Somnath Roy RSS feed

নিজের পাতা

Somnath Royএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • লড়িয়ে দেবেন না, প্লিজ
    পদ্মাবতী ডিবেটের সূত্রে একটা কথা চার পাশে শোনা যাচ্ছে, যে এ সব পদ্মাবতী ইত্যাদি দেশের আসল ইস্যু নয়। এই মুহূর্তে দিল্লির কৃষক বিক্ষোভটাই দেশের সমস্যা, সেখান থেকে নজর ঘোরাতেই রাষ্ট্র ও মিডিয়া পদ্মাবতীর মত উল্টোপাল্টা ফিল্মি ইস্যু বানানোর কারসাজি করছে। আমি ...
  • আজকের নাটক -পদ্মাবতী
    পরের পর নাটক আসতেই থাকে আজকাল। গল্প সাধারণ, একটা জনগোষ্ঠীর গরিষ্ঠ অংশের অহংকে সুড়সুড়ি দেওয়া প্লট। তাদের বোঝান যে বাকিরা ও তাদের পূর্বপুরুষেরা লুঠতরাজ করে তোমাদের লাট করে দিয়েছিল, আজই সময় হয়েছে বদলা নিয়ে নাও, নয়ত কাল আবার ওরা তোমাদের শেষ করে দেবে। এই নাটক ...
  • বেশ্যাদ্বার
    বেশ্যাদ্বার (প্রথম পর্ব)প্রসেনজিৎ বসুরামচন্দ্র দুর্গাপুজো করছেন। রাবণবধের জন্য। বানরসেনা নানা জায়গা থেকে পুজোর বিপুল সামগ্রী জোগাড় করে এনেছে। রঘুবীর পুজো শুরু করেছেন। ষষ্ঠীর বোধন হয়ে গেছে। চলছে সপ্তমীর মহাস্নান। দেবীস্বরূপা সুসজ্জিতা নবপত্রিকাকে একেকটি ...
  • অন্য পদ্মাবতী
    রাজা দেবপালের সহিত দ্বন্দ্বযুদ্ধে রানা রতন সিংয়ের পরাজয় ও মর্মান্তিক মৃত্যুর সংবাদ রাজপুরীতে পঁহুছানোমাত্র সমগ্র চিতোরনগরীতে যেন অন্ধকার নামিয়া আসিল। হায়, এক্ষণে কে চিতোরের গরিমা রক্ষা করিবে? কেই বা চিতোরমহিষী পদ্মাবতীকে শত্রুর কলুষ স্পর্শ হইতে বাঁচাইবে? ...
  • আমার প্রতিবাদের শাড়ি
    আমার প্রতিবাদের শাড়িসামিয়ানা জানেন? আমরা বলি সাইমানা ,পুরানো শাড়ি দিয়ে যেমন ক্যাথা হয় ,গ্রামের মেয়েরা সুচ সুতো দিয়ে নকশা তোলে তেমন সামিয়ানাও হয় । খড়ের ,টিনের বা এসবেস্টাসের চালের নিচে ধুলো বালি আটকাতে বা নগ্ন চালা কে সভ্য বানাতে সাইমানা টানানো আমাদের ...
  • টয়লেট - এক আস্ফালনগাথা
    আজ ১৯শে নভেম্বর, সলিল চৌধুরী র জন্মদিন। ইন্দিরা গান্ধীরও জন্মদিন। ২০১৩ সাল অবধি দেশে এটি পালিত হয়েছে “রাষ্ট্রীয় একতা দিবস” বলে। আন্তর্জাতিক স্তরে গুগুল করলে দেখা যাচ্ছে এটি আবার নাকি International Men’s Day বলে পালিত হয়। এই বছরই সরকারী প্রচারে জানা গেল ...
  • মার্জারবৃত্তান্ত
    বেড়াল অনেকের আদরের পুষ্যি। বেড়ালও অনেককে বেশ ভালোবাসে। তবে কুকুরের প্রভুভক্তি বা বিশ্বাসযোগ্যতা বেড়ালের কাছে আশা করলে দুঃখ লাভের সম্ভাবনা আছে। প্রবাদ আছে কুকুর নাকি খেতে খেতে দিলে প্রার্থনা করে, আমার প্রভু ধনেজনে বাড়ুক, পাতেপাতে ভাত পড়বে আমিও পেটপুরে ...
  • বসন্তবৌরী
    বিল্টু তোতা বুবাই সবাই আজ খুব উত্তেজিত। ওরা দেখেছে ছাদে যে কাপড় শুকোতে দেয়ার একটা বাঁশ আছে সেখানে একটা ছোট্ট সবুজ পাখি বাসা বেঁধেছে। কে যেন বললো এই ছোট্ট পাখিটার নাম বসন্তবৌরী। বসন্তবৌরী পাখিটি আবার ভারী ব্যস্তসমস্ত। সকাল বেলা বেরিয়ে যায়, সারাদিন কোথায় ...
  • সামান্থা ফক্স
    সামান্থা ফক্সচুপচাপ উপুড় হয়ে শুয়ে ছবিটার দিকে তাকিয়েছিলাম। মাথায় কয়েকশো চিন্তা।হস্টেলে মেস বিল বাকি প্রায় তিন মাস। অভাবে নয়,স্বভাবে। বাড়ি থেকে পয়সা পাঠালেই নেশাগুলো চাগাড় দিয়ে ওঠে। গভীর রাতের ভিডিও হলের চাম্পি সিনেমা,আপসু রাম আর ফার্স্ট ইয়ার কোন এক ...
  • ইংরাজী মিডিয়ামের বাংলা-জ্ঞান
    বাংলা মাধ্যম নাকি ইংরাজী মাধ্যম ? সুবিধা কি, অসুবিধাই বা কি? অনেক বিনিদ্র রজনী কাটাতে হয়েছে এই সিদ্ধান্ত নিতে! তারপরেও সংশয় যেতে চায় না। ঠিক করলাম, না কি ভুলই করলাম? উত্তর একদিন খানিক পরিস্কার হল। যেদিন একটি এগার বছরের আজন্ম ইংরাজী মাধ্যমে পড়া ছেলে এই ...

Somnath Roy প্রদত্ত সর্বশেষ দু পয়সা

RSS feed

নামসংকীর্তন কহে নরোত্তম দাস

সাধনপদ্ধতি হিসাবে কীর্তনের প্রয়োগ সম্ভবতঃ ভক্তিধর্মের উত্থানের একদম গোড়ার দিক থেকেই। বৌদ্ধ সহজিয়া সাধনাতেও সমবেতভাবে আধ্যাত্মিক গান গাওয়ার প্রচলন ছিল (উদাঃ চর্যাগীতি)। বাংলায় বিভিন্ন আকর গ্রন্থে (চৈতন্যমঙ্গল, চৈতন্য চরিতামৃত) ‘সংকীর্তনদাতা’ বা ‘সংকীর্তনপ্রবর্তক’ হিসাবে শ্রীচৈতন্যের নাম পাওয়া যায়। অর্থাৎ, একভাবে মনে করা হয়, তিনি উপাসনার বিশেষ পদ্ধতি হিসেবে কীর্তনের প্রচলন করেন। জয়ানন্দের চৈতন্যমঙ্গলে দেখি, শ্রীচৈতন্য বলছেন-
কীর্ত্তন সকল কর্ম্ম কীর্ত্তন সকল ধর্ম্ম
কীর্ত্তন সকল ব্রহ্মজ

নববর্ষ কথা

খ্রিস্টীয় ৬২২ সালে হজরত মহম্মদ মক্কা থেকে ইয়াথ্রিব বা মদিনায় যান। সেই বছর থেকে শুরু হয় ইসলামিক বর্ষপঞ্জী ‘হিজরি’। হিজরি সন ৯৬৩ থেকে বঙ্গাব্দ গণনা শুরু করেন মুঘল সম্রাট আকবর। হিজরি ৯৬৩-র মহরম মাসকে ৯৬৩ বঙ্গাব্দের বৈশাখ মাস ধরে শুরু হয় ‘ তারিখ ই ইলাহি’, যে বর্ষপঞ্জীর উদ্দেশ্য ছিল বাংলার কৃষিবর্ষকে হিসেবে রেখে খাজনা আদায়ের দিনগুলি নির্ধারণ করা। বাংলার আকাশে তারা দেখে মাস নির্ধারণ করা হত। হিজরির চান্দ্রমাসের চলনকে ধরে রেখে তারা-ঝিকমিকি মাসগুলিকে পঞ্জিকায় ঢুকিয়ে ফেলেন ফারসি-ভাষী জ্যোতির্বিদ ফাতুল্লাহ

কালিকাপ্রসাদ বেঁচে থাকবেন

কালিকাপ্রসাদের প্রয়াণের পর প্রায় সপ্তাহ ঘুরে গেল, এখনও ঘটনার শক কাটছে না। এরকম নয় যে আমি তাঁকে ব্যক্তিগত ভাবে চিনতাম, কিন্তু শিল্পী, বিশেষতঃ একজন সঙ্গীত শিল্পী, যাঁর কন্ঠ আমাদের জীবনের বিভিন্ন ওঠাপড়ার মুহূর্তের সঙ্গে জড়িয়ে যায়, তাঁর চলে যাওয়ায় আত্মীয়বিয়োগের ব্যথা তো বাজবেই। আর তার সঙ্গেই ঘুরেফিরে আসছে, কালিকাপ্রসাদ ও তাঁর কর্মকাণ্ডের স্মৃতিগুলি। কালিকা সম্ভবতঃ ১৯৯৭-৯৮ নাগাদ কলকাতায় আসেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর পড়াশুনো করতে। কিছুদিনের মধ্যেই দোহার গানের দলটি গড়ে ওঠে। নব্বইয়ের শেষভাগ ক

সিঙ্গুর -- একটি পাঠপ্রতিক্রিয়া

সিঙ্গুরের ঘটনাপুঞ্জ তার বৃত্ত সম্পূর্ণ করলো এই সপ্তাহে। এইখানে বৃত্ত লিখতে তবুও একটু বাঁধছে, কারণ, গত দশ বছর আগে কোনও ভাবেই ভাবতে পারিনি যে শেষটা এইখানে হবে। প্রথমে তো বেশ ভালোই লাগছিল, অফিসে কম্পিউটার আর প্রাথমিকে ইংরেজি বর্জনকারী সিপিএম অবশেষে রাজ্যে ইন্ডাস্ট্রি আনা নিয়ে সিরিয়াসলি কিছুটা এগোচ্ছে দেখে। চাকরি বাকরি বাড়বে, ক্যাশ ফ্লো বাড়বে, অর্গানাইজড লেবার ক্লাস তৈরি হবে--- ইত্যাদি মিলিয়ে সে বেশ ভালো ব্যাপার মনে হচ্ছিল। তারপর সেই ফোর্থ ইয়ার থেকে জেনেছি কোর জব করতে হলে বাড়ি ছাড়তে হবে, এই শিল্পা

চ্যাং মুড়ি কানি এবং অন্যান্য



পার্লামেন্টে সাম্প্রতিক জেএনইউ বিতর্কের শুরুর দিন স্মৃতি ইরানি জেএনইউর ছাত্রদের প্রচারিত একটি লিফলেট থেকে পড়ছিলেন, যেখানে দুর্গাকে একজন বেশ্যা হিসেবে দেখানো হয়েছে যিনি মূলবাসী রাজা মহিষাসুরকে ছলনা করে বধ করেন। স্মৃতিজি পড়ছেন যখন সংসদ জুড়ে শেম শেম ধ্বনি শোনা যাচ্ছে। এরপর তিনি বলেন যে, এই কী বাক্‌ স্বাধীনতা, কলকাতার রাস্তায় কেউ এরকম বলতে পারবে? পুরাণেতিহাসের এই ভিন্নতর ভার্সন নিয়ে আলোচনার অবকাশ আছে। একটি মত শুনছি কোনো জনজাতির মধ্যে নাকি এইরকম লোকগাথা আছে। দুর্গাপ্রতিমা গড়তে বাংলায় বেশ্

রাষ্ট্রদ্রোহের ডাক

এমন করেই ছড়িয়ে গেছে মাটির থেকে জলে
সমুদ্র তার স্রোতের পথে অজানা অঞ্চলে,
মানুষ দিয়ে জড়িয়ে রাখে আমার দেশের টান
সেইখানেই তো নদীর তীরে মাটির থেকে ধান-
সোনার মতন আকাশ, নীচে ঘর খুঁজে পায় লোক
তখনও তার বনদেবতার হস্তীর মস্তক।
এমনি করেই নগর এবং বন্দর সভ্যতা
যে সভ্যতায় কেউ ভাবেনি অস্ত্রশালার কথা-
আবার যখন মরুভূমি মুছল নগর, নদী
নতুন করে শিখছে শ্রুতি সন্তান সন্ততি,
আমার দেশে সব মানুষই দেবতা হয়, একা-
সেই জেনেছে একান্তকে অনেকভাবে দেখা।
বিশ্বজয়ী গ্রিক সেনানীর রক্ত

আলোকপ্রাপ্তির কবিতামালা

(৫)
শার্ঙ্গক পক্ষীর স্তব
========

(“এই পঞ্চদশ দিনের মধ্যে তত্রস্থ সমস্ত জীবজন্তুই সেই প্রচণ্ডানলে দগ্ধ হইল; কেবল অশ্বসেন, ময় ও চারিটি শার্ঙ্গক রক্ষা পাইয়াছিল”)

প্রণম্য অগ্নি তুমি পিতৃমাতৃঘাতী, তবু
তোমাকেই স্তুতি করি কারণ বাঁচতে চাই আরও
স্বর্গমর্তব্যাপী তোমার যশোকীর্তি স্মারক
দেখে যেতে পারি যেন অধম দাসের চোখে প্রভু

প্রণম্য অগ্নি তুমি, আমরা তো পক্ষীশাবক
এতদিন এই বনে গাছে ও গুহায় বেড়ে উঠি
কীটভূক, উঞ্ছবৃত্তি শস্যদানা খাব বলে খুঁটি
কিম্বা ফলট

অক্ষর শব্দমালা

নাথুসংকটে হাঁকে তিব্বতী হাওয়া
---------------
শব্দরা ধনী। অর্থের বিত্তই তার সম্পদ। ধ্বনির শরীর থেকে উঠে আসে শব্দ। আওয়াজেরা মারা যায়, যৌথ আওয়াজে উঠে আসে মানে, দ্যোতনা, খোদাই করে রাখা অমরত্বের নিশানা। হিরণ্যগর্ভের আভাস পেয়ে ব্যক্তি মানব চিৎকার করে ওঠে- শৃণ্বন্তু। গোষ্ঠীর স্মৃতিতে থাকে অমৃতের অধিকার। আক্রান্ত গোষ্ঠীর নিশ্চিন্ততম মানুষটি শব্দের ইশারায় কেঁপে ওঠে। বিদেশ থেকে ফিরে আসে জাহানারা ইমামের সন্তান, চিরপরিচিত শব্দের মায়ায়, মর্যাদায়, শব্দের মধ্যেই ডুবে যায় একাত্তরের রুমি, একাত্তরের দিন

পুজোর সনেট

এসো স্মৃতি এসো সংকেত ভেদ করে এই পথমাঝে
রূপের গভীর থেকে মূর্তির মত চিনে নেওয়া ঘ্রাণে
আরতির ধোঁয়া এসে স্বয়ং উদিত হও ঘটের বিরাজে
যেরকম কুয়াশার থেকে মিশে গ্যাছো আশ্বিনের ধানে
এসো পথ এসো স্তবের বিচার থেকে স্মৃতির সকালে
রৌদ্র মেঘের ফাঁকে রেখে যাক পখি ওড়ানোর গান
ঢাল তুলে যেরকম বন্যা থামিয়ে দিতে নদীর কপালে
শিউলির হাসি দিয়ে নিয়ে সেজে যেত বিষাদবাগান
এসো রৌদ্র এসো বর্ষা কুয়াশার কাছে এসো ভুলপথ
মাঠের নবীন বাহু তালগাছ দুটি সিগন্যালে স্থিত
ভোরের রসের মত ঘুমের পর্দা তুলে

প্রি-পুজো সনেট

কুকুরের মাস শেষে এসে গেলে; যাকে বলি ঘ্যাম
ঘামের বিষাদ মেখে ট্রাফিকের বিস্তর জ্যাম
চুঁইয়ে চুঁইয়ে পড়ে সিগন্যাল থেকে, যেন জল
রেলিং-এর নীলসাদা হলুদ আর সিকির অচল
পাতায় নতুন করে ঘ্রাণ নিই নতুন বাঁধাই
যেরকম মহালয়া এসে গেলে এস এম এস পাই
সাতদিন রোববার সপ্তাহে ছুটি ছুটি মেনু
রেডিওয় আলো জ্বলে কীভাবে যে বেজে যেত বেণু!

আলোয় শব্দ বাজে রঙ ঠুকে যায় কাঁচে কাঁচে
বাঁশের কাঠামো থেকে গান বাজে আনাচে কানাচে
গানেরও শরীর থাকে মায়াবিনী সমারোহ সাজ
মাস গুণে তিথি মেনে ঠিকরিয়ে

এদিক সেদিক যা বলছেনঃ

24 May 2017 -- 06:06 PM:টইয়ে লিখেছেন
আর, প্রাইমারিলি ব্যাপারটা সিপিএমের। সেটা নিয়ে ফুটেজ খেতে চাইলে ট্রল বা ইগনোর দুটোর একটা করা যায়।
24 May 2017 -- 06:03 PM:টইয়ে লিখেছেন
এগেইন, তুমি যদি মূল লেখাটা পড়ো, স্পিরিটটা কিন্তু, ব্যারিকেড ভাঙব, পুলিশ জলকামান ছুড়লে পুলিশকে ইঁট ছু ...
24 May 2017 -- 05:24 PM:টইয়ে লিখেছেন
পুলিশ না আটকালে সিপিএম কী করত? বিদ্যাসাগর সেতুর ওপর দিয়ে মিছিল নিয়ে যেত?
24 May 2017 -- 04:58 PM:টইয়ে লিখেছেন
দ্যাখো, এমনিতে একটা মানুষ মাটিতে পড়ে মার খাচ্ছে এটা দেখলে খারাপ লাগে। কিন্তু সিপিএম নিজেকে মন জায়গায় ...
24 May 2017 -- 04:04 PM:টইয়ে লিখেছেন
সিপিএম বিপ্লব করছে, সে গল্প জনে জনে পড়বে তো
24 May 2017 -- 11:27 AM:টইয়ে লিখেছেন
এটা তিয়েনান্মেনের থ্রেড, এদ্দিন ঘোরার পর এবার দাঁড়াচ্ছে, খাগড়াগড় ফড় এর কাছে লাগে!
24 May 2017 -- 11:21 AM:টইয়ে লিখেছেন
আচ্ছা এই ছদ্মনামে লেখা কি সালকিয়া প্লেনামের পথ পরিত্যাগ করে গোপন ও ষড়যন্ত্রমূলক হয়ে ওঠার পুনর্প্র্যা ...
24 May 2017 -- 10:51 AM:টইয়ে লিখেছেন
ঋতব্রতও কলকাতায় নেই?
24 May 2017 -- 10:35 AM:টইয়ে লিখেছেন
কাল মিছিলে নাকি সুমিত তালুকদার আর ঋতব্রত ব্যানার্জী একই ইঁট থেকে আধলা ভেঙে পুলিশের দিকে ছুঁড়েছে, সিপ ...
24 May 2017 -- 10:33 AM:টইয়ে লিখেছেন
ভালো লাগল। কিন্তু এই রেজিস্ট্যান্সটা দিতে ৬ বছর লেগে গেল কেন? তবে এই স্ট্রিট ফাইট দিনের পর দিন চললে ...
23 May 2017 -- 06:01 PM:টইয়ে লিখেছেন
মেয়ের জন্যে কয়েকটা বানিয়েছিলাম, সেগুলোর কিছু দিইঃ (১) হুড়মুড়িয়ে জোর কদমে যাচ্ছে ঘেঁটু ...
18 Apr 2017 -- 01:16 PM:মন্তব্য করেছেন
RSS-- <3
18 Apr 2017 -- 01:16 PM:মন্তব্য করেছেন
এই বইটায় কিছু আছে হয়তঃ https://books.google.co.in/books?id=gcGiwyBS3YwC&pg=PT112&lpg=PT112&dq=tarikh ...
18 Apr 2017 -- 11:02 AM:মন্তব্য করেছেন
তথ্যসূত্র ইন্টারনেটে খুব সহজে পাওয়া যায়। আলাদা করে কোনও স্পেসিফিক বই মেনশন করছিনা। তবে আকবর যে তারিখ ...
27 Jan 2017 -- 12:20 AM:টইয়ে লিখেছেন
ভারতবর্ষের মাটিতে যে বিভিন্ন সার্বভৌম রাষ্ট্রশক্তি বিভিন্ন সময়ে মাথা তুলেছে তাদের গড় আয়ু কীরকম? ...
27 Jan 2017 -- 12:19 AM:টই খুলেছেন
ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের আয়ু আর কদ্দিন?
19 Sep 2016 -- 06:42 AM:মন্তব্য করেছেন
এই সভ্যতা ধ্বংসের পর পৃথিবী আর মানুষের বাসযোগ্য থাকবে কি?
18 Sep 2016 -- 11:22 PM:মন্তব্য করেছেন
ইউক্লিড-বরাহমিহির থেকে সেই আ কী কী প্রযুক্তি এল? একটু যদি বিশদ করেন।
18 Sep 2016 -- 11:17 PM:মন্তব্য করেছেন
কল্লোলদা, এই পেছনে ফেরা যায় না- এরকম প্রতিপাদ্য নিয়ে আমার একটু ইসে আছে। আমাদের দেশের ইতিহাসেই তো দেখ ...
17 Sep 2016 -- 01:40 PM:মন্তব্য করেছেন
শিশুমৃত্যু।লাইফ এক্সপেন্টেন্সি প্রভৃতি যা যা বেড়েছে, তা কি শিল্পবিপ্লব না হলে বাড়ত না? ধরা যাক, পাবল ...