বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

[42168]  [42167]  [42166]  [42165]  [42164]  [42163]  [42162]  [42161]  [42160]  [42159]  [42158]  [42157]  [42156]  [42155]  [42154]  [42153]  [42152]  [42151]  [42150]  [42149]  [42148]  [42147]  [42146]  [42145]  [42144]  [42143]  [42142]  [42141]  [42140]  [42139]  [42138] 

name:  ?               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.676712.190 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 09:43 PM

Chicago Herald এর আর্কাইভ পাওয়া গেলে বেশি কাজ হবে মনে হয়।
রাজাগোপালের বই গুগুল বুকস থেকে ফ্রি তে পুরোটাই ডাউনলোড করা যায়।


name:  মস্তিষ্ক রি প্রক্ষালন               mail:                 country:                

IP Address : 237812.69.3467.138 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 09:39 PM

মস্তিষ্ক রি প্রক্ষালনএর কি দর্কার আছে? এই ঝামেলাগুলো মাঝেমধ্যে না উঠলে মানুষগুলো ভগবান হয়ে যান, তাতে সাধারন মানুষের ক্ষতি হয় বলেই মনে হয়!

প্রসঙ্গটা উঠ্ল বলে প্রশ্নটা রেখে যাই - সাধারন মানুষ তো সব জায়্গাতেই সাধারন, পশ্চিম কি পুব! তবে পুবে ভক্তিবাদের এতো প্রাবল্য কেন?
প্রথাগত ধর্ম খুব বুঝি না, তবে মনে হয়েছে রামকৃষ্ণ চৈতন্য এদের হিসেবে ভক্তি হচ্ছে আধ্যাত্মিকতার সবচেয়ে সোজা রাস্তা, সাধারন মানুষের জন্য উপকারী। হয়ত সত্যি, তবু প্রশ্ন আসে পশ্চিমের যিশুভক্তি কি পূর্বের সর্বগ্রাসি ভক্তির সমতুল?


name:  ?               mail:                 country:                

IP Address : 237812.68.674512.247 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 09:20 PM

বইয়ের লেখক পরিচিতি থেকে -
Rajagopal Chattopadhyaya (b. 1957) did his Master’s in Chemistry from I.I.T. Kanpur and his Ph.D. from the University of California, Los Angeles. His scientific work at Bose Institute earned him a mention in the Encyclopedia Britannica Book of the Year, 1996.

নেট থেকে -
Rajagopal Chattopadhyaya, Indian biochemist, historian. Grantee, Indian Government, since 1994. Member of International Union of Crystallography.

Background : Chattopadhyaya, Rajagopal was born on November 20, 1957 in Calcutta, India. Son of Jnantosh and Chhaya Chatterjee.

Education : Master of Science, Indian Institute of Technology, 1980. Doctor of Philosophy, University California, 1987.

Career : Teaching assistant University of California at Los Angeles, 1981—1982, research assistant, 1983—1987, postdoctoral fellow, 1987—1988, University California, Berkeley, 1988—1990. Howard Hughes fellow Baylor College of Medicine, Houston, 1990—1993. Lecturer Bose Institute, Calcutta, India, 1993—1996, senior lecturer India, 1996—2001, reader India, 2001—2007, professor, since 2007.

Achievements: Rajagopal Chattopadhyaya has been listed as a noteworthy biochemist, historian by Marquis Who's Who.

Membership : Member of International Union of Crystallography.

Connections : Married Moushumi Mukherjee, December 10, 1982 (deceased April 30, 2006). Children: Rajarshi, Vyasdeb. Married Atasi Pal, June 20, 2007.

Father: Jnantosh Chatterjee
Mother: Chhaya Chatterjee
Spouse: Moushumi Mukherjee
Spouse: Atasi Pal
child: Vyasdeb Chattopadhyaya
child: Rajarshi Chattopadhyaya

বসু বিজ্ঞান মন্দিরের সাইটের যে পাতা এখন আর নেটে দেখতে পাবেন না -
Rajagopal Chattopadhyaya
Professor, Biochemistry
PhD: Chemistry and Biochemistry Department, University of California, Los Angeles , 1987
Previous appointments:

During October 1987 through April 1988, was postdoctoral in the same laboratory under Prof. Richard E Dickerson at UCLA to finish up writing papers.

During April 1988 through July 1990, postdoctoral at U.C. Berkeley under Prof. Stuart M. Linn, Biochemistry Department, on DNA damage.

During July 1990 through October 1993, HHMI postdoctoral at Baylor College of Medicine under Prof. Florante A. Quiocho, protein crystallography.


Research interests:

This section describes only my current and future research interests being carried out, while the rest is given below in detail.

The 1.74Å crystal structure of the dietary storage protein, a lectin from Colocasia esculenta was been solved and deposited to the PDB in August 2015 (code 5D5G). Recently, our paper describing that structure is in the press (publication #43). Two more papers are being prepared about the same lectin : one about the biophysical properties and another about the crystal structure of the same lectin when complexed with mannose (PDB ID 5D9Z).

Efforts are continuing to solve the crystal structure of the transcription-activator protein C1 of bacteriophage P22 in complex with PRE promoter element, which was crystallized and X-ray data collected by Avisek Mondal in 2014 (publication #37 is a preliminary report), by molecular replacement and some progress was made in 2016 by noting the Patterson function. Have to get the R-factor down !

Contact:

Address: Department of Biochemistry
Centenary Campus
Bose Institute
P-1/12 C.I.T. Scheme VII-M
Kolkata - 700054, India
E-Mail: raja[at]jcbose.ac.in
Phone: +91-33-25693239


name:  S               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.780112.148 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 09:15 PM

"বিবেকানন্দের প্রথম সম্ভাষনে সিস্টারস অ্যান্ড ব্রাদারস অফ অ্যামেরিকা বলার পরে বিশাল অ্যাপ্লাউস হয়েছিল"
এটা তাহলে প্রমাণিত।

"After hearing him we feel how foolish it is to send missionaries to this learned nation"
এই বিষয়ে তিনি যে সেই সময়ে আম্রিগায় বেশ কিছু বক্তৃতা দিয়েছিলেন, সেটা আমিও জানি। কালকেই ঐ আর্কাইভগুলো দেখতে গিয়ে খেয়াল করলাম। এবং সেই বক্তব্যের কিছু সমালোচনাও হয়েছিলো দুয়েকটা কাগজে।

নিউ ইয়র্ক হেরাল্ড কাগজের আর্কাইভ নিয়ে মনে হয় একটা সমস্যা আছে। আমিও পাইনি।


name:  PT               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.676712.108 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 07:19 PM

কাউকে গর্দভ বলা উচিত নয় বিশেষতঃ তিনি যখন উচ্চমাধ্যমিকে প্রথম দশের একজন।


name:  অর্জুন               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.1234.135 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 05:43 PM


প্রতিমা পড়ল জলে আর আমি পড়লাম জ্বরে।

'গুরুচন্ডা৯' র সকলকে শুভ বিজয়ার আন্তরিক শুভেচ্চা ও নমস্কার।


name:  sm               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.895612.8 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 05:03 PM

রাজা গোপাল নামক গর্দভ কি জীবিত আছেন।তিনি নিজে ভুল স্বীকার করে,দু লাইন না লিখলে এলেবেলে র মস্তিষ্ক রি প্রক্ষালন সম্ভব নয়।


name:  ?               mail:                 country:                

IP Address : 236712.158.786712.145 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 02:35 PM

বড়েস কি বুঝেছেন যে এখন প্রবলেম স্টেটমেন্টটাই পাল্টে গেছে? বিবেকানন্দের প্রথম সম্ভাষনে সিস্টারস অ্যান্ড ব্রাদারস অফ অ্যামেরিকা বলার পরে বিশাল অ্যাপ্লাউস হয়েছিল কিনা সেটা একেবারেই আর আলোচ্য নয়। সেটা কোনো খবরের কাগজে লেখা হলেও হয়েছিল, না হলেও হয়েছিল। কারণ ওয়ার্ল্ডস পার্লামেন্ট অব রিলিজিয়ন এর তরফ থেকে প্রকাশ করা অফিশিয়াল বিবরণী পুস্তক সমূহে এবং মহাসভার রিভিউ পুস্তক সমূহেই এই অ্যপ্লাউসের উল্লেখ রয়েছে।

১) The World's Parliament of Religions : an illustrated and popular story of the world's first parliament of religions, held in Chicago in connection with the Columbian Exposition of 1893
by Barrows, John Henry, 1847-1902 - volume 1, পৃষ্ঠা ১০১,
https://archive.org/details/worldsparliament01barruoft/page/n128

২) Neely's history of The parliament of religions and religious congresses at the World's Columbian exposition - by World's Parliament of Religions, Chicago, 1893; Houghton, Walter R. (Walter Raleigh), 1845-1929 পৃষ্ঠা ৬৪
https://archive.org/details/cu31924029062664/page/n83

৩) Review of the world's religious congresses of the World's congress auxiliary of the World's Columbian exposition. Chicago, 1893 - by Mercer, L. P. (Lewis Pyle), 1847-1906; World's Parliament of Religions (1893 : Chicago, Ill.) পৃষ্ঠা ৪৪, https://archive.org/details/reviewworldsrel00mercgoog/page/n58

আপনার খুঁজে পাওয়া ২০ ডিসেম্বরের কাগজে এই অ্যপ্লাউসের উল্লেখ করেছেন MAUD MAPLE MILES, Renaissance Woman, Maud D. Mapple (Chariton, Iowa, February 11, 1871 - Wilmette, Illinois, 1944) [married David Anderson Miles] সম্ভবত তিনি আপিশিয়াল বিবরণী থেকেই এক্সট্র্যাক্ট করেছেন, কারণ ভাষার সাযুজ্য।

সমস্যাটা অন্য একটা কোটেশন নিয়ে। "He is undoubtedly the greatest figure in the Parliament of Religion. After hearing him we feel how foolish it is to send missionaries to this learned nation" এইটা বিবেকানন্দ "দিওয়ানজি সাহেব" (Haridas Viharidas Desai) কে একটি চিঠিতে জানান "Herald (the greatest paper here)" এ বেরিয়েছিল বলে। সেখানে তিনি স্পষ্টই জানান, Please do not publish it. I hate notoriety in the same manner as I did in India.

কিন্তু, ইন্ডিয়ান মিরর কাগজে ২৭ ডিসেম্বর ত্রিগুণাতীত লিখিত যে চিঠি (To The Editor of The Indian Mirror) প্রকাশিত হয়, তাতে এই দুলাইনের আগে লেখা ছিল, "The New York Herald says :-"
ত্রিগুণাতীত সেই চিঠি শুরুই করেছেন "extracts from two of the leading American papers, viz., The New York Critique and The New York Herald regarding Vivekananda" উপস্থাপন করার জন্য, যা কিনা তাঁর চিঠিতে, "will, I am sure, prove interesting to your many readers. "

(কেন গুরুভাইদের তরফে "রামকৃষ্ণের শিষ্য" হিসেবে বিবেকানন্দের সাফল্যকে দেখানোর তাৎক্ষণিক চেষ্টা হয়েছিল, তা শঙ্করীপ্রসাদ বসু দেখানোর চেষ্টা করেছেন, সে আলোচনায় যাচ্ছি না। কিন্তু Please do not publish it লেখার পরেও কীভাবে তা ছাপার অক্ষরে বেরোয় তা বুঝতে ওটুকু পড়ে নিলে ভালো। বিশেষত যেহেতু ত্রিগুণাতীত কথিত নিউ ইয়র্ক ক্রিটিক এর কোটেশন টুকুও বিবেকানন্দের চিঠির বয়ানেরই সমতুল)

এরপরে হাজার হাজার বইতে লাইনদুটি নিউ ইয়র্ক হেরাল্ডে প্রকাশিত বলে উল্লেখ করা হয়। কিন্তু দেখলাম অন্তত একটা জায়গায় এটি শিকাগো হেরাল্ডে ছাপা হয়েছিল বলে উল্লিখিত । Encyclopedia of American foreign policy : studies of the principal movements and ideas [3 v. (xii, 1201 p.) ; 29 cm] - Alexander DeConde,
Publication date 1978
Publisher New York : Scribner
Volume 2
পৃষ্ঠা ৪৩৫
https://archive.org/details/encyclopediaofam0002unse/page/435
(এটা লগ ইন করে borrow করে দেখতে পাবেন)
"But the Chicago Herald probably expressed the predominant sentiment of those who heard Vivekananda's lectures when it wrote,"

এখন রাজাগোপাল নিউইয়র্ক হেরাল্ডের ঙ্কিছু আর্কাইভ রিপ্রোডিউস করেছেন, যেখানে এই লাইনদুটি তিনি পাননি, কিন্তু ধারাবাহিক মাইক্রোফিল্ম আর্কাইভ যা তিনি অন্য কয়েকটি কাগজের ক্ষেত্রে দেখেছেন বলে জানিয়েছেন, তা নিউ ইয়র্ক হেরাল্ড কাগজের জন্য তিনি দেখতে পেয়েছেন এমন দাবি করেননি। এমনকি শিকাগো হেরাল্ডের আর্কাইভের ক্ষেত্রে তিনি অবশ্য এ ও লিখেছেন বইতে যে, September 22, 23 and 24 : Microfiche was missing the Herald reports of these dates. তিনি এও লিখেছেন রিপোর্টস ইন দি শিকাগো হেরাল্ড ওয়ার দ্য মোস্ট ভলুমিনাস। বিবেকানন্দ চিঠিটি লেখেন ১৫ই নভেম্বর। সুতরাং অন্তত ১৫ই নভেম্বর অবধি সমস্ত কাগজ খুঁটিয়ে দেখা দরকার ছিল। কিন্তু রাজাগোপালের খোঁজ তাঁর বইতে ২২ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর অবধি কাগজের রিপোর্টের পুনরুল্লেখেই শেষ হয়েছে।

বিবেকানন্দ চিঠিতে মিথ্যে কথা লিখেছেন, নিজে নিজের নামে বানিয়ে কোটেশন লিখেছেন একথা প্রমাণ করতে হলে আমেরিকার যে ক'টি খবরের কাগজের নামে "হেরাল্ড" আছে সব কাগজের ওই ১২ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ নভেম্বর ১৮৯৩ পর্যন্ত দুমাসের আর্কাইভ খুঁটিয়ে দেখতে হবে। সে আজ ১২৬ বছর পরে আর কারো পক্ষে করা সম্ভব বলে মনে হয় না। মজার কথা হল, রাজাগোপাল নিজে ওই দু লাইন খুঁজে পাননি অবধি লিখে ক্ষান্ত দিয়েছেন। কিন্তু ওই যে, রাজা যত বলে পারিষদগণে বলে তার শতগুণ। এই ঢপবাজ, মিথ্যেবাদী, ভ্রান্ত তথ্য এসব তারই ফলশ্রুতি।


name:  Kaju               mail:                 country:                

IP Address : 124512.101.780112.71 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 02:29 PM

একটি বালিকাকে ফেবুতে কেউ শুভ বিজয়া বলতে গিয়ে শুভ বিবাহ বলে ফেলেছে কেউ শুনলাম। কীসব লোকজন মাইরি।



name:  Kaju               mail:                 country:                

IP Address : 124512.101.780112.71 (*)          Date:08 Oct 2019 -- 02:24 PM

মোষ কেউ খান নি ক্কেউ না এই গুরুতে?? এ কী করে হয়?




    পরের পাতা         আগের পাতা
**এই বিভাগের কোনো মন্তব্যের জন্যই এই সাইট দায়ী নয়৷ যে যা মন্তব্য করছেন, তা ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত মতামত৷ গুরুচন্ডালি সাইটের বক্তব্য নয়৷