এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • টইপত্তর  আলোচনা   সমাজ

  • কুমিল্লায় একটি ছোট ঘটনা

    দীপ
    আলোচনা | সমাজ | ০৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪০ বার পঠিত
  • সম্প্রতি কুমিল্লায় একটি ঘটনা ঘটেছে। সেই নিয়ে সরব হলেন বাংলাদেশের লেখক ইমতিয়াজ মাহমুদ। লেখাটি সবার সঙ্গে ভাগ করে নিলাম।
    -------------------------------------------------------------------
     
    (১) 
    কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার টাকিমারা গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। মসজিদে মাইকিং করে চায়না বেগম নামে লালনভক্ত এক ৯০ বছর বয়সী বৃদ্ধার ঘর ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগীর দাবি, প্রতিবাদ করতে গিয়ে মারধরেরও শিকার হয়েছেন তিনি। এই ঘটনায় একটা মামলা হয়েছে সদর থানায়। একজন সাবেক ইউপি মেম্বার সহ কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা কয়েকজনসহ ৪৫/৫০ জনকে আসামী করা হয়েছে। কেউ গ্রেফতার হয়েছে কিনা সেই তথ্য আরটিভির ওয়েবসাইটে এই খবরটাতে বলা হয়নি। খবরের লিঙ্ক কমেন্টের ঘরে জুড়ে দিয়েছি। 
     
    চায়না বেগম জানান, তার স্বামী আধ্যাত্মিক সাধক লালন সাঁইজির অনুসারী ছিলেন। জীবনের শেষ দিনগুলো স্বামীর কবরে মাথা ঠেকিয়ে কাটিয়ে দেবেন বলে ভেবেছিলেন তিনি। লালনভক্ত এ বৃদ্ধা বলেন, আমার স্বামী মৃত্যুর আগে বলে গেছেন, কোথাও জায়গা নাহলে তুমি আমার কবরের পাশেই থাকবা। প্রতিবছর বাতাসার সিন্নি হলেও করবা। তার কথা রাখতেই ঘরখানা তৈয়ার করি। কিন্তু এলাকার লোকজন আমাকে না জানিয়েই সব ভেঙে ফেলেছে। একজন বয়স্কা নারী, তাঁর নিজের জায়গাতে নিজের মৃত স্বামীকে কবর দিয়েছে, পাশে একটা ঘর বানিয়েছে, সেটা ওরা ভেঙে দিয়েছে। 
     
    না, এখানে কোন ব্যক্তিগত বিদ্বেষ ছিল না। এটা ঘটেছে গ্রামের সংখ্যাগুরু লোকজন, অর্থাৎ অর্থোডক্স মুসলমান লোকজন, ওরা মনে করেছে যে এই নারীর জীবনযাপন, তাঁর বাউলপন্থা অনুসরণ ইত্যাদি ওদের ধর্মের অনুমোদিত পথ নয়। সুতরাং তাকে এখান থেকে উৎখাত করতে হবে। এটা নতুন কোন ঘটনা নয়, এরকম অনেক ঘটনা ঘটেছে যেখানে একদল মুসলমান মানুষ গিয়ে হামলা করে বাউলদের আখড়া ভেঙে দিয়েছে, বাউলকে আক্রমণ করেছে। আর এ তো কেবল আজকের ঘটনা নয়, আপনারা জানেন যে সুনাগঞ্জের বাউল, যাদের গান বাঙলার সীমানা ছাড়িয়ে সর্বত্র গাওয়া হয়, ওদের ঢলক দোতারা, সারিন্দা এইসব ভাঙা হয়েছে অতীতে।
     
    (২) 
    চায়না বেগমের ঘর ভাঙার ঘটনার হয়তো বিচার হবে- তবে সম্ভাবনা আছে বিচার হয়তো কোনদিনই হবে না। চায়না বেগমের বয়স নব্বই, তার ঘর হয়তো আবার তৈরি হবে, মৃত্যুর আগে হয়তো তাকে আর হেনস্তা হতে হবে না। কিন্তু চায়না বেগমের সাথে যে ঘটনাটা ঘটেছে সেটা তো একটা লক্ষণ মাত্র, মুল ব্যাধি নয়। মুল ব্যাধি তো অনেক গভীর এবং অনেক ভয়াবহ। মুল ব্যাধিটি যদি আমরা চিহ্নিত না করি এবং নিরাময়ের চেষ্টা না করি তাইলে একদিন আমাদের এই রাষ্ট্রের অস্তিত্ব বিনষ্ট হবে। 
     
    মুল সমস্যা হচ্ছে সাম্প্রদায়িকতা। সাম্প্রদায়িকতা আমাদের সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে এমন গভীরভাবে বাসা বেঁধে আছে যে এটাকে দূর করাও এখন একটা কঠিন কাজ হয়ে গেছে। আমাদের দেশে সিপিবি এবং অন্য দুই একটা ছোট ছোট রাজনৈতিক দল ছাড়া প্রায় প্রতিটা রাজনৈতিক দল, গ্রুপ এবং ব্যক্তি কোন না কোনোভাবে সাম্প্রদায়িকতাকে উৎসাহ দেয় এবং সাম্প্রদায়িকতাকে নিজেদের রাজনৈতিক নীতি ও কর্মসূচীর সাথে অন্তর্ভুক্ত করে মুনাফা অর্জনের চেষ্টা করে। আফসোসের কথা কি জানেন? আপনারা যাদেরকে একসময় বামপন্থী হিসাবে জানতেন ওদের মধ্যেও একটা বড় অংশ সাম্প্রদায়িক শক্তিতে পরিণত হয়েছে। 
     
    একজন মানুষ ধর্ম বিশ্বাস বা ধর্মীয় আচরণের ধরন বা মত পথ আপনার পছন্দ নাও হতে পারে। আপনি মনে করতেই পারেন যে বাউল ধর্ম বা বাউল পন্থা ইসলাম ধর্মের সঠিক পথ নয়, বা এটা একটা ভুল পথ বা ভুল ধর্ম ইত্যাদি যে কোন কিছু। কিন্তু একজন মানুষ যে তার নিজের বিশ্বাস অনুযায়ী ধর্মীয় আচার আচরণ করতে পারে বা নাও করতে পারে এটা তো খুব জটিল কোন ধারনা নয়। যে কোন সভ্য সমাজের যে কান সুস্থ স্বাভাবিক নাগরিকই এটা জানে। যারা সংখ্যাগরিষ্ঠতার জোরে অপরের জীবনযাপনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে ওরা তো অন্যায় করে- ওরা তস্কর, সন্ত্রাসী, জঙ্গিবাদী। 
     
    (৩) 
    আমাদের দেশে কিছু লোক আছে যারা দেশটাকে কেবলমাত্র মুসলমানের জন্যে একটি দেশ বানাতে চায়। এটা অন্যায়। এই দেশটা কেবল মুসলমানের দেশ নয়। এই দেশ তৈরিই হয়েছে একটি আধুনিক সেক্যুলার গণতান্ত্রিক দেশ হিসাবে। এইসব সাম্প্রদায়িক আচরণ যারা করে এরা যে আমাদের স্বাধীনতার বিরোধী ও বাংলাদেশের অস্তিত্বের শত্রু এই বিষয়ে কি আপনার কোন দ্বিমত আছে? 
     
    চায়না বেগমের জন্যে ন্যায় দাবী করি। যারা ওর ঘর ভেঙেছে ওদের প্রত্যেকের গ্রেফতার বিচার ও শাস্তি দাবী করি। দাবী করি বিচারটা যেন দ্রুত হয়, আর এক্ষুনি যেন তস্করগুলিকে গ্রেফতার করা হয়। আর আপনাদের সকলের প্রতি আহ্বান জানানই- স্বাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াইটা তীব্রতর করে তুলুন। 'আমরা এখন ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে লড়ছি সুতরাং সাম্প্রয়াদ্যিক্তয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করা যাবে না' এইরকম ফালতু কথা বলবেন না। সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াই ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়েরই একটা অংশ মাত্র। এই দুই লড়াইই একসাথে করতে হয়। নাইলে আপনি এক অপশক্তিকে তাড়াতে গিয়ে আরেক অপশক্তির হাতে দেশকে তুলে দিবেন।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • দীপ | 2402:3a80:1989:3abf:578:5634:1232:5476 | ০৬ জুলাই ২০২৪ ১০:১৮743366
  • লেখাটির লিঙ্ক।
  • ঠিকই তো | 2405:8100:8000:5ca1::cb:3e74 | ০৬ জুলাই ২০২৪ ১০:৪৬743367
  • স্বাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে গর্জে উঠুন। হালুম। সাম্প্রয়াদ্যিক্তয়ার বিরুদ্ধে লড়াইটা তীব্রতর করে তুলুন। ঘ্র্যাও।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লড়াকু মতামত দিন