পেট-না-হওয়ার ওষুধ গিলে, সন্ধেয় লিপস্টিক পাউডার ডলে প্রস্তুত থাকলে কী হবে, খদ্দের এলে তো! রাত প্রায় একটা। এই গলির কার্যত কোনো ...
  • বিনম্র শ্রদ্ধা অজয় রায়
    একুশে পদকপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক অজয় রায় (৮৪) আর নেই। সোমবার ( ৯ ডিসেম্বর) দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার একটি হাসপাতালে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। অধ্যাপক অজয় দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানা অসুখে ভুগছিলেন।২০১৫ ...
  • আমাদের চমৎকার বড়দা প্রসঙ্গে
    ইয়ে, স-অ-অ-অ-ব দেখছে। বড়দা সব দেখছে। বড়দা স্রেফ দেখেনি ওইখানে এক দিন রাম জন্মালেন, তার পর কারা বিদেশ থেকে এসে যেন ভেঙেটেঙে মসজিদ স্থাপন করল, কেন না বড়দা তখন ঘুমোচ্ছিলেন। ঘুম ভাঙল যখন, চোখ কচলেটচলে দেখলেন মস্ত ব্যাপার এ, বড়দা বললেন, ভেঙে ফেলো মসজিদ, জমি ...
  • ধর্ষকের মৃত্যুদন্ড দিলেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে ?
    যেকোন নারকীয় ধর্ষণের ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে প্রতিফলিত হয়ে সামনে আসার পর নাগরিক হিসাবে আমাদের একটা ঈমানি দায়িত্ব থাকে। দায়িত্বটা হল অভিযুক্ত ধর্ষকের কঠোরতম শাস্তির দাবি করা। কঠোরতম শাস্তি বলতে কারোর কাছে মৃত্যুদন্ড। কেউ একটু এগিয়ে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ কেটে নেওয়ার ...
  • তোমার পূজার ছলে
    বাঙালি মধ্যবিত্তের মার্জিত ও পরিশীলিত হাবভাব দেখতে বেশ লাগে। অপসংস্কৃতি নিয়ে বাঙালি চিরকাল ওয়াকিবহাল ছিল। আজও আছে। বেশ লাগে। কিন্তু, বুকে হাত দিয়ে বলুন, আপনার প্রবল ক্ষোভ ও অপমানে আপনার কি খুব পরিশীলিত, গঙ্গাজলে ধোওয়া আদ্যন্ত সাত্ত্বিক শব্দ মনে পড়ে? না ...
  • The Irishman
    দা আইরিশম্যান। সিনেমা প্রেমীদের জন্য মার্টিন স্করসিসের নতুন বিস্ময়। ট্যাক্সি ড্রাইভার, গুডফেলাস, ক্যাসিনো, গ্যাংস অব নিউইয়র্ক, দা অ্যাভিয়েটর, দ্য ডিপার্টেড, শাটার আইল্যান্ড, দ্য উল্ফ অব ওয়াল স্ট্রিট, সাইলেন্টের পরের জায়গা দা আইরিশম্যান। বর্তমান সময়ের ...
  • তোকে আমরা কী দিইনি?
    পূর্ণেন্দু পত্রী মশাই মার্জনা করবেন -********তোকে আমরা কী দিইনি নরেন?আগুন জ্বালিয়ে হোলি খেলবি বলে আমরা তোকে দিয়েছি এক ট্রেন ভর্তি করসেবক। দেদার মুসলমান মারবি বলে তুলে দিয়েছি পুরো গুজরাট। তোর রাজধর্ম পালন করতে ইচ্ছে করে বলে পাঠিয়ে দিয়েছি স্বয়ং আদবানীজীকে, ...
  • ইশকুল ও আর্কাদি গাইদার
    "জাহাজ আসে, বলে, ধন্যি খোকা !বিমান আসে, বলে, ধন্যি খোকা !এঞ্জিনও যায়, ধন্যি তোরে খোকা !আসে তরুণ পাইওনিয়র,সেলাম তোরে খোকা !"আরজামাস বলে একটা শহর ছিল। ছোট্ট শহর, অনেক দূরের, অন্য মহাদেশে। অনেক ছোটবেলায় চিনে ফেলেছিলাম। ভৌগোলিক দূরত্ব টের পাইনি।টের পেতে দেননি ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

Sakyajit Bhattacharya

নয়ডার কাছে দাদরীতে বিফ খাবার অপরাধে পিটিয়ে মারা হল মহম্মদ ইখলাককে। তার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে নানা রঙ এর মিডিয়া। সোসাল মিডিয়াতেও প্রতিবাদে মানুষজন ডাক দিচ্ছেন বিফ ফেস্টিভাল আয়োজন করার। নিজেদের প্রোফাইল রাঙ্গাচ্ছেন নানা বর্ণ এবং স্বাদের গরুর মাংসের ডিশে। বিপজ্জনকভাবে ভাইরাল হয়ে যাচ্ছে এই সব ছবি এবং এই মেসেজ পৌঁছনো যাচ্ছে যে আমরা লিবারালরা ব্যক্তিমানুষের স্বাধীনতায় খাঁড়া নেমে আসলে সহ্য করব না। কিছু প্রাসংগিক প্রশ্ন তোলা থাকুক এই সূত্রে।

আমরা কি একবারো ভেবে দেখেছি যে আমরা এই এনলাইটেন্ড এবং এনটাইটেল্ড লিবারাল সমাজ গরু খেল না শুওর খেল তাতে কারোর কিস্যু এসে যায়না? নিজেদের জন্মার্জিত প্রিভিলেজের কারণেই আমাদের খাবার এবং না খাবার অধিকার সুরক্ষিত আছে। বড়জোর প্রতিবেশী বা পাশের কলীগের ভুরু কোঁচকানো ছাড়া আর বিশেষ ঝাম পেতে হয় না অন্য ধরণের খাবার খেলে, উলটে আমরা আবার তাদের সামনে বেশি বেশি করে এসব খেয়ে তাদের ঝাঁট জ্বালাতে মজা পাই ! এসব-ই আমাদের কাছে খেলা। ফেসবুকে প্রচুর হিন্দুত্ববাদী আছে কাজেই তাদের জ্বালাবার জন্য বিফের ছবি দেওয়া হোক। কেউ তাতে বদারড হয় না, বরং হিন্দুত্ববাদীরা রেগে গিয়ে চারখানা গালি দিলে বেশ যুদ্ধজয়ের আনন্দ অনুভব করি। মুশকিলটা হল, প্রচুর মানুষের কাছে এই খাবার বা না খাবার অধিকার ঠিক খেলার জায়গায় নেই আর। তাদের প্রাণ দিতে হচ্ছে বীফ খাবার জন্যে। আমরা যখন বীফের ছবি লাগাচ্ছি তখন তাদের মনে হওয়া স্বাভাবিক যে যে অধিকার সুরক্ষিত করার জন্য আমায় মরতে হচ্ছে সেগুলোকে নিয়ে আমরা ফেলে ছড়িয়ে খাচ্ছি। আমরা জাস্ট প্রতিবাদ প্রতিবাদ খেলছি নিজেদের মধ্যে। এই সেন্স অফ অ্যালিয়েনেশনকে দূর করবে কে?

বরং আমরা কেন নিজেদের এই প্রশ্ন করছি না যে আমার প্রিভিলেজড কাস্ট/ক্লাস পজিশনে থেকে যে জিনিস খাবার অধিকার অতি সহজে করায়ত্ব তা কেন লাখ লাখ নট-সো-প্রিভিলেজড মানুষজনের কাছে পৌঁছয় না? যত সহজে বুক বাজিয়ে বলতে পারি “আমি গরু/শুওর খাই” আমার ফ্ল্যাটের পাশের বস্তির রমাকান্ত (বা আমিনা) কেন তত সহজে বুক বাজিয়ে বলতে পারে না যে সে গরু (বা শুওর) খায়? খেলেও কেন ভয়ে বলতে পারে না? কেন তাদের কাছে এই অন্যরকম খাবার ব্যাপারটা এখনো প্রায় বিপ্লব, এবং আমার কাছে সেটা অতি সহজে করায়ত্ব? গরীব মানুষের মধ্যে সেন্স অফ কমিউনিটি ফিলিং কিভাবে কাজ করে, একঘরে হয়ে যাবার বা খুন হয়ে যাবার ভয় কিভাবে তার ইচ্ছেকে দাবিয়ে দেয় সেগুলো অ্যানালাইজ করি না কেন? আর সেগুলো অ্যানালাইজ না করে জাস্ট নিজের বিফ খাবার ছবি তুলে ধরে কি প্রমাণ করতে চাইছি, যে আমরা আরো প্রিভিলেজড? তাতে করে এক ইঞ্চিও এগনো যাবে এই ইস্যুতে?শুধু তো মুস্লিম নয়, এই দেশের প্রচুর গরীব হরিজন চামার দলিতেরা গরু খান, আদিবাসীরা গরু খান। এত সস্তায় প্রোটিন মিলবে কোথায়? তাদের খাবার অধিকার বিপন্ন কিন্তু আমার খাবার অধিকার সুরক্ষিত। এই শ্রেণী এবং জাতপাতের ইস্যুকে ভুলে গিয়ে শুধুমাত্র ইন্ডিভিজুয়াল ফ্রিডমের জায়গা থেকে এই ইস্যুকে অ্যাড্রেস করব কেন?

সম্ভবত ইন্ডিয়ান স্টেট-ও এটাই চায়। যত বেশি করে ক্লাস/কাস্ট কোয়েশ্চেনগুলো থেকে এই ইস্যুকে আইসোলেট করে শুধুমাত্র ব্যক্তিস্বাধীনতার প্রশ্ন হিসেবে তুলে ধরা হবে তত বেশি করে এই ইস্যু তার নিজের ধার হারাবে। ভোঁতা হয়ে যাবে দিনে দিনে। তখন প্রতিবাদের মাত্রা হবে ততটুকুই যতটুকুতে স্টেটের গায়ে আঁচড় পড়বে না- কতিপয় প্রিভিলেজড ইন্টেলেকচুয়াল নিজেদের মধ্যে বিফ ফেস্ট আয়োজন করে তার ছবি সোসাল মিডিয়াতে পোস্ট করবেন এবং নিজেদের কাঁধ নিজেরা চাপড়াবেন প্রতিবাদ করেছেন বলে। আর ঠিক সেই সময়তেই বিহার ইউ পি বা হরিয়ানার প্রত্যন্ত গ্রামে আরো কয়েকজন মুসলমান বা দলিত খুন হবেন গরু খাবার অপরাধে। আমাদের কিছু যাবে আসবে না কারণ আমাদের কাছে ইস্যুটা নয়, নিরাপদ প্রতিবাদের দ্বারা নিজের মহত্ব দেখানোটাই আসল উদ্দেশ্য ছিল।

বরং ইমিডিয়েটলি যেটা করা যেত তা হল সঙ্ঘবদ্ধভাবে গিয়ে বস্তিতে বা গ্রামাঞ্চলে সেইসমস্ত মার্জিনালদের নিয়ে মাংস খাবার উৎসব আয়োজন করার, যাঁদের জীবনে কি খাবেন বা কি খাবেন না সেটা সত্যি-ই একটা বড় ইস্যু।তাঁদের কাছে এই মেসেজ পৌঁছে দেবার যে আক্রান্ত শুধু মুস্লিমেরাই নন, বরং সব সম্প্রদায়ের গরীব মানুষেরাই। আর এই লড়াইতে আমরা তাঁদের পাশে আছি। এই ঘটনায় তাঁদের জীবন ম্যাটার করে, আমাদের নয়। সেসব না করে উলটে এই সোসাল মিডিয়াতে গরুর ডিসের ছবি দেওয়াটা এক বিশ্রি ইন্সেন্সিটিভিটি মনে হয়, কারণ যেগুলো আমরা নিরাপদে করতে পারি সেই অপরাধে অন্য অনেকের প্রাণ যায়।

২০০২/০৩ সালে হরিয়ানায় বেশ কিছু দলিতকে পিটিয়ে মারা হয়েছিল পরপর কয়েকটা ঘটনায়। কারণগুলো এক-ই ছিল। হয় তারা মরা গোরু কাঁধে করে নিয়ে যাচ্ছিল চামড়ার কাজে, আর না হয় গরু কাটছিল নিজেদের খাবার জন্য। এই ঘটনাগুলো পরে ২০০৭/০৯/১১/১২ সালেও রিপিটেড হয়েছিল বেশ কয়েকবার। কেউ খুব একটা প্রতিবাদ করেনি। অন্তত এখনকার মতন কিছুই দেখিনি তখন। আমাদের কারোর কিছু যায় আসেনি কারণ আমাদের শ্রেণীস্বার্থে আঘাত লাগেনি। দলিত চামার হরিজনেরা তো মরেই থাকে এরকম খুচখাচ, কি আসে যায় ! আজ আমরা সরব কারণ লড়াইটা এখন আমাদের দরজায়। সরকার মিট ব্যান করছে, দুমদাম তুঘলকী আচরণ করছে। ওপেন মার্কেট ইকোনমিতে আমাদের স্বাধীনতা আজ বিপন্ন। এবং কার স্বাধীনতা? আমাদের নিও-লিবারাল শাইনিং দের স্বাধীনতা। তাই দিকে দিকে এত আওয়াজ। মার্জিনালদের স্বাধীনতা ভেবে দেখার সময়-ও আমাদের নেই কারণ তাদের স্বাধীনতা কখনো মনে হয় ছিলই না।
সরি, ফেসবুক টুইটারে গরুর ছবি দিয়ে বা গরুর মাংস খেয়ে প্রতিবাদ করতে পারলাম না। ওটুকু ইন্সেন্সিটিভিটি নাহয় নাই-বা দেখালাম! ইস্যুটা মনে হয় আরেকটু বেশি সিরিয়াস।


1097 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


মন্তব্যের পাতাগুলিঃ [1] [2] [3]   এই পাতায় আছে 33 -- 52
Avatar: রৌহিন

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

পাই এর ম্যাপে দেখছি কাশ্মীরের একেবারে উত্তর পূর্ব ও উত্তর পশ্চিমাংশে কোন রঙ নেই - এটার কারণ কি? এক যদি বলো যে ওটা পাকিস্তানী এলাকা তাহলে ভালোই - নইলে ওটা মার্কড নয় কেন?
Avatar: সে

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

POK
Avatar: রোবু

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

শুধু পিওকে না, আক্সাই চিন-ও।

https://en.wikipedia.org/wiki/Aksai_Chin#/media/File:Tarimrivermap.png
Avatar: Sakyajit Bhattacharya

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

ম্যাপটা ঠিক কিনা শিওর নই। আমি যদ্দুর জানতাম তামিলনাড়ুতে গরু কাটা লিগাল, কিন্তু এখানে সেটা দেখাচ্ছে না
Avatar: pi

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

শাক্য, সরকারি সাইটটা দেখিস।

তামিলনাড়ুতে,
Definitions:
‘Animal’ means bulls, bullocks, cows, calves; also, buffaloes of all ages.
Ban on Slaughter:
All Animals can be slaughtered on ‘fit-for-slaughter’ certificate
Certificate given if animal is over 10 years of age and is unfit for work and breeding or has become permanently incapacitated for work and breeding due to injury deformity or any incurable disease.
Penal Provisions:
Imprisonment of up to 3 years or fine up to Rs 1,000 or both.

Slaughter of cows and heifers (cow) is banned in all slaughterhouses in Tamil Nadu.
Avatar: Mmu

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

' কিন্তু উদ্বৃত্ত ষাঁড়গুলো নিয়ে কী করা হবে তবে? জমি চষতে তো ট্র্যাক্টর আর ছোটো পাওয়ার-টীলার এসে গেছে।'
ষাড় উদ্বৃত্ত হয় না । প্রাকিতিক নিয়মে বা ভগবানের ইচ্ছায় বলুন , কম জন্মায় ষাঁড় ।
Avatar: h

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

এটা কমরেড শাক্য একদম ভুল ভাল লিখেছে। কিছু হয় নি।
Avatar: diggiraja

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

Avatar: ঊমেশ

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

সবাই দেখি বিফ নিয়ে পড়ে আছে।
ওদিকে একজন হতভাগ্য মহিলাকে নিউজিল্যান্ড এয়ারপোর্টে ফাইন দিতে হয়েছে, সাথে গোমুত্র ছিল বলে।
কত করে বলা হলো ওটা ঔষধ, তাও ছাড়ান দিলো না।

ভাবছি মোদি কে লিখবো, এক্ষুনি ভদ্রমহিলা কে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে ফাইনটা মিটিয়ে দেওয়া হোক।
আর নিউজিল্যান্ড সরকার কে গরম গরম চিঠি লেখা, যেন পরের বার কেউ গোমুত্র নিয়ে ধরা পড়লে, যেন সসম্মানে ছেড়ে দেওয়া হয়।
Avatar: ঊমেশ

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

ভারতের জাতীয় পশু কি?
এবার থেকে পরীক্ষার খাতায় পুরো নম্বর পেতে হলে আর বাঘ নয়, গরু লিখতে হবে।

তবে আমার প্রশ্ন, আমাদের মাতা তে পশু'র স্তরে নামানো টা উচিত হবে????

Avatar: shibir

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

এ দেখলাম একগাদা তথ্য দিয়েছে । এগুলো সত্যি নাকি ?

http://www.sify.com/news/10-things-you-didnt-know-about-beef-bans-news
-national-pkho1sgjegeei.html

Avatar: রৌহিন

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

শিবিরের লিঙ্কটায় যা আছে সেগুলো কি আদৌ তথ্য? না কি স্রেফ কিছু আর্গুমেন্ট যা ব্যানপন্থীরা হামেশাই দিয়ে থাকে?
Avatar: shibir

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

"Chola King executed his own son for the killing of a calf about 2200 years ago."

"The Mughal Empire started by banning cow slaughter (Babar) and then it was subsequently restricted by his descendants while Aurangzeb lifted the ban. However "Last Emperor" Bahadur Shah Zafar banned it again after the 1857 Sepoy Mutiny even though he didn't have many powers."

"He was backed in this by Jawaharlal Nehru এন্ড......"

এগুলোতো গোদা তথ্যই আর্গুমেন্ট তো নয় । কিন্তু এগুলো ঠিক না ভুল ? নেহেরু গরু খাওয়া ban সাপোর্ট করেছিলেন !!!
Avatar: রৌহিন

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

না এগুলো এখনো তথ্য নয় - তথ্য হয়ে উঠতে গেলে তার পিছনে কোন ভীত্তি লাগে - আমি যদি বলি "গান্ধিজী নিজে গরু খেতে খুব ভালোবাসতেন এবং যাতে কারো ভাবাবেগে আঘাত না লাগে তাই তিনি উপবাসের সময়ে লুকিয়ে গরু খেতেন" অথবা "সারদা ও নিবেদিতার মধ্যে লেসবিয়ান সম্পর্ক ছিল" তাহলেই সেটা "তথ্য" হয়ে যায় না - তথ্য হতে হলে তার অথেন্টিক প্রমাণ লাগবে - যা সর্বজনগ্রাহ্য। যেমন "তানসেন আকবরের সভায় নবরত্নের অন্যতম ছিলেন" এটা তথ্য - কিন্তু "তানসেন নবরত্নের মধ্যে আকবরের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ ছিলেন" এটা নয়।
Avatar: shibir

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

"তানসেন আকবরের সভায় নবরত্নের অন্যতম ছিলেন" এটা যদি তথ্য হয় তবে এটার ভীত্তি কি ?
Avatar: সে

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

হিস্ট্রি বুক। :-)
Avatar: b

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

বিবেকানন্দের একটা বেশ ভালো গল্প আছে তো, এই গোমাতা ও তাদের সন্তানদের নিয়ে। জ্জিও বিবু।


Avatar: shibir

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

সে - সেটাই বলছি ইতিহাস বইতে একমাত্র এররকম লেখা থাকতে পারে
"তানসেন আকবরের সভায় নবরত্নের অন্যতম ছিলেন" বা "Chola King executed his own son for the killing of a calf about 2200 years ago."

"The Mughal Empire started by banning cow slaughter (Babar) and then it was subsequently restricted by his descendants while Aurangzeb lifted the ban. However "Last Emperor" Bahadur Shah Zafar banned it again after the 1857 Sepoy Mutiny even though he didn't have many powers."

লেখক তো আর নিজে বানিয়ে লেখেননি কথাও কোনো ইতিহাস বইতেই এটা উনি দেখেছেন । যদিও আর্টিকেল এ কোনো রেফারেন্স দেননি তাই validate করছিলাম আপনারাও এরকম কোনো কিছু শুনেছেন কিনা ।
Avatar: সে

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

শিবির,
ঠিকই বলেছেন। এরকমই শুনেছি তানসেন ও বিদুষক বীরবল সম্বন্ধে। কিন্তু এসব ইতিহাস বইয়ের লেখকেরা উইদাউট সাইটেশন আমাদের পড়তে বাধ্য করতেন। তারপরে মাথায় সেসব বোঝাই করে নিয়ে গিয়ে পরীক্ষার খাতায় নামাতে হোতো। প্রপার সাইটেশন রাখতে হলে আমরা অনেকেই নিজ নিজ বাপমায়ের নাম ও প্রুভ করতে পারব না কিন্তু। ;-)
Avatar: Ekak

Re: বীফ খাবার স্বাধীনতাঃ কার স্বাধীনতা? কিসের স্বাধীনতা?

ঠিকই আছে । ইতিহাস তো বিজ্ঞান নয় । ইতিহাস হলো ফিকশন । যা যুগ যুগ ধরে মানুষ লিখেছে , একে অন্যকে বিশ্বাস করাতে চেয়েছে । তাই সেখানে সত্য যা কিছু আছে সবই ফিকশনাল ট্রুথ ।

মন্তব্যের পাতাগুলিঃ [1] [2] [3]   এই পাতায় আছে 33 -- 52


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন