বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

এই সুতোর পাতাগুলি [1] [2] [3] [4]     এই পাতায় আছে70--100


           বিষয় : ইলেকশন আড্ডা , আপনাদের চারপাশের লোকজন কী কয় ?
          বিভাগ : অন্যান্য
          শুরু করেছেন :Ekak
          IP Address : 340112.124.566712.245 (*)          Date:13 Feb 2019 -- 12:40 AM




Name:  PM          

IP Address : 342312.108.674523.246 (*)          Date:04 Apr 2019 -- 04:41 PM

এ একটা মিম এসেছে অমর কছে। কেপসন -- বাংলায় লিখ্লে বানান ভুল করবে বলে ওপোর্তলার নির্দেশে তিনো কর্মী রা চীনা ভাষায় লিকছে


Name:  sm          

IP Address : 2345.110.673412.181 (*)          Date:04 Apr 2019 -- 05:01 PM

এই পোস্ট টা যে লিখলো তাঁর বানান বিধি জ্ঞান,চীনে দের বাংলা লেখার থেকেও খারাপ।😊


Name:  Sulagna Pal          

IP Address : 671212.193.344512.33 (*)          Date:07 Apr 2019 -- 10:02 AM

আচ্ছা আপনরা জানেন গোটা বাংলা জুড়ে একটা কর্মকান্ড ঘটে চলেছে সেই ৩০ শে মার্চ থেকে?জানেন না,না?আচ্ছা শুনুন তাহলে।গত বছর ১৫ই মে সকালে ফেসবুকে একটা ছবি ভাইরাল হয়েছিল মনে আছে?রেললাইনে এক যুবকের তিন টুকরো দেহাংশ?হ্যঁা আমি রাজকুমার রায়ের কথা বলছি।সৎভাবে নিজের ডিউটি পালন করার মাশুল দিতে হয়েছিল তাকে।সেই আগুন জ্বলার শুরু প্রতিটি ভোটকর্মী শিক্ষকের বুকের ভেতর।নাহ,ভুল বললাম প্রতিটি শিক্ষকের বুকের ভেতর নয়।কারণ অমেরুদন্ডী,স্বার্থপর এবং কাপুরুষ মানুষের খুব অভাবও নেই বাংলার শিক্ষকসমাজে।তাই এই আগুনটা অঙার হয়ে জ্বলছিল ৯০% এর বুকের ভেতর।আর তাই এবারে লোকসভা ভোটের ক্ষেত্রে ইলেকশান কমিশন যখন জানালো যে সব বুথে আধা সেনা নয়,অধিকাংশতেই রাজ্য পুলিশ তখন সেই অঙার চেহারা নিল দাবানলের।প্রথমে বালুরঘাট,তারপর রায়গঞ্জ,তারপর কোচবিহার,আলিপুরদুয়ার,উলুবেড়িয়া,বাঁকুড়া.......ছড়াচ্ছে সেই আগুন।নাহ ভোটের ডিউটি করতে কারুর সমস্যা নেই,সমস্যা হল কেউ আর রাজ্য পুলিশের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না।রাজকুমারের তিন টুকরো লাশ যে এখনো জ্বলজ্বল করছে।তাই কেউ আর প্রাণের ঝুঁকি নিতে চাইছে না।আর কেনই বা নেবে বলুনতো?দায়িত্ত্বের অপরদিকে তো থাকে অধিকার,তাই না?সুতরাং রাষ্ট্রের হয়ে ভোট পরিচালনা করা যদি ভোটকর্মী(যাদের ৮০% শিক্ষক)দের দায়িত্ব হয় তাহলে রাষ্ট্রের দায়িত্ত্ব তাকে সুরক্ষা দেওয়ার,দেশের নাগরিক হিসেবে তার বেঁচে থাকার অধিকারকে মান্যতা দেওয়ার,তাই না?নাহ সামরিক বাহিনীর প্রতি কোনো প্রেম আমার নেই কারণ এই সামরিক বাহিনীই মাওবাদী আন্দোলন দমনের নামে নির্বিচারে খুন করে নিরীহ আদিবাসীদের-বস্তারে,উড়িশ্যায়,মহারাষ্ট্রে!হ্যঁা তবুও ভোটের ডিউটিতে চাই সামরিক বাহিনী,কারণ তার কোনো রাজনৈতিক বশ্যতা নেই রাজ্য সরকারের কাছে যা রাজ্য পুলিশের আছে(যদিও এই পুলিশই গুলি খায় চড় খায় শাসক দলের লুম্পেনদের হাতে।তবুও এই কাপুরুষ পুলিশ শাসক দলের বশ্যতা স্বীকার করে চলে সমস্ত ক্ষেত্রে)।আর ভারতের,বিশেষ করে এই বাংলার ভোট যে আদতে একটি প্রহসন মাত্র তা বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর গোটা পৃথিবী জেনে গেছে।তাই সেই প্রহসনে চাকরির শর্ত হিসেবে অংশ নিতে বাধ্য হওয়া শিক্ষকরা কেন প্রাণের ঝুঁকি নেবেন বলতে পারেন?তাই তারা লাজ স্লোগান তুলছে "কাকদ্বীপ থেকে কোচবিচার,আর হবে না রাজকুমার"....

পুঃ চিন্তা করবেন না,আপডেট দিতে থাকবো।


Name:  Sulagna Pal          

IP Address : 671212.193.344512.33 (*)          Date:07 Apr 2019 -- 10:03 AM

আচ্ছা আপনরা জানেন গোটা বাংলা জুড়ে একটা কর্মকান্ড ঘটে চলেছে সেই ৩০ শে মার্চ থেকে?জানেন না,না?আচ্ছা শুনুন তাহলে।গত বছর ১৫ই মে সকালে ফেসবুকে একটা ছবি ভাইরাল হয়েছিল মনে আছে?রেললাইনে এক যুবকের তিন টুকরো দেহাংশ?হ্যঁা আমি রাজকুমার রায়ের কথা বলছি।সৎভাবে নিজের ডিউটি পালন করার মাশুল দিতে হয়েছিল তাকে।সেই আগুন জ্বলার শুরু প্রতিটি ভোটকর্মী শিক্ষকের বুকের ভেতর।নাহ,ভুল বললাম প্রতিটি শিক্ষকের বুকের ভেতর নয়।কারণ অমেরুদন্ডী,স্বার্থপর এবং কাপুরুষ মানুষের খুব অভাবও নেই বাংলার শিক্ষকসমাজে।তাই এই আগুনটা অঙার হয়ে জ্বলছিল ৯০% এর বুকের ভেতর।আর তাই এবারে লোকসভা ভোটের ক্ষেত্রে ইলেকশান কমিশন যখন জানালো যে সব বুথে আধা সেনা নয়,অধিকাংশতেই রাজ্য পুলিশ তখন সেই অঙার চেহারা নিল দাবানলের।প্রথমে বালুরঘাট,তারপর রায়গঞ্জ,তারপর কোচবিহার,আলিপুরদুয়ার,উলুবেড়িয়া,বাঁকুড়া.......ছড়াচ্ছে সেই আগুন।নাহ ভোটের ডিউটি করতে কারুর সমস্যা নেই,সমস্যা হল কেউ আর রাজ্য পুলিশের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না।রাজকুমারের তিন টুকরো লাশ যে এখনো জ্বলজ্বল করছে।তাই কেউ আর প্রাণের ঝুঁকি নিতে চাইছে না।আর কেনই বা নেবে বলুনতো?দায়িত্ত্বের অপরদিকে তো থাকে অধিকার,তাই না?সুতরাং রাষ্ট্রের হয়ে ভোট পরিচালনা করা যদি ভোটকর্মী(যাদের ৮০% শিক্ষক)দের দায়িত্ব হয় তাহলে রাষ্ট্রের দায়িত্ত্ব তাকে সুরক্ষা দেওয়ার,দেশের নাগরিক হিসেবে তার বেঁচে থাকার অধিকারকে মান্যতা দেওয়ার,তাই না?নাহ সামরিক বাহিনীর প্রতি কোনো প্রেম আমার নেই কারণ এই সামরিক বাহিনীই মাওবাদী আন্দোলন দমনের নামে নির্বিচারে খুন করে নিরীহ আদিবাসীদের-বস্তারে,উড়িশ্যায়,মহারাষ্ট্রে!হ্যঁা তবুও ভোটের ডিউটিতে চাই সামরিক বাহিনী,কারণ তার কোনো রাজনৈতিক বশ্যতা নেই রাজ্য সরকারের কাছে যা রাজ্য পুলিশের আছে(যদিও এই পুলিশই গুলি খায় চড় খায় শাসক দলের লুম্পেনদের হাতে।তবুও এই কাপুরুষ পুলিশ শাসক দলের বশ্যতা স্বীকার করে চলে সমস্ত ক্ষেত্রে)।আর ভারতের,বিশেষ করে এই বাংলার ভোট যে আদতে একটি প্রহসন মাত্র তা বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর গোটা পৃথিবী জেনে গেছে।তাই সেই প্রহসনে চাকরির শর্ত হিসেবে অংশ নিতে বাধ্য হওয়া শিক্ষকরা কেন প্রাণের ঝুঁকি নেবেন বলতে পারেন?তাই তারা লাজ স্লোগান তুলছে "কাকদ্বীপ থেকে কোচবিচার,আর হবে না রাজকুমার"....

পুঃ চিন্তা করবেন না,আপডেট দিতে থাকবো।


Name:  PT          

IP Address : 561212.187.4545.19 (*)          Date:07 Apr 2019 -- 10:59 AM

রাজকুমারের মৃত্যু খুবই বেদনাদায়ক কিন্তু পব-র শিক্ষিত-স্বল্পশিক্ষিত বেশীর ভাগ ভোটারই তো আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বেজায় সন্তুষ্ট। সেই সন্তুষ্টির ওপরে ভিত্তি করেই তো বাঙালীর তথাকথিত রাজনৈতিক বোধের দাঁতে লাথি মেরে প্রার্থী নির্বাচন করা হচ্ছে। আর তাদের মধ্যে যারা অপদার্থতম তারাও জিতছে।
তো লড়বেন কাদের সমর্থনে?


Name:  sm          

IP Address : 2345.110.783412.206 (*)          Date:07 Apr 2019 -- 12:18 PM

এই রে,পিটি ক্ষেপে গিয়েছেন।রাজনৈতিক বোধের দাঁতে লাথি মানে কি?দাঁত ই বা কেন? অন্য কিছু নয় কেন?
যোগ্যতম প্রার্থী কারা?অতীতে অনেক দিকপাল ছিলেন যেমন অনিল বসু,আনিসুর বাবু,তড়িৎ বাবু-এই রকম?


Name:  দ          

IP Address : 670112.220.898912.123 (*)          Date:07 Apr 2019 -- 01:54 PM

মায়ের আত্মার শান্তি কামনা করে ভোট চাইছে মুনমুন! যাত্তারা!
মেয়ের ব্যর্থতায় মায়ের আত্মা অশান্ত হয়ে উঠেছে বোধহয়


Name:   সিকি           

IP Address : 670112.215.45900.92 (*)          Date:07 Apr 2019 -- 05:43 PM

সুলগ্না,

প্রতিবাদরত শিক্ষকদের সাথে আছি। আপডেট দিতে থাকবেন।


Name:  pi          

IP Address : 785612.40.1234.61 (*)          Date:11 Apr 2019 -- 03:09 PM

ত্রিপুরার একজন পোস্ট করেছেন,

আইজিএম হাসপাতাল থেকে টেনে নিয়ে এক ডাক্তারকে আধমড়া করা হল এই 'শিক্ষিত,সভ্য' শহরে! ডাক্তার এখন আইসিইউ-তে।
যদি এই 'সভ্য সমাজ', যদি এই রাষ্ট্র তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারে, তবে তারা 'সেবা' দিতে পারবেন তো?

সিটি সেন্টারের সামনে, হাসপাতালে রাতে আগে পুলিশ দেখতাম, এখন থাকেন না? হাসপাতাল থেকে মারতে মারতে সিটি সেন্টার পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হল ডাক্তারকে।পাশেই স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ একাধিক হাইপ্রোফাইল মানুষের বসবাস।সেরকম এলাকাতেও নিরাপত্তা ব্যবস্থা এত ঢিলে? খুব দূরে নয় শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি মার্গে মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি আবাস।

নির্বাচনের দিন ভোররাতে এই ঘটনা প্রকাশ্যে, রাস্তায় ! নিরাপত্তা ব্যবস্থার এই কি অবস্থা?

ডাক্তারদের থেকে চিকিৎসা পেতে হলে তাদের নিশ্চিন্তে চিকিৎসা দেয়ার ব্যবস্থা করতে হবে আমাদের।

দিন কয়েক আগে এক ডাক্তার জুতোপেটা হয়েছেন! কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে?

ছিঃ ছিঃ! নিজেকেই একদলা থু থু!




Name:  সুব্রত দেববর্মা          

IP Address : 785612.51.78.173 (*)          Date:11 Apr 2019 -- 04:49 PM

আঙুলের ভোট
_____________

নিজের আঙুলের প্রতি ঘৃণা জন্মাক...।

'বিনাভোটেই বার করে দেওয়া' ? হলি ফাক।।

গণতন্ত্রের শ্রাদ্ধের কান্ডারি দেখবি এবার মহাপ্রলয়।

যে আঙুলে জিতে এলি, সেই আঙুলকেই আবার ভয়।।


@সুব্রত দেববর্মা,আগরতলা, ত্রিপুরা
(লোকসভা নির্বাচন ১১ এপ্রিল, ২০১৯)


Name:  Subrata Debbarma          

IP Address : 785612.51.45.143 (*)          Date:11 Apr 2019 -- 04:53 PM

Vote for preseve humanity not for hinduism

(for an uncultured and improper educated society...religion is only curse)

SUBRATA DEBBARMA
FROM TRIPURA


Name:  ঠিক ধরেছেন আমি সুব্রত।          

IP Address : 785612.51.0123.88 (*)          Date:11 Apr 2019 -- 05:06 PM

আচ্ছা..... লাখ কথার এক কথা।

আমরা কি লিখেই যাবো এই ভন্ডামির বিরুদ্ধে? আর কোনো কাজ নেই ??????
যেসব খবর আসছে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে..... আঙ্গুল কাঁপছে আমার।


Name:  Du          

IP Address : 237812.58.450112.255 (*)          Date:12 Apr 2019 -- 01:58 AM

ত্রিপুরায় কাল জঘন্য ভোট হয়েছে।


Name:  pp          

IP Address : 9004512.142.340112.12 (*)          Date:12 Apr 2019 -- 05:43 AM

সেটার মানে কি? বিজেপি রিগিঙ্গ করেছে?


Name:  Du          

IP Address : 7845.184.4556.246 (*)          Date:12 Apr 2019 -- 08:59 AM

গুন্ডাগিরি হয়েছে। পুলিশ নীরব দর্শক।


Name:  S          

IP Address : 458912.167.34.76 (*)          Date:12 Apr 2019 -- 09:33 AM

মানুষ নিজে না জাগলে পুলিশ, কেন্দ্রিয় বাহিনী দিয়ে কিস্যু হবেনা।


Name:  aranya          

IP Address : 3478.160.342312.238 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 05:31 AM

মার খাওয়ার বা খুন হয়ে যাওয়ার ভয় থাকলে সাধারণ মানুষ আর কি করবে - অত ঝুঁকি নিয়ে ভোট দেওয়ার চেষ্টা করবে, এটা প্রত্যাশিত নয়


Name:  Ekak          

IP Address : 12.39.343412.219 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 05:41 AM

ভোটিঙ্গ বাই মোবাইল এপ্স খুব জরুরি ভারতে।

কোন সরকার বেড়ালের গলায় ঘন্টি বান্ধে ,সেটা এখন দেখার।


Name:  sm          

IP Address : 2345.110.013412.163 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 09:18 AM

যাতে আরো বেশি করে জালি করা যায়?


Name:  pi          

IP Address : 7845.29.670123.128 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 09:44 AM

ত্রিপুরা নিয়ে দুটো লেখা ভোটবাক্সে আছে, দেখুন


Name:  সাব অল্টর্ন          

IP Address : 018912.210.012323.15 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 12:10 PM

নব্য বাংলার পলিটিকাল ডিস্কোর্স। দেখুন ও দেখান---পুরোটানা দেখলে মিস করবেন

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=803231563394196&id=6803438
52349635



Name:  S          

IP Address : 458912.167.34.76 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 01:16 PM

এইটা দারুন দিয়েছেন। মিমির ধমকি দিয়ে শুরু করেছিলাম। এইটা পুরো আইসিঙ্গ অন দ্য কেক।


Name:  pp          

IP Address : 3423.241.342312.17 (*)          Date:13 Apr 2019 -- 07:46 PM

তলার কমেন্ট গুলো আরো চিত্তাকর্ষক।


Name:  Pi          

IP Address : 2345.110.894512.152 (*)          Date:18 Apr 2019 -- 08:19 PM

দার্জিলিং এর চোপড়ার লাইভ দেখলেন কেউ?


Name:  sm          

IP Address : 2345.110.124512.20 (*)          Date:18 Apr 2019 -- 08:36 PM

https://m.economictimes.com/news/elections/lok-sabha/west-bengal/india
-will-be-poverty-free-only-after-congress-ouster-rajnath-singh/article
show/68936729.cms

জব্বর বলেছেন ভদ্রলোক।😊


Name:  sm          

IP Address : 2345.110.124512.20 (*)          Date:18 Apr 2019 -- 08:38 PM

খালি কংগ্রেস প্রসঙ্গে মন্তব্যের প্রেক্ষিতে।


Name:  PT          

IP Address : 340123.110.234523.4 (*)          Date:18 Apr 2019 -- 08:58 PM

"নব্য বাংলার পলিটিকাল ডিস্কোর্স।"
নতুন কিছু নয় তো!! বিধানসভা লন্ডভন্ড করা দিয়েই তো এই রাজনীতির জন্ম। সেই "সদরে কামান দাগা" তাত্বিকেরা কোথায় লুকিয়েছে এখন?


Name:             

IP Address : 2345.106.673423.183 (*)          Date:18 Apr 2019 -- 09:57 PM

এই খবরটা খুব খুউব ইন্টারেস্টিঙ

https://www.ndtv.com/mumbai-news/elections-2019-mukesh-ambani-backs-co
ngresss-mumbai-south-candidate-milind-deora-as-brother-anil-amb-202501
5?&tb_cb=1&fbclid=IwAR0IzQqPZy1eSslKNnqNsxOKJj6tJk0Tarkngi7d8jFZqdG6ut
4LfuilmFs



Name:  pi          

IP Address : 7845.15.123423.190 (*)          Date:18 Apr 2019 -- 10:00 PM

হ্যাঁ, এটাই দিলাম অন্য টইয়ে। বেশ অদ্ভুত! নাকি গদি উল্টোচ্ছে টের পেয়েছে!


Name:  দ্যুতি          

IP Address : 785612.42.2367.46 (*)          Date:19 Apr 2019 -- 11:49 AM



চারদিকে ভোটের ছবি ভোটের গল্প। আইপিএল টাও প্যানপ্যানে লাগছে এক ঘন্টা সংগে সুমনের কাছে। আমি খুব কম বুঝি এসব। এবার আবার ভোটার লিস্টে নাম ও নেই মনে হয়। ভোট দিতে না পারলে বেশ আফসোস লাগে। এই গরমে একটু সেজেগুজে লাইন দিয়ে চারদিকের গুলতানি দেখার সুযোগ হাতছাড়া হবে আর কি। বেশ কটা দিন বেংগলে কাটিয়ে এলাম। তাতে আবার রাম নবমী এসব ছিল। আমাদের চেনা রাস্তাঘাটে রাম মন্দিরের ছড়াছড়ি, সাথে হনুমানের ও। আগে তেমন ছিল না। আমার বেশ মনে আছে ঠাকুমার তাকে আমিই একটা নীল রং এর ছোট সাইজ রামের ছবি কিনে এনেছিলাম। রাম কে সব ঠাকুরের সাথে পুজো করা হত। কিন্তু আমাদের মনে শিব, বিষ্ণু বা কালী, দুর্গা এঁদের নিয়ে কোনো দুই দুই নেই। এদের ভগবান বলে সবাই ধরে নিয়েছি, অনেক আগে থেকে। কিন্তু রাম কোথাও যেন আমাদের খুব চেনা বীর। গল্পের নায়ক। সীতার বর। হঠাৎ করে চারদিকে এই ভোট প্রচারে রামকে এভাবে তুলে আনাটায় আমার অন্তত চুলকানি হয় একটু। মানে পুজোপাট আর রাজনীতি, ধর্ম এসব মিলে গেলে কেমন যেন লাগে। সাথে কমলা রং। সেদিন 'ভিঞ্চি দা' দেখতে যেতে গিয়ে প্রচন্ড জ্যামে ফাঁসলাম। দেখি লরি ভরে রাম মূর্তি আর হনুমান মূর্তি। সাথে ওই কমলা রং পরা মানুষ। এ কোন দেশে এলাম? কেন নিতে পারছি না এ সংস্কৃতি? আমি ই তো ছোট থেকে রামরাজাতলার রাম ঠাকুর ভাসান দেখেছি। আমি তো কত পুজোপাঠ দেখলাম এ জীবনে। কিন্তু এভাবে রাম পুজো কেন সইতে পারছি না কে জানে। মনের এই সংকীর্ণতা কাটাতে চাইছিলাম। ওদিকে বাবা ছোটদের নিয়ে চড়কের মেলায় গেছে। এগুলো তো আমাদের সংস্কৃতি, কিন্তু এগুলো দিয়ে আজ এভাবে দেগে দেওয়া হচ্ছে কেন এটা বিজেপির প্রচার? এটা ভাবলেই ইক্যুয়েশন মিলছে না। এরপর ব্ল্যাক ডায়মন্ডে ফিরছি, এসি তে বসেছি। মাঝে কে একজন মোবাইলে জোরে গান চালিয়েছেন, বেশ সুরেলা, তাতে হিন্দীতে বলা হচ্ছে, ভারত মা কি দাস হুঁ, ছাপান্ন ইঞ্চি কে সেবক হুঁ এরকম কি কি যেন। আমি পার্টি পলিটিক্স বুঝি না, তাও ওই লোকটাকে কেন যে অসহ্য লাগে? নেতা রাজনীতি মানেই পালটি খাওয়া এটাই দেখি আজকাল। তোষামোদি করা আর যেন তেন প্রকারেণ পয়সা কামানো, গোঁজা তাপ্পি পারা। এসব সবাই বোঝে। কমলা রং এর টি শার্ট দেখলেই বিজেপির লোক মনে হচ্ছে আমার! এসব আমি কাটিয়ে উঠতে চাই কিন্তু পারি না। আমাদের দেশের বাড়ি থেকে এক কাকা কাকিমা এসেছিলেন মায়ের কাছে পুজোয়। গেল বছর ওনাদের মুখে বংলার নেত্রীর সুনাম শুনেছিলাম। কিন্তু এবার দেখি সব পালটে গেছে। সবাই বিজেপি চাইছে। ভালো ভালো। খুব ভালো। ধর্ম আমরা বুঝি না, সারা দেশ হিন্দুর থাকবে। তাহলে ধর্ম নিরপেক্ষ বলার কি আছে? বিজেপি নাকি দেশভক্তি বাড়িয়েছে একথাও একজন বললেন। আমার বাবা বলেন নিজের ধর্মকে জানা প্রয়োজন। চারদিকে দামড়া বিচারবুদ্ধিওলা মানুষগুলো ধর্মাচারণ করতে গিয়ে একদলকে প্রচন্ড ঘৃণা করছেন। এ কোন ধর্মের কথা জানা নেই। দেশ নাকি মুসলমান এ ভরে যাবে। এই হবে সেই হবে। সব বুঝি, গলতাগুলো তো অনেক গভীরে। সব সময় পাইয়ে দেবার রাজনীতি। ঠিক জায়গায় ঠিক মলমটা দেবার কেউ নেই। সবাই খালি উস্কানিতে খুশি। চারদিকে যা দেখে এলাম বাংলায় বিজেপি এলে অবাক হবার কিছু নেই। আরো বড় রাম মন্দির দেখবার অপেক্ষায় রইলাম।


Name:  pi          

IP Address : 2345.110.894512.124 (*)          Date:27 Apr 2019 -- 11:05 PM

এধরণের কথাবার্তা শুনে তাও একটু ভরসা পাওয়া যায়!

পব র লোকজনকে এন আর সি নিয়ে জানতে চাওয়ায়,
https://www.thequint.com/elections/west-bengal-news-ranaghat-chaupal-o
n-nrc-amit-shah-infiltrator-remark




এই সুতোর পাতাগুলি [1] [2] [3] [4]     এই পাতায় আছে70--100