• টইপত্তর  বইপত্তর

  • ঐতিহ্যমন্ডিত বাংলা চটি সিরিজ

    sumeru
    বইপত্তর | ২৯ জানুয়ারি ২০১০ | ৩৭৬৬২ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Ranjan Roy | ১০ আগস্ট ২০১৬ ২৩:৩১434657
  • গুরুচন্ডালির অ্যাডমিনদের অসংখ্য ধন্যবাদ।
    এটা একটা কিছু হল।
  • pi | 11.39.56.225 | ১১ আগস্ট ২০১৬ ১০:৩৭434658
  • এবেলার রিপোর্টে শুক্রবার আছে। ওটা আজ হবে।

    আজ । বেস্পতিবার। বিকেল সাড়ে পাচটা থেকে সাড়ে আটটা।
    ভারত সভা হল। বৌবাজারে। সেন্ট্রাল মেট্রো স্টপের পাশেই।
  • কল্লোল | 233.227.20.149 | ১১ আগস্ট ২০১৬ ১০:৩৮434659
  • আজকের বই প্রকাশের অনুষ্ঠান খুব ভালো হোক।
    একজম মৃত্যুদন্ডবিরোধী হিসাবে গর্ব হচ্ছে গুরুচন্ডা৯র জন্য।
  • d | 144.159.168.72 | ১১ আগস্ট ২০১৬ ১০:৫৩434660
  • আচ্ছা কলেজস্ট্রীটে আজ অর্ডার করলে কি পাওয়া যাবে? কলেজস্ট্রীট যেহেতু কাস্টমারকে আপডেট করে না, ফলে আমি অ্যাড টু কার্ট করেও অর্ডার প্লেস করি নি আগে। কবে থেকে ঠিক পাওয়া যাচ্ছে জানলে সেদিন করব।
  • pi | 11.39.56.225 | ১১ আগস্ট ২০১৬ ১০:৫৭434661
  • অর্ডার করলে এক দু দিনের মধ্যে পোস্ট করা হচ্ছে।
  • ঈশান | ১১ আগস্ট ২০১৬ ২১:১০434662
  • অনুষ্ঠান শেষ হল। খুব ভালোভাবেই হয়েছে। উপস্থিত জনতা এসে ডিটেল আপডেট দেবে।
  • π | ১৪ আগস্ট ২০১৬ ১৫:০৪434663
  • আজ, ১৪ ই অগস্ট, ধনঞ্জয়ের ফাঁসি হয়েছিল। ১৪ই অগস্ট, ধনঞ্জয়ের জন্মদিন।

    '....হোমসীয় তদন্ত পদ্ধতি থেকে শুরু করে আমরা পৌঁছে যাই এক কাফকাইস্ক পৃথিবীতে। এ যেন ফ্রানৎস কাফকার লেখা ‘ট্রায়াল’এর অলীক জগৎ, যেখানে জনৈক ব্যাঙ্ক অফিসার জোসেফ কে কে তার তিরিশ বছরের জন্মদিনে দুজন অজানা লোক এসে গ্রেপ্তার করে কোনো এক অনুল্লেখিত অপরাধের জন্য। এরপর পুরো আখ্যানটিই জোসেফ কের বিচারপ্রক্রিয়ার বিবরণ, যেখানে অপরাধটিই থেকে যায় অনুল্লিখিত, যেন সেটি একটি পূর্বসত্য, যা উল্লেখেরই অপেক্ষা রাখেনা। পুরো বিচারপদ্ধতিটিই হয়ে দাঁড়ায় কেবলমাত্র শাস্তিদানের একটি প্রক্রিয়া, যেখানে অপরাধটি একটি পূর্বসত্য, গিভন বা প্রদত্ত। অবশেষে, বিচার প্রক্রিয়ার শেষে দুজন ঘাতক এসে জোসেফ কে কে ‘কুকুরের মতো’ হত্যা করে তার পরবর্তী জন্মদিনে।
    কাফকার লেখা, দীর্ঘদিন ধরে পড়া হয়েছে পশ্চিম ইউরোপীয় প্রেক্ষিতে। অনেক পরে এসে মিলান কুন্দেরা লিখবেন কাফকাইস্ক অলীক পরাবাস্তবতা পূর্ব ইউরোপেও এক না হলেও অভিন্ন। তাঁর দীর্ঘ গদ্যে ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার মিশেল দিয়ে কুন্দেরা সেই অলীক কিন্তু অমোঘ বাস্তবতার বর্ণনা দিয়েছেন। সে বর্ণনা এখানে অপ্রাসঙ্গিক। যেটুকু প্রাসঙ্গিক, তা হল, এরও অনেক পরে, ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের আখ্যান থেকে এই ২০১৬ সালে আমরা জানতে পারব, এই অলীক পরাবস্তবতা শুধু ইউরোপ বা আমেরিকার সম্পত্তি নয়, তৃতীয় বিশ্বের আইনী প্রাসাদ আর অলিন্দ জুড়েও তার অমোঘ অবস্থান। শাস্তি এখানেও পূর্বনির্ধারিত, যেন দৈবী কোনো এক প্রক্রিয়ার ফল। বিচার শুধু এক আনুষ্ঠানিক ক্রিয়াকর্ম। কিন্তু এই অত্যন্ত সোজা বিষয়টিকে আমরা বুঝিনি। জানিনি। যদিও বোঝা কঠিন ছিল না। বিষয়টা তো অজানা ছিলনা একেবারেই। আমাদের চোখের উপর ১২ বছর আগেই ঘটে গেছে ওই ঘটনা। ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের ফাঁসি। মিটিং মিছিল কম হয়নি। কিন্তু কী আশ্চর্য, তার পরেও আমাদের আস্ত প্রজন্মই কখনও বিষয়টা নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করেনি। কারণটা খুব পরিষ্কার ছিল। আমরা আমাদের গণতন্ত্রের স্তম্ভ, বিচার-প্রক্রিয়ার উপর আস্থা রেখেছিলাম। বিশেষজ্ঞতায় চোখ বন্ধ করে ভরসা করেছিলাম। আমরা আইন-আদালত নামক ঈশ্বরে বিশ্বাস করেছিলাম।
    এই বই মূলত সিস্টেম নামক সেই ঈশ্বরকে চ্যালেঞ্জ করার এক আয়ুধ। তদন্ত এবং বিচারপ্রক্রিয়ার উপর, সারা পৃথিবীর মতই, এখানেও ছড়ানো আছে যে বিশেষজ্ঞতার মায়াজাল, সেই মিথের কুয়াশা ভেদ করে দেখার দূরবীন। এ পৃথিবী আমাদের চারদিকেই ছিল এতদিন, আমরা শুধু চোখ খুলে দেখিনি। দলিল-দস্তাবেজ হাতের কাছেই ছিল, ‘সূর্য পৃথিবীর চারিদিকে ঘুরছেনা’ যে কেউই বলতেই পারতাম, কিন্তু শুধু দূরবীন বৃহস্পতির দিকে তাক করার প্রয়োজনবোধ করিনি। আমরা আপ্তবাক্যে বিশ্বাস রেখেছিলাম। ধর্মগ্রন্থের মিথে আস্থা রেখেছিলাম। ঈশ্বরে বিশ্বাস করেছিলাম।
    এই বই সেই বিশ্বাসের মিথটিকে ছিঁড়ে ফেলে। আমাদের প্রাথমিক এবং প্রদত্ত বিষয়গুলিকে নিয়ে প্রশ্ন করতে বাধ্য করে। হাতে তুলে দেয় প্রশ্নচিহ্নের যাদুদন্ড। বইটি ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ের বিচার প্রক্রিয়ার মধ্যের ফাঁকগুলি তুলে ধরে। তুলে ধরে বিকল্প এক সম্ভাব্য আখ্যানকে। সে বিকল্প আখ্যান ‘ঠিক’ নাকি ‘ভুল’ তা নিয়ে তর্ক চলতেই পারে। কিন্তু সেই তর্ক বাদ দিলেও, এ বই অন্তত এটুকু নিঃসন্দেহে দেখায়, যে, জোসেফ কের মত ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায়ও যে মারা যান নিজের জন্মদিনেই, সেটা নিছক কোনো আপতিক ঘটনা নয়। '

    -সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়, 'আদালত-মিডিয়া-সমাজ ও ধনঞ্জয়ের ফাঁসি' র ভূমিকা থেকে ।

  • kd | 127.194.239.247 | ১৫ আগস্ট ২০১৬ ১৬:৪৮434664
  • অমিত (মিঃ নীনা গাঙ্গুলি) আজ এসে দু'টো আ-মি-স-ধ
    কিনে নিয়ে গ্যালো। কত দাম চার্জ করবো জানা না থাকায় ছাপাও দামই নিল্য়্ম।
  • Ranjan Roy | ১৫ আগস্ট ২০১৬ ২৩:০০434665
  • কাবলিদা ফর্মে আছেন। খুব ভালো থাকুন।
  • pi | 174.100.177.10 | ১৭ আগস্ট ২০১৬ ১৪:২৪434667
  • ঃ)

    কলেজস্ট্রীটে দেজ ও ধ্যানবিন্দুতে বইটা পাওয়া যাচ্ছে। শিগগিরি পাওয়া যাবে আরো অনেক জায়গায়।
    যাঁরা কোলকাতার বাইরে বা বাড়ি বসে পেতে চান, এখানে অর্ডার করুন,
    http://www.collegestreet.net/
    পেতে কোন অসুবিধে হলে এখানে জানান।
  • π | ২৭ আগস্ট ২০১৬ ১১:১০434668
  • 'অসাধারণ ভালো লাগল বইটির ব্যাখ্যা, বর্ণনা ও বিশ্লেষণ।...এবং প্রতিশ্রুতি মতই যুক্তির অজুহাতে কোথাও কোনও দুই লাইনের মাঝে অনুমান গুঁজে দেওয়া হয়নি। সত্য যাই হোক না কেন, বইটা যে শুধু এক বিকল্প সম্ভাবনা তুলে ধরেছে তাই নয়, তাকে যুক্তির প্রগাঢ় জালে বেঁধে ফেলতেও সক্ষম হয়েছে সেকথা বলাই বাহুল্য। বাকিটা তো বইয়ের কথামত আদালত-মিডিয়া-সমাজই বলবে। শুধু একটা প্রশ্ন বারবার মনের কোণে উঁকি দিচ্ছিল, এই বিপুল তথ্যসম্ভার ঘেঁটে গবেষণার কাজটা যারা করলেন তারা কোন জগতের মানুষ! তারা কি আইনের কারবারি নাকি সাহিত্যিক নাকি নেহাত শখের অনুসন্ধিৎসু কোনও সত্যান্বেষী। সেই উত্তরটা পেলাম না।
    '

    লিখেছেন অগ্নিভ মুখার্জি ।
  • d | 144.159.168.72 | ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৯:৫২434671
  • বাঃ বাঃ
    আমার এক একবার ইচ্ছে করছিল কয়েকটা প্রক্সি সই মেরে দিই। কিন্তু তাহলে ঐ পোসুনদের মতই কাজ হয়ে যায় বলে আর করলাম না।
  • গুরুচন্ডালি | ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১২:২৯434672
  • কেমন ছিল ভুলে যাওয়া নব্বইয়ের দশক? তার সিনেমা, বাংলা সিরিয়াল, তার ফেলে আসা শুকিয়ে যাওয়া লাল পতাকা, তার বন্ধ কারখানা, তার প্রেম, বন্ধুতা আড্ডা? এই কলকাতার কোনও এক আন্ডারগ্রাউন্ড গুপ্তকক্ষে নাকি ঘুমিয়ে আছে ভুলে যাওয়া নব্বইয়ের লেখকদের বইয়েরা। ঘুমিয়ে আছে মুনমুন সেনের এক অ্যাডাল্ট ফিল্ম, যাকে গোটা নব্বই জুড়ে খুঁজতে খুঁজতে একটা প্রজন্ম দুম করে বড় হয়ে গিয়েছিল। আছে মৃত বইয়ের কবরখানা, অপারেশন সানশাইনের রাত আর ঝুপড়িহারা টারজান। এইসব মায়া-টয়া নিয়ে নব্বইয়ের পাতা ওল্টানো আরেকবার। পুরোনো পাতার ভাঁজে হুট করে খুঁজে পাওয়া গুঁজে রাখা পেয়ারা পাতাটি। চিলেকোঠার জঞ্জাল ঘেঁটে খুঁজে পাওয়া এক চিলতে পুরোনো কৈশোর, যেখানে ছাদভর্তি অ্যান্টেনার কাঁটাতার থেকে অন্যমনে ঝুলে আছে এক পশলা অন্য নব্বই।
    শাক্যজিত ভট্টাচার্যের এই বইয়ে। গুরুচণ্ডা৯ র চটি সিরিজে।

    প্রকাশিত হবে আর ক'দিনেই। নজর রাখুন এই পেজে।

    https://www.facebook.com/%E0%A6%86%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B6-%E0%A6%85%E0%A6%82%E0%A6%B6%E0%A6%A4%E0%A6%83-%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A6%98%E0%A6%B2%E0%A6%BE-%E0%A6%A5%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%B6%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%9C%E0%A6%BF%E0%A7%8E-%E0%A6%AD%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%BE%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AF-179316239146125/
  • pi | 24.139.209.3 | ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ১৪:১৬434673
  • pharida | 192.68.167.90 | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৮:৪৩434674
  • "আকাশ অংশত মেঘলা থাকবে" - এটা তো কবি ভাস্কর চক্রবর্তির কবিতার বইয়ের নাম।

    নতুন কবিতার বই একটা নতুন নাম পাবে না? তাছাড়া কপিরাইটের প্রশ্নও বোধ হয় থাকে।
  • Ranjan Roy | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ২৩:২৩434675
  • পাই,
    বইগুলো আজ অলকনন্দা দিল্লির ঠিকানায় পৌঁছেচে; ধন্যবাদ!
    কিন্তু প্যাকিং ভাল নয়। আঠা লেগে কবি অরুণ মিত্রের বইয়ের কভারের ছাল উঠে গেল! ঃ(((
  • ঈশান | ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০১:০১434676
  • "বালিগঞ্জের পদ্মপুকুরে স্কুলছাত্রী হেতাল পারেখকে ধর্ষণ এবং হত্যাকাণ্ডের ঘটনার নতুন করে তদন্তের দাবি উঠল। বৃহস্পতিবার ওই ঘটনার পুনর্তদন্ত চেয়ে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দফতরে স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়েছে।
    কলকাতার কয়েকজন অধ্যাপক এবং গবেষকের উদ্যোগে ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে ‘আদালত-মিডিয়া-সমাজ এবং ধনঞ্জয়ের ফাঁসি’ নামে একটি বই প্রকাশিত হয়েছে। তাঁদের বক্তব্য, ওই ঘটনায় ফাঁসি হওয়া ‘ধনঞ্জয় চট্টোপাধ্যায় দোষী নন, আসলে ওই ঘটনাটি ছিল সম্মানরক্ষায় খুন (অনার কিলিং)’।
    উদ্যোক্তাদের পক্ষে ইপ্সিতা পাল এদিন জানিয়েছেন, এক হাজার লোকের স্বাক্ষর-সহ স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়েছে। গত ১১ মার্চ বাঁকুড়ার ছাতনা অ়ঞ্চলের (যেখানে ধনঞ্জয়ের বাসস্থান) প্রায় ৪০০ গ্রামবাসী রাজ্য সরকারের কাছে পুনর্তদন্তের দাবি জানিয়েছিলেন।
    উদ্যোক্তাদের দাবি, নিরপরাধ কাউকে আইনের নামে সরকারিভাবে ঠান্ডা মাথায় খুন করার ঘটনা দায়িত্বশীল নাগরিক হিসাবে তাঁরা মেনে নিতে পারেন না। বর্তমান সরকার অনেক পুরনো বিতর্কিত বিষয়েই নতুন করে তদন্ত শুরু করেছে। হেতাল-কাণ্ডেরও পুনর্তদন্ত প্রয়োজন। তদন্তে যদি দেখা যায়, খুন করেছিল অন্য কেউ, তাহলে প্রকৃত খুনির বিচার হওয়া এবং ধনঞ্জয়কে ‘নির্দোষ’ ঘোষণা করা দরকার। প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালে ফাঁসি হয়েছিল ধনঞ্জয়ের।
    বইয়ের প্রতিপাদ্য হল-হেতালের খুনের তদন্ত প্রক্রিয়ায় বড়সড় গলদ রয়ে গিয়েছে। কারণ, সবটাই হয়েছিল পারেখ পরিবারের বয়ান অনুযায়ী। খুনের দিন সেই বয়ানের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করার আগেই সংবাদমাধ্যমকে যে কাহিনী শুনিয়েছিল, শেষ পর্যন্ত আদালতে সেই কাহিনীই কিছু ‘প্রমাণ’ সহযোগে সাজিয়ে-গুছিয়ে উপস্থাপন করা হয়। লেখকদের দাবি, আদালত যে সব সাক্ষ্যপ্রমাণ গ্রহণ করেছিল, তার অনেকগুলিই মিথ্যা বলে প্রমাণ করা যায়।"

    http://ebela.in/state/the-case-of-death-sentence-1.470763
  • π | ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৬:৫৪434678
  • গুরুচণ্ডালির সব বই থাকছে কলেজ স্ট্রীটে উবুদশের ঘরে, ২৯/৩ শ্রী গোপাল মল্লিক লেন ( কোলকাতা কর্পোরেশনের গলি, যোগাযোগঃ সুমন্ত্র বিশ্বাস ঃ ৯১৪৩৭৮৬১৩৪)

    এছাড়াও থাকছে কলেজ স্ট্রীটে দেজ, ধ্যানবিন্দু, ক্যাম্প, বইচিত্র, অভিযান আর রাসবিহারীর প্রোগ্রেসিভে। চলে আসছে যাদবপুর, উল্টোডাঙ্গা সহ আরো কিছু জায়গায়।

    আর rubanshop এ অনলাইন অর্ডার করলে পাওয়া তো যাবেই।
  • π | ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৭:০০434679
  • * বনহুগলিতে সরস্বতী পুস্তকালয়ে
  • গুরুচণ্ডা৯ | 233.176.41.111 | ০৫ অক্টোবর ২০১৬ ১১:১১434680
  • ঢাকুরিয়া লেকের সন্ধ্যেবেলা, গলফ গ্রিন কবরখানার বুকে জেগে থাকা সাদা ক্রশ, সিরিটি শ্মশান, করুণাময়ীর ভাংগা কালীমন্দির, ট্রায়াংগুলার পার্কে শীতকালের কুয়াশা, কুদঘাটের গা বেয়ে এলিয়ে যাওয়া আদি গংগা, নির্জন বাসরুট, আধবুড়ো অটো, বিজয়গড়ের মাথা নুইয়ে জ্ব্যালজেলে টিকে থাকা হোমিওপ্যাথির দোকান, বন্ধ আর্চ কম্পানির ঘোলাটে চোখ, হারিয়ে যাওয়া বুড়ো, সোদপুরের ডাক্তারের বাগানে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলতে থাকা নক্সাল ভূত, বাটানগরের বন্ধ কারখানা, ভূতুড়ে নৌকো, রিচি রোডের ঝরে পড়া কৃষ্ণচূড়া, ছেড়ে আসা লাল পতাকায় গচ্ছিত রাখা লয়ালটি--এই সবকিছু নিয়ে গড়ে উঠেছে আমাদের বই-এর আখ্যান। এরাই আখ্যানটির মূল কুশীলব।
    আখ্যানের নাম "অনুষ্ঠান প্রচারে বিঘ্ন ঘটায় দুঃখিত"।

    নব্বই দশকের নানান উপাদান নিয়ে গড়ে ওঠা এই বইটি প্রকাশিত হবে সপ্তমীর দিন। আকাদেমির সামনে বিকেল চারটেয়। প্রকাশ করবেন পঙ্কজ সাহা।

    সবার জন্য খোলা আমন্ত্রণ।
  • কল্লোল | 116.206.158.42 | ০৫ অক্টোবর ২০১৬ ১১:২২434681
  • আমি এখন কলকাতায়।
    যেতে খুব ইচ্ছে করছে। কিন্তু আপাততঃ আমার একলা চলাফেরা বারন। সেইদিনই আমার পুত্র-পুত্রবধূ কলকাতায় আসছে ঐ সময়েই। তাই আমার স্ত্রীকে বাসায় থাকতে হচ্ছে।
    অপনাদের/তোমাদের/তোদের কেউ কি টালিগঞ্জ ফাঁড়ির উপর দিয়ে যাবেন/যাবে/যাবি? তাহলে তার সাথে যেতে পারি।
  • pi | 233.176.37.139 | ০৬ অক্টোবর ২০১৬ ০৭:৪০434682
  • আরে কল্লোলদা , তুমি আসতে পারবে ! দারুণ !
    দেখছি কী ব্যবস্থা করা যায়। আমার নিজেরই কিঞ্চিৎ গড়বড়ে দশা হয়ে গেছে, নইলে আমি নিয়ে আসতাম।
  • দেবব্রত | 212.142.76.65 | ০৬ অক্টোবর ২০১৬ ০৮:১৫434683
  • কল্লোল দা আপনি কলকাতায় ? জ্যামের কথা মাথায় রেখে আপনি কখন বাড়ি থেকে বেড়োতে চান বলুন -আমি তুলে নেব ।
  • কল্লোল | 116.216.180.165 | ০৬ অক্টোবর ২০১৬ ০৮:৫১434684
  • দেবব্রতর সাথে কথা হলো। আসছি ওর সাথে।
  • pi | 11.39.38.47 | ০৮ অক্টোবর ২০১৬ ১১:১৭434686
  • গুরুর চটিপত্তর থাকছে পুজো উপলক্ষ্যে নানা স্টলে।
    আম্রিগায় বে এরিয়ায় প্রবাসীতে এই শনি রবি , পশ্চিমীতে শনি থেকে মঙ্গলবার অব্দি আর পরের শনিরবিবার এল এ তে বিএঅএসসির পুজোয় বুকম্যানিয়াকের স্টলে গুরুর বেশ কিছু চটিপত্তর থাকছে।
    ধনন্জয়ের ফাঁসি বইটি সহ।
  • কল্লোল | 116.216.190.54 | ০৯ অক্টোবর ২০১৬ ০৬:৫১434687
  • শাক্যর বইটি সার্থকনামা। যার হাত দিয়ে প্রকাশ হবার কথা ছিলো সেই পঙ্কজ সাহা অসুস্থতার কারনে আসতে পারলেন না। আসার কথা ছিলো সুবিমল মিশ্রের তিনিও লা-পাতা। ওদিকে কিছুতেই চোঙ্গা ফোঁকার ব্যবস্থা করা গেলো না। অতএব অনুষ্ঠান অমাইক।
    ওদিকে গুরু ও চন্ডালেরা হাজির। টেবিল পেতে চটিসমূহ টপাটপ বিক্কিরি হচ্ছেন। এর মধ্যে জাম্বো সাইজের ল্যাংচা বিলি হলো। প্রভূত গুলতানি ও আড্ডা, গান। এই না হলে গুরুচন্ডা৯!
    বড় আরাম হলো।

    শাক্যর বইটা উল্টে পাল্টে দেখলাম, আজ পড়বো। আমার নব্বই স্বপ্নভঙ্গের দশক, আবার একহিসাবে নতুন ভাবনার দশকও বটে। কিন্তু শাক্যরা তো এই দশকেই স্বপ্ন দেখেছিলো। সে রাস্তা আমার অচেনা ছিলো এতোকাল। ধন্যবাদ শাক্য সে রাস্তায় হাঁটার সুযোগ করে দেবার জন্য।
  • সিকি | ০৯ অক্টোবর ২০১৬ ০৭:০৭434689
  • স্বপ্ন দেখার আর স্বপ্ন ভাঙার কি আলাদা দশক হয়?

    অনুষ্ঠানের ভিডো কই?
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। দ্বিধা না করে প্রতিক্রিয়া দিন