• টইপত্তর  অন্যান্য

  • MJAL (মনে যা আসে লেখো )

    একক
    অন্যান্য | ০৮ মে ২০১৫ | ১১৪১১ বার পঠিত | রেটিং ৫ (১ জন)
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • h | 213.99.211.133 | ১০ জুন ২০১৫ ২১:৩০677666
  • উইদাউট ডিসরেসপেক্ট, আমার আবার হয়েছে কি, ছোটোবেলাটা এত ঘটনাবিহীন বোরিং ছিল, যে আমি বেশিটাই ভুলে গেছি। আমি দেখেছি, আমার কলেজ রাজনীতি করার আগে পর্যন্ত কোনো ডিটেল স্মৃতি নেই। অনেক বন্ধুর, মাশ্টারমশাই দিদিমনি পাড়ার লোকের নাম ই মনে নেই। চিনতেও পারি না অনেক সময়। অনেকে রাগ করেন, মা বলেন, কি রে এটাও মনে নেই, বাবা বলেন, সে কি এতো কথা হল এত উত্তেজনা হল বেমালুম মনে ভুলে গেছো, আমার সিরিয়াসলি কিস্যু মনে নেই, আমি স্মৃতি বলে যে চালাই অনেকটাই ধার করা বা বানানো বা অন্যের কাছ থেকে শুনে গড়ে নেওয়া।
    এক ডাক্তার কে বলেছিলাম , উনি বলেছিলেন, এটা কিছুই না, তুমি ছোটো বেলায় বোর ছিলে, কিসুই পোসাতো না, জীবন সম্পর্কে আগ্রহ তোমার বার্ধক্যে বেড়েচে। তো আমি বললাম, কিন্তু আমার তো ধরুন ভীমরতি তে যা হয়, নতুন মেয়েদের সংগে শুতে ইচ্ছে করে, ক্ষমতার একটা চাহিদা হয়, টাকার একটা লোভ হয়, যশের লোভ হয়, সেগুলো হছে না কেন, মানে ইছাও তো করে না। ল্যাদ। জীবনে কিসু তো ঘটুক রে বাবা, এতো একেবারে ঠান্ডা মাড়ের মত জেবন, বিপ্লব তো হলই না, অন্তত একটু আধটু ইসে হবে তাও হল না। তো উনি বল্লেন, এটা অমাদের পড়ায় নি, ছোটো বেলার বোরডমের সংগে বড়বেলার বৌ এর ভয় যোগ করে পড়ায় নি ;-)
  • h | 213.99.211.133 | ১০ জুন ২০১৫ ২১:৩৫677667
  • অ্যাকচুয়ালি রাজনীতির বন্ধুরাও বলে তোর ভুল ভাল মনে আছে, অনেকক্ষেত্রেই এসব কিস্যু হয় নি, হত ও না ঃ-) এটাতে আমি খুব ই কনফিউজ্ড, পরে দেখেছি, আমি গল্পে পড়া বিভিন্ন প্রোটাগোনিস্ট দের জীবন টুকে টুকে নিজের কথা বলি, কোন বিশ্বাস্যোগ্যতা নাই অথবা আই ক্যানট টেল আ ব্যাড স্টোরি, ইট হ্যাজ টু বি আ ফানি স্টোরি, এই নেশা থেকে জীবন টা সইত্য থেকে সম্পূর্ণ গুল হয়ে মনে আছে, যেটা সংগে ব্যক্তি আমি র কোনো সম্পর্ক নাই, ব্যক্তি অন্যান্য রা তো অনেক দূরে। শুধু এক বাবর বাদশা এর কাছাকাছি, যে কিনা তরমুজ ভালোবাসতো।
  • dd | 116.51.131.48 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:১৬677668
  • আমার ছোটোব্যালাও একেবারে আলুনী গোছের। আর সেটাও অ্যাতো আগের ঘটনা যে মনে রাখার মতোন কিছুই হয় নি। নাথিং।

    সেই একবার বাড়ীতে সোফার হাতলে দুটো কাঠের মধ্যে ব্যাড়ালের মতোন গলা ঢুকিয়ে দিয়ে আর বার কত্তে পার্ছিলাম না। খুব আতোংকে অস্থির হয়েছিলাম। বাকীরা খুবি বিরক্তো বোধ করেছিলো। "বেশ হয়েছে" এটাও যেনো কেউ বলেছিলো।

    আর একদিন এক বন বাংলায় ভর দুপুরে একটা কুকুর ছানার সাথে হুটোপুটি করতে গিয়ে ভুত বা বন দেবতার মতোন কিছু একটা , মানে ঠিক দেখি নি, কিন্তু ফীল করেছিলাম।

    ব্যাস। এই হোলো আমার চত্ব ব্যালার পুর্ণাংগ ইতিহাস।
  • h | 213.99.211.132 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:১৭677669
  • অনেকে বলেন আমি কোনো সত্যিকারে বেদনার সম্মুখীন কখনো হই নি বলে, জীবনে কখনৈ বুদ্ধি আর জ্ঞান ছাড়া বিশেষ কিসুই হারাই নি বলে, এরকম একটা শূন্যতা এসেছে। বা সবসময়েই ছিল। সাংঘাতিক বেদনা সত্যি কিছু পাইনি, সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন আর পার্টি মেম্বারশিপ ছাড়ার সময়টুকু ছাড়া, তাই , কোন যাকে বলে সৎ কনভিনসিং জীবন অভিজ্ঞতা তেমন কিছুই হয় নি, কোনো দিন গাড়ি চাপা পড়ি নি, এক দু বার ছাড়া হারিয়ে যাই নি, বাবা মা বেঁচে আছেন বালাই ষাট, বৌ মেয়ে ভালো বাসে শুধু তাই না, অন্য কাউকে ভালো বাসে না এ বাজারে এটা কি কম কথা, ইত্যাদি। একবার একটা ছেলে খুব অনুনয় করে কাতর হয়ে আমার সংগে শুতে চেয়েছিল, ও হয় তো ভালো-ই বেসেছিল আমাকে, ক্লাসমেট, তো আগ্রহ পাইনি শুই নি, আমার প্রেম হয়েছিল কয়েকটা, তো তারা কেউ ই বিশেষ পাত্ত দেয় নি, বা যখন দিয়েছে, তখন আমি কোথায় হাওয়া, অতএব আত্মবৃত্তান্তে যা লেখা যায় এমম কিসুই হয় নি। তার পরে ধরুন, চাকরি যাওয়া দু একবার গেছে, কিন্তু বেকারিত্ত্বের যন্ত্রনা প্রথম কয়েক বছর ছাড়া বুঝি নি, বস্তিতে থাকি নি, ফাইব স্টার জীবন ও কিছু নেই। ডুবুরী ছিলাম না, পাহাড়ে হাঁটিনি, রিকসায় চড়া নিয়ে তো এক চ্যাপটার ও হয় না। ফুটবলে ট্রায়াল দিলাম, ফাইভের পরে কোনো স্কুল টিমে চান্স পাইনি, বাউল গান শিখলাম, একটার বেশি শেখা হল না।

    মার খেলাম কয়েকবার, হাসপাতালে ভর্তি হলাম, মরলাম না, ভয়ানক অসুখ হলো, একটা আশা ছিল কিছু ঘটবে, তো স্লা দশ দিনে সেরে গেলাম, বাইক চালালাম তিনশো মাইল, রাত্রে, তো একটা ছিনতাই ও হল না, এক দু বার রেসিস্ট মার খেলাম, তো লাগলো না।

    কি করি, এখন অভিজ্ঞতা টোকা ছাড়া কোনো গতি নেই, স্থিতিও নেই।

    ইত্যাদি ঃ-)) তো আমার কোনো লেখার মত কিসুই নেই, তাও দশ বৎঅসর কি ভাট ভাট, এইখেনে।
  • h | 213.99.211.132 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:১৯677670
  • এটার নাম দেওয়া যেতে পারে, সিপিএম সমর্থকের চৌত্রিশ বৎসর। (অনুলেখন)
  • dd | 116.51.131.48 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:২৪677671
  • অম্মা। এতো আমার নেই এর লিস্টি।

    কিন্তু আমাকে একবার সাপে কামড়ছিলো। লোকে তাতেও মজা পায় , বলে "সাপটা বাঁচলো তো?"। এইসব। তার থেকেও খারাপ,কুমু আবার সেটাও বিশ্বাস করে না। বলে "সাপের আর খে' দে' কাজ নেই, ডিডিদাকে কামড়াতে যাবে। সব মিছে কথা।"

    আর প্রায় বছর দশেক যখোন বয়স তখোন বুঝলাম আমি কলার ব্লাইন্ড। দার্জিলিংএ রডোডেনড্রন ফুল দেখতে পাচ্ছিলাম। বাবাকে মারলো এক থাপ্পোর।"ইয়ার্কি হচ্ছে?'

    অনেক লোকে এটাও বিশ্বাস করে না। আমি যে দেখি সবুজ রংএর কৃষ্ণচুড়ায় গাছ ভরে আছে। ক্ষি হিংসুটে হয় লোকেরা।
  • dd | 116.51.131.48 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:২৭677672
  • না, এটা এইভাবে পড়ুন।

    দার্জিলিংএ রডোডেনড্রন ফুল দেখতে পাচ্ছিলাম না। তাতে বাবা আমায় মারলো এক থাপ্পোর।"ইয়ার্কি হচ্ছে?'

    আর এখন মনে পরলো ঐ অল্পো বয়সে বুরো আঙুলটা বাঁকিয়ে নিজের তালুতে ঠেকাতে পারতাম। দেখালে লোকে অবিশ্বাস করতো না কিন্তু ভেঙিয়ে বলোতো "ভেরী উইক পার্সোনালিটি"।
  • h | 213.99.211.132 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:২৯677673
  • জ্জিও ডিডি দা। আপনার সংগে দু পাত্তর খাবার ইচ্ছা বেড়ে গেল। ঠাকুর সে সুযোগ টাও অর্পণ কে দিলেন, এদিকে চাইলেন না।
  • dd | 116.51.131.48 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:৩৬677674
  • ফর দ্যাট ম্যাটার ,একেবারে চুড়ান্তো বয়সে, এই যাস্ট বছোর দুয়েক আগেই যখোন চেন্নাইতে একা থাকতাম তখোন তাড়াতাড়ি, এই দশটা সাড়ে দশটা বাজলেই ঘুমিয়ে পত্তেম।

    তারই মধ্যে কে বা কারা পায়ের পাতায় ঠাঁই করে চাঁটি মেরে দিতো। আমি ধড়মড়িয়ে উঠে আলো জ্বালিয়ে দিয়ে দেখতাম। কিস্যু নেই। কেউ নেই।

    পাশের বাড়ীতে ক্যাঁও ম্যাও করে ঘোর তামিলে টিভি চলছে। "ইল্লে পো,ইল্লে পো" এরকম কিছু বলছে কোনো নায়িকা। রাস্তায় একটা কুকুর ভুক ভুক করে গলা খাঁকারী দিচ্ছে। কিছু গাড়ী উদাসীন ভাবে চলে যাচ্ছে। এইসব। আমি আবার শুয়ে পত্তাম।

    কিন্তু ভাবতে ভালো লাগে যে কোনো রুপুসী পেত্নী আমায় ভালোবেসে টেসে অমন চাঁটাতো। নিয়মিতো। মনে হয় কোনো মেম সাহেব ছিলেন।
  • h | 213.132.214.156 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:৪০677676
  • হ্যাঁ মেম সায়েব ই হবে, নইলে অমন ভিক্টোরিয়ান হয়, একাকী অন্ধকারটি থাকতেও কিনা শুধু ই পায়ের পাতায় আহ্লাদী, তাও যে মোজা পরিয়ে চাঁটি মারে নি এই অনেক ;-)
  • dd | 116.51.131.48 | ১০ জুন ২০১৫ ২২:৪৫677677
  • আর আরেক দিন, ঐ সেন্নাইতেই, বাথরুম থেকে একটা দীর্ঘস্থায়ী ফ্যাঁ স স স স স করে আওয়াজ। গা ছম ছম করে উঠলো।

    ভয়ার্ত্তো ভাবে বাথরুমে ঢুকে দেখি শেভিং ক্রীমের ক্যানটা কি ভাবে কে জানে ফুটো হয়ে গিয়ে সামনের দেওয়ালটা ফ্যানায় ভত্তি করে দিয়েছে। এক অলৌকিক দৃশ্য।

    কে জানে, হয়তো এটাও পেত্নীটির কীর্ত্তি। সোজা সুজি ক্যানো যে কিছু বলতে পারতো না।

    নাঃ। আর অনেক ভেবেও ত্যামোন লেখার মতোন আর কিছু খুঁজে পাচ্ছি না। অথচো কতোটা বয়স পারে করে এলাম।

    ঠাকুর বলেছিলেন, এইচিস যখন তখোন একটা দাগ রেখে যাস। ধুর। আমার জীবনটা পাপোষেই ভর্তি।
  • Atoz | 161.141.84.175 | ১১ জুন ২০১৫ ০০:২২677678
  • ডিডি, ছোটোবেলার ঐ বনদেবতা কেমন ছিলেন? হাল্কা ফুল্কা ফর্সা দুধে আলতা বেথুন ফলের মতন চোখ? নাকি ভীষণ টাঁড়বাড়োর মতন ইয়া কালো, কোঁকড়ানো চুলে মাথা ভরা আর লালরঙের গোল গোল চোখ?
  • sinfaut | 127.195.50.251 | ২৪ জুন ২০১৫ ২৩:৩০677679
  • সাবান, আতর সব লাগানোর পরও বোকা পাঁঠার গায়ের গন্ধ বোকা পাঁঠার মতই থাকে।
  • aranya | 154.160.226.95 | ২৫ জুন ২০১৫ ২১:৫৯677680
  • মানুষের মুক্তি আসুক।
    আমার শিকল খুলে দাও
  • a x | 60.171.26.111 | ০৪ জুলাই ২০১৫ ১১:৫৬677681
  • একটা এতবড় হাতি ঘরের মইধ্যে। মানুষগুলান সেডারে দেখে না, মশা খুঁজতে ব্যস্ত।
  • kumu | 11.39.40.22 | ০৪ জুলাই ২০১৫ ১৪:৪২677682
  • সোফার হাতলের কাঠের মধ্যে গলা ঢুকিয়ে দেয়া শুনে মনে এল আমার মামাতো ভাই ঐভাবে বারান্দার গ্রীলে গলা ঢুকিয়ে আর টেনে আনতে পারে না।মামীমা আর্ত্তস্বরে মামাকে আপিসে ফোন করাতে মামা শান্ত ভাবে বলেছিলেন কানদুটো কেটে দাও,মাথা গলে আসবে।
  • kumu | 132.161.254.25 | ০৪ জুলাই ২০১৫ ১৮:৩৬677683
  • একটু বাড়তি সুখশান্তি পাবার সবচেয়ে সহজ উপায় হল পাঁচটা রসের গল্প বলা-লীলা মজুমদার।
  • apps | 122.79.36.101 | ০৫ জুলাই ২০১৫ ০০:০২677684
  • খুব দমবন্ধ লাগে- সাফোকেটিং- একটা কুড়ি বাই কুড়ি ঘর- তাতে চার দেওয়ালে চারটে জানলা- তাই দিয়ে রোদ্দুর ঢোকে- সন্ধে পেরোলে চাঁদ- আর নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর এক একটা জানলা দিয়ে এক একরকম হাওয়া নামতে থাকে- ছড়িয়ে পড়তে থাকে চতুর্দিক- তাদের স্পষ্ট শরীর- চোখমুখনাককানগলাবুকযৌনাঙ্গ- আমার এখন আর খিদে পায় না- পেত, যখন পার্থকাকু ড্রয়িং করতে বসিয়ে বলত যা খুশি আঁক- আমি সাদা পাতায় প্রথমে একটা এরোপ্লেন আঁকতাম, তার সামনে দুটো বাচ্চা, আর দূরে একটা নারকেল গাছ- পার্থকাকু বলত এটা কী- আমি গুড়ের নাড়ুর মিষ্টি মিষ্টি ছিবড়ে গালের একপাশে নিয়ে বলতাম এয়ারপোর্ট- আমি বলতাম নৌকো বানিয়ে ভাসিয়ে দিলেই হয়না, তাতে দুটো রঙ্গনফুল বসানো চাই, অন্তত দুটো দেবদারুপাতা- ব্যাঙের পৌষ্টিকতন্ত্রের গোটা ছবিটা এঁকে আবার আলাদা আলাদা করে অর্গ্যান- আমি জানলা আঁকছি- ফের মুছছি- ফের আঁকছি- ফের মুছছি- আর পার্থকাকু ঝুঁটি নেড়ে দিয়ে বলছে ধুর বোকা এয়ারপোর্টে কখনও নারকেল গাছ থাকে!- খুব দমবন্ধ লাগছে- সাফোকেটিং- এসময় দুটো পাফ ইনহেলারে চমত্কার কাজ দেয়
  • !! | 134.123.218.23 | ০৫ জুলাই ২০১৫ ১২:০৬677685
  • এভাবে আর চলে না, আয়নায় নিজেকে দেখতে পাই না, জীবন চলেছে নিজের মত, অথচ আমি আর আমাতে নেই। জানি এর কোন প্রতিকার নেই, কিন্তু পথও তো দেখতে পাই না, তবে কি এরকম ঘ্যান ঘ্যান করেই চলবে জীবন?
  • apps | 122.79.38.144 | ০৬ জুলাই ২০১৫ ০০:৫৯677687
  • ইয়েতি ছাং খায়. কিন্তু ইয়েতি বাঁশি বাজায় না. ভাং এর চেয়ে ছাং ভালো. কেষ্টার চেয়ে চৌরাসিয়া. আজ দ্বিতীয়া. একটুও বিষ্টি হয়নি. জায়গাটার নাম ভাষা, নাকি ভাসা? যাই হোক না কেন, ওদের লিটিল ম্যাগাজিনের নাম- আভাতি
  • Atoz | 161.141.84.176 | ০৬ জুলাই ২০১৫ ০১:০৯677688
  • দুরাদয়শ্চক্রনিভস্যতমালতালীবনরাজিনীলা
    আভাতিবেলালবণাম্বুরাশের্ধারানিবদ্ধেব্কলঙ্করেখা।
  • rabaahuta | 215.174.22.27 | ০৬ জুলাই ২০১৫ ২০:৪১677689
  • apps | 122.79.35.47 | ০৭ জুলাই ২০১৫ ২২:৫২677690
  • ঝগড়া হত চড়ত গলা/ উঁকি দিতেন বাড়িওলা/ কেমন আছো/... জমা খরচ হিসেব নিকেষ/ কোথায় শুরু কোথায় বা শেষ/ কেমন আছো
  • san | 113.245.14.161 | ১৬ জুলাই ২০১৫ ১৭:৫৫677691
  • দিন চলে যায় দিন চলে যায় দিন চলে যায় -
  • !! | 213.191.35.25 | ১৬ জুলাই ২০১৫ ১৯:৫৮677692
  • নতুন করে শুরু করতে হবে জীবনটা ......
  • Brstin | 122.79.38.155 | ১৬ জুলাই ২০১৫ ২০:২৩677693
  • আমার টানা ১০ দিন ছ্টি দেওয়া হোক। আমি ল্যাদ খাবো আর গল্পের বই পড়বো
  • Tailor | 216.201.224.118 | ১৬ জুলাই ২০১৫ ২৩:২৬677694
  • কেমন ছিট? সুতি না সিন্থেটিক দাদা?
  • rabaahuta | 215.174.22.27 | ১৬ জুলাই ২০১৫ ২৩:৩৫677695
  • "ইউনিভার্সিটির ক্লাসে না পড়লে যে কিছু জানা যায় না একথা আমি বিশ্বাস করি নে - আমি একথা বলতে পারি কোনও ফোর্থ ইয়ারের ছাত্র যে-কোনও কলেজের হিস্ট্রিতে কি ইংলিশ পৈট্রিতে - কিংবা জেনারেল নলেজে পারবে না আমার সঙ্গে।
    নিতান্ত অপটু ধরনের কথা - সকলে আরও একদফা হাসিয়া উঠিল।"
  • apps | 122.79.35.113 | ২১ জুলাই ২০১৫ ০২:৩৪677696
  • This weariness forgive me oh my Lord
    If ever on my way I do fall back

    This tremulous heart quivers today thus
    This sorrow forgive oh forgive me Lord

    This wretchedness, forgive me oh my Lord
    If ever on my way look I do look back

    In blistering heat of the fiery day
    If withers my garland of prayer flowers
    That listlessness, forgive me oh my Lord
  • Kaju | 131.242.160.210 | ২১ জুলাই ২০১৫ ১২:২৩677698
  • ইঞ্জিরিতে 'ক্লান্তি আমার ক্ষমা করো প্রভু'।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। ভালবেসে মতামত দিন