• টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। যে কোনো নতুন আলোচনা শুরু করার আগে পুরোনো লিস্টি ধরে একবার একই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে কিনা দেখে নিলে ভালো হয়। পড়ুন, আর নতুন আলোচনা শুরু করার জন্য "নতুন আলোচনা" বোতামে ক্লিক করুন। দেখবেন বাংলা লেখার মতো নিজের মতামতকে জগৎসভায় ছড়িয়ে দেওয়াও জলের মতো সোজা।
  • করোনা

    pi
    বিভাগ : অন্যান্য | ১২ মার্চ ২০২০ | ২৮২৪ বার পঠিত
  • ভাটে ক'দিন ধরে রি নিয়ে প্রচুর লেখালেখি হচ্ছে। একজায়গায় থাকুক না। সুবিধেও হয়। কারণ ঠিক্লঠাক তথ্য, নিত্যনতুন গবেষণার ফলাফল, কোনগুলো মিথ, এসব একজায়গায় থাকলে তো ভালই হয়। এই প্যানডেমিকের বাজারে।
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1 | 2 | 3
  • দ্যুতি | 172.69.134.188 | ১৫ মার্চ ২০২০ ০১:১৭730018
  • এখানের এক কেস বলি, গতকাল কত্তার অফিসে কি আই এস কি সংস্থা বলে সেখান থেকে এসেছে করোনা পজিটিভ কেউ আছেন খুঁজতে, কোয়ার্টারস নাম্বার দিচ্ছে, কিন্তু সেখানে সেন বলে তো কেউ থাকে না, অধুনা যারা আছেন তাদের জিজ্ঞেস ফিজ্ঞেস করা হয়। এ সময় এখানের আমাদের মত পুরনো আরেক অফিসার ব্যাপারটা ধরেন। তিনি কোলিয়ারি ম্যানেজার পোস্টে এখন। সেন পদবি যাদের তারা আসলে খান ছিলেন,শেষের দিকে ওই পদবি চেঞ্জ করে সেন হয়েছিলেন। যে টা অনেকেই ভুলে গেছি। ওনার ছেলে মেয়েরা বাইরে পড়তে যা। এখন চাকরি করছে। ওনার মেয়ের নাম বলতে চিনতে পারেন আমাদের ম্যানেজার পাঁজা সাহেব। আমরা সবাই চিনতাম। বুঝলাম সেই অদ্রিজা ব্রাজিল থেকে পজিটিভ কিছু নিয়ে দিল্লিতে নামে। আর তাই সাথে সাথে খোঁজ শুরু। এদের পাসপোর্ট এ ওই পুরানো ঠিকানা হয়ত।

    খোঁজ নিতে পারিনি। তবে ভালোহয়েউঠুক এই কামনা করি। কত লোকের সন্তান এমন বাইরে আটকে। কি যে চলছে। কত বন্ধুর ছানা বাড়ি আসতে পারলো না।
  • অরিন | 198.41.238.121 | ১৫ মার্চ ২০২০ ০২:২১730020
  • এটাও আগেরটার মতই ইনফরমেটিভ। এবং এটাতে ওই ফ্ল্যাটেন দ্য কার্ভ এর বদলে কন্টেইনমেন্ট করতে বলেছে।

    যে যায় লিখুক, লেখাগুলো পড়ার সময় কতগুলো বিষয় মাথায় রাখা জরুরি:

    - ncov19 চিনে যখন প্রথম শুরু হয়েছিল, তখন প্রথমে পশু থেকে মানুষে ছড়িয়েছিলো, কিন্তু ইউরোপে আমেরিকায় অস্ট্রেলিয়ায় মানুষ থেকে মানুষে ছড়াচ্ছে ।
    - মোটামুটিভাবে ১ জন মানুষের থেকে ২ কি তিন জন মানুষের মধ্যে, যাদের অসুখ হয়নি, কিন্তু হতে পারে, তাদের মধ্যে ভাইরাস ছড়াতে পারে । এই বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ । কারণ যাদের একবার অসুখ হয়ে গ্যাছে এবং সেখান থেকে তারা উদ্ধার পেয়ে গ্যাছে এদের মধ্যে দু ধরণের মানুষ আছে: একদল, যারা সম্পূর্ণ সুস্থ্য, এবং আরেক দল যারা আপাত ভাবে সুস্থ কিন্তু ভাইরাস ক্যারি করছে । এই দ্বিতীয় দোলে কারা এখনো অবধি জানা যাচ্ছে না । যায় হোক, প্রথমবারের পর ইনফেকশন কিন্তু এক জন দুই কি তিন জনকে দেবেন এই হিসেবে ছড়াবে না , আরো কমে যাবে ।
    - অতএব, ভাইরাস ধরেছে বা ধরার সম্ভাবনা আছে বুঝে যদি কেউ বাড়ির বাইরে না বেরোন ও দ্রুত পরীক্ষা করিয়ে নেন, তাহলে তিনি খুব নিকটাত্মীয় বাদে আরো অনেককে ভাইরাস দেবেন না, এখন অসাবধানে বোরো পরিবারে অসুখ ছড়ালে ব্যাপারটা বৃদ্ধদের পক্ষে খুব খারাপ হবে (যেটা ইতালিতে হয়েছে ) । এ বাবদ ছোট পরিবারে বা যেসব দেশে ছোট পরিবারে আটকে থাকা সম্ভব, সেখানে এই পদ্ধতি কাজে দেবে ।
    - তার মানে কি অসুখ ছড়াবে না? তা নয় । কিন্তু ছড়ানোর স্পিড কমে যাবে ।
    - ১০০ জন আক্রান্ত মানুষের মধ্যে 20 জন মানুষের অবস্থা সাংঘাতিক হতে পারে যার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হতে লাগবে । যে দেশে হাসপাতালের বেড সংখ্যা সীমিত, যেখানে কেয়ার এর এক্সেস গোলমেলে , সেখানে হঠাত করে বহু সংখক কেস এসে গেলে সামলানো যাবে না । তাছাড়া আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলে সেরে উঠতে সময় লাগবে । বেড ছোট করে খালি পাওয়া যাবে না, তার ওপরে অন্যান্য কেস লোড তো আছেই ।
    - এদিকে ১০০ এ কুড়ি জন এ ব্যাপারটা এই মুহূর্তে কমানোর উপায় নেই কারণ ভ্যাকসিন নেই, ওষুধ নেই যা outpatient এ দেওয়া যায় । লোকে করবেটা কি?
    - সেই জন্যে অসুখটা ছড়াবে জেনে ও মেনে নিয়ে কার্ভটাকে যতটা টেনে লম্বা করে দেয়া যায় তার চেষ্টা । অতএব কন্টেনমেন্ট সেলফ isolation , বার বার করে পরীক্ষা করে দেখ যাতে কাজ হয় সব কিছু করা উচিত ।
  • pi | 162.158.227.55 | ১৫ মার্চ ২০২০ ০২:২৫730021
  • এরাও তো তাই বলছে। হাস্পতালের লোডের হিসেব করে। সোশাল আইসোলেশন
  • pi | 162.158.227.55 | ১৫ মার্চ ২০২০ ০২:২৯730022
  • এছাড়াও জাপানে না কোথায় যেন দেখলাম রিল্যাপ্স হয়েছে।

    ইন্ডিয়ার এই ড্রাগ থেরাপি কেমন কাজ করে দেখা যাক।
    জয়পুরের এক বৃদ্ধ দম্পতি তো সুস্থ হয়ে ফিরলেন।
  • pi | 162.158.23.108 | ১৫ মার্চ ২০২০ ১৬:২৯730026
  • ঃ(।
    Man from Diamond Princess Gets Reinfected | According to Japanese news agency NHK, a man who was on Diamond Princess — the cruise ship which was quarantined for weeks — has become reinfected with coronavirus. Officials in western Japan's Mie Prefecture said the man, who is in his 70s, had recovered but has tested positive again. He had returned to his home in Mie by public transportation.
  • π | 162.158.23.108 | ১৫ মার্চ ২০২০ ১৭:৪৫730033
  • ইন্ডিয়াতেও করোনাভাইরাস আইসোলেট করা হল।
  • π | 172.68.146.187 | ১৫ মার্চ ২০২০ ১৯:০৬730042
  • It is applicable to every country only the number of bed available to support acute case will change!!!
    PLEASE ACT SENSIBLE!!

    PLEASE read this from Harvard School of Public Health:

    #socialdistancing

    From Asaf Bitton, MD, MPH:
    I know there is some confusion about what to do next in the midst of this unprecedented time of a pandemic, school closures, and widespread social disruption. I have been asked by a lot of people for my opinion, and I will provide it below based on the best information available to me today. This is my personal and well-informed opinion, and my take on the necessary steps ahead.

    What I can say as a physician and public health leader, is that what we do, or don't do, over the next week will have a massive impact on the local and perhaps national trajectory of coronavirus. We are only about 11 days behind Italy and generally on track to repeat what is unfortunately happening there, as well as much of the rest of Europe very soon. At this point, containment through contact tracing and testing is only part of the necessary strategy. We must move to pandemic mitigation through widespread, uncomfortable, and comprehensive social distancing. That means not only shutting down schools, work (as much as possible), group gatherings, and public events. It also means making daily choices to stay away from each other as much as possible to Flatten The Curve (see below).

    Our health system will not be able to cope with the projected numbers of people who will need acute care should we not muster the fortitude and will to socially distance each other starting now. On a regular day, we have about 45k ICU beds nationally, which can be ramped up in a crisis to about 93k. Even moderate projections suggest that if current infectious trends hold, our capacity (locally and nationally) may be overwhelmed as early as mid-late April. Thus, the only set of interlinked strategies that can get us off this concerning trajectory is to work together as a community to maintain public health by staying apart.

    So what does this enhanced form of social distancing mean on a daily basis, when schools are cancelled?

    I can suggest the following:

    1. No playdates, parties, sleepovers, or families visiting each other's houses. This sounds extreme because it is. We are trying to create distance between family units and between individuals across those family units. It is uncomfortable, especially for families with small children or for kids who love to play with their friends. But even if you choose only one friend to have over, you are creating new links and possibilities for the type of transmission that all of our school/work/public event closures are trying to prevent. The symptoms of coronavirus take 4-5 days to manifest themselves. Someone who comes over looking well can transmit the virus. Sharing food is particularly risky - I definitely do not recommend that people do so outside of their family. We have already taken extreme social measures to address this serious disease - let's not actively co-opt our efforts by having high levels of social interaction at people's houses instead of the schools. Again - the wisdom of early and aggressive social distancing is that it can flatten the curve above, give our health system a chance to not be overwhlemed, and eventually may reduce the length and need for longer periods of extreme social distancing later (see what has transpired in Italy and Wuhan). We need to all do our part during these times, even if it means some discomfort.

    2. Take walks/runs outside, but maintain distance (ideally 6 feet between people outside your family). Try not to use public facilities like playground structures as coronavirus can live on plastic and metal for up to 3 days, and these structures aren't getting regularly cleaned. Try not to have physical contact with people outside of your family. Going outside will be important during these strange times, and the weather is improving. Go outside every day if you can but stay physically away from others. Try not to have kids play with each other (even outside) if that means direct physical contact. Even basketball or soccer involve direct contact and cannot be recommended. If people wish to go outside and have a picnic with other families, I strongly recommend keeping distance of at least 6 feet, not sharing any food at all, and not having direct physical contact. Invariably, that is hard with kids, so these shared, "distant" picnics may be tricky. Do not visit nursing homes or other areas where large numbers of the elderly reside, as they are at highest risk for complications and mortality from coronavirus. We need to find alternate ways to reduce social isolation in these communities through virtual means instead of physical in-person visits.

    3. Reduce the frequency of going to stores/restaurants/coffee shops for the time being. Of course trips to the grocery store will be necessary, but try to limit them and go at times when less busy. Consider wearing gloves (not medical - but perhaps washable) and of course washing hands before and after really well. Leave the medical masks and gloves for the medical professionals - we need them. Maintain social distance from folks. Take-out meals and food are riskier than making food at home given the links between the people who prepare food, transport the food, and you. It is hard to know how much that risk is, but it is is certainly higher than making it at home.

    4. If you are sick, definitely stay home and contact a medical professional. If you are sick, you should try isolate yourself from the rest of your family within your house as best as you can. If you have questions about whether you qualify or should get a coronavirus test, you can call you primary care team and/or consider calling the Partners Health Care hotline staffed 8AM-8PM every day - 617 724 7000, or the Massachusettes department of public health at 617 983 6800. Don't just walk in to an ambulatory clinic - call first. Obviously if it is an emergency call 911.

    5. We need to push our local, state, and national leaders to close ALL schools, events, gatherings, and public spaces now. A local, town by town response won't have the needed effect. We need a statewide, nationwide approach in these trying times. Contact your representative and the governor to urge them to enact statewide closures. As of today, 6 states had already done so. We should be one of them. Also urge them to fund emergency preparedness and make increasing coronavirus testing capacity an immediate and top priority.

    I realize there is a lot built into these suggestions, and that they represent a real burden for many people, businesses, and communities. Social distancing is hard and may negatively impact others, especially those who face vulnerablities in our society. I recognize that there is structural and social inequity built in and around social distancing recommendations. We can and must take steps to bolster our community response to people who face food insecurity, domestic violence, and housing challenges, along with the many other social inequities.

    I also realize that not everyone can do everything. But we have to try our absolute best as a community, starting today. It is a public health imperative. If we don't do this now voluntarily, it will become necessary later involuntarily, when the potential benefits will be much less than doing so right now.

    Asaf

    Asaf Bitton MD, MPH | Executive Director | Ariadne Labs
    Brigham and Women's Hospital | Harvard T.H. Chan School of Public Health
  • π | 162.158.23.94 | ১৬ মার্চ ২০২০ ০৭:৪৩730050
  • বাপ্স! ইতালিতে একদিনে প্রায় ৪০০০ নতুন কেস,, ৪০০ মত মৃত্যু! চিন, দ: কোরিয়া বাদে বাকি কত জায়গায় কী বেগে ঊর্ধ্বগামী!

    https://www.worldometers.info/coronavirus/
  • quark | 162.158.158.146 | ১৬ মার্চ ২০২০ ১৫:১২730057
  • সাধারণভাবে ইওরোপ, অ্যামেরিকার মানুষের প্রতিরোধ ক্ষমতা কম হওয়াই কি এইসব দেশে এত বেশি সংখ্যক মানুষের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণ?
  • গবু | 162.158.227.55 | ১৬ মার্চ ২০২০ ১৮:০০730060
  • Quark, একদম আমার প্রশ্নটাই করেছেন।

    আর একটা জিনিস: ভারতে টেস্ট penetration খুব কম বলে বিভিন্ন পোস্ট দেখছি। ক্যালকুলেসনের বেসিস কি?
  • π | 162.158.165.197 | ১৬ মার্চ ২০২০ ১৮:৫০730061
  • ইন্ডিয়াতে এক্সপোনেন্সিয়ালিই বাড়ছে তো।

    এটা ইন্ডিয়ার ড্যাশবোর্ড।
    https://covidout.in/

    টি আয় এফ আরের ড: বাসুদেব দাশগুপ্ত এই ক্যালকুলেশনটা করেছে। গ্রাফটা পরে দিয়ে দেব পারলে।

    This is how COVID-19 is growing in India. The first case was on Jan 30. By March 5, that is 35 days after the first case, there were 30 cases. Today on Day 44, there are 84 cases. Will try to keep updating this.

    Details:
    Fit for no. of cases = 30*r^(days since first case -35),
    by anchoring on day 35 on which number of cases was 30. I find r=1.12 or so.
    Data from https://www.mohfw.gov.in/ collected over time.
  • π | 162.158.166.86 | ১৬ মার্চ ২০২০ ১৯:০১730062
  • পুনেতে তো ১৪৪ ধারা চালু হল।দমদি, কী অবস্থা?

    এদিকে মুম্বইয়ের অবস্থা পড়ে ভয়ই লাগছে। দেদি ককই।
    পরশু একজনের পোস্টে এটা পড়লাম, আজ তিনজনের পজিটিভ শুনলাম, এই গাদাগাদি করে টেস্টের অপেক্ষায় বসে থাকা লোকজনই হবেন। তাঁদের ক'জনের মধ্যে ছড়াতে পারে, ভাবতে ভয় লাগছে।

    I went to Kasturba Hospital, the only hospital in Bombay where you can get yourself checked for Corona Virus/Covid-19.

    When you enter they ask you to head to the Corona Virus - Op D, there were about 100 people who queued up. Everyone with a mask, not the N95 mask but the basic mask you can get hold off at a chemist.

    The process is

    1) To get yourself checked from a doctor
    2) If the doctor is of the opinion you need to be checked, they put you in a room and ask you to give a throat swab.

    The doctor’s criteria for MOST check ups is the travel history, which isn’t an ideal criteria, I ween.

    Now the catch here is, the throat swab is taken only at particular hours so if you go before that or after that, they keep you in a room over night/through the day.

    3) If your report is negative they let you out immediately, if not you are going to be in for 14 days, on the 7th and 10th day you are re tested and if negative, you can leave on the 14th day

    I spoke to 3 people who were asked to get themselves checked. They were not kept in quarantine, they were not kept in isolation. Infact these people were kept in same gender rooms with about 10-20 people (any where in this range).

    Let’s just say, you haven’t even got the virus but there is a possibility, and hence have been asked to check, however you are kept in a room with 10-20 infected people (maybe they are), which is absolutely ridiculous. The chances of someone going there for a check up & contracting the virus is steep! People were asked to queue up for hours, I was there for about 3 hours and still wasn’t in, with heaps of people around me.

    My point being, you ask people to stay away from crowded places, to be secluded if down with a flu but have one, ONE center for a check up with bare minimum staff to check, and horrible facilities. When we asked the help there to assist, they were rude and asked us to shut up, and queue.

    Other things, extremely salient - Do not go with an elderly person or a child, take a mask, carry wet wipes, carry a sanitiser, a book and a bottle of water and something to eat when you go there.

    I’m really scared about this entire thing spreading in our city, because I am sure after what I saw today, there is no way, we are going to be able to manage it. They couldn’t hold up 10,000 people. How are they going to manage if this turns crazy like Italy, China, France? People are going to suffer more because of the lack of facilities than their health conditions. I saw it.

    It’s in a pathetic condition and it’s shameful that our country has no no no respect for human lives. We had about 45-60 days to prepare and yet, here we are.

    I’m really not the kinds to bad mouth about India, but what I saw today was shameful. Putting this out here, so it can help whoever needs to be there.

    https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1609351322582515&id=100005229871337
  • π | 162.158.166.58 | ১৬ মার্চ ২০২০ ১৯:৫৭730063
  • ভারতে কিন্তু স্ক্রিনিং বিস্তর হচ্ছে, মানে ঐ জ্বর ,্ট্রাভেল ইতিহাস, কন্টাক্ট ট্রেস করা ইঃ। আজই দেখলাম মমতা বলেছেন সাড়ে তিন লাখ স্ক্রিনিং পবয়েই হয়ে গেছে। অন্য জায়গায় কী হচ্ছে জানিনা, ত্রিপুরার ছোট ্রেলস্টেশনগুলোতেও থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে সবার পরীক্ষা চলছে। কেরালায় দেখলাম ট্রেনে উঠে উঠেও। এবার টেস্ট হচ্ছে অনেক কমজনের, ্ট্রাভেল আর কন্ট্যাক্ট হিস্ট্রি দি্যে।
    এই হপ্তা থেকে কম্যুনিটি স্ক্রিনিং ও হবে, ট্রাভেল হিস্ট্রি ছাড়াও মোটা্মুটি ১০০০ জনে পরীক্ষা ক'রে দেখা হবে।
    এখানে কিছুটা লেখা আছে, পড়ে দেখতে পারেন,
    https://www.msn.com/en-in/news/in-depth/explained-virus-testing-in-india-elsewhere/ar-BB11efh6
    Simply put, community transmission means that a virus is circulating in the community and can affect people with no history of travel to affected areas or of contact with an infected person. That is what ICMR is trying to find out by testing over 1,000 samples from people suffering from influenza-like symptoms but with no history of such travel or contact. India’s current emphasis on social distancing and discouragement of public gatherings, too, is aimed at checking community transmission.
    Once community transmission begins, it is more difficult to trace contacts. One unknown source of infection can wreak havoc — one woman in South Korea, who refused to take the test, has been found to have ended up infecting over 160 people.

    আবার তার সংগে এটাও ্পড়ুন, এই সোশ্যাল স্টিগমা না কাটালে আরো এমন হবে।
    https://www.sify.com/movies/-social-stigma-forcing-corona-patients-to-avoid-screening-in-india--news-bollywood-udqqugajjgdje.html

    কোয়ারেন্টাইন নিয়েও ভয় কাটানো উচিত। এগুলো বেশি করে আসা উচিত। যদিও জানিনা এঁর মত ৌভাগ্য সবার হচ্ছে কিনা।
    https://www.msn.com/en-in/news/newsindia/pranayam-and-netflix-video-calls-to-family-what-delhis-1st-coronavirus-patient-did-in-isolation/ar-BB11eRD1
  • :[email protected] | 172.69.69.21 | ১৬ মার্চ ২০২০ ২১:৩৭730065
  • When the Plague first made its appearance in Calcutta in May 1898, Swamiji, along with other sannyasis including Swami Sadananda and Bhagini Nivedita wanted to start relief operations immediately to help the afflicted.

    The plague epidemic that seized Calcutta created mass hysteria. Relief involved nursing the afflicted in segregation camps and improving public sanitation. When Calcutta was again in the grip of a plague epidemic the following year, a relief programme was instituted on 31 March 1899. Sister Nivedita and Swami Sadananda spearheaded the relief operation.

    The first thing Swamiji did was draft a plague manifesto in Bengali and Hindi. Due to the hard work of Sadananda and Nivedita, the manifesto reached the greater part of the population and considerably reassured them.

    Here is the full text of The Plague Manifesto

    THE PLAGUE MANIFESTO

    Om Salutations to Bhagavan Shri Ramakrishna

    Brothers of Calcutta!

    1. We feel happy when you are happy, and we suffer when you suffer. Therefore, during these days of extreme adversity, we are striving and ceaselessly praying for your welfare and an easy way to save you from disease and the fear of an epidemic.

    2. If that grave disease — fearing which both the high and the low, the rich and the poor are all fleeing the city — ever really comes in our midst, then even if we perish while serving and nursing you, we will consider ourselves fortunate because you are all embodiments of God. He who thinks otherwise — out of vanity, superstition or ignorance — offends God and incurs great sin. There is not the slightest doubt about it.

    3. We humbly pray to you — please do not panic due to unfounded fear. Depend upon God and calmly try to find the best means to solve the problem. Otherwise, join hands with those who are doing that very thing.

    4. What is there to fear? The terror that has entered people's hearts due to the occurrence of the plague has no real ground. Through God's will, nothing of the terrible form that plague takes, as seen in other places, has occurred in Calcutta. The government authorities have also been particularly helpful to us. So what is there to fear?

    5. Come, let us give up this false fear and, having faith in the infinite compassion of God, gird our loins and enter the field of action. Let us live pure and clean lives. Disease, fear of an epidemic, etc., will vanish into thin air by His grace.

    6. (a) Always keep the house and its premises, the rooms, clothes, bed, drain, etc., clean.

    (b) Do not eat stale, spoiled food; take fresh and nutritious food instead. A weak body is more susceptible to
    disease.

    (c) Always keep the mind cheerful. Everyone will die once. Cowards suffer the pangs of death again and again, solely due to the fear in their own minds.

    (d) Fear never leaves those who earn their livelihoods by unethical means or who cause harm to others. Therefore, at this time when we face the great fear of death, desist from all such behaviour.

    (e) During the period of epidemic, abstain from anger and from lust — even if you are householders.

    (f) Do not pay any heed to rumours.

    (g) The British government will not vaccinate anyone by force. Only those who are willing will be vaccinated

    (h) There will be no lack of effort in treating the afflicted patients in our hospital under our special care and
    supervision, paying full respect to religion, caste and the modesty (Purdah) of women. Let the wealthy run
    away! But we are poor; we understand the heartache of the poor. The Mother of the Universe is Herself the support of the helpless. The Mother is assuring us: "Fear not! Fear not!"

    7. Brother, if there is no one to help you, then send information immediately to the servants of Shri Bhagavan Ramakrishna at Belur Math. There will be no dearth of help that is physically possible. By the grace of the Mother, monetary help will also be possible.

    — N. B. In order to remove the fear of the epidemic, you should sing Nâma Sankirtanam [the name of the Lord] every evening and in every locality.

    (Sources: Complete-Works / Volume 9 / Writings: Prose and Poems. Prabudha Bharata Vol 111; May 1, 2006)
  • π | 162.158.23.100 | ১৭ মার্চ ২০২০ ০৮:৫১730070
  • best example is from Seattle, Washington, where on 29 February, Trevor Bedford, a computational biologist at the Fred Hutchinson Cancer Research Centre, and his colleagues reported that the genome of a virus collected from a teenager near the city closely matched that of one collected six weeks earlier, from an unrelated woman in her sixties who had returned to Seattle from China. The simplest explanation was that the virus had spread from the woman to other people, who spread it to yet others, eventually reaching the teenager. Bedford’s team calculated that over the six weeks, several hundred people could have been infected.
    Gregory Armstrong, deputy incident manager for the COVID-19 response at the CDC in Atlanta, Georgia, says that Bedford got in touch as soon as he finished the analysis. “I asked him to look at the probability of alternatives,” Armstrong says. The teenager had not recently travelled internationally, so another possibility was that a second person had come to Seattle from the same region of China as the first traveller, with the same strain. But Bedford calculated that such a scenario was less likely than a single introduction.
    So, how did the teenager acquire the infection without health officials noticing a huge uptick in cases? After the woman and her husband tested positive in mid- to late January, health officials monitored 347 people with whom they had come into contact1. One possibility, Armstrong says, is that some of these contacts were infected, but showed few, if any, symptoms of COVID-19. If they didn’t isolate themselves, they might have spread the virus in the community. When asked why the CDC didn’t initially test more people in Seattle who complained of fevers and coughing in February, Armstrong says, “Resources, quite honestly.”
    In early March, academic laboratories ramped up screening for coronavirus, and have started to reveal the extent of the outbreak. As of 12 March, King County health department, which covers Seattle, had reported 270 cases, with 27 deaths.
  • π | 172.68.146.169 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১১:২৪730075
  • এখানে দেশে টেস্টিং এর জন্য প্রয়োজনীয় জরুরি তথ্য দেওয়া আছে।

    https://icmr.nic.in/node/39071
  • π | 162.158.23.94 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১১:২৭730076
  • Coronavirus claimed its third life in India Tuesday as a 64-year-old man, who was tested positive in Maharashtra, passed away at Kasturba Hospital. The man had returned from Dubai.

    A doctor, who treated the 76-year-old man who died of the novel coronavirus in Karnataka’s Kalburgi, has tested positive for the virus, news agency ANI reported on Tuesday
  • π | 162.158.167.193 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১২:১১730078
  • এটা প্রতি রাজ্যের হেল্পলাইন ঃ
    https://covidout.in/helpline
  • π | 162.158.23.94 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৩:০৭730080
  • সরকারের নতুন গাইডলাইন ঃ

    Only wear a mask if:
    * You have symptoms (cough, fever or difficulty in breathing)
    * You are caring for a Covid-19 suspect/confirmed patient
    * You are a health worker attending to patients with respiratory symptoms
    The ministry has also given the process on how to handle the masks.

    he ministry has also given the process on how to handle the masks.
    While wearing a mask, make sure you:

    * Unfold pleats of the mask; make sure that they are facing down
    * Change the mask after six hours or as soon as it becomes wet
    * Place the mask over your nose, mouth and chin and ensure there are no gaps on either side of the mask. Adjust to fit.
    * Never reuse disposable masks and dispose the used masks into closed bins after disinfecting them
    * Avoid touching the mask while using it
    * Do not touch the potentially contaminated outer surface of the mask while removing it

    * Do not leave the mask hanging from the neck
    * After removal of mask, clean your hands with soap and water or use alcohol-based hand rub ডিসিনফেক্ট্যান্ট

    This comes days after the government declared faces masks and hand sanitisers as essential commodities till the end of June in its efforts to battle the spread of coronavirus and to contain the hoarding or overpricing of these items.
  • Pi | 162.158.23.94 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৩:৪১730081
  • স্বাতী মৈত্রের পোস্টটা না দিয়ে পারলাম না। চারদিকে যা দেখছি। মহান বিপ্লবীদের হোয়াটাবিউটারি সবচে বেশি।

    "সামাজিক মাধ্যমে একটা কথা খুব বলা হয়ে থাকে, ভাইরাল হয়ে যাওয়া। অর্থাৎ, কোন বিষয় এতটাই জনপ্রিয় হয়ে যাওয়া যে লোকের মাধ্যমে নিমেষে বহু মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে যাওয়া। আপনি একজনের সাথে শেয়ার করলেন, সে আরো দুজনের সাথে, সেই দুজন আরো দুজনের সাথে - এইভাবে হঠাৎ অনেক মানুষের কাছে বিষয়টা পৌঁছে গেল। ভাইরাল কথাটা, বলাই বাহুল্য, ভাইরাস থেকে এসেছে। মেটাফরটা সংক্রমনের।

    আমি ডাক্তার নই, তাই কোভিড-১৯ সম্পর্কে আমার বিশেষ জ্ঞান নেই। তবে এটুকু খুব স্বাভাবিক বুদ্ধিতেও বোঝা সম্ভব যে এ রোগের সংক্রমনের হার আইটি সেলের ভুয়ো ট্রেন্ডগুলোর থেকেও অনেকটাই বেশি। গত শনিবার, ৭ই মার্চ, থেকে আমি সরকারি তথ্য দেখছি, নিজের মনের শান্তির জন্য। এ দেশে সরকারি তথ্য আদৌ বিশ্বাসযোগ্য না হলেও আপাতত এটুকুই আমাদের হাতে আছে। সেই তথ্য বলছে যে ৭ই মার্চ ৪৩টা কেসের থেকে ১৬ই মার্চ কেস বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১০টা। যারা আমার থেকে বেশি অঙ্ক জানেন, বৃদ্ধির হারটা হিসেব করে নিন। যাঁদের প্রযুক্তি আছে, ভবিষ্যৎ বৃদ্ধির হার সিমুলেট করে নিন।

    এটাও হিসেব করে নিন যে আমাদের দেশে জনসংখ্যার অনুপাতে টেস্টিং বিশেষ হচ্ছেনা, এবং ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন আশঙ্কা প্রকাশ করেছে যে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হয়তো শুরু হয়ে গিয়ে থাকতে পারে। আবার নাও পারে, কিন্তু আমরা সেটা জানিনা, কারণ আমরা যথেষ্ট সংখ্যার মানুষকে এখনো টেস্ট করছি না।

    এরকম সময়ে "বাড়িতে থাকতে কেন হবে, এটা মিডিয়া হাইপ, ওয়াট এবাউট টিবি, ওয়াট এবাউট কাশ্মীর" জাতীয় মন্তব্য করা মোটামুটি ক্রিমিনাল, এটা একটু বুঝুন। সোশ্যাল ডিস্টানসিং করবার নিদান এই জন্য, যাতে গণ পরিসরে মানুষের ভিড় কম হয়, এবং যেই কাজগুলো বাইরে না গিয়ে করা যায়না, যেই মানুষগুলো পেইড লিভ পাবেন না (যেমন আপনার গৃহকর্মী), তাঁদের পক্ষে দূরত্ব বজায় রেখে কাজকর্ম করা সম্ভব হয়। সোশ্যাল ডিস্টানসিং করবার নিদান এই জন্য যে বহু আপাত সুস্থ মানুষ রোগের ক্যারিয়ার হয়ে এমন লোকেদের মধ্যে ইনফেকশন ছড়াতে পারেন, যাঁদের ইমিউন সিস্টেম কম্প্রোমাইজড। এর মধ্যে আপনার পরিবারের বড়রাও পড়েন।

    এটা বুঝুন, যে এর পরের পর্যায় লকডাউন। লকডাউন পরিস্থিতিতে যাতে আমরা না যাই, তাই এই ব্যবস্থা। যেদিন লকডাউন করতে হবে, বুঝবেন আশেপাশে বহু মানুষকে বাঁচানো সম্ভব হবেনা, স্রেফ চিকিৎসার অভাবে। স্বাস্থ্যকর্মীদের মৃত্যু হতে পারে, কারণ তাঁরা ছুটি পাবেন না। এবং হ্যাঁ, যেই শ্রমজীবী শ্রেণীর মানুষগুলোর দুঃখে আপনার বুক ফেটে যাচ্ছিল, তাঁদেরই সবথেকে বেশি অর্থনৈতিক ক্ষতি হবে। ক্যাজুয়াল কর্মীদের চাকরি যাবে। অনেক মানুষ খেতে পাবেন না। আমরা সেই অবধি যেতে চাইনা। গরম পড়লেই সব ঠিক হয়ে যাবে, এটার কোন নিশ্চয়তা নেই। ছাগলামো করবেন না।

    নিশ্চয় দাবি তুলুন পেইড সিক লিভের, কম্পেনসেশন প্যাকেজের, টেস্টিং বাড়ানোর - এরকম অনেকগুলো জিনিসের আজকে খুব প্রয়োজন। এর একটাও যদি সম্ভব না হয়, তাহলে না হয় সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় (সোশ্যাল মিডিয়া ডিস্টানসিং করবেন এরকম আশা করিনা, টু মাচ) চায়না জোকস, সিপিএমের ষড়যন্ত্র, উহানে আসলে বায়োওয়েপন ছিল, এগুলোই না হয় করুন। নেটফ্লিক্স আর এমাজন প্রাইম দেখুন, যেরকমটা দেখে থাকেন। একটু আধটু বাড়ির কাজ করুন, গৃহকর্মী ও বাড়ির মেয়েদের সুবিধা হবে। প্রিভিলেজের পাঁচন গিলতে আপনার খুব কষ্ট হলেও প্রতিদিন রাতে যেরকম নরম বিছানায় পাশবালিশ জড়িয়ে খুব কষ্ট করেই শুতে যান, ঠিক সেরকম কষ্ট করেই সোশ্যাল ডিস্টানসিং বজায় রাখুন। জন পরিসরে আপনার উপস্থিতি সেরকম প্রয়োজনীয় কিছু নয়।"
  • অরিন | 198.41.238.119 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৬:২৩730087
  • ভাইরাস টার মাসে দুটো করে মিউটেশন হয়, সব স্ট্রেন একরকম নাও হতে পারে, এই পেপার টায় তাই বলছে,
    https://bedford.io/blog/ncov-cryptic-transmission/
  • π | 162.158.22.147 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৮:১০730091
  • The West Bengal government on Monday invoked provisions of Epidemic Disease Act, 1897, created a fund of Rs 200 crore and extended the closure of schools, colleges and universities till April 15 among a slew of new measures to prevent the outbreak of the Covid-19 disease in the state.

    Banerjee said that the provisions of Epidemic Disease Act, 1897 are being invoked so that no patient can escape while undergoing treatment for coronavirus.
  • দ্রি | 172.69.68.204 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৮:৩৪730094
  • "আর আমাদের কলিগরা ওই hiv ড্রাগ টেস্টের রেজালট পাব্লিশ করলেন, এখুনি বেরল। দিচ্ছি।"

    পাইদিদি, ঐ রেজাল্টটা কৈ?
  • π | 162.158.23.100 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৮:৫০730095
  • দিচ্ছি বলার পরের একটা পোস্টেই লিনক দেওয়া আছে তো। অনেক কাগজেও বেরিয়েছে।
  • π | 162.158.22.147 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৮:৫৩730096
  • এটাও শুনতে পারেন।
  • দ্রি | 162.158.90.101 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৯:২৯730097
  • http://www.ijmr.org.in/aheadofprint_cv.asp এইটা? এখানে একটা প্রোটোকল পেলাম। রেজাল্ট তো পেলাম না।
  • pi | 162.158.22.147 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৯:৩৩730098
  • আপনি না ঠিকঠাক পড়েন না ঃঃ(
    ।pi | 162.158.23.94 | ১৩ মার্চ ২০২০ ২০:৩৪729987
    মানে, এটা ট্রায়াল না, তার রেজাল্ট তো এত তাড়াতাড়ি আসবেনা, এটা ডকিং স্টাি। ইন্িড্যা ড্রাগ ্ট্রোল বোর্ড আপ্রুভ করেছে, এটার ব্যবহার।ীই ড্রাগ ব্যবহারের প্রোটোকল বেরল।
  • দ্রি | 162.158.246.45 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৯:৪১730099
  • হ্যাঁ জানি। আমি খুবই ব্যাড রীডার।

    কিন্তু " hiv ড্রাগ টেস্টের রেজালট পাব্লিশ করলেন" এইটা বলতে আপনি কী মীন করেছিলেন সেটা কিন্তু সত্যিই বুঝলাম। ঐ প্রোটোকলটা? নাকি কোন পেপার মিস করে গেলাম?

    আপনার আগের পোস্টটা তো একদম বুঝলাম না।
  • দ্রি | 172.68.174.123 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৯:৪২730100
  • *বুঝলাম না।
  • π | 172.68.146.187 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৯:৪৬730101
  • দুটো পোস্ট পরপর পড়েও আর ভিডিও দেখেও বুঝতে না পারলে আমার পক্ষে আর বোঝানো সম্ভব নয়। দুঃখিত :(
  • দ্রি | 172.68.174.123 | ১৭ মার্চ ২০২০ ১৯:৫৩730102
  • ঃ), ওকে।
  • π | 162.158.23.108 | ১৮ মার্চ ২০২০ ২০:৩৩730120
  • ওদিকে ,

    Coronavirus may have infected thousands more than official estimates claim, reveals Lancet study.
    Researchers, using computer modelling, have calculated that up to 75,800 individuals may have contracted the novel coronavirus in Wuhan as of January 25, a number that is far greater than the official estimate of 1,300 infected people. According to the study, published in the journal The Lancet, given the lack of a robust and detailed records of suspected, probable, and confirmed cases of the novel coronavirus infection (2019-nCoV), the true size of the epidemic, and its pandemic potential remain unclear.
  • করোনা ভাইরাস

  • পাতা : 1 | 2 | 3
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত