সিকি RSS feed

নিজের পাতা

অচল সিকির খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • অভিজ্ঞতার ঝুলি
    আমাদের পাশের পাড়ায় একটা কালিপুজো হত আদর্শ বালক সঙ্ঘের নামে।আমার জন্মের বহু আগে থেকে সেই পাড়ার কাকা জ্যাঠারা তারা যখন বালক ছিল সেই সময়ে ওই পুজোটা চালু করে।সেই জন্যই নাম ছিল আদর্শ বালক সঙ্ঘ বা এবিএস।তো বালকরা কালের নিয়মে কৈশোর পার করে যৌবনে উপনীত হল, তাতেও ...
  • বৃত্ত
    ১)এখনসকাল থেকেই বাড়িটায় হুলুস্থুলু, কি না কাজের লোক হার চুরি করে ধরা পড়েছে। "গত দুবছর ধরে তোকে খেতে পরতে দিচ্ছি, কাজ করতেও শিখিয়েছি, তার এই প্রতিদান?"ঘোষগিন্নীর গলাটা প্রায় পাড়ার মুখ থেকে শোনা যাচ্ছিল।"আসলে বৌদি, ছেলেটার অপারেশন করতে হবে, তোমাকে তো বলেছি, ...
  • অভিজ্ঞতার ঝুলি
    বারো তেরো বছর আগেকার কথা।তখন হৈ হৈ করে দুর্গা পুজো কালি পুজোর চাঁদা তুলতাম।একবার হয়েছে কি যে যে বাড়ির কোটাগুলো ছিল সেই সব কটা বাড়ির চাঁদা তোলা হয়ে গেছে।হাতে আরো কয়েকদিন সময়ও আছে।তো নতুন মার্কেট ধরার জন্য আমরা পাড়া থেকে একটু দূরে গেলাম।যদি কিছু চাঁদা আরো ...
  • অভিজ্ঞতার ঝুলি
    বারো তেরো বছর আগেকার কথা।তখন হৈ হৈ করে দুর্গা পুজো কালি পুজোর চাঁদা তুলতাম।একবার হয়েছে কি যে যে বাড়ির কোটাগুলো ছিল সেই সব কটা বাড়ির চাঁদা তোলা হয়ে গেছে।হাতে আরো কয়েকদিন সময়ও আছে।তো নতুন মার্কেট ধরার জন্য আমরা পাড়া থেকে একটু দূরে গেলাম।যদি কিছু চাঁদা আরো ...
  • বিসর্জন
    বিসর্জনঝুমা সমাদ্দারপড়ে রইল রাফখাতার শেষ পৃষ্ঠার এলোমেলো আঁকিবুকি... হলুদ প্লাস্টিকের ঝুটো দুল... চুলের তেলের গন্ধওয়ালা মাথার বালিশ...বেলতলার লাল কাঁকুড়ে পথ ... পড়ে রইল স্কুল ... আমগাছের নীচের বাঁধানো বেদী... পড়ে রইল হাসি-গল্প- ঝগড়া- খুনসুটি... বেগুনী ...
  • জ্যামিতিঃ পর্ব ৩
    http://bigyan.org.in...
  • বেতারে ‘অপারেশন সার্চলাইট'
    #MyStory #WarCrime #Joy71 #FFবিপ্লব রহমান, ঢাকা: ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ পাকিস্তানি সামরিক জান্তা কারফিউ জারি করে বিদ্রোহ দমন করার নামে যে নারকীয় হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল, এর সামরিক অভিধা ছিল— ‘অপারেশন সার্চলাইট’। এটি ছিল মুক্তিযুদ্ধের প্রথম প্রহরে মুক্তিকামী ...
  • জ্যামিতি: পর্ব ২
    http://bigyan.org.in...
  • আমি যারে ভালবাসি, তারে আবার বাসি না...
    আটের দশকে এসএসসি পরীক্ষার পর আমার স্কুলের বন্ধুরা কেউ স্পোকেন ইংলিশ, কেউ বেসিক ইংলিশ, কেউ বা শর্টহ্যান্ড-টাইপরাইট...
  • চড়াই ঠাকুমা
    আজকে তো বিশ্ব চড়াই দিবস। এই প্রসঙ্গে আমার ছোট বেলার চেনা চড়াইদের কথা মনে পড়ছে। অসমে তখন ব্রিটিশ আমলের বাংলো বাড়ী নেই নেই করে ও ছিলো। ঠান্ডা গরমে সমান আরামের হতো বলে সেগুলোর এবং অন্য অনেক বাড়ীর চাল হতো সোনালী খড়ের, আঞ্চলিক ভাষায় আমরা বলতাম ছনের চাল। এরকম ...

সিকি প্রদত্ত সর্বশেষ দু পয়সা

RSS feed

বসন্ত এসে গেছে ...

গল্পটা ঠিক গুরমেহরকে নিয়ে শুরু হয় নি। শুরু হয়েছে তার দুদিন আগে, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের রামজাস কলেজে দুদিনব্যাপী ডিবেটের অনুষ্ঠান ছিল, বিষয় ছিল প্রতিবাদের সংস্কৃতি। তো, সেই ডিবেটের দ্বিতীয় দিনে আমন্ত্রিত বক্তা ছিলেন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ স্কলার, উমর খালিদ।

এই অবধি পড়েই নিশ্চয়ই আন্দাজ করে নিয়েছেন কেন অচল সিকি আবার এক বছর বাদে বসে গেছে মন কি বাত লিখতে? বিচ্ছিন্নতাবাদী, রাষ্ট্রবিরোধী, আফজল গুরুর সমর্থক, “ভারত তেরে টুকরে হোঙ্গে” বলে স্লোগান দেওয়া “ভামপন্থী” উমর খালিদকে সেদিন

মরালমেসো, মরালমাসিমা এবং প্রাতঃকৃত্য

অস্বীকার করবার প্রায় কোনও জায়গাই নেই যে ছোটবেলায় আমাদের অনেকেই প্রায় নিয়ার-পারফেক্ট শুদ্ধাচারী ব্রাহ্মণ্য সংস্কৃতিতে বড় হয়েছিলাম। হিন্দি গান শোনা ছিল মহাপাপ, গাওয়া তো উচ্ছন্নে যাওয়ার স্পষ্ট লক্ষণ ছিল। ছোটখাটো বিচ্যুতি, এই যেমন অনুপ জালোটা, মান্না দে এটুকু বাদ দিলে বাংলাময় ছিল আমাদের জীবন। পাড়া কালচারে বড় হয়েছি আমরা। গ্রাম নয়, আবার পুরোদস্তুর শহরও নয়, মফস্বল সংস্কৃতিতে কাজ করত পাড়া-কালচার। শুভানুধ্যায়ী কাকু-জেঠিমা-মোড়ের সিগারেটের দোকানের স্বপনদা, এঁদের স্নেহদৃষ্টির ছায়াতেই আমরা বড় হয়েছি। প্রায়শই

শ্রীশ্রী আর্ট অফ লিভিং

অনুষ্ঠানের পরের দিনই লেখা শুরু করেছিলাম, তার পরে আর শেষ করি নি। আজ শ্রীশ্রী রবিশংকর পদ্ম সম্মানে ভূষিত হয়েছেন, তাঁর সম্মানে আজ লেখাটা শেষ করেই ফেললাম। জয় গুরুদেব :)

অরূপ, বয়সে একটু বড় হলেও, স্কুলে আমার সহপাঠী ছিল। ব্যান্ডেল সেন্ট জনস। ভালো গান করত, হারমোনিয়াম বাজাত, ফলে স্কুলের প্রেয়ারে ও সামনের রো-তে দাঁড়াত। আমিও দাঁড়াতাম, কারণ আমি তবলাটা বাজাতাম। আমাদের মিশনারি স্কুলে প্রতিদিন হারমোনিয়াম তবলা সহযোগে দুটি করে গান হত। জনগণমন আর হে প্রভু, হে দয়াময়। দ্বিতীয় গানটা বুকের কাছে হাত জোড় করে গা

অন্ধকারে বসে কথা বলার কারণ

মূল লেখাটি এনডিটিভি ইন্ডিয়ার সিনিয়র এক্সিকিউটিভ এডিটর শ্রী রবিশ কুমারের, এনডিটিভি সাইটে একুশে ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত। রবিশজির অনুমতিক্রমে তার বঙ্গানুবাদটা এখানে দিলাম সকলের পড়ার জন্য।

https://youtu.be/lSOjI38r-nE

কটা বাজছিল, আমার মনে নেই। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মিছিল থেকে আমি ফিরে এসেই ঘুমিয়ে পড়েছিলাম।

কত টাইমজোন, কত দেশ-দেশান্তরের ঘুম আমার চোখে এসে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। নিচে একটা চেঁচামেচির শব্দ শুনে আমার ঘুম ভাঙল।

ঘুমচোখে শব্দগুলো শুনে মনে হচ্ছিল, সেগুলোও যেন অন্য কোনও

মন কি বাতঃ এক দেশদ্রোহীর জবানবন্দী

(এই লেখার মূল অডিয়েন্স গুরুর জনতা নয়, মূলত গুরুর বাইরের জনতাকে উদ্দেশ্য করেই লেখা। ব্লগের লেখা, এখানেও তুলে দিলাম। বিশেষ ধন্যবাদ রৌহিনকে, আর শাক্যজিৎকে)


(১)

লেখা শুরু করার আগে ডিসক্লেইমার দিয়ে রাখা ভালো, যা দিনকাল চলছে। কে কখন কোথা থেকে সিডিশন চার্জ ফার্জ লাগিয়ে দেবে, জানা তো নেই, দিল্লি ঘেঁষে বাস করি, বহুকালের চেনাশনা বন্ধুরাও আজকে কেমন কিছু ইস্যুতে পোলস অ্যাপার্ট হয়ে যাচ্ছে, ঘরের দেওয়ালে পিঠ ঠেকিয়ে বসে আছি – আর পিছু হঠবারও জায়গা নেই। পাকিস্তানে যাবার হুমকি বেশ কয়েকবার পে

স্লোগান দিতে গিয়ে - দিল্লির গল্প

হ্যাঁ, মিছিল হাঁটার গপ্পো। আমি তো চিরদিনই রাজনীতি থেকে দূরে থাকা পাবলিক, মিছিলে কখনও হাঁটি নি, স্লোগানও দিই নি, তাই কে ভাই কে দুশমন - জানাটাও হয়ে ওঠে নি সময়মতো। যদিও সমসাময়িক রাজনীতির খবরাখবর ঠিকই রাখি-টাখি, এবং নিজের মত করে তার একটা ইন্টারপ্রিটেশনও করে থাকি।

তো, সেই ইন্টারপ্রিটেশন আমাকে জোর করে ঠেলে দিল কালকের মিছিলে, জেএনইউ সলিডারিটি মার্চ।

কবিতা কৃষ্ণণ জানিয়েছিলেন দুপুর দুটোয় জমায়েত, আর আড়াইটেয় মিছিল শুরু হবে। আমি সেইমত সাড়ে বারোটার সময় বেরিয়ে পড়লাম বাড়ি থেকে। যে হেতু মিছি

একটি অতিসাধারণ ভ্রমণকাহিনি

লাদাখ নিয়ে লেখার শেষে নিজের কাছেই নিজে প্রতিজ্ঞা করেছিলাম, আবার রাস্তায় নামবই।

রাস্তা আমাকে টানছিল। এ টান অনেকটা নিশির ডাকের মত, সাড়া দেবার আগে বহুৎ ভাবতে হয়, অথচ ভাবনার শেষে সাড়া না দিয়েও থাকা যায় না। সবাই এ ডাক শুনতে পায় না, কিন্তু যে পায়, তার রাতের ঘুম নষ্ট হয়ে যায়। আমারও যাচ্ছিল। … কোথায় যেন একটা কোটেশন পড়লাম, স্বপ্ন সেইটা নয়, যেটা তুমি রাতে ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দ্যাখো, স্বপ্ন হল সেইটা, যেটা রাতে তোমাকে ঘুমোতে দেয় না। সেই স্বপ্ন আমার রাতের ঘুম নষ্ট করতে থাকল।

লাদাখ থেকে ফিরে আসার

স্মৃতির সরণী বেয়ে

দিল্লি থেকে ব্যান্ডেল যাত্রাটা, সময়বিশেষে, ঠিক রাজধানী এক্সপ্রেসে করে এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যাবার মতন সাধারণ থাকে না। দুটো জায়গা এতটাই দু'রকম, মনে হয়, টাইম ট্র্যাভেল করছি। একটা যুগ থেকে আরেকটা যুগে। একটা শতাব্দী থেকে আরেকটা শতাব্দীতে চলেছি। সেই যেখানে সময় এগোয় না, থেমে থাকে, কখনও ক্কচিৎ দুটো একটা পরিবর্তন চোখে পড়ে কি পড়ে না। জীবন গিয়াছে চলে কুড়ি কুড়ি বছরের পার। সেই পঁচানব্বই সালে ছেড়ে যাওয়া, আর ফিরে আসা হয় নি, হবেও না নিকট ভবিষ্যতে, তবু যেভাবে ছেড়ে গেছিলাম, জায়গাটা সেভাবেই রয়ে গেছে। রয়ে যায়।

"হেচ"-ওলাদের দেশে

দুবাইয়ের গপ্পো তো আপনারা শুনেছেন, ফিরে এসে আমদাবাদের গল্পও হাল্কা করে শুনিয়েছিলাম। সেখান থেকেই সুতো ধরি, কেমন?

ক্যাম্পাসিং-এর গপ্পো

মাস তিনেকের জন্য প্রজেক্টে লঙ্কাকাণ্ড বাধাবার কড়ারে এসেছি ব্যাঙ্গালোরে। তো শুরু থেকেই প্রজেক্টে এমন আগুন জ্বলে রয়েছে, যে আমাকে আলাদা করে আর কিছু করতে হচ্ছে না, ধুনুচির বাতাস করা ছাড়া। আগুন সেঁকছি, ঘ্যানঘ্যান করছি, আর দিল্লি ফেরার দিন গুনছি। এই সময়ে জনৈকা হেইচার মেল করে জানালেন, সারামাসব্যাপী ক্যাম্পাস রিক্রুটমেন্টের ড্রাইভ চলেছে কর্ণাটক জুড়ে। প্রতি উইকেন্ডে কর্ণাটকের এক এক প্রান্ত। কে কোন উইকেন্ডে খালি আছো, জানিয়ে মেল করো।

চাকরি জীবনে অজস্র ইন্টারভিউ নিয়েছি, নিয়েই থাকি। কিন্তু সে সব এক

এদিক সেদিক যা বলছেনঃ

27 Mar 2017 -- 11:45 PM:টইয়ে লিখেছেন
https://achalsiki.files.wordpress.com/2017/03/20170225_091921.jpg https://achalsiki.files.wordpr ...
27 Mar 2017 -- 11:36 PM:টইয়ে লিখেছেন
https://achalsiki.files.wordpress.com/2017/03/20170225_065937.jpg https://achalsiki.files.wordpr ...
27 Mar 2017 -- 10:12 AM:টইয়ে লিখেছেন
সওয়া বারোটা। কিছু খেয়ে নেওয়া উচিত। সামনেই একটা ছোট টি-স্টল স্ন্যাকস কাউন্টার টাইপের। মোমো আর চায়ের অ ...
27 Mar 2017 -- 10:07 AM:টইয়ে লিখেছেন
আগে হেলথ মিনিস্ট্রির একটা ডিপার্টমেন্ট ছিল। The Ministry of AYUSH was formed on 9th Novembe ...
27 Mar 2017 -- 09:00 AM:ভাটে বলেছেন
শ্রীশ্রীহুতো এবং শ্রীশ্রী কাব্লিদাকে জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা। মর্মপীড়ের আশীর্বাদ পড়ুক ঝরে, পড়ুক ...
27 Mar 2017 -- 08:59 AM:টইয়ে লিখেছেন
আয়ুর্বেদ। একটা আলাদা মিনিস্ট্রি বানানো হয়েছে।
26 Mar 2017 -- 12:16 AM:টইয়ে লিখেছেন
চোদ্দজন বসত। মূলত মাছ, চিকেন, মাটন এই বিক্রি হত। এরা কিন্তু লাইসেন্সড। মাঝে যখন বার্ড ফ্লু-এর চক্কর ...
26 Mar 2017 -- 12:03 AM:টইয়ে লিখেছেন
হ্যাঁ, শুধু নয়ডার বাষট্টি নয়, উত্তরপ্রদেশের সমস্ত বৈধ ও অবৈধ মাছমাংসের দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, ...
25 Mar 2017 -- 10:37 PM:টইয়ে লিখেছেন
অত জানি না। জিগ্যেসও করি নি। ধরে নিচ্ছি পুলিশবাহিনি এসেছিল। সঙ্গে আরেসেস এসেছিল অবশ্যই। মাছবাজারের স ...
25 Mar 2017 -- 10:27 PM:টইয়ে লিখেছেন
আরে অথরাইজড বাজার। গাজিয়াবাদ ডেভেলপমেন্ট অথরিটির বানিয়ে দেওয়া বাজার। পাকা দোকানঘর সব। মুস্ ...
25 Mar 2017 -- 10:13 PM:টইয়ে লিখেছেন
আজ মটকা গরম হয়ে আছে। ভেবেছিলাম চাড্ডি বলে খিল্লি করা ছেড়ে দেব, কিন্তু আজ যে জিনিস দেখেছি আমার বাড়ির ...
25 Mar 2017 -- 10:12 PM:টইয়ে লিখেছেন
https://s14.postimg.org/vma1wiokh/image.jpg
22 Mar 2017 -- 09:58 AM:টইয়ে লিখেছেন
টিনেজ যখন হয় নি, এখানেই লিখে দিই। দাদু ঠাম্মা এসেছেন। বাৎসরিক হা হুতাশ চলে হাল্কা স্কেলে - ...
17 Mar 2017 -- 10:03 AM:টইয়ে লিখেছেন
এখন ঘরের নিশ্চিন্তির মধ্যে বসে অনায়াসে বলে দেওয়া যায় যে, এই দশ কিলোমিটার রাস্তাই স্পিতির – অন্তত কাজ ...
17 Mar 2017 -- 10:01 AM:টইয়ে লিখেছেন
চাংগো নয়, চাংদো। আগের দিনের লেখার সাথে কিছু ছবি। https://achalsiki.files.wordpre ...
16 Mar 2017 -- 02:23 PM:ভাটে বলেছেন
তুই আছিস কোথায়? তোর ফেবু প্রোফাইল ডিঅ্যাক্টিভেটেড, আজই ভাবছিলাম ফোন করব। উইকেন্ডে আয়। আমিও ...
16 Mar 2017 -- 01:29 PM:ভাটে বলেছেন
নাঃ, দূষণ আর না বাড়ানোই ভালো :)
16 Mar 2017 -- 10:54 AM:টইয়ে লিখেছেন
:) ভুলে গেছি। ইনিও কি মুজতবার চরিত্র?
15 Mar 2017 -- 11:41 PM:টইয়ে লিখেছেন
পঁচিশে ফেব্রুয়ারি, দিন ৩ ঘুম ভাঙল প্রচণ্ড অস্বস্তির মধ্যে দিয়ে, ঘুরঘুট্টি অন্ধকার তখনও বাইর ...
15 Mar 2017 -- 09:13 AM:ভাটে বলেছেন
মোদী ঠাকুর?