এই সাইটটি বার পঠিত
ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • টইপত্তর  ছবি

  • গুরুচন্ডালদের নানা ছবি 

    &/
    ছবি | ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ২৯৪৯৭ বার পঠিত
  • এখানে আপনারা নিজেদের তোলা বা আঁকা ছবি তুলে দিন। 
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • kk | 2601:448:c400:9fe0:b0ec:acc4:ab5b:658d | ১১ নভেম্বর ২০২২ ২২:০৫738888
  • অ্যান্ডরের প্রথম ছবিটা খুব ভালো লাগলো। দ্বিতীয় ছবিটা অনেকগুলো পুরনো প্রিয় জায়গার কথা মনে করালো।
    যদুবাবুর ছবি ও লেখাও ভালো লেগেছে।
  • র২হ | 96.230.209.161 | ১২ নভেম্বর ২০২২ ০৫:২৫738890
  • বাইরে বৃষ্টি হচ্ছে
     
  • র২হ | 96.230.209.161 | ১২ নভেম্বর ২০২২ ০৫:৩২738891
  • গাছে তিনটে ভুত আর পুরনো বিটল।
     
  • সুকি | 49.206.130.5 | ১২ নভেম্বর ২০২২ ০৫:৩৪738892
  • জীবনের গোপন রহস্য আবিষ্কার করে ফেলেছি বলে অনেকে দাবী করে। আজকাল তো আবার মোবাইলে ম্যাসেজও আসে আপনাকেও সেই গোপনীয়তা উদঘাটনে সামিল করার আহ্বান জানিয়ে। তাছাড়া রেলের কামরায় বা টয়লেটেও কাগজ চেটানো থাকে জীবনের নানা গোপন ব্যাপার স্যাপার নিয়ে

    তো এই সব দাবী দাওয়ার বাইরে জীবনের প্রকৃত গোপন রহস্য উন্মোচনের ঘটনা যদি ঘটেই থাকে তাহলে সেটা ঘটেছিল ১৯৫৩ সালের ২৮শে ফেব্রুয়ারী। 

    সেদিন সকাল সকাল ক্যাভেন্ডিস ল্যাবে পৌঁছে ওয়াটসন বসলেন ধাঁধা নিয়ে। সেই কবে থেকে লড়ে যাচ্ছেন ধাঁধার টুকরোগুলি নিয়ে তিনি আর সহযোগী গবেষক ক্রীক। কিন্তু কিছুতেই মেলাতে পারছেন না শেষটা - যাই সমাধান করেন, তাতেই কিছু না কিছু ভুল বের করে কেউ না কেউ! মিলছেই না এই জিগ-স পাজেল!

    সেদিন কি মনে হতে ওয়াটসন ক্ষারগুলির কিটো ফর্ম নিয়ে নাড়াচাড়া করতে করতে জুড়েদিলেন অ্যাডিনিন এর সাথে থাইমিন, আর ওদিকে গুয়ানিন এর সাথে সাইটোসিন। ব্যাস, খাপে খাপে বসে গেল। অনেকটা নিমোর রেলকেবিনের দয়াল কাকার হাড় বসানোর মত। আমরা ছোটবেলায় খেলতে গিয়ে খিল সরে গেলে হাড় বসাতে যেতাম দয়ালকাকার কাছে। ব্যাপার খুব সোজা মনে হলেও যারা খিল বসায় তারাই জানে সে কি জটিল ব্যাপার। তেল মালিশ করতে করতে করতে সেই হ্যাঁচকা আর খট করে শব্দ। বোঝা যায় হাড় বসল। সে দিন ওয়াটসন A এর সাথে T, আর G এর সাথে C বসাতেই DNA এর খট হয়ে গেল!

    খানিক পরে ল্যাবে এল ক্রীক। সে DNA এর খিল বসে গেছে শুনে খুবই আনন্দে মাতল, কিন্তু তার সাথে এও বলল যে আরেক বার তাহলে খিলটা ঠিক ঠাক বসেছে কিনা চেক করে নেওয়া যাক।

    চেক করতে দুপুর হয়ে গেল, দেখা গেল খিল একদম খাপে খাপে বসেছে। ওয়াটসনকে জড়িয়ে ধরে ক্রীক বলে উঠলো, "গুরু করেছো কি! তুমি তো দয়ালের বাপের ওপরে!"। ওয়াটসন বলল,

    - তাহলে চলো একটু বিয়ার প্যাঁদানো যাক এই আনন্দে, আর পাবের সবাইকে খবরটা দেওয়া যাক
    - খুব ভালো প্রস্তাব। তাহলে কি রোজালিন্ড-কেও ডেকে নেব?
    - পাগল নাকি! রোজি পাবে কি করবে! আগে পাবলিশ করি, তারপর তাকে বলা যাবে বিস্তারে!

    ওয়াটসনের সাথে রোজি মানে রোজালিন্ড ফ্র‍্যাঙ্কলিনের ঠিক জমত না। অথচ রোজালিন্ড  DNA এর এক্স-রে টা নামিয়ে এদের হাতে না দিলে কোনভাবেই খিল বসত না। সেকালে মহিলা হয়ে রিসার্চ করা অত সহজ ছিল না, ছিল পদে পদে বাধা আর পুরুষতান্ত্রিক রিসার্চ ব্যবস্থায় থেকে বঞ্চনা

    তাই সেদিন রোজালিন্ডকে ছাড়াই ওয়াটসন আর ক্রীক চলল ক্যাভেন্ডিস ল্যাবের পাশেই তাদের প্রিয় পাব ঈগল এ। এখানে তাদের দুজনের জন্য একটা কোণার টেবিল প্রায় রিজার্ভ হয়ে থাকে। সেই টেবিলে বসেই দুজনে দিনের পর দিন DNA এর খিল কিভাবে বসানো যায় সেই নিয়ে আলোচনা আর তর্কে কাটিয়েছে

    সেদিন দুপুরে পাবে যারা ছিল তারা ভাগ্যবান কারণ তারাই প্রথম শুনেছিল মানুষের জীবনের গোপন রহস্যের সবচেয়ে কাছে আসার গল্প। আর সারা পৃথিবী জেনেছিল সেই বছরেরই ২৩শে এপ্রিল, নেচার পত্রিকায় ওয়াটসন আর ক্রীকের পেপারটি ছাপা হবার পর।

    নোবেল যে পাবেনই সেটা ওয়াটসন এবং ক্রীক দুজনাই জানতেন। শুধুই সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু তাঁরা রোজালিন্ডের সাথে নোবেল ভাগ করে নিতে চান নি, রোজালিন্ড ছিলেন উপেক্ষিত। যদিও শোনা যায় ওয়াটসন নাকি দুই একবার বলেছিলেন, আমরা যদি চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পাই, তাহলে রোজিকে রসায়নে নোবেল দেবার কথা ভাবতে পারেন কর্তৃপক্ষ। 

    অবশেষে ১৯৬২ সালে নোবেল পেলেন ওয়াটসন ও ক্রীক। কিন্তু ততদিনে রোজালিন্ড এই পৃথিবীর মায়া কাটিয়েছেন ক্যান্সারে, মাত্র ৩৭ বছর বয়সে ১৯৫৮ সালে। মরনোত্তর নোবেল নেই বলে রোজালিণ্ড রয়ে গেলেন অচ্ছুৎ। এর অনেকদিন পরে ক্যাভেন্ডিস ল্যাব অফিসিয়াল স্বীকৃতি দেয় রোজালিন্ড কে ওয়াটসন এবং ক্রীকের সাথে সহ আবিষ্কারক বলে

    এই DNA গঠন আবিষ্কারের গল্প খুবই চমকপ্রদ। বাংলায় কিছু লেখা হয়েছে - কিন্তু যেগুলো আমি পড়েছি তারা কেউই জমিয়ে গল্পটি বলতে পারেন নি। যদি সময় পাই এই নিয়ে লেখার ইচ্ছে রইল। 

    যাই হোক যতবার কেমব্রীজ যাই একবার ঢুঁ মেরে আসি সেই ঈগল পাব দিয়ে। ঈগল পাব পুরানো হয় না, আর যদিও পুরানো হয়, তার পাশের আইসক্রীমের দোকানটি তো একদমই চিরনতুন!
     
     
     
  • সম্বিৎ | ১২ নভেম্বর ২০২২ ০৬:১২738893
  • বৃষ্টি হলো খুব। এ সপ্তাহের গোড়ায়। এখানে তো বছর কয়েক ধরে খরা খরা খরা। তাই গাছেরা বৃষ্টির ফোঁটা মাটিতে পড়তে দিচ্ছে না।
     
     
     
  • dc | 2401:4900:1cd1:4c94:d8af:1904:75ca:499a | ১২ নভেম্বর ২০২২ ০৮:৪০738894
  • সুকির ঈগল বারের ছবি আর গল্প, দুটোই অসাধারন। রোজালিন্ড ফ্র‌্যাংকলিন, জেমস ওয়াটসন, আর ফ্রান্সিস ক্রিকের গল্প পড়তে খুব ভালো লাগলো। 
  • | ১২ নভেম্বর ২০২২ ১১:০৭738902
  • ইলোরা ৩২ নম্বর গুহা - জৈন গুহা
     
  • | ১২ নভেম্বর ২০২২ ১১:১২738903
  • আট্টু ক্রপ করা
     
  • &/ | 151.141.85.8 | ১৩ নভেম্বর ২০২২ ১৪:১৫738910
  • জোড়া রামধনু
  • &/ | 151.141.85.8 | ১৩ নভেম্বর ২০২২ ১৪:১৭738911
  • রামধনুর ভাঙা টুকরো অথবা গড়ে না উঠতে পারা রামধনু
  • সুকি | 49.206.130.5 | ১৩ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৫৪738912
  • আলতা পরা এখন প্রায় লুপ্তপ্রায় আর্ট। এক গ্রীক ললনার পা আলতায় সাজিয়ে দিচ্ছে নাপিত বৌ
     
  • সুকি | 49.206.130.5 | ১৩ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৫৯738913
  • আর এক পোলিশ ললনার হাতের মেহেন্দী 
     
  • দীপাঞ্জন মুখোপাধ্যায় | ১৪ নভেম্বর ২০২২ ০০:৩৭738915
  • জোড়া রামধনুর ছবিতে বৃষ্টির ছাঁটও ভালো এসেছে। 
     
    র২হর রাত্তিরের ছবিগুলো গা ছমছমে। 
  • kk | 2601:448:c400:9fe0:c932:153c:b92a:2614 | ১৪ নভেম্বর ২০২২ ০৭:২৪738916
  • পাতা আর বৃষ্টির ফোঁটার ছবি দেখে আমিও একটা দিলাম। পাতায় পাতায় বিষন্নতা, গাছেরও মন কেমন করে --
     
  • &/ | 107.77.237.113 | ১৪ নভেম্বর ২০২২ ০৮:৪৯738917
  • ফোন আঁকা আন্ড্রোমিডা 
  • &/ | 107.77.237.113 | ১৪ নভেম্বর ২০২২ ০৯:০৬738918
  • লালচুলো গাছমেয়ে , হাতে পাতার বটুয়া 
  • | ১৬ নভেম্বর ২০২২ ২০:১৪738921
  • অজন্তা ২ নম্বর গুহা
     
  • যোষিতা | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০১:৫৯738922
  • গাছের ওপর চড়ে গেছি
  • যোষিতা | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০২:০২738923
  •  
    কিন্তু নামতে পারি না
  • যোষিতা | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০২:০৪738924
  • তারপর মই এলো নামবার জন্য
  • kk | 2601:448:c400:9fe0:904f:a07b:12b9:b76c | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০৩:৪১738925
  • যোষিতাদির প্রথম ছবিতে ঐ আকাশময় গাছ আমার খুব ভালো লাগছে। বিল্লি অ্যাডেড অ্যাট্রাকশন। অ্যান্ডরের লালচুলো গাছমেয়ের ছবিটাও ভালো লাগলো। ফোনে আঁকা ছবিগুলো অবশ্য আমি তত ভালো বুঝিনা।
    আর ভালো লাগলো অজন্তার দ্বিতীয় গুহা। এই মুর্তিরই সামনে আর দুই পাশ থেকে আলো ফেলে মুখের তিনরকম এক্সপ্রেশন দেখানো হয়না? আমি বহু বছর আগে গেছিলাম। মনে হচ্ছে যেন এটাই।
  • kk | 2601:448:c400:9fe0:904f:a07b:12b9:b76c | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০৩:৪২738926
  • আমি দুটো পুরোপুরি আন-এডিটেড ছবি দিলাম। আজই বিকেলে তোলা।

    এক নং --
  • kk | 2601:448:c400:9fe0:904f:a07b:12b9:b76c | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০৩:৪৩738927
  • দুই নং --
     
  • &/ | 107.77.237.113 | ১৭ নভেম্বর ২০২২ ০৮:৫২738928
  • কী দারুণ ! বরফের ছড়ি !!! বরফ পড়া শুরু হয়ে গেল তোমাদের ওখানে ?
  • &/ | 107.77.232.58 | ১৯ নভেম্বর ২০২২ ২৩:৩৫738960
  • সন্ধ্যেবেলা আলো জ্বলবে 
  • &/ | 107.77.232.58 | ১৯ নভেম্বর ২০২২ ২৩:৪১738961
  • নীল হ্রদ ( ডিজিটাল আঁকা )
  • র২হ | 96.230.209.161 | ২৩ নভেম্বর ২০২২ ০৭:৩০738967
  • নিঝুম নিশুতি রাতে, একা শুয়ে তেতালাতে, খালি খালি খিদে কেন পায় রে?
     
  • র২হ | 2601:c6:c87f:c858:d86d:8ab:1686:97c9 | ২৪ নভেম্বর ২০২২ ২৩:৩৬738981
  • মা ফলেষু
     
  • যোষিতা | ২৪ নভেম্বর ২০২২ ২৩:৪৩738984
  • আজ এথেন্সে। রেস্টুরেন্টে ম্যানেজার।
  • হজবরল | 185.220.100.241 | ২৪ নভেম্বর ২০২২ ২৩:৫৯738985
  • রেগে আচে
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। আলোচনা করতে মতামত দিন