ওঁ ৬৬ RSS feed

৬৬ এর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • চলো এগিয়ে চলি 2
    #চলো এগিয়ে চলি 2#সুমন গাঙ্গুলী ভট্টাচার্যবিবর্তনের ঠিক কোন জায়গায় মানুষ কথা বলতে শিখেছে আমার জানা নেই।তবে আগুনআবিষ্কারের চেয়ে এর গুরুত্ব কিছু কম নয়।মানুষের মনের ভাব প্রকাশের অন্যতম জায়গাকথা বলা।A person with Autism Spectrum দের অসংখ্য সমস্যার মধ্যে কথা ...
  • চলো এগিয়ে চলি
    #চলো এগিয়ে চলি#সুমন গাঙ্গুলী ভট্টাচার্যদ্রোণাচার্...
  • একটি বই, আর আমার এই সময়
    একটি বই, আর আমার সময়বিষাণ বসুএকটি আশ্চর্য বইয়ে বুঁদ হয়ে কাটলো কিছু সময়। দি রেড টেনডা অফ বোলোনা।প্রকাশক পেঙ্গুইন মডার্ন। দাম, পঞ্চাশ টাকা। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। মাত্র পঞ্চাশ টাকা।বোলোনা ইতালির এক ছোটো শহর। শহরের সব জানালার বাইরে সানশেডের মতো করে মোটা কাপড়ের ...
  • রবি-বিলাপ
    তামুক মাঙায়ে দিছি, প্রাণনাথ, এবার তো জাগো!শচীন খুড়ার গান বাজিতেছে, বিরহবিধুর।কে লইবে মোর কার্য, ছবিরাণী, সন্ধ্যা রায়, মা গো!এইক্ষণে ছাড়িয়াছি প্রিয়ঘুম, চেনা অন্তঃপুর।তুহু মম তথাগত, আমি আজ বাটিতে সুজাতা।জাগি উঠ, কুম্ভকর্ণ, আমি বধূ, ভগিনী ও মাতা।তামুক সাজায়ে ...
  • ৬২ এর শিক্ষা আন্দোলন ও বাংলাদেশের শিক্ষা দিবস
    গত ১৭ই সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে ‘শিক্ষা দিবস’ ছিল। না, অফিশিয়ালি এই দিনটিকে শিক্ষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়নি বটে, কিন্তু দিনটি শিক্ষা দিবস হিসেবে পালিত হয়। সেদিনই এটা নিয়ে কিছু লেখার ইচ্ছা ছিল, কিন্তু ১৭ আর ১৯ তারিখ পরপর দুটো পরীক্ষার জন্য কিছু লেখা ...
  • বহু যুগের ওপার হতে
    কেলেভূতকে (আমার কন্যা) ঘুড়ির কর (কল ও বলেন কেউ কেউ) কি করে বাঁধতে হয় দেখাচ্ছিলাম। প্রথম শেখার জন্য বেশ জটিল প্রক্রিয়া, কাঁপকাঠি আর পেটকাঠির ফুটোর সুতোটা থেকে কি ভাবে কতোটা মাপ হিসেবে করে ঘুড়ির ন্যাজের কাছের ফুটোটায় গিঁট বাঁধতে হবে - যাতে করে কর এর দুদিকের ...
  • ভাষা
    এত্তো ভুলভাল শব্দ ব্যবহার করি আমরা যে তা আর বলার নয়। সর্বস্ব হারিয়ে বা যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে যে প্রাণপণ চিৎকার করছে, তাকে সপাটে বলে বসি - নাটক করবেন না তো মশাই। বর্ধমান স্টেশনের ঘটনায় হাহাকার করি - উফ একেবারে পাশবিক। ভুলে যাই পশুদের মধ্যে মা বোনের ...
  • মুজতবা
    আমার জীবনে, যে কোন কারণেই হোক, সেলিব্রিটি ক্যাংলাপনা অতি সীমিত। তিনজন তথাকথিত সেলিব্রিটি সংস্পর্শ করার বাসনা হয়েছিল। তখন অবশ্য আমরা সেলিব্রিটি শব্দটাই শুনিনি। বিখ্যাত লোক বলেই জানতাম। সে তিনজন হলেন সৈয়দ মুজতবা আলী, দেবব্রত বিশ্বাস আর সলিল চৌধুরী। মুজতবা ...
  • সতী
    সতী : শেষ পর্বপ্ৰসেনজিৎ বসু[ ঠিক এই সময়েই, বাংলার ঘোরেই কিনা কে জানে, বিরু বলেই ফেলল কথাটা। "একবার চান্স নিয়ে দেখবি ?" ]-- "যাঃ ! পাগল নাকি শালা ! পাড়ার ব্যাপার। জানাজানি হলে কেলো হয়ে যাবে।"--"কেলো করতে আছেটা কে বে ? তিনকুলে কেউ আসে ? একা মাল। তিনজনের ঠাপ ...
  • মকবুল ফিদা হুসেন - জন্মদিনের শ্রদ্ধার্ঘ্য
    বিনোদবিহারী সখেদে বলেছিলেন, “শিল্পশিক্ষার প্রয়োজন সম্বন্ধে শিক্ষাব্রতীরা আজও উদাসীন। তাঁরা বোধহয় এই শিক্ষাকে সৌখিন শিক্ষারই অন্তর্ভুক্ত করে রেখেছেন। শিল্পবোধ-বর্জিত শিক্ষা দ্বারা কি সমাজের পূর্ণ বিকাশ হতে পারে?” (জনশিক্ষা ও শিল্প)কয়েক দশক পরেও, পরিস্থিতি ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

মকুবাবুর প্রত্যাবর্তন

ওঁ ৬৬

গোটা ব্যাপারটাই বোগাস ! তবে সুখের কথা এই যে কোনোরকম বাওয়ালি ছাড়াই ২৪ ঘন্টার ওপর কেটে গেছে। বামৈস্লামিক ফিরে এসেছে যথাস্থানে। স্ক্রেপিংপূর্বক আমাদের আদরের থাম্বনেলটিও ফেরত পাওয়া গেছে। তন্ময়বাবু জানিয়েছেন যে গোটা ব্যাপারটাই আসলে ভুলবোঝাবুঝি ছিল। ত্রিপুরায় দেবী নলিনীর মন্দিরের ইতিহাস শোনানোর সময় চিত্রাঙ্গদা নৃত্যনাট্যের কিছু ক্লিপিং ব্যবহার করা হয়েছে। ওই ক্লিপিং গুলি তণ্ময়বাবুর ক্যামেরায় বন্দী করা। যদিও উনি নিজেই জানিয়েছেন যে ওগুলি ওনার ইন্টেলেক্চুয়াল প্রপার্টি নয়, তবে কিনা অর্জুনের ভূমিকায় যিনি নৃত্য করছেন সেই ব্যক্তি ওনাকে বামৈস্লামিক ভিডিওটি দেখান। এর ফলে তণ্ময়বাবুর মনে হয়েছিল তাঁর বুঝি আপত্তি থেকে থাকবে উক্ত ক্লিপিংগুলির ব্যবহারে। ফলে উনি কপিরাইট ক্লেম ঠুকে দেন এবং ইউটিউবও ভিডিওটি উড়িয়ে দেয়। পরে নর্তক মহাশয় ওনাকে জানান যে তাঁর মোটেই কোনো আপত্তি ছিল না। তিনি ভিডিওটি কেবলমাত্র দেখানোর জন্যেই দেখিয়েছিলেন। এইকথা শুনে এবং আমাদের মেইল দেখে তন্ময়বাবু ক্লেমটি রিট্র্যাক্ট করে নেন। ফলত তার ঘন্টা বারো পরে ইউটিউবে ফিরে আসে বামৈস্লামিক। তবে তার মধ্যে যা ক্ষতি হওয়ার ছিল হয়ে গিয়েছে। ইউটিউবের অ্যালগোরিদম গুলি কিভাবে কাজ করে যাঁরা জানেন তাঁরা এই ক্ষতির ব্যাপারটা বুঝবেন।তবে ভালো কিছুও যে একদম হয়নি সেটা বলা যাচ্ছে না। বহু মানুষ নিজেরা এগিয়ে এসে ফেসবুক, গুগল ড্রাইভ ইত্যাদি জায়গায় ভিডিওটি আপলোড করে দিয়েছেন যাতে কোনো রাষ্ট্রীয় চক্রান্ত এর পিছনে থেকে থাকলেও তা ব্যর্থ হয়।

তা এরকম ঘটেই থাকে আরকি! অতীতেও ঘটেছে। এসব নিয়ে বেশি চিন্তাভাবনা না করাই ভালো। তবে তণ্ময়বাবু হিন্দুত্ত্ববাদী নন। সৈকত বন্দোপাধ্যায়-এর উদ্দেশ্যে তিনি ইমেলে লিখেছেন, এই ভিডিও আজকের সময়ে যে অশিক্ষিত সাম্প্রদায়িক উচ্ছাস চারিদিকে দেখা যাচ্ছে তার বিরুদ্ধে একটি উপাদেয় চপেটাঘাত। এছাড়া তিনি এটাও বলেছেন যে ভবিষ্যতে আমরা তাঁর চ্যানেলের যেকোনো ভিডিও থেকে ক্লিপিং ব্যবহার করতে পারি, তিনি কোনো মামলা ঠুকবেন না। ভবিষ্যতে আমরা এই ধরণের কাজ সম্ভবত আরও করবো। ওনার মতো আরও কেউ যদি থেকে থাকেন নিচে নিজেদের ইউটিউব, ভিমিও ইত্যাদি চ্যানেলের লিংক গুলো দিয়ে যাবেন প্লিজ।


https://www.youtube.com/watch?v=SzJ-ZFDNXEE

1 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: Prativa Sarker

Re: মকুবাবুর প্রত্যাবর্তন

তন্ময় বাবু ভালো থাকুন।
Avatar: বিপ্লব রহমান

Re: মকুবাবুর প্রত্যাবর্তন

তন্ময় বাবুদের মতো শুভ বুদ্ধির লোকের বড় দরকার।
শাবাশ বামৈস্লামিক। 👌


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন