• টইপত্তর  বাকিসব  মোচ্ছব

  •  ভালো থাকুন স্যার 

    সুজিত বসু
    বাকিসব | মোচ্ছব | ০৫ মার্চ ২০২১ | ৩২৬ বার পঠিত
  • পছন্দ
    জমিয়ে রাখুন পুনঃপ্রচার
  •  

     

    সেদিন হোয়াটসঅ্যাপে দুটি মেসেজ পেলাম:

    দুই মহিলা শিক্ষক দিবসে আমাকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন;

    একজন বৈজ্ঞানিক , আর একজন অধ্যাপিকা

    মজার কথা এই যে আমি কখনো শিক্ষকতা করিনি,

    তবে অতীতে এঁদের গবেষণায় কিছু সাহায্য করেছিলাম

    এঁরা সেটা মনে রেখে মেসেজ পাঠিয়েছেন ;

    হঠাৎ আপনার কথা মনে পড়লো স্যার;

    ফোনটা তুলে আপনার নম্বর ডায়াল করলাম

    উত্তরে একটা কাঁপা গলা ভেসে এলো;

    কিছু বলার আগে মন ফিরে গেল সেই সোনাঝরা দিনে

    কলেজের ছোট ঘরে ব্ল্যাকবোর্ডের সামনে আপনি

    হাতে চক আর ডাসটার, বোর্ডে অজস্র সমীকরণ

    জানালার খড়খড়ি দিয়ে শেষ বিকেলের মরা আলো আপনার মুখে আঁকছে

    অপরূপ কারুকার্য

    বোর্ডে লাটটুর ছবির উপর হাত রেখে একাগ্র আপনি বোঝাচছেন তার জটিল গতি

    কিন্তু আমাদের মনও তখন আরেক দুরন্ত লাটটু

    অবাধ্য চোখ চলে যাচ্ছে সহপাঠিনীর খসে পড়া আঁচলের দিকে

    সেখানে উঁকি দিচ্ছে রহস্যময় গিরি কন্দর উপত্যকা

    আমরা তো তখন সবে যৌবনের প্রবেশ দ্বারে

    মনও তখন অরণ্যের বাধাহীন হরিণ

    আজ বুঝি সেদিন ভুল করেছিলাম, আরো মনোযোগী হওয়া উচিত ছিল আপনার পড়ানোতে

    আপনি কিন্তু প্রাণপণ চেষ্টা করতেন বোঝানোর জন্য

    আসলে আপনারও তো সেই প্রথম অধ্যাপনা

    ধীরে ধীরে সম্পর্কটা আরো সহজ হতে লাগলো, শুধু শিক্ষক ছাত্রের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলো না

    হয়ে উঠলো আরো যেন গভীর কিছু

    আপনার মেসে যাতায়াত শুরু করলাম

    কত সহজ করে বোঝাতেন পদার্থ বিদ্যার জটিল সূত্র গুলি

    তারপর পাড়ার চায়ের দোকানে চায়ের সঙ্গে গরম অমলেট

    পরে দেশ বিদেশের বহু শহরে বহু অমলেট খেয়েছি, আমি নিজেও এখন বানাতে পারি

    কিন্তু জানেন স্যার সেই স্বাদ আর কখনো পাই নি

    আসলে সেই অমলেটে অনুপান থাকতো আপনার আন্তরিক ভালোবাসার সুগন্ধ আর হয়তো আমাদের যৌবনের তীব্র ঝাঁজ,

    তা আজ আর আমি পাবো কোথায় !

    এখনও মনে আছে আপনি উপহার দিয়েছিলেন ফাইনম্যানের সেই বিখ্যাত লাল মলাটের পদার্থ বিদ্যার বই;

    আপনার সেই উপহারকে ধ্বংস করেছে সময়

    যদিও আমি আবার কিনেছি, মলাটের রঙ কিন্তু অন্য;

    অক্ষরগুলো যদিও একই আছে , পড়তে গেলেই কিরকম ঝাপসা হয়ে যায়

    আসলে এই বইতে তো আর আপনার শুভেচ্ছা মিশে নেই

    তাই সব অস্বচ্ছ হয়ে যায়

     

    আরো মনে আছে গড়বেতায় আপনার মায়ের হাতের পোস্ত বড়া

    পরে দোকানেও খেয়েছি, বাড়িতে বউও বানায়, কিন্তু কোথায় যেন কিছুটা ফাঁক থেকে যায়

    যদি আর একবার খাওয়াতেন স্যার

    জানি আপনার মা আর নেই, কিন্তু বউদি তো আছেন

    আপনি পাশে থেকে মিশিয়ে দেবেন যৌবনের সেই বিস্মৃত প্রীতির অনুপান

     

    অনেক বছর তো কেটে গেল, আপনার স্মৃতিও ধূসর হয়ে এসেছিল

    নামী সংস্হার বৈজ্ঞানিক হয়ে মনে হয়তো একটু অহংকারও হয়েছিল

    আমার গবেষণাপত্র গুলো তো বিদেশের বহু জার্নালে ছাপা হয়েছে

    তাই দম্ভ কানে কুমন্ত্রণা দিত

    মফস্বলের ছোট কলেজের অধ্যাপকের কথা ভুলে যা

    যেমন আমরা ভুলে যাই কে আমাদের হাঁটতে শেখালো,কে পরিচয় ঘটালো অক্ষর আর সংখ্যার সঙ্গে

    কিন্তু এখন জীবননদী দ্রুত ছুটছে মোহনার দিকে

    ক্রমে ঘুচে যাচ্ছে ব্যবধান

     

    মেসেজ দুটি ধুয়ে দিল বিস্মৃতির পলিমাটি

    মনে করালো আপনাকে শ্রদ্ধা জানানোর কথা

    জানি না আর কতদিন জানাতে পারবো

    ভালো থাকবেন স্যার

    হয়তো স্বার্থপর মনে হবে তবু বলবো

    আপনি চলে গেলে যে আমারও যাওয়ার ঘন্টা বেজে যাবে

    আর শেষ হয়ে যাবে সেই সব উজ্জ্বল দিনের সোনালি স্মৃতি

    সেই শেষ বিকেলের আলোর আবিরে আপনার মুখে কারুকার্য

    জামায় চকের রুপোলি গুঁড়ো, ব্ল্যাকবোর্ডে গ্রীক অক্ষরের সুরম্য দৃশ্যাবলী

    ভালো থাকুন স্যার, ভালো থাকুন।

     

     

আরও পড়ুন
মা  - Mousumi GhoshDas
আরও পড়ুন
মা - Ajay Mitra
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ঝপাঝপ মতামত দিন