• টইপত্তর  অন্যান্য

  • সর্ষেবাটা মোচাকাটা চিতলের মুইঠ্যা ইত্যাদি ইত্যাদি (২)

    Ishan
    অন্যান্য | ০৬ নভেম্বর ২০০৬ | ১০২৩৫ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • সে | 188.83.87.102 | ১১ এপ্রিল ২০১৪ ২৩:৩৪695229
  • কাঁকড়ার ঝাল
    --------------
    দিশি কাঁকড়ার ঝাল হলে পদ্ধতি ঐ গেঁড়ি গুগ্‌লির ঝালের অনুরূপ, কেবল কাঁকড়া পরিষ্কার করবার পদ্ধতি অন্যরকম।
    ধুতে তো হবেই, কিন্তু তারো আগে কাঁকড়ার পিঠের খোলটা টেনে খুলে ফেলে দিতে হবে এবং খোলের নীচে যে আধা স্বচ্ছ জলজলে পদার্থ সেগুলোও ফেলে দিতে হবে।
    কাঁকড়া ধোয়া হয়ে গেলে অল্প তেলে ছ্যাঁৎ ছ্যাঁৎ করে আধ মিনিটেরো কম সময় ভেজে নিয়ে তুলে আলাদা করে রাখতে হবে। তারপরে গেঁড়ি গুগ্‌লির ঝালের অনুরূপ পদ্ধতিতে রান্না।

    বিরাট বিরাট ব্লু ক্র্যাব হলে কাঁকড়া পরিষ্কার করবার পদ্ধতি একইরকম, কিন্তু রান্নাটা অন্যরকম।
    ধড় ও ঠ্যাং আলাদা করতে হবে।
    গোটা দুই পেঁয়াজ যাহোক তাহোক করে কেটে ভালো করে ভেজে নিন। পেঁয়াজ থেকে জল বেরিয়ে গেলে, বেশ শুকনো মতন হয়ে বাদামী রং ধরে গেলে এতে গোটা গোটা গরম মশলা দিয়ে নুন হলুদ দিয়ে গোটা শুকনো লঙ্কা দিয়ে আরো ভাজুন কিছুক্ষণ।
    এবার গোটা শুকনো লঙ্কা গুলো আলাদা করে সরিয়ে রাখুন।
    বাকি ঐ গরম পেঁয়াজ ও মশলা ভাজা সমস্তটুকু মিক্সিতে আধামিহি করে বেটে নিন। জিনিসটা পুরোপুরি পেস্ট হবে না।
    এবার ঐ আধামিহি বস্তুটা প্রতিটি ধড়ের পিঠে এক চামচ মতো করে দিয়ে (যেখান থেকে খোলা ও অন্যান্য নোংরা বের করে নেওয়া হয়েছিলো, সেই জায়গাটায়) ফেটানো ডিমে চুবিয়ে অল্প কর্ণ ফ্লাওয়ার দিয়ে ঢেকে দিন, ও সাবধানে এই ধড়গুলো ভেজে নিন। ভাজা হয়ে গেলে সরিয়ে রাখুন।
    কিছু আধা মিহি পেস্ট যেগুলো মিক্সিতে রয়েছে সেগুলোও আলাদা রাখুন।
    এবার পেঁয়াজ কুচিয়ে নতুন তেলে ভাজুন, খুব সামান্য টম্যাটো পেস্ট, আদা রসুন বাটা নুন অল্প চিনি দিয়ে বস্তুটা ভাজুন। ঝাল দিন, কাঁচা লঙ্কার। মাঝখান থেকে চিরে। অল্প গরম জল দিন।
    ঢাকনা বন্ধ করে দিন, জিনিসটা ফুটুক কিছুক্ষণ। এরপরে জল কমে এলে ঐ আধা পেস্ট ঢেলে দিন তাতে, আঁচ একেবারে কমের দিকে। কাঁকড়ার ঠ্যাং এবং ঐ আগে ভেজে তোলা ধড়গুলো যত্ন করে বসিয়ে দিন ঐ পাত্রে। তলা থেকে ঝোল তুলে তুলে কাঁকড়ার ধড়গুলোর ওপরে ঢেলে দিতে থাকুন। এতে খোলটা ভেতরে ঢুকবে। জিনিসটা লাল হয়ে যাবে। এবারে ঢাকনা বন্ধ করে ঢিমে আঁচে মিনিট দুই। আঁচ বন্ধ। আরো মিনিট চার পাঁচ।
  • সে | 188.83.87.102 | ১১ এপ্রিল ২০১৪ ২৩:৩৫695230
  • এতে ঝোলটা* ভেতরে ঢুকবে।
  • সে | 188.83.87.102 | ১১ এপ্রিল ২০১৪ ২৩:৩৯695231
  • স্পঞ্জ কেকের রেসিপি দেবো।
  • সে | 188.83.87.102 | ১১ এপ্রিল ২০১৪ ২৩:৫২695232
  • সে | 188.83.87.102 | ১১ এপ্রিল ২০১৪ ২৩:৫৫695233
  • স্পঞ্জ কেকের জন্যে এই যন্ত্রটি লাগবে।
    আর লাগবে অন্যান্য সরঞ্জাম ও বেকিং প্যান যেমনটি পছন্দ।

  • Abhyu | 138.192.7.51 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ০৪:৫০695234
  • mumu | 219.20.111.1 | ২৭ এপ্রিল ২০১৫ ২২:১৩695235
  • জর্সি সিটি এর কাছকাছি ভালো মাছ কোথাই পাওয়া যাবে? জানালে অনেক উপকার হবে।
  • যারা সার্জেন হতে চেয়েছিল | 118.85.88.75 | ১১ জুলাই ২০১৫ ০৬:৩০695236
  • ঢ্যাঁড়শের ব্যসন বিলাস
    ------------------------
    আধ কাপ বেসন
    ৪৫৩।৫৯২ গ্রাম কচি ঢ্যাঁড়শ
    শ্যালট পেঁয়াজ - বড়ো হলে চারটে, ছোটো হলে আট দশটা
    গুঁড়ো হলুদ আধ চা চামচ
    গুঁড়ো গরম মশলা এক চা চামচ
    কালোজিরে দেড় চা চামচ
    জিরে রোস্ট করে গুঁড়ো দেড় চা চামচ
    ধনে গুঁড়ো তিন চা চামচ
    মৌরী গুঁড়ো দেড় চা চামচ
    আমচুর গুঁড়ো ১ চা চামচ
    নুন ও লঙ্কাগুঁড়ো আন্দাজমতো
    তেল চার পলা

    প্রথম কথা হল ঢেঁড়শ ধুতে নেই, ভিজে কাপড়ে করে মুছে নিতে হয়। আর যদি ধোবেনই (কেউ কেউ তো স্কচ ব্রাইট দিয়ে ডিমও মেজে নেয়) তাহলে আগের রাতে ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করে শুকিয়ে রাখুন।

    নুন, হলুদ, গরম মশলা, ধনে জিরে মৌরী আমচুর লঙ্কাগুঁড়ো ইত্যাদি সব গুঁড়ো মশলা একটা বাটিতে মিশিয়ে নিন।

    এবার ঢেঁড়শের বোঁটা কেটে চিরে নিন। আধ ফালি করবেন না, মোটা অংশটা একদিক দিয়ে চিরে দিন শুধু। বীজগুলোকেও ফেলতে হবে না। এবার চামচে করে ঐ গুঁড়ো মশলার মিক্সচার নিয়ে ঢ্যাঁড়শের মধ্যে পুরে দিন। যদি কিছু মশলা বেড়ে যায় তো শেষকালে ঢ্যাঁড়শগুলোর উপরে ছড়িয়ে দিন। এক পলা তেল নিয়ে একসাথে ভালো করে মেখে নিন।

    বাকি তেলটা গরম করুন। কালোজিরে দিন। ওগুলো চিটপিট করতে আরম্ভ করলে পেঁয়াজ দিন। পেঁয়াজগুলো বড় বড় টুকরো রাখবেন, কুচি করবেন না। দেড় মিনিট পরে বেসন ছড়িয়ে দিন ও ভালো করে নাড়ুন দু মিনিট।

    আঁচ কমিয়ে ঢাকা দিয়ে রেখে দিন। মাঝে মাঝে নাড়বেন যাতে তলাটা ধরে না যায়। যত তেষ্টাই পাক জল দেবেন না। অনেকক্ষণ পরে (ধৈর্য না থাকলে কোনো ভালো কাজ হয় না) দেখবেন ঢ্যাঁড়শেরা সিদ্ধ হয়ে গেছে, তখন নামিয়ে নিয়ে গরম গরম খান।
  • kumu | 11.39.32.44 | ১১ জুলাই ২০১৫ ০৮:৫৬695237
  • ভিন্ডিগুলো কড়ায় দিতে হবে না??
  • Abhyu | 118.85.88.75 | ১১ জুলাই ২০১৫ ০৯:১১695239
  • গুড পয়েন্ট!

    বাকি তেলটা গরম করুন। কালোজিরে দিন। ওগুলো চিটপিট করতে আরম্ভ করলে পেঁয়াজ দিন। পেঁয়াজগুলো বড় বড় টুকরো রাখবেন, কুচি করবেন না। দেড় মিনিট পরে বেসন ছড়িয়ে দিন ও ভালো করে নাড়ুন দু মিনিট।

    এবার ঢ্যাঁড়্শাগুলো দিয়ে একবার ভালো করে নেড়ে দিন। তারপর আঁচ কমিয়ে ঢাকা দিয়ে রেখে দিন। মাঝে মাঝে নাড়বেন যাতে তলাটা ধরে না যায়। ইত্যাদি।
  • de | 24.139.119.174 | ১৫ জুলাই ২০১৫ ১২:১০695240
  • থ্যাংকু, অভ্যু, করে দেখবো!
  • Abhyu | 85.137.13.237 | ২১ নভেম্বর ২০১৫ ১০:০৯695241
  • তুলে দিলাম।
  • ব্যাঙ | 132.172.175.25 | ১১ এপ্রিল ২০১৬ ১০:১২695242
  • এই রেসিপিটা "ন্যাড়াবাবুর ঝামেলাবিহীন দ্রুত রান্নার খাতা" নামের টইয়ে যাওয়া উচিত ছিল। সেই টইয়ের অভাবে, এই টইয়ে থাকুক এই রেসিপি।

    name: ন্যাড়া mail: country:

    IP Address : 109.72.224.255 (*)Date:10 Apr 2016 -- 12:11 PM

    প্রেসার কুকারে জিরে, আদা ফোড়ন দিন। টম্যাটো দিন। আঁচ কমান। টম্যাটো নরম হয়ে গেলে সোনামুগ অল্প নেড়েচেড়ে নিন। হলুদ, নুন, জল দিয়ে প্রেসারে বসান। তিনটে সিটি। ব্যস। খেতে কেমন হবে সে আপনার হাতযশের ওপর নির্ভর করছে।
  • Abhyu | 107.81.102.141 | ১১ এপ্রিল ২০১৬ ১০:১৫695243
  • আমি সেই টই খুলে দিতে রাজি আছি তুমি যদি ঐ রকম রেসিপিগুলো জড়ো করে তুলে দিতে রাজি থাকো
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। খেলতে খেলতে প্রতিক্রিয়া দিন