বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

[42606]  [42605]  [42604]  [42603]  [42602]  [42601]  [42600]  [42599]  [42598]  [42597]  [42596]  [42595]  [42594]  [42593]  [42592]  [42591]  [42590]  [42589]  [42588]  [42587]  [42586]  [42585]  [42584]  [42583]  [42582]  [42581]  [42580]  [42579]  [42578]  [42577]  [42576] 

name:  এলেবেলে               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.895612.180 (*)          Date:04 Dec 2019 -- 12:51 AM

@অর্জুন, কাল বা পরশু আপনি কমিউনিস্ট পার্টির শতবর্ষ নিয়ে পিটিকে লিখতে অনুরোধ করেছিলেন। এই নিন, পিটি না লেখা অবধি এটা দিয়ে আপাতত কাজ চালান।
https://4numberplatform.com/?p=16360&



name:  রঞ্জন               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.895612.176 (*)          Date:04 Dec 2019 -- 12:13 AM

অমিত,
আমি সম্ভবতঃ অক্ষমতা ঢাকতে উঁচুজাতের বা কৌলীন্যের বড়াই করে সান্ত্বনা পাওয়ার চোখে দ্যাখা ঘটনা কোলকাতার নাকতলার অভিজ্ঞতা থেকে লিখেছিলাম।
অর্জুন,
মনে হচ্ছে আপনি দেশভাগের সময়ের ওর‍্যাল হিস্ট্রি সংগ্রহে আগ্রহী।
যদি তাই হয় তাহলে আমাকে [email protected] এ যোগাযোগ করে দেখতে পারেন।

ব্রতীন,
কই , গুরুর সেই ক'বছর আগের ঘটি-বাঙালের টই তুললে না তো ! মানে তিক্ততাবিহীন নির্দোষ পারস্পরিক ঠ্যাঙ টানাটানির জন্যে বলছি ।
আচ্ছা, শুরু করতাসিঃ
"বাঙাল বাঙাল করিস না
বাঙাল তোর পিতা।
পূজার সময় কিইন্যা দিবে
একজোড়া জুতা।।"

যদিও আমি মবার সমর্থক, অ্যার চুণী গোস্বামী ময়মনসিঙ্ঘের।


name:  k               mail:                 country:                

IP Address : 237812.69.563412.21 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 05:19 PM

যা সালা আমার আগের পোস্ট উড়ে গেল। যাই হোক টই করে দিয়েছি।



name:  ব               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.566712.63 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 04:45 PM

বি দা, আপনি আমার দুঃখ টা কিছুটা বুঝলেন


name:  b               mail:                 country:                

IP Address : 237812.68.454512.132 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 04:41 PM

বই আর সৈকত সি এস এর লেখা এক জায়গায় করে রাখলে ভালো হয়। নইলে ভাটে হারাবে।


name:  বই               mail:                 country:                

IP Address : 237812.69.2323.235 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 03:54 PM

হ্যাঁ, একদম ঠিক। :-) যদিও এই যৌথ স্মৃতি ব্যাপারটা শহীদুল জহিরে যতটা আছে, কাঁদো নদী কাঁদোতে ততটা প্রকট লাগে নি।

জহির খুব প্রিয় লেখক বলে হাবিজাবি লিখতে ইচ্ছে করছে। একটু লিখি। জহিরের লেখার তিনটে বৈশিষ্ট্যের মধ্যে এইটা একটা, মহল্লার মানুষের যৌথ স্মৃতি - আমরা দেখতে পাই, আমরা শুনতে পাই ঃ-)) দ্বিতীয়টা হচ্ছেঃ 'হয়তো এই, অথবা সেই' করে প্রব্যাবিলিস্টিক একটা ফ্রেমওয়ার্ক তৈরী করা যাতে পাঠকের মনে হয় সে ব্যাপারটা ধরি ধরি করেও ধরতে পারছে না। উনি ফটোগ্রাফির স্পষ্ট লাইনগুলোকে খানিকটা আবছা আবছা করে দিতে চান। এইটা মনে হয় মার্কেজের চেয়ে আলাদা। মার্কেজের প্রতিটা বাক্য নিস্পৃহ এবং স্পষ্ট, যেন যা কিছু ঘটছে সবকিছু বাস্তব আর কোনোকিছু নিয়ে কোনো ধোঁয়াশা নেই। জহিরের তৃতীয় বৈশিষ্ট্যটা হচ্ছে একই ঘটনার কাছে বারবার ফিরে আসা আর প্রতিবার ঘটনার বর্ণনা একটুখানি করে পাল্টে দেওয়া। এইটা একটা ফটোগ্রাফের ওপর বারবার ওভারল্যাপ করে তাকে হেজি করে তোলার মত একটা কায়দা। এই ফটোগ্রাফের কথাটা কোথাও উনি বলেছিলেন মনে হচ্ছে।

ওনার তিনটে গল্পকে এই তিনটে বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে মিলিয়ে দেখা যায় বলে আমার মনে হয়। প্রথম ধরুন 'আমাদের কুটির শিল্পের ইতিহাস'। গোটা গল্পটা একটা অসম্পূর্ণ বাক্যে লেখা, 'আমরা, আমরা' করে, কারণ ইতিহাসের শুরু বা শেষ নেই। শুধু তাই নয়, ব্যাপারটা আমার সার্কুলার লাগে। শেষটা এরকমঃ "...এই শেফালি ফুল গাছ, আমরা তাকে আর পাই না, আমরা তাকে হারাই," আর শুরুটাঃ "আমাদের মহল্লা, দক্ষিণ মৈশুন্দির শিল্পায়নের ইতিহাস আমাদের মনে পড়ে;"। শুনেছি জয়েসের ফিনেগানস ওয়েকে এরকম কায়দা ছিল। জয়েস পড়ার মত ইংরেজী জানি না অবশ্য। ঃ-))

দ্বিতীয় বৈশিষ্ট্যটার জন্য ধরুন 'ডলু নদীর হাওয়া' গল্পটা। শুরুর লাইনটাই এরকমঃ "ডলু নদীতে এখন অনেক পানি, অথবা হয়তো পানি তেমন নেই"। ব্যাস, এইবার চলল এরকম। গপ্পোটা কি নিয়ে? তৈমুর আলির বউ তাকে সারাজীবন খাবার পর দুই গ্লাস জল এনে দেয়। একটায় বিষমেশানো থাকে। সারাজীবন তৈমুর সঠিকভাবে বিষহীন গ্লাসটা বেছে নিতে নিতে একদিন ভাবে বোধহয় কোনো গ্লাসেই বিষ নেই। সেদিন দুই গ্লাস জল খেয়ে সে মরে যায়। গোটা গল্পটায় জহির যাকে বলেন 'পাঠকের বেছে নেওয়ার জন্য অপশন' তা ছড়িয়ে থাকে 'হয়তো' আর 'অথবা'গুলোর ফাঁকফোকরে।

আর তৃতীয় গল্পটা হচ্ছেঃ 'কাঁটা' যেখানে ভুতের গলিতে একই নামের দম্পতি - সুবোধ ও স্বপ্না রানী বারবার ভাড়াটে হয়ে আসে ১৯৬৪ সালে দাঙ্গার সময়, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় এবং বাবরি মসজিদ ধ্বংসের সময়। তিনবারই তারা আত্মহত্যা করে তাদের উঠোনের কুয়োয় ঝাঁপ দিয়ে। এইভাবে যেন একই ঘটনা পুনরাবৃত্তির মধ্যে ধরা থাকে উপমহাদেশের ঘেঁটে যাওয়া ইতিহাস। কেমন যেন মনে হয় দেশভাগ, মুক্তিযুদ্ধ, আর্মি সব মিলিয়ে বাংলাদেশের টালমাটাল রাজনৈতিক ইতিহাসের সঙ্গে লাতিন আমেরিকার একটা হালকা মিল আছে এবং সেই মিলটার প্রেরণায় 'এল বুমের' মত আমাদের পাশের দেশটাতেও সাহিত্যে আখতারুজ্জামান ইলিয়াস, শহীদুল জহির, মাহমুদুল হক, ইমতিয়ার শামীম এঁরা সকলে একটা ছোটোখাটো বুম ঘটিয়ে দিলেন। কই, এপারে কলকাতার প্রতিস্পর্ধী লৌকিক বাংলার জাদুবাস্তব উঠে এল না তো সাহিত্যে? রহু চন্ডালের হাড় ধরনের কয়েকটা লেখা বাদ দিলে হাতে কী পড়ে থাকে? এখনও রাঢ় বাংলা চিনতে তারাশংকরই ভরসা নয় কি?


name:  সিএস               mail:                 country:                

IP Address : 237812.68.674512.43 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 02:34 PM

কাঁদো নদী কাঁদো উপন্যাসটিকে ঠিক স্ট্রীম অফ কনশাসনেস বলতে আমার আপত্তি আছে। ঐরকম লেখায় চরিত্রের মাথার ভেতরে একটি মাইক্রোফোন বসানো হয়, যাতে সে যা ভাবছে বা দেখছে সেসবই বেরিয়ে আসে, লিওপোল্ড ব্লুমের মাথার ভেতরে যেমন জয়েস মাইক্রোফোনটি রেখে দিয়েছিলেন যাতে রিয়ালিটির আরো কাছাকাছি যাওয়া যায়। ওয়ালীউল্লাহর লেখাটিতে ঠিক সেরকম নেই মনে হয়, কিন্তু যেটা আছে বলে মনে করি সেটা হল - অনেকগুলি গল্প আর চরিত্র আর স্থান ব্যবহার করে যা করা হয়েছে - যে উপন্যাসটির কোন একজন কথক বা সর্বজ্ঞ কথক নেই। উপন্যাসটির টোনটি এক যৌথ স্মৃতি থেকে তৈরী হচ্ছে যেন, যাকে বাংলাদেশ বলতে পারি। শহীদুল জহিরের ভূতের গলির গল্পগুলিতেও এই ব্যাপারটি আছে, যে গল্পগুলো যেন কারোর একার গল্প নয়, একটা কমিউনিটির গল্প। বিদেশী লেখার মধ্যে মার্কেজের 'ক্রনিকল অফ এ ডেথ ফোরটোল্ড'-এ এই টোনটি পেয়েছি, খুনের ঘটনার বিবরণ যেন কোন একজন দিচ্ছে না, নদীর পারের বসতিটির সবাই তার কথক কারণ সবাই ঐসকল ঘটনার সাথে যুক্ত।


name:  Kaju               mail:                 country:                

IP Address : 237812.68.454512.132 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 02:19 PM

এখনো বলে সেই স্কুলের "অনুচ্ছেদ লেখো ১০ নম্বর" শুনলেই স্বপ্নের ভেতর ধড়মড় করে উঠে বসি তারপর দেখি নাঃ সে কাল অন্ততঃ গিয়াছে। আর বলেন কিনা রম্যরচনা।


name:  অর্জুন               mail:                 country:                

IP Address : 237812.69.563412.21 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 02:08 PM


'বিক্রম' খুঁজে দিল এই ইঞ্জিনিয়ার।

https://www.anandabazar.com/others/science/this-chennai-engineer-found
-debris-of-chandrayaan-2-lander-vikram-dgtl-1.1078153?fbclid=IwAR3u_ri
rLpl3XSujfuP2gTthGIEeZQc1cDvSZogi




name:  অর্জুন               mail:                 country:                

IP Address : 237812.69.563412.21 (*)          Date:03 Dec 2019 -- 02:06 PM


লেখা পড়ে মনে হয়েছে, এই সাত খানা পয়েন্ট আমিও ভেবেছি। কিন্তু ভাবলেই হল নাকি! কত কিছুই লোকে ভাবে। লিখে দেখাতে হবে তো !


@ কাজু, আপনি রম্যরচনা লেখেন না কেন? ঃ))))))




    পরের পাতা         আগের পাতা
**এই বিভাগের কোনো মন্তব্যের জন্যই এই সাইট দায়ী নয়৷ যে যা মন্তব্য করছেন, তা ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত মতামত৷ গুরুচন্ডালি সাইটের বক্তব্য নয়৷