বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • খেরোর খাতা

  • ইয়েলো কিড আর umrela

    আফতাব হোসেন লেখকের গ্রাহক হোন
    ১৭ জুন ২০২২ | ৪২২ বার পঠিত
  • সাংবাদিকতা কিংবা সাংবাদ কি বা কাকে বলে এ নিয়ে কোন সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা বা অনুচ্ছেদ এক কথায় প্রকাশ করা মনে হয় সম্ভব না । অল্প কথায় বলতে গেলে দার্শনিক বিল কোভাচ ও টম রোসেন্টিয়েলর  'দ্য এলিমেন্টস অব জার্নালিজম ' গ্রন্থে প্রকাশিত শব্দগুচ্ছ অনুযায়ী -  ‘আ প্র্যাকটিক্যাল অ্যান্ড ফাংশনাল ফর্ম অব ট্রুথ’ অর্থাৎ বাস্তব এবং কার্যকর সত্য প্রকাশ কেই সংবাদ আর প্রকাশকারীকেই সাংবাদিক বলা যেতে পারে । ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়ার সংবাদ যুগে অনেকে আবার সহজ রূপে সংবাদ পরিবেশনের একটা ফর্মুলা বের করেছেন । ফর্মুলাটা হল ( 5W + 1H ) ।  যার পূর্ণরূপ 5W মানে- What , Where , Who , Whom, When , আর‌ 1H মানে How । অর্থাৎ গাণিতিকভাবে উপরের এই ৬ টি বিষয়কে সামনে রেখে সংবাদ তৈরী করাকে সাংবাদিকতা বলে বা বলা উচিত । কিন্তু বাস্তব বলে সাংবাদিকতা শুধুমাত্র তথ্য ও ঘটনার বিবরণ সংগ্রহের পেশা নয়, তথ্য যাচাই করাও  সাংবাদিকতার ‘এসেন্স’ বা সারমর্ম হওয়া উচিত । আমেরিকান প্রেস ইনস্টিটিউট বলছে,  প্রোপাগান্ডা, বিজ্ঞাপন, ফিকশন আর বিনোদন কে আলাদা আলাদা করে প্রকাশ করার স্বাধীনতা ই হল সাংবাদিকতা।

    প্রসঙ্গ সাংবাদিকতা বা সংবাদ নয় । প্রসঙ্গ খুঁজতে চলুন একটু পিছিয়ে যাই ।

    শুরুটা ১৮৮৩ সালে ।  নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ড নামে একটি সংবাদপত্র কিনেন প্রখ্যাত সাংবাদিক জোসেফ পুলিৎজার।কিন্তু তার ঠিক আগের বছরই উইলিয়াম হার্স্ট ১৮৮২ সালে ‘দ্য জার্নাল’ নামে একটা পত্রিকা কিনে নেন জোসেফ পুলিৎজারের ভাই অ্যালবার্ট পুলিৎজারের কাছ থেকে।

    শুরু হয় হার্স্টের সাথে পুলিৎজারের স্নায়ুযুদ্ধ। পুলিৎজার নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ড কিনেই ঝুঁকে পড়লেন চাঞ্চল্যকর খবর, চটকদারি সংবাদ ইত্যাদি প্রকাশে। রিচার্ড ফেন্টো আউটকল্ট নামে একজন কার্টুনিস্টকে চাকরি দিলেন তার কাগজে। ওই কার্টুনিস্ট ‘ইয়েলো কিড’ বা ‘হলুদ বালক’ নামে প্রতিদিন নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ডের প্রথম পাতায় একটি কার্টুন আঁকতেন এবং তার মাধ্যমে সামাজিক অসংগতি থেকে শুরু করে এমন অনেক কিছু বলিয়ে নিতেন, যা ছিল অনেকটাই পক্ষপাতদুষ্ট। সংবাদ পরিবেশনের নতুন রূপ বা সাংবাদিকতার নতুন ফর্ম ' হলুদ সাংবাদিকতার' শুরু সম্ভবত এভাবেই ।

    কয়েকদিন ধরে মোবাইল ক্যামেরার ভিডিওগ্রাফি আর অসহায় অকৃতকার্য একমাথা চাপ নিয়ে বসে থাকা নাবালক বাচ্চা ছেলেমেয়েদের 'আমব্রেলা' কিংবা 'HS বানান' জানতে চাওয়া সাংবাদিকতার নমুনা একাধারে যেমন 'সংবাদ'এর গুরুত্ব বা পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তার সাথে ভবিষ্যৎ চিন্তায় চিন্তিত নাবালক বাচ্চাদের সামাজিক মাধ্যমে ভয়ঙ্কর ভাবে ট্রোল হওয়ার তথাকথিত সোশ্যাল মিডিয়া সাংবাদিক গন ' এড়াতে পারেন কিনা সে নিয়েও প্রশ্ন উঠছে । প্রশ্ন উঠছে এভাবে সংবাদ পরিবেশনের নামে শিশু কিশোরদের সামাজিক অবহেলার দিকে আদৌ ঠেলে দেওয়া যায় কিনা ।  কোন শিক্ষার্থীর জ্ঞান বা বোধের পরিমাপের কিছু সংখক সাংবাদিকদের এইরূপ মান নির্ণায়ক ভূমিকা আদিকালের খাপ পঞ্চায়েতের কথা মনে করায় । ইংরেজি বানান বলতে না পারা যদি অপরাধ হয় এবং তার জন্য যদি কোন সদ্য কিশোর বা কিশোরীকে অকৃতকার্য হবার পাহাড় প্রমান মানসিক চাপ নেবার পরও ট্রোল হতে হয় তা সম্ভবত স্বাধীন ভারতের সবথেকে লজ্জাকর দৃষ্টান্ত ।  এই সব সংবাদ পরিবেশক গন সাংবাদিকতার নূন্যতম ' এথিক্স ' অনুসরণ করেন কিনা অথবা অন্য প্রতিষ্টিত সাংবাদিক গন এইরূপ সাংবাদিকতাকে সমর্থন করেন কিনা তাও জনসমক্ষে বিবৃতি দান করা একান্ত প্রয়োজনীয় । তা না হলে সাধারণের সংবাদের ওপর বিশ্বাস কমে ট্রোল নামক অপসংকৃতির ওপর বিশ্বাস বাড়বে ।

    ক্রমবর্ধমান মূল্যবৃদ্ধি , জ্বালানি সঙ্কট , অপশাসন , রাজনৈতিক মতাদর্শের অপমৃত্যু , ধর্মবিদ্বেষী মৌলবাদী শক্তির আস্ফালন , সরকারি বেহাল শিক্ষাব্যবস্থা , শিক্ষার অসাম্য , সর্বাধিক পরিমান বেকার সমস্যা ,দীর্ঘদিন সরকারি শিক্ষার অচলাবস্থা , এত সব জ্বলন্ত সমস্যার সংবাদের বাইরে গিয়ে যদি ' আমব্রেলা ' নামক বানান জ্বলন্ত সংবাদ বা ব্রেকিং নিউজ হয় বা করার চেষ্টা হয় তা হলে তা নিঃসন্দেহে ইহা হলুদ সাংবাদিকতা । তাহলে কি ইয়েলো কিডরা আবার ফিরে আসছে । আসলে গাণিতিক ভাবে 5W + 1H সূত্রটি ভুল । হওয়া উচিত (5W + 1H)-1Y

    1Y হল ইয়েলো সাংবাদিকতা ।

    উত্তর সময় দেবে সাংবাদিকগণ সংবাদ বাঁচান না ইয়েলো কিডদের ।

    ---------------------
     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • Rumjhum Bhattacharya | ১৮ জুন ২০২২ ১১:৩২509130
  • অত্যন্ত জরুরী বার্তা, কেবল প্রশ্ন একটাই গোটা সমাজ যখন এই চটকদারী বার্তায় ঝুঁকে পড়েছে তখন বিশেষ করে সাংবাদিকদের দোষ দিয়ে কি লাভ? গোছা গোছা ছেলে মিডিয়া সায়েন্স না কি ছাই পাঁশ পড়ছে অথচ বাজারে চাকরি নেই। আমাদের দেশে পড়ার খামতি নেই কিন্তু সরকার বলে দিয়েছে চাকরি চেয়ো না। এদিকে বাদাম কাকু তৈরি করতে পারলে রাতারাতি বিশ্ব বিখ্যাত হওয়ার সুযোগ। একটা আম্রেলা খবর লক্ষ লক্ষ ভিউ বেকার সাংবাদিকদের দোষ দিয়ে কি ব্যবস্থা পাল্টানো যাবে? আপনি যে সংবেদনশীলতা আশা করছেন তা আজ ডুমুরের ফুল। যে এই সংবাদ পরিবেশন করছে তার বাধ্যবাধকতাও এড়িয়ে যাওয়া যায় না।
  • বিপ্লব রহমান | ২৩ জুন ২০২২ ০৯:৩৭509294
  • "ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়ার সংবাদ যুগে অনেকে আবার সহজ রূপে সংবাদ পরিবেশনের একটা ফর্মুলা বের করেছেন । ফর্মুলাটা হল ( 5W + 1H ) ।  যার পূর্ণরূপ 5W মানে- What , Where , Who , Whom, When , আর‌ 1H মানে How " 
     
    একদম বাজে কথা। 
     
    আধুনিক সংবাদ মাত্রই এই সূত্র অনুসরণ করে, সোশ্যাল মিডিয়ার এইখানে বেল নাই! 
     
    আড়াই দশক ধরে তথ্য সাংবাদিকতায় চড়ে বেড়াচ্ছি, এই শিশুতোষ ভুলভাল লেখায় হেসে গেলাম laugh
  • আফতাব হোসেন | ২৩ জুন ২০২২ ১৮:১৭509310
  • @বিপ্লব রহমান দাদা,
    মেনস্ট্রিম সাংবাদিকতা বা সংবাদে ট্রোল কালচার খুব একটা দেখি না , 
    আমি তথাকথিত ফেবু সাংবাদিক বা সোশ্যাল মিডিয়ার ভিডিওকে সংবাদ বলে মনে করা একদলের কথা বলছি বা চাইছি।
    ভাজা বাদাম অনেক পরে মেনস্ট্রিম এ এসেছে ।
     তার অনেক আগেই সোশ্যাল মিডিয়া কাঁপিয়েছে ।
    এই সব ছোট ছোট , অসংগঠিত ক্ষেত্র কেও কিন্তু গ্রাসরুট মিডিয়া ভাবে । 
     
     
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। যা খুশি মতামত দিন