• টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। যে কোনো নতুন আলোচনা শুরু করার আগে পুরোনো লিস্টি ধরে একবার একই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে কিনা দেখে নিলে ভালো হয়। পড়ুন, আর নতুন আলোচনা শুরু করার জন্য "নতুন আলোচনা" বোতামে ক্লিক করুন। দেখবেন বাংলা লেখার মতো নিজের মতামতকে জগৎসভায় ছড়িয়ে দেওয়াও জলের মতো সোজা।
  • হরিদাসের বুলবুলভাজা

    Guruchandali
    বিভাগ : গুরুচন্ডা৯ | ১৫ নভেম্বর ২০০৯ | ১৬২৩ বার পঠিত
আরও পড়ুন
মজারু - Guruchandali
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • Guruchandali | 72.83.210.50 | ১৬ মে ২০১০ ২১:০৪430757
  • --------------------------------------------
    প্রকাশিত হল বুলবুলভাজা: কর্পোরেট ও কয়েকটি মেয়ে
    --------------------------------------------
  • Guruchandali | 72.83.210.50 | ১৯ মে ২০১০ ০০:১৭430758
  • --------------------------------------------------------
    প্রকাশিত হল বুলবুলভাজা : এই মৃত্যু উপত্যকাই আমার দেশ
    --------------------------------------------------------
  • pi | 72.83.210.50 | ১৯ মে ২০১০ ০১:৪৬430759
  • ভাটে অক্ষদার এই ১১:২১ এর পোস্টের উত্তরে লিখছিলাম।(http://www.guruchandali.com/guruchandali.Controller?portletId=4&porletPage=2)

    তারপর ভাবলাম এখানেই লিখি। এই লেখাটিও এক ই বিষয় নিয়ে যখন।

    হ্যাঁ, বলা হচ্ছিলো, ঐ বাসের যাত্রীরা নিরীহ , সাধারণ মানুষ না, কারণ তাঁরা নিজের বিচার বুদ্ধি প্রয়োগ করে সালোয়া জুডুমের অংশীদার হতে চলেছিলেন। তো, প্রশ্ন থেকেই যায় কতটা 'নিজের বিচার বুদ্ধি' আর কতটা forced
    এই ধরণের খবর গুলো তো (http://www.telegraphindia.com/1100518/jsp/bengal/story_12461091.jsp)এরকম ও ভাবায় যে, সাধারণ মানুষের বিচার বুদ্ধি নির্ণীত হচ্ছে, মাওবাদী না সর্কার , কার নির্দেশ অমান্য করলে মরার সম্ভাবনা তুলনায় বেশি, এধরণের ক্যালকুলেশন।
    পুলিশের হাতে মরবার ভয়ে কেউ পোস্টার ছিঁড়বেন, চর হবেন, মাওবাদীদের বিরুদ্ধে পুলিশকে সাহায্য করবেন আর তাতে করে মাওবাদীদের কাছে এই যুদ্ধের টার্গেট হিসেবে বৈধতা পেয়ে যাবেন।

    এবার যদি বলা হয়, সবাই এমনি বাধ্য হয়ে হচ্ছেন না, অনেকেই স্বেচ্ছায় হচ্ছেন, তাহলেও দু তিনটে প্রশ্ন থেকে যায়।

    এক তো, যাত্রীরা সবাই সালোয়া জুডুম অফিসার ছিলেন ?

    দুই, কি করে জানা গ্যালো, এদের মধ্যে এরা স্বেচ্ছায় গেছিলো নাকি কোনো coercion ছিলো না ? এই মৃত প্রত্যেকটা মানুষের সম্বন্ধে এটা শিওর হয়ে করা হয়েছে তো ?

    তিন, যদি শিওর ও হয়, সবাই স্বেচ্ছায় গেছেন, হ্যাঁ, প্রশ্নটা তখন ও থেকে যায়, তাহলে ই তাঁদের হত্যা করার রাইট জন্মে যায়? কেউ আমার বিরোধিতা করলেই তাকে খতম করে দিতে হবে ?এটাকে জাস্টিফাই করলে তো, সালওয়া জুদুম নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ, ভ্রাতৃঘাতী পরিবেশ তৈরির চেষ্টা হচ্ছে, সেই এক ই কাজ করা হচ্ছে, মাওবাদীদের তরফ থেকে, এটাই বলতে হয়। আর, প: বঙ্গে পুলিশের চর বলে খুন আর ওখানে সালোয়া জুডুমের লোক বলে খুন, এদুটোর মধ্যে ও কিচু তফাত নেই, সেভাবে ভাবলে। এটা বল্লাম , এই জন্য যে, পুলিশের চর বলে খুনের ব্যাপারে অনেককেই তাও বলতে দেখেছি , তাঁরা সেটা সমর্থন করেন না।তো, তাঁরাই আবার এদিকে এই সালওয়া জুডুমের লোক বলে খুন, সেটা ঠিক ই আছে বলছেন দেখে অবাক লাগছে।

    এগুলো কে যুদ্ধের পার্ট বলে ধরে নিলে, পুলিশের চর বলে যেকোনো বিরোধী দলের লোককে হত্যা , সে ও যুদ্ধের ই পার্ট, সে নিয়েও কিছু বলা উচিত না, সাধারণ মানুষ মরেছে বলে, আর পুলিশের এনকাউন্টারে সাধারণ মানুষ মারা গেলেও তাই নিয়েও চেঁচামেচি করা উচিত না। ওখানেও তাহলে স্বেচ্ছায় মাওবাদীদের সাহায্য করছে, এরকম ধরে নিয়েই মারা হচ্ছে।

    যুদ্ধ, যে পক্ষ ই শুরু করে থাকুক না ক্যানো, তাকে বৈধতা দিয়ে ফেলে্‌ল্‌ল মুশকিল আছে।


  • tatin | 130.39.149.191 | ১৯ মে ২০১০ ০২:১৯430760
  • SPO রা কি ইচ্ছে করেই ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে উঠেছিল?

    ঢাল হিসেবে ব্যবহার করলেও ঢালের ওপর দিয়ে আঘাত হানাটা জাস্টিফায়েদ হয় না, এমনকী বড়লাটকে মারতে গিয়ে আরেক ইংরেজবাসী মারলেও দোষটা শিওর না হয়ে যে বোমা ফাটাচ্ছে তারও। পারস্পরিক দোষারোপ, কার দায় বেশি, কোন দিকে লোক বেশি মরেছে ইত্যাদি চালিয়া যাওয়াই যায়, কিন্তু মোদ্দা কথা হলো, খুনের রাজনীতি যদি দুদিকেই চলে তাহলে এই ইচ্ছাকৃত কিম্বা অনবধানবশত: হত্যাগুলো ও বাইপ্রডাক্ট হিসেবে আসতে থাকবে।

  • pi | 72.83.210.50 | ১৯ মে ২০১০ ০২:৩৪430761
  • যাচ্চলে, কাল যে শুনলাম সবাই spo ছিলেন, কোনো 'সাধারণ' মানুষ ই ছিলেন না। তাই এই বাস ওড়ানো যুদ্ধের পার্ট, এটা নিন্দনীয় কিছু নয়।
    এখানে তো অন্যরকম বলছে।

    http://www.thehindu.com/2010/05/19/stories/2010051951190100.htm
  • pi | 72.83.210.50 | ১৯ মে ২০১০ ০২:৩৭430762
  • মাওবাদীদের এই স্টেটমেন্টটার মানেই বুঝলাম না। 'ক্যালকুলেটেড অ্যাটাক' হলে 'রিগ্রেট' এর কি আছে ? ক্যালকুলেশনের সময় জানা ছিল না, সিভিলিয়ানদের বাস, তাতে সিভিলিয়ানরা আছেন ?
  • SC | 128.237.237.104 | ১৯ মে ২০১০ ০৩:২৯430763
  • না মানে বলেছে যে না হলেই ভালো হত।
    কিন্তু যেহেতু ওরা শিল্ড হিসেবে মানুষকে ব্যবহার করেছে, তাই সাধারণ মানুষকে মারতেই হয়েছে।

    নধীগ্রামের ঘটনা মনে পড়ে যাচ্ছে। যাইহোক। মাওবাদীরা এই বাজারে এসব করলে ট্যাক্টিকাল মিস্টেক হবে। তবে ওদের আস্ল চেহারাটাও দেখা যাচ্ছে।

    বিপ্লব পরবর্তী সমাজেও এরকম সরকারী বিবৃতিতে রিগ্রেট পাবো মনে হয়।
  • SC | 128.237.237.104 | ১৯ মে ২০১০ ০৩:৩০430764
  • *নন্দীগ্রাম
    *আসল
  • tatin | 130.39.149.191 | ১৯ মে ২০১০ ০৩:৪১430765
  • আমার অবিশ্যি বিশ্বাস, লেনিনপন্থী কোনও দল কোনও ধরণের রাষ্ট্রক্ষমতার অংশীদার হলে, তার সবচেয়ে নমনীয় রূপ এই সিপিএম।
    ফলে, মাওবাদীরা কী হবে সেটা নিয়ে সংশয় থাকা উচিত না।
  • SC | 67.186.56.191 | ১৯ মে ২০১০ ০৬:১৫430767
  • তাতিন,একমত।
    অনেকের সংশয় আছে তো। অরুন্ধতী দেবীর প্রবন্ধ পড়ে, কিংবা অন্যান্য প্রবন্ধ পড়ে একটা ধারণা তৈরী হয়েছে বাজারে, যে মাওবাদী নেতারা কোনো রোম্যান্টিক চে।
    রোম্যান্টিসিস্মের চাদরটা সরে গেলে তখন চিদুকে কিংবা বুদ্ধকেও ভগবান মনে হতে পারে এদের সামনে।
  • G | 96.235.52.152 | ২০ মে ২০১০ ০৮:৫৬430768
  • এক্কেবারে সত্যি।
    একটা বন্দুকের morality তৈরি হচ্ছে, সেটাই সবচেয়ে উদ্বেগের কথা।
  • Shamik Sarkar | 117.194.231.98 | ২০ মে ২০১০ ১১:৩৫430769
  • প্রবন্ধের যে জায়গাটা একদম ঠিকঠাক লেগেছে আমার, সেটা হল মধ্যবিত্ত মানুষের নিষ্ক্রিয়তার পয়েন্ট। এখানে আমার যোগ করার আছে। মধ্যবিত্তর কাজ কেবল সলিডারিটি করা নয়। মধ্যবিত্তের নিজস্ব কর্মসূচী থাকা উচিত বলে আমার মনে হয়। যেমন কম খাওয়া, কম পড়া। লাক্সারি জিনিস ব্যবহার কমানো, কিছু কিছু পণ্যকে এসেনশিয়াল স্তর থেকে লাক্সারি স্তরে নামিয়ে আনা। কথা কম বলা। গরীব মানুষের কাছ থেকে কীভাবে বাঁচতে হয় সেগুলো শেখা। আজকের পৃথিবীতে মধ্যবিত্তরা সবচেয়ে ভারনারেবল। তুই ভেবে দেখ, আমিও ভাবছি মাওবাদীদের এই প্রস্তাবটা দেব --- ওরা আমাদের দেশের থার্মাল পাওয়ার প্ল্যান্টগুলো অচল করে দেওয়ার টেকনিকটা শিখে নিক। তাহলেই কেল্লা ফতে। গ্রাম দিয়ে আর শহর ঘেরারও দরকার নেই। কলকাতা শহরে যদি সাতদিন ইলেক্ট্রিক না থাকে, তাহলে আমাদের মধ্যবিত্ত মানুষের কী হবে? তাই মধ্যবিত্তের নিজস্ব কর্মসূচী থাকা দরকার, নিজেরা যাতে বেঁচেবর্তে টিকে থাকতে পারে, তার জন্য। এই টিকে থাকার কায়দা কিন্তু গরীবরা শিখে ফেলেছে। গরীবরা তো আমাদের দেশে এক্সক্লুডেড, মার্ক্সের ভাষায় এদের মরে যাওয়ার কথা। কিন্তু এরা মরে নি। নিজেদের টিকে থাকার কায়দা নিজেরাই গড়ে তুলেছে। আদিবাসীরাও তাই। বস্তিবাসীরাও তাই। এর প্রমাণ, পাহাড় প্রমাণ অসংগঠিত ক্ষেত্র। কলকাতা শহরে ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোন বা কনস্ট্রাকসশনের কাজ করতে আসে যে লোকেরা, তারা যে মাইনে পায়, তাতে তাদের পক্ষে কলকাতায় যতক্ষন থাকে ততক্ষণ পেটে কিল মেরে থাকার কথা। কিন্তু তারা দিব্যি খায়, সৌজন্যে ফুটের হোটেল। এই যে দেশের ভেতর দেশ, কলকাতার মধ্যে কলকাতা, এটা গরীব মানুষের নিজস্ব নির্মাণ, টিকে থাকার জন্য। এই নিজস্ব নির্মাণটিকে ধ্বংস করতে উদ্যত কর্পোরেটরা, এবং সেই কর্পোরেটদের মূল পাওয়ার আমরা মধ্যবিত্তরা। আমাদের জন্য বিল্ডিং হবে, উচ্ছেদ হবে বস্তি বা চাষিমজুর। আমাদের জন্য ন্যানো হবে, আমাদের জন্য ওষুধ হবে, আমাদের জন্য ফ্রিজ হবে, আমাদের জন্য .........। তাই আমার মনে হয় মধ্যবিত্তের নিজস্ব করমসূচি থাকা দরকার। এবং অবশ্যই ব্যক্তিগত কর্মসূচী। দশটা লোককে নিয়ে কর্মসূচী নয়। আমি যদি আমার খরচ মাসে দু হাজার টাকাও কমাতে পারি হোটেলে টোটেলে খাওয়াটাকে যাস্ট বন্ধ করে, মাল খাওয়া বন্ধ করে, ট্যাক্সি চড়া বন্ধ করে, তাহলেও আমার প্রতিবাদের চেয়ে আমি এফফেক্টিভ কাজ করছি (তাই বলে প্রতিবাদ করতে না করছি না)। কেউ বলতে পারে, তাহলেও তো গরীব মানুষের পেটে লাথি পড়বে। আমার বক্তব্য, গরীব মানুষ চিরকালের মতো এবারও নিজের বাঁচার রাস্তা নিজেই খুঁজে নেবে।
    আর কীভাবে গরীবের উন্নয়ন হবে তাই নিয়ে মধ্যবিত্তের মত প্রকাশটাও একটু সন্দেহজনক। আমরা প্রবৃত্তিগত ভাবেই চাইব, গরীব মানুষ আমাদের স্তরে উঠে আসুক। আমাদের এই বিচ্ছিরি পরজীবী আনসসটেনেবল জীবনটাকেই তো আমরা তাদের উন্নয়ন বলে ভাবি, তাই না? আমরা চাই তারা আমাদের মতো মাঝে মধ্যেই ডাক্তার দেখাক আর ওষুধ খাক, গরম কালে এসি বা ফ্যান ছাড়া যেন না থাকে, রোজ তিনবেলা করে পেটপুরে খাক, তাদের বাচ্চারা ছেলেবেলায় কাজকর্ম বনা শিখে বা না করে বইমুখে করে বসে থাকুক, বাড়িতে কাজের লোক থাকুক, অর্ডার করা ছাড়া আর কোনও ম্যানুয়াল কাজ না করুক...
    আমার মনে হয়, গরীবের উন্নয়নের কথা না ভেবে বরং আমাদের নিজেদের উন্নয়নের কথা ভাবা দরকার।
  • Blank | 170.153.65.102 | ২০ মে ২০১০ ১১:৪৬430770
  • আসুন সবাই দলে দলে গরীব হই
  • Blank | 170.153.65.102 | ২০ মে ২০১০ ১১:৫২430771
  • লেখক কি জঙ্গলমহলের জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে অংশ নেন? আমার কখনো নেওয়া হয় নি। আমি কাউকে চিনি না যারা নেয়। বারুইপুরে থেকে লালগড়ে ভোট দিতে গেলে পুলিশ ধরবে
  • blank | 70.177.57.60 | ২০ মে ২০১০ ১২:২৭430772
  • ভোট পেতে চাইলে কিন্তু পুলিশ ধরবেনা। গুরুতেই গত লোকসভা ভোটের আগে উড়িষ্যার বলঙ্গীর নিয়ে কিছু লেখা বেরিয়েছিল, একটু খুঁজে দেখতে পারেন- জনপ্রতিনিধির হিসেবে নির্বাচিতরা সবাই ভুবনেশ্বরে থাকা কোনও না কোনও রাজবংশের লোক। নির্বাচনে যাঁরা দাঁড়াচ্ছিলেন, তাঁরাও ভুবনেশ্বর শহরের লোকই।
  • Blank | 170.153.65.102 | ২০ মে ২০১০ ১২:৫০430773
  • ৬০ বছরে এলাকা থেকে কোনো জনপ্রতিনিধি উঠে আসে নি !!! তো সেটা নিয়েই তো আগে রুট কস দরকার।
    লালগড় অঞ্চলের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা কি কোলকাতার? দান্তেওয়াড়ার এই মুহুর্তে জনপ্রতিনিধি কারা?
  • aka | 24.42.203.194 | ২০ মে ২০১০ ১৬:২৮430774
  • শমীক বাবু যে কি কন!!! ২০০০ টাকা জমলেই পিপিএফ ফাণ্ডে দিই, এসবিআই সল্টলেক - সেক্টর ফাইভ ব্র্যাঞ্চ। এসবিআই সেই টাকা কোথায় কোথায় জানি খাটায় - খুব সম্ভবত সেগুলো আমাদেরই মতন কাউকে লোন দিতে কাজে লাগে। আমি ২০০০ টাকা জমালে ব্ল্যাংকির হোম লোনে যায় এইরকম আর কি। তবে মধ্যবিত্তের টাকা জমানো ভালো।
  • aranya | 144.160.226.53 | ২১ মে ২০১০ ০৩:২৩430775
  • সোমনাথের "এই মৃত্যু উপত্যকা...' লেখাটা আমারও মনের কথা, আমার মত অনেকেরই হয়ত। কয়েক মাস আগে ঈশান একটা ম্যানিফেস্টো লিখেছিল, যেটা কাগুজে গুরু-তেও বেরোয়, বেশ ভাল লেখা - তখনও গৃহযুদ্ধ এতটা ছড়ায় নি। যুযুধান দু পক্ষের মধ্যে একটা আলোচনা হওয়া বড় দরকার, যাতে সাধারণ আদিবাসী-রাও অংশ নেবে, কিন্তু কিভাবে যে সেটা সম্ভব ....
  • Guruchandali | 72.83.210.50 | ২৪ মে ২০১০ ১২:০৯430776
  • ---------------------------------
    প্রকাশিত হল দুটি লেখা :

    অন্য যৌনতা : অপরাধ যখন
    আলোচনা: এক বক্তার বৈঠক
    ---------------------------------
  • Blank | 59.93.245.180 | ২৫ মে ২০১০ ০২:০৬430778
  • খুব ভালো লাগলো 'এক বক্তার বৈঠক'। প্রতিটা কথা মিলে যায় ভাবনার সাথে। খুবই ভালো।
    আচ্ছা এই লেখাটা 'আলোচনা' তে যাওয়ার কথা ছিলো না?
  • Guruchandali | 96.231.2.50 | ২৫ মে ২০১০ ২২:০৬430779
  • --------------------------------------------------
    প্রকাশিত হল একটি বুলবুলভাজা: এক যে ছিলো রাজা
    ---------------------------------------------------
  • Du | 65.124.26.7 | ২৫ মে ২০১০ ২৩:২০430780
  • আমিও 'গুপী বাঘা' দেখতে গিয়ে দেখেছিলাম ওনাকে। ভীষণ খুশি হলেও সেই সংকোচে আর এগোনো হয়নি। তবে যে মুখটা বার বার ভেসে আসছে মনে - সেই মুখটা মুছে যায়নি কাল।। সেই মুখটা থাকবে চিরদিন।
  • Nina | 64.56.33.254 | ২৫ মে ২০১০ ২৩:৩৪430781
  • 'এক যে ছিল রাজা' খুব সুন্দর লেখা---আমার মনের যন্ত্রণাটার সঙ্গে মিলে গেল। গুপী কে চিরকাল মনে রাখবে বাঙালী।
  • Blank | 59.93.198.54 | ২৫ মে ২০১০ ২৩:৩৮430782
  • ভারি ভালো লাগলো পড়ে
  • Shuchismita | 71.201.25.54 | ২৬ মে ২০১০ ০৬:৩২430783
  • বাহ! খুব ভালো লাগলো।
  • R | 202.79.203.59 | ২৬ মে ২০১০ ০৯:২৭430784
  • মিঠুনের লেখা খুব ভাল লেগেছে
  • nyara | 203.110.238.16 | ২৬ মে ২০১০ ১০:৪৫430785
  • এত সিনিকাল কেন লেখাটা? নাকি আমিই সিনিকাল হয়ে পড়েছি? কথায় কথায় যুদ্ধবিরোধীতা, সামাজিক অসাম্য নিয়ে আসা দেখে হাল্কা ক্লান্ত হয়ে পড়ি।
  • san | 203.91.201.56 | ২৬ মে ২০১০ ১১:০০430786
  • ভাল লাগল।
  • pipi | 78.52.228.13 | ২৬ মে ২০১০ ১৫:২১430787
  • এক যে ছিল রাজা - মন ছুঁয়ে গেল।
  • aranya | 144.160.226.53 | ২৭ মে ২০১০ ০৪:০১430789
  • এক বক্তার বৈঠক - খুব ভাল বিশ্লেষণধর্মী লেখা, কাগুজে গুরুতেও মনে হয় পড়েছিলাম আগে।
    এক যে ছিল রাজা - এটাও বেশ ভাল লাগল। তার সাথে দু:খ-ও হল - মাস কয়েক আগে বোধহয় একই দিনে মারা যান আমার খুব প্রিয় দুটি মানুষ - খেলার জগতের মতি নন্দী আর বনের রাজা বিলি অর্জন সিং - ভেবেছিলাম 'মনে রাখার মত মানুষ' -টইতে লিখব এই দুজনের কথা - তা আর হয়ে ওঠে নি।
  • Guruchandali | 122.173.176.47 | ৩১ মে ২০১০ ২৩:৫৫430790
  • ---------------------------------
    প্রকাশিত হল দুটি লেখা:

    বুলবুলভাজা: উন্নয়ন?
    আলোচনা: পবিত্রতার খোঁজে
    ---------------------------------
  • mb | 71.62.121.158 | ০২ জুন ২০১০ ০১:৩৩430791
  • ন্যাড়াদা জিগ্যেস করেছিলো সিনিকাল কেন? কথায় কথায় যুদ্ধবিরোধীতা কেন? সামাজিক অসাম্য কেন? উত্তর দেওয়া হয়নি। কথায় কথায় দেশের ভেতরে ও বাইরে যুদ্ধ হচ্ছে, ছারপোকার মত মানুষ মরছে তো যুদ্ধবিরোধীতা হবেনা? একটা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী স্ট্যাচু বসাচ্ছে, তার ব্যক্তিগত সম্পত্তির হিসেব একশো কোটি না কত যেন, এবং একেবারেই ব্যতিক্রমী নয়। এরপরেও এইসব নিয়ে কথা বলা হবে না তো কি নিয়ে হবে?
    এমনিতে তো আমরা দিব্যি আছি। ট্রেন অ্যাকসিডেন্ট, ফুটবল, ভোট আর সর্ষেবাটায়। লাশ গুণেগেঁথে তক্কো করছি। খুবই অভ্যস্ত হয়ে উঠেছি আমরা, হয় অবস্থাটার সাথে মানিয়ে নিয়েছি বা সেটা থেকে পালিয়ে/লুকিয়ে রয়েছি।

    এইসব দেখে হাল্কা না, বেশ ভারি রকমের ক্লান্ত লাগে। তো, তাই হয়ত এই সিনিকাল লেখালেখি।
  • indrani | 124.170.145.128 | ০৬ জুন ২০১০ ০৮:৩০430792
  • সচরাচর নীরব পাঠক। মতামত দি না। আজ না লিখে পারলাম না।
    অনামিকা গুপ্তর লেখাটি অসম্ভব ভালো লাগলো। বহুদিন পরে এমন ভেতর থেকে উঠে আসা আন্তরিক লেখা পড়লাম।
  • pinaki | 67.210.179.5 | ০৬ জুন ২০১০ ০৯:৫২430793
  • সত্যি দারুণ লাগল অনামিকার লেখাটা।
  • Guruchandali | 72.83.210.50 | ০৬ জুন ২০১০ ১০:২৯430794
  • -----------------------------------------

    প্রকাশিত হয়েছে তিনটি লেখা:

    ১। যুক্তি তক্কো (নিয়ে) গপ্পো

    ২। পুনর্ভাবনায় পরিবেশের বিজ্ঞান ও রাজনীতি : প্রথম কিস্তি

    ৩। খাদ্য নিরাপত্তা, দ্বিতীয় সবুজ বিপ্লব ও প্রস্তাবিত বায়োটেকনোলজি বিল -২০১০

    ------------------------------------------
  • tatin | 70.177.57.60 | ০৭ জুন ২০১০ ০৮:২৬430795
  • বস, ফন্টটা এট্টু ছোটো করো, ইউনিকোডে পড়তে হেভি চোখে লাগছে :(
  • vikram | 193.120.76.238 | ০৭ জুন ২০১০ ১৯:৩৪430796
  • অনামিকা গুপ্ত , (কেমন পেন নেম ধরণের শুনতে :-) ) - জাস্ট টু গুড।

  • aka | 168.26.215.13 | ০৭ জুন ২০১০ ১৯:৪৪430797
  • অনামিকা গুপ্তর লেখাটি সুখপাঠ্য, গড়গড় করে পড়ে ফেললাম। কিন্তু যুক্তি তক্কো (নিয়ে) গপ্পে কিছু জায়গা নিয়ে কিছু কথা বলার আছে।

    লেখক বলেছেন নাম দেখে, পরিচয় দেখে বক্তব্যের মূল্যায়ন না করে বরং যুক্তি দেখে করা হোক। কোন ধরণের ডিবেটের কথা হচ্ছে? কল্পনা করা যাক আমেরিকার প্রেসিডেন্সিয়াল ডিবেটে ওবামা বলিলেন 'হ্যাঁ ভাই ম্যাকেন যা বলিলে ঠিক বলিলে এসো আমরা হাত মেলাই'। তো, এই বিতর্কে গদি দখল করতে লড়ে যেতেই হবে। সেটাই এই বিতর্কের লক্ষ্য। লেখক মনে হয় এই জাতীয় বিতর্কের কথা বলেন নি বলেছেন এই ফোরামে ফোরামে আমার মতন 'তর্কালংকার' দের কথা।

    সত্যি তো, কেন এত বিতর্ক? লেখকের কথা অনুযায়ী মেয়ে পটাতে? না জিততে? না ভার্চুয়াল পেশীর আস্ফালন? সরলীকরণ বোধহয় করা যায় না। ইন্টারনেট ও ইলেকট্রনিক উন্নতির সাথে সাথে আর একটা কথা বাজারে খুব উঠে আসছে ""ই-ডেমোক্রেসি"" বা ""ডিজিটাল ডেমোক্রেসি""। ডেমোক্রেসি সম্বন্ধে সবথেকে বড় অভিযোগ হল যে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে আমাদের মতন সাধারণ মানুষের খুব কিছু বলার নেই। যদিও আমি মনে করি ডেমোক্রেসির থেকে বেটার সিস্টেম আজ অবধি পাওয়া যায় নি, এবং ডেমোক্রেসির সাবস্টিটিউট হল উন্নততর ডেমোক্রেসি তাও এই অভিযোগ আমার নিজেরও। ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং ইন্টারনেট আমাদের কাছে এই সুবিধা করে দিয়েছে নিজের বক্তব্য অনেকের কাছে জানানোর। অনেক মতের লোক এক জায়গায় বিভিন্ন সোশ্যাল ও রাজনৈতিক ইস্যুতে বক্তব্য রাখছেন এর বর্তমান রেলেভেন্স বিশেষত ভারত বা প:ব: খুব বেশি না হলেও ভবিষ্যতে কি হবে সে স্পেকুলেশন না করাই ভাল। প্রসঙ্গত নন্দীগ্রাম ইস্যুতে অনলাইন পিটিশন সরকারের নজরে পড়েছিল সে কথা ভুলে যাবেন না। তো, এহেন ফোরামে নিজের বক্তব্য রাখাটাই বড় কথা, আনমডারেটেড হলে লোকে খিস্তি দেবে, আলপটকা লেবেলিং করবে, বাজে বকবে ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু তারপরেও আমার নিজের মতে এক নতুনতর ডেমোক্রেসির দিকে এগিয়ে যাবে, সেখানে নিজের বক্তব্য রাখতে পারাটাই বড় কথা, নাই বা হল অমর্ত্য সেনের মতন বিদগ্‌দ্‌ধ অ্যানালিসিস। বলা যায় না, কোন নবীন নেতা হয়ত ট্রান্সপারেন্ট গভর্নমেন্ট চালাতে সরকারী ব্লগই খুলে দিল। হোক না কুড়ি বছর পরে।

    বরং উল্টোটা, অমর্ত্য সেনের বা জগদীশ ভাগবতীর মতন প্রজ্ঞা না থাকলে লেখা যাবে না এই দাবীটা ঠিক নয়, কারণ লোকজনকে পূর্বশর্ত দিয়ে লিখতে ডিফেন্সিভ করে দেওয়া মেইনস্ট্রিম থেকে অ্যালিয়েনেট করার আর একটা উপায় মাত্র। সেটা না করাই বাঞ্ছনীয়। আর ঠিক এই জায়গা থেকেই তৃপবুভ - n সিরিজ আমার কাছে ইম্পর্ট্যান্ট। মাঝে মাঝে আবাজ আমিও দিয়েছি, কারণ স্বভাবে আমি ফিচেল প্রকৃতির, কিন্তু বন্ধ হোক, মডিফায়েড হোক, প্রচণ্ড ভালো ভালো পেপারের অ্যানালিসিস দেওয়া হোক এই এলিট দাবীর বিরুদ্ধে। সে যতই না নীরব পাঠকের স্যারিডন লাগুক, প্রকারান্তরে তা একধরণের অ্যালিয়েনেশন।

    নিশ্চয়ই আমার নাম দেখে লেখাটি পড়া হবে না!! :))
  • aka | 168.26.215.13 | ০৭ জুন ২০১০ ২০:০৫430798
  • বড় বড় লোকেদের ভারী ভারী কথা শেখার জন্য তো অ্যামাজন, কলেজ স্ট্রীট, নিদেন পক্ষে উইকি রয়েইছে, থাক না কিছু ফোরাম, কিছু ব্লগ আমার মতন লোকেদের জন্য। কারুকে কিছু শেখানোর জন্য বা মেয়ে পটানোর জন্যই তর্ক বিতর্ক এই গন্ডীর বাইরে গিয়েও ভাবা দরকার, প্রয়োজনে স্যারিডন খেয়ে বা অম্রিতাঞ্জন মেখেও, সেটাও একধরণের লার্ণিং। তৃণমূল (""ত্রিনোমূল"" নয়) স্তরে নিজের বক্তব্য রাখা ও শোনাটা একধরণের গুরুত্বপূর্ণ প্র্যাকটিস।
  • d | 115.117.238.242 | ০৭ জুন ২০১০ ২০:২০430800
  • "অম্রিতাঞ্জন' নয় ওটা আসলে অম্রুতাঞ্জন। ;-)
  • G | 136.142.168.156 | ০৮ জুন ২০১০ ০১:৩৪430801
  • আকা, ঠিকই ধরেছেন। আমারো মনে হয় লেখক (লেখিকা?) ম্যাকেন-ওবামা টাইপের ডিবেটের কথা বলেন নি - সেখানে তো শ্রোতাদের মধ্যেও পরিস্কার দুটো ভাগ আছে - আর দুই বক্তা আসলে কথা বলছেন নিজের নিজের constituency-র সাথে। যে ডিবেটের কথা লেখাতে এসেছে সেটা আপনার e-democracy'র বেশ কাছাকাছি। অথবা একটু ছোট পরিসরে ক্যান্টিন ডেমোক্র্যাসি বা রোয়াক ডেমোক্র্যাসি। আড্ডা গণতান্ত্রিক, তার মূল কারণই হল সেখানে কথা বলতে গেলে অমর্ত্য হতে হয়না। লেখক আসলে মনে হয় একথা বলেন নি যে বক্তার নাম সত্যি করেই চেপে রাখতে হবে (যেমনটি রাখা আছে এই লেখার শিরোনামে)। বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া যেন বক্তার নামগোত্রপরিচয়ের উপরে নির্ভর না করে, এইটুকুই প্রয়োজন। সেটা আসলে শ্রোতার দায়িত্ব। নয়তো, এই গুরুতেই দেখুন না, খুব তাড়াতাড়ি থ্রেডে নেম-কলিং শুরু হয়ে যায়। যেকোন ডিজিটাল ফোরামে এরকম হয়।
    নাম থাক। অবশ্যই থাক। শুধু সেটা যদি বিষয়কে ইনফ্লুএন্স করে, তাহলে চাপ।
  • G | 136.142.168.156 | ০৮ জুন ২০১০ ০১:৪৫430802
  • পার্থ আর পুর্ণেন্দু, দুই চক্রবর্তীর লেখা কি সত্যিই একে অপরের বিপ্রতীপে দাঁড়িয়ে? যিনি একসাথে আপলোডিয়েছেন, তিনি নিশ্চয় এই ধাঁধাঁটা বাজারে হাল্কা করে ছেড়ে মজা লুটছেন।
    পার্থর লেখা পড়ে যদি কোন environmental activist মশাই বলেন এনভাইরোন্মেন্টালিজে্‌মর ধারণার গোড়ায় গলদ, তাই আর রিসাইকল করবো না, মন্সান্টোর বিরোধিতা করে লাভ কি, তাহলে তো কেস গড়বড়। সেটা মনে হয় পার্থরও অভিপ্রেত নয়। action plan হিসেবে পার্থ কি recommend করেন সেইটা যদি আগামী সংখ্যায় প্রাঞ্জল করে বলেন তাহলে ভাল লাগবে।
  • pi | 72.83.210.50 | ০৮ জুন ২০১০ ১১:০৭430803
  • 'পুনর্ভাবনায় পরিবেশের বিজ্ঞান ও রাজনীতি' র অনেকগুলো পয়েন্ট বেশ ইন্টারেস্টিং লাগলো। তবে দু নং উদাহরণ নিয়ে কিছু প্রশ্ন ছিলো। সময় নাই, ছোটো করে বলি।

    বন্দনা শিভার কাজ নিয়ে সমালোচনা প্রসঙ্গে কয়েকটি জিনিস জানতে চাই।

    আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য এরকম অসম্পূর্ণ তথ্যের উদাহরণ কি এই একটি ই , না আরো অনেক আছে ?
    আর, সয়া ফুডের ইস্ট্রোজেনের কোনো ক্ষতিকর প্রভাব নেই, এটা কি নিশ্চিত করে বলা যায় ?

    http://www.environmentalhealthnews.org/ehs/news/estrogenic-effects-of-soy
    এখানে যে বলছে, animal studies suggest that eating large amounts of those estrogenic compounds might reduce fertility in women, trigger premature puberty and disrupt development of fetuses and children.
    ....
    Newbold and other researchers are not convinced that eating more soy is healthy for everyone. Infants fed soy formula ingest six to 11 times more genistein on a bodyweight basis than the level known to cause hormonal effects in adults.

    “Giving an infant or child estrogen is never a good thing,” said Newbold.

    Though studies on the harmful effects of soy isoflavones in people have been limited and inconclusive, there’s strong evidence from animal studies that genistein alters reproduction and embryonic development, according to Newbold, a co-author of two of the new rodent studies.



    মানে, ঐ তথ্য যে ভুল ই , এমন কি নিশ্চিত করে বলা যায় ? অবশ্য উনি জখন ঐ বই লিখেছিলেন, এবং যে তথ্যের ভিত্তিতে লিখেছিলেন, তখন এসব পরীক্ষা নীরিক্ষা হয়ে গেছিলো কিনা জা নেই।

    দ্বিতীয় কথা, স্ববিরোধী রাজনৈতিক ভাষ্যের ব্যাপারটা বুঝলাম। কিন্তু, ঐ উদাহরণটা পড়তে গিয়ে অন্য একটা প্রশ্ন মনে এলো। দেশী কোনো জিনিষের যদি সত্যি কোনো গুণ থাকে, সেটাকে এন্ডর্স কি প্রচার করলেই কি স্বদেশী জাতীয়তাবাদ হয়ে যাবে, অর এস এস বিজেপি ও ঐ এক ই কাজ করছে বলে ?
    বিজেপি ও নিউক ডিলের বিপক্ষে বলে, এই ডিলের বিপক্ষে যারাই বলছে, তারা সবাই স্বদেশী জাতীয়তাবাদী, তা তো না।
  • arindam | 202.56.207.56 | ০৮ জুন ২০১০ ১১:৪৬430804
  • অনামিকা গুপ্তর "যুক্তি তক্কো...' খুব ভালো লেখা। সত্যি ভালো লেখা।
    কিন্তু গল্পটা অন্যরকম। আমরা নাড়া খাই কিন্তু নড়িনা। লোককে ref.করব এই লেখা পড়তে কিন্তু জীবনের সঠিক মুহুর্তে আমার পছন্দ না-হলেই অন্যের কথা না-শুনে তাকে এক লহমায়, টুসকি মেরে উড়িয়ে দেব। ফিরে এসে ব্যক্তিগত স্বাধীনতা নিয়ে লিখে ফেলব "কলাম' তারপর চারদিক যখন শান্ত তখন নিজের নিরপেক্ষ, rationalইমেজটাকে ব্লো-আপ করার জন্য...
    অনামিকার লেখা'ত আছেই!!!(এতে লেখকের দায় নেই, লেখক সঠিক মতই প্রকাশ করেছেন)
  • aka | 168.26.215.13 | ০৮ জুন ২০১০ ১৮:১০430805
  • মানে G মানে ব্রুটাস, ও:, জালিম দুনিয়া ইত্যাদি। :)) নাম এতই অকিঞ্চিতকর হয়ে গেল যে আপনি আজ্ঞে!!! বোঝো। :))

    এগ্রিড, একেবারে পয়েনে পয়েনে এগ্রিড। শুধু একটাই বক্তব্য, সব আলোচনা/বিতর্ক/খেঁউড় থেকে শেখা যায় না, যাবেও না, কিন্তু তাবলে তার গুরুত্ব খুব কমে গেল এমন নয়। বড় পার্সপেকটিভ থেকে যেকোন খেঁউড়েরও গুরুত্ব আছে। নিজের বক্তব্য রাখতে পারার একটা জায়গা তো হল, গুরু বা এই জাতীয় ফোরামের আগে কোথায়ই বা নিজের বক্তব্য রাখতাম। এত লোকে প্রাত্যহিক ব্যক্তিগত ঝামেলা সামলে প্যাশনেটলি ঝগড়া করছে সেটা খারাপ কি? তার সব কিছু সমান গুরুত্বপূর্ণ নাই বা হল। আমি নিজে মনে করি আমার মতন সাধারণ লোকের কাছে এক ধরণের এমপাওয়ারমেন্ট। চায়ের দোকান, বা রকের থেকে একটু আলাদা, কারণ এখানে অডিয়েন্স একটা বিরাট সেট। দেখলি/দেখলেন না, কসুও কইল ইন্টারনেটে কে কি লিখছে (ঐ ইমেলে)। লোকে ইন্টারনেটের এই চেঁচামিচি নিয়ে ভাবছে, এখনও কম, কিন্তু ক্রমশ বাড়বে, আমার মনে হয়। সেই পার্সপেকটিভটা লেখায় অনুপস্থিত, বাকি সব একমত।

    তবে নাম চেপে গেলেও G ফর কি বুইতে অসুবিধা হয় নাই, যদিও তা আমার বক্তব্যকে ইনফ্লুয়েন্স করে নাই। এই দাবী করতেই পারি। :)))
  • Somnath | 188.135.2.227 | ০৮ জুন ২০১০ ১৯:৪০430806
  • অনামিকা গুপ্তের লেখা পড়ে একটা নাম মনে পড়ল । মধুশ্রী সেনগুপ্ত। অথচ লেখার দাবি অনুসারে মনে করার কথা নয়। তবু মনে পড়ল। কেন, জানি না।
  • Partha | 155.41.246.27 | ০৮ জুন ২০১০ ২০:৩৪430807
  • PiebongG -ercomment-rjonnodhyonbad.
  • Partha | 155.41.246.27 | ০৮ জুন ২০১০ ২০:৫৩430808
  • amitechnologicallychallenged.banglafont-elikhteparchhina.khomakorben.

    jeprosnogulouthechhe, tarkichhubyaktigotoresponse-

    1.unfortunately, Shiva-ronekswabirodhiboktyobboquotekorajai.amarlekharudessokhononoionakebyaktigotoakromonnoi, taiseiprosongejaini.
    2.Scientificdiscourse-keamiopentopublicdebaterakhtecheyechhi (Anamika-rlekhatahelpful, eiorthe).Konoproblem-ruttorscience-rdiscouse-elegitimacykhujtegelesomossaachhe.Soyfood-eestrogenkhotikorhoteipare, abaronekstudydekhiyedebekonokhotinei.jemon, bigyanerbikhyatojournalScience-reilekhatadekhteparen-L.L.Wolfenbarger, etal.Science290, 2088 (2000).InfactthereisnoconsensusinthephysilogicalimplicationofGMfood.taibolekiGMpromotekorarkothabolbo? nakijotodinscientist-raconsensus-easchhen, totodinwaitkorbo?
    3.Obossoideshijinishendorsekoraswadeshinationalismnoi.ekdomekmot.amisudhuboltecheyechhiamrasudhuculturallyhybridbeingnoi, biologicalentitygulo-obote.Alu, tomato, greenchili, telapiaetcetcbharotergeography-rbairethekeesechhe.americaraludhukegechheamadersingara-rmodhye.eder-okibaddebo? amisudhueibisoy-tarprotisensitivehobarkothabolechhi.
  • G | 136.142.168.156 | ০৮ জুন ২০১০ ২২:০০430809
  • পার্থ, এই সহজ precis-টা দেয়ার ফলে বুঝতে অনেক সুবিধে হল। সিরিয়াসলি।
    আকা - ঠিকই কইস। ইন্টারনেটের ইন্টার‌্যাকশনের নিজস্ব একটা চরিত্র আছে, সেইটা আরো ভালো করে বোঝা দরকার। এই দ্যাখো - তুমি আমায় চিনতে পারছো, নামের আড়ালেও, আমি পারছি না - কি অসম্ভব asymmetry!! - ঘোর চাপ। দেখি একটু জাসুসি করে ...
  • aka | 168.26.215.13 | ০৮ জুন ২০১০ ২৩:২৩430812
  • :)))
  • করোনা ভাইরাস

  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত