• টইপত্তর  অন্যান্য

  • সর্ষেবাটা, মোচা কাটা, চিতলের মুইঠ্যা বানানো ইত্যাদি ইত্যাদি

    r
    অন্যান্য | ১৪ জুলাই ২০০৬ | ১৯২৫ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • tan | 131.95.121.127 | ৩১ জুলাই ২০০৬ ২১:১২633961
  • বেশ ভালো ভালো রান্নার রেসিপি এইখানে পেলাম।সবই ঠাকুরের কৃপ। রেঁধে ফেল্লাম ফুলকপির বড়া আর টোমাটোর চপ, ব্যাপক খেতে হলো বললো বন্ধুরা।
    ভাবলাম ভাটিয়াল বন্ধুরাও খাক,তাই লিংকটা নীচে দিলাম এইখানে।:-))
    http://www.banglalive.com/food/OtherRecipe/readersrecipelist.asp

  • Arjit | 128.240.229.66 | ৩১ জুলাই ২০০৬ ২১:১৬633962
  • মাশরুমের খোসা কি করে ছাড়াও? আমরা তো ডাণ্ডাটা বাদ দিয়ে বাকি পুরোটাই খেয়ে ফেলি - খোসা (যদি থাকে) শুদ্ধু:-)
  • dd | 203.101.54.210 | ০১ আগস্ট ২০০৬ ১৫:৫৪633963
  • যেমন রসুনের কোয়া থেকে ছাড়ানো হয়। এট্টু বড় বড় নখ লাগবে।

    বাপরে !!ডানদিকে কি ভয়ানক সব হিজি বিজ বিজ আসছে।
  • dd | 202.122.18.241 | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০০৬ ১০:০৩633964
  • সুনহেরি মুর্গ

    এক কে জি খানেক চিকেনেরে দই,হলুদ,কাঁচা লংকা,নুন,আদা রসুন দে' ম্যারিনেড করুন ঘন্টা দুয়েক।

    খোয়াক্ষীর দুধে গুলুন। জাফরান ও। আর উদিকে গোটতিনেক প্যাঁজ সিদ্ধ করে জল ঝরিয়ে মিহি করে বেটে নিন। অমনি কাজু বাদামের পেস্টও বানিয়ে নিন।

    ঘি গরম করে,তেজ পাতা আর তাপ্পর প্যাঁজ বাটা আর তাপ্পর চিকেন ভাজুন। নুন দিন।

    এবার কাজুর পেস্ট মেশান। গরম আঁচে রান্না করুন। তাপ্পর মেশান খোয়া ক্ষীর। জোড়সে নাড়ুন নইলে ক্ষীরের ড্যালা পাকিয়ে যাবে।

    আঁচ কমান। জাফরান মেশান। ক্রীম ঢালুন। আমি বিস্তর সাদা গোলমরিচ দেই। দিন।

    নামানোর সময় ছড়িয়ে দিন জায়ফলের গুঁড়ো আর থেঁতো করা কার্ডামম।

    ব্যাস। আমার দু বোতোল বীয়ার লেগেছিলো রান্না করার সময় গভীর চিন্তার জন্য। আপনে কি খাবেন সেটা আপনের উপর।

  • Rana | 83.76.135.222 | ২০ সেপ্টেম্বর ২০০৬ ০১:৩৭633965
  • একটা idea,

    এই অপুর্ব রান্না-র রেসিপিগুনো copy করে "রান্না-বান্না" জাতীয় কিছু link-এর under-র রাখলে হয়না?? যাতে পরে এগুলো থ্রেড-এর সাথেসাথে হারিয়ে না যায়?

    তাহলে ১ বছর পর-এও গুরুতে নতুন কেউ এলে দেখে্‌ত পায়...
  • dd | 202.122.18.241 | ২৫ অক্টোবর ২০০৬ ২০:২৪633966
  • দুর দুর। কি যে আপনেরা আলু ছেঁচকি খান ? লুচির সংগে?

    অ্যাক্কেবারে অ্যানিমিক। সামান্য কালজিরে ছিটে ফোঁটা লাগানো নিতান্ত আলুসেদ্দ। খাবেন না।

    বরং রাঁধুন মৎকৃত আলু সেকসী।

    গরম তেলে কালোজিরে দিন। তাপ্পর আচ্ছা করে প্যাঁজ ভাজুন। আধ সেদ্দ আলু দিন। উঁহু। কাঁচা লঙ্কা দিবেন না। আমি দিলাম চীনা গ্রীন চিলি সস। তাপ্পর দিলাম থেঁতো গোলমরিচ। আর টাবাস্কো। সসের বোতোল ঘাঁটতে গিয়ে দেখি তলানি পরে আছে হট অ্যান্ড সুইট টমাটমের সস। উবুর করে দিলাম।

    দেখুন দেখুন খে দেখুন। লুচি তো লুচি - মালপোয়া সাথেও দারুন যাবে।
  • S.P | 172.141.198.15 | ২৬ অক্টোবর ২০০৬ ০০:২২633967
  • স্যামন দু রকম-
    ১)স্যামন এর পিস্‌গুলোকে হলুদ ঝাল মাখিয়ে বাটার দিয়ে বেক করে নিন।সাদা তেলে মোটা মোটা করে কাটা পেয়াজ আর ক্যাপ্সিকাম ভেজে তুলে নিন। এর পর তেলের মধ্যে পেয়াজ আদা রসুন পর পর দিয়ে নাড় তে থাকুন।ভাজা হয়ে গেলে সয়াসস আর টমেটো সস দিন। প্রয়োজন মতো নুন চিনি আর ঝাল দিন। কাই তৈরী হয়ে গেলে বেক করা মাছ গুলো এর মধ্যে দিয়ে মিনিট দশেক রেখে নামিয়ে নিন।

    ২)স্যামন মাছ গুলোকে হলুদ ঝাল নুন আদা বাটা সর্ষে বাটা টক দ ই মাখিয়ে আধ ঘন্টা রেখে দিন। এর পর মাইক্রো ওভেন এ মিনিট সাতেক দিয়ে দিন ।
  • dd | 202.122.18.241 | ৩০ অক্টোবর ২০০৬ ২২:৩৮633968
  • " তুমি সুন্দর, তাই খেয়ে থাকি প্রিয়, এ কি মোর অপরাধ "

    আলু সেক্সী টু :

    ঐ কালোজিরা আর প্যাঁজ ভেজে আলু সেদ্দর টুকরো দিয়ে দিলাম গ্রীন চিলি সস,ওর্সেস্টায়ার সস আর যথেচ্চ মিক্সড হার্ব।

    গরম গরম আলুর টাকরা টুথ পিকে বিঁধিয়ে অনুপান হিসাবে কালো রামের সাথে। দিব্বি।
  • dam | 61.246.150.46 | ৩০ অক্টোবর ২০০৬ ২২:৪৫633969
  • তা'লে আমিও একটা নতুন জিনিষ শিখেছি, শিখিয়ে দেই সবাইকে।

    মটর ডাল আধাসেদ্ধ আর আলু পুরোসেদ্ধ করে নিয়ে পোস্ত, নুন, হলুদ, কাঁচালঙ্কাকুচি আর সামান্য জিরেগুঁড়ো মিশিয়ে ভাল করে চটকে মেখে নিতে হবে। দরকার হলে সামান্য ময়দা দেওয়া যেতে পারে (দরকার হলে তবেই)। তারপর বড়া বানিয়ে ডুবো তেলে লালচে করে ভেজে নিয়ে ঘন ভাজামুগডাল বা ঘী, মেথিফোড়ন দিয়ে মটর ডালের সাথে খেতে অপূর্ব্ব লাগে।
  • dd | 202.122.18.241 | ০২ নভেম্বর ২০০৬ ২১:১৫633971
  • ভীরু কাপুরুষের দল। সারা জীবন শুধু তেল গরগড়ে প্যাঁজ রসুনের গোল আলুর ঝোল খেয়ে এসেছেন।

    একটু সাহস দেখান। খান রাজস্থানী পাঁটা।

    সফেদ মাস।

    এক কিলো পাঁটাকে নুন দিয়ে সেদ্দ করুন (পেশার কুকারে এক সিটি)

    ২৫০ গ্রাম দইতে সাদা গোল মরিচ মিশিয়ে ফেটান।

    অ্যামন্ড (খোসা ছড়িয়ে) আর নার্কেলের পেস্ট বানান (এট্টু জল দিবেন)।

    তেল গরম করে মাংস ভাজুন। দিন তাতে ঐ দইএর মিক্সচার। তাপ্পর ঢালুন আদাবাটা আর নুন।

    জল মিশান।শুকিয়ে আনুন।

    বাদাম- নার্কেলের পেস্ট মেশান।কার্ডামমের পাউডার দিন। ক্রীম দিন। খুব ঢিমে আঁচে রান্না করুন।

    ব্যাস।

    কাল না হয় আচরী মুর্গের রুপকথা কইবো (খোজা রান্না)।
  • tan | 131.95.121.127 | ০৩ নভেম্বর ২০০৬ ১৯:৩৪633972
  • কই,আচরী মুর্গ?
  • tan | 131.95.121.127 | ০৩ নভেম্বর ২০০৬ ১৯:৫৯633973
  • আরো কিছু শাহী রান্নাও প্লীজ দেবেন।
  • Parolin | 213.94.228.210 | ০৩ নভেম্বর ২০০৬ ২০:০৯633974
  • একটা বহুত ভালো কেকের রেসিপি পেয়েচি। করোচ্চাই ?
    প্রথমে একটা প্লেন কেক বেক করে নাও।
    সেটিকে মোটামুটি গুঁড়িয়ে নিয়ে একটি পাত্রে সমান করে রাখো।
    কয়েকটা মেরি বিস্কুটও গুঁড়িয়ে নাও এবং পাত্রে সমান করে রাখো। এইটো হল তোমার দ্বিতীয় লেয়ার।
    এইবার কিছু টিনড ফ্রুট্‌স(পাঁচমেশালী)ছড়াও। সিরাপ শুদ্ধ।
    এইবার অনেকটা ভ্যানিলা আইসক্রীম ভালো করে গলিয়ে সমান করে ঢেলে দাও। এইবার শেষপাতে চাকুম্‌চুকুম খাও।

  • tan | 131.95.121.127 | ০৩ নভেম্বর ২০০৬ ২২:১৩633975
  • থ্যাংকু,বানাবো।
  • dd | 202.122.18.241 | ০৩ নভেম্বর ২০০৬ ২২:২০633976
  • ঐ সফেদ মাসে দেদার সবুজ লংকা দিতে হবে। দই আর ক্রীমের সাথে গ্রীন চিলি দারুন চলে।
  • dd | 202.122.18.241 | ০৩ নভেম্বর ২০০৬ ২২:৩৬633977
  • আচারী মুর্গ। আচারী মুর্গ। রাঁধুন। খান। দিগ দিগন্তে ছড়িয়ে দিন।

    . প্যাঁজ আদা রসুন দিয়ে এক কে জি মুর্গী সেদ্দ করুন।
    .সেদ্দ মুর্গী সরিয়ে রাখুন
    . হাঁ হাঁ হাঁ করেন কি ? করেন কি ? ঐ জলটা ফেলবেন না। ওটাই চিকেন স্টক। বাটীতে তুলে রাখুন তো।

    . পাঁচটা করে লবংগ,গোলমরিচ,ছোটো এলাচ আর এট্টু দাচ্চিনি হামানদিস্তায় গুঁড়ো করুন। আরে মশাই, গুঁতোর চোটে অটো রিক্সা খান খান হয়ে যায় আর দাচ্চিনি পিষতে ভয় কিসের ?

    . এবার আচারের কেরামতি।
    নার্কেল কোরানো,কাঠবাদাম,জিরা,কাঁচা লংকা,রসুন বাটা, ধনেপাতা,পুদিনা পাতা ভা আ আ লো করে বেটে নিন। এট্টু লেবুর রস ও দিতি পারেন। আমি দি না।

    . এবার রান্না শুরু। এট্টু ঘিতে গরম মশল্লা গুঁড়ো ভেজে নিন। বেশ,এবার ঐ আচারটা দিন। নেড়ে চেড়ে তেল ছাড়লে মুর্গীটা দিন। জোরসে ভাজুন।
    স্টকটা দিন। কম আঁচে রান্না করুন।

    বিগলিত হেসে পরিবেশন করুন।
  • Deb | 71.140.127.158 | ০৬ নভেম্বর ২০০৬ ০১:৪০633978
  • আচারী মুর্গ এর source code এর জন্য ধন্যবাদ।
    কাঠ বাদাম এর বদলে কাজু দিলাম। বেশ ভালো হয়েচে।
    দেব
  • dd | 10.10.1.253, 61.246.241.130 | ১৯ মে ২০০৭ ২০:৩৭633980
  • মুর্গীর হোলকারি

    1 মুর্গীটা স্রেফ ভেজে ফেলুন। না। কোনো আৎলামো নেই, কোনো দ্বিচারিতা নেই। ম্যারিনেশন ফ্যারিনেসন - কিস্যু না। স্রেফ তেল আপনি আর মুর্গী। হাল্কা করে ভাজুন।

    2. এই পেস্টটা করুন। প্যাঁজ আদা রসুন জল ছাড়ানো দই, কসুরি মেথি, আস্তো গরম মশলা,পোস্তো, কাজু আর কাঁচালংকা।

    3. পেস্টটায় ভাজা মুর্গী দিন। ক্রীম দিন (বা দুধ)। নাড়ুন। একটু জল দিন। প্রেশার কুক করুন।

    4. গিলুন
  • DC | 71.129.251.8 | ১২ জানুয়ারি ২০০৮ ১১:২০633982
  • রুই এর আত্‌লামো চাট:
    শুক্রবারের পার্টি আহা! মাল টাল তো চলবেই।
    বন্ধু কে বোলে রাখুন মাছ টা ভেজে রাখিস আমি এসে ফাইনাল টাচ দেবো
    পেগ টা বানিয়ে শুরু করুন পেয়াঁয কাটুন,কাঁচা লংকা কাটুন, তেল গরম হোলে পেয়াজ ছারুন একটু পরে লংকা দিন, হলুদ আর জিরে গুরো দিন,নুন ,অল্পো একটু চিনি দিন নামানোর আগে ধনে পাতা দিতে ভুল যেনো না হয়।
    ভাজা মাছের ওপোর পেয়াজ এর মিশ্রন টা ছরিয়ে দিন
    আর একটা পেগ বানান বৌ এর জন্য
    দেবু

  • de | 24.139.119.173 | ০৮ ডিসেম্বর ২০১৪ ১১:৪৬633983
  • এই টইটা শেষ না হতেই নতুন টই কেন এসেছিলো? কি ভালোটই!
  • Abhyu | 138.192.7.51 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ০৪:৫০633984
  • T | 212.78.238.90 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৫:৫৭633985
  • ঢাকার বিখ্যাত মজাদার ডাল রুটি................

    যা যা লাগবে ( ডালের জন্য )
    -ডাল ১ কাপ
    -পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ
    -কাঁচা মরিচ ৬/৭ টি কুচি
    -হলুদ আধা চা চামচ
    -লবণ ১ চা চামচ
    -জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ
    -ধনে পাতা কুচি আধা কাপ

    ধনেপাতা ছাড়া বাকি সব কিছু ২ কাপ জল দিয়ে সিদ্ধ করুন। জল শুকিয়ে গেলে ধনে পাতা কুচি আর ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে ঘন ঘন নাড়তে থাকুন যাতে নিচে না ধরে। সব একসাথে মিশে শক্ত হয়ে যেতে থাকবে। তারপর পাতিল থেকে আলাদা বাটিতে সরিয়ে রাখতে হবে।

    রুটির জন্যঃ

    -ময়দা ২ কাপ
    -লবণ ১ চা চামচ
    -হালকা গরম জল পরিমাণমত

    অল্প অল্প জল দিয়ে ময়দা শক্ত করে মাখিয়ে নিন। তারপর ডো টি ঢেকে রাখুন ২০ মিনিট।

    প্রণালীঃ

    -ছোট ছোট রুটি বানান। ডালের পুর বেশি করে নিয়ে একটি রুটির উপর রেখে আরেকটি ছোট রুটি দিয়ে রুটি বানান।
    -ছোট রুটি ভর্তি করে ডালের পুর নিবেন ,কারণ রুটি বেলতে হবেনা।
    -তাওয়া গরম করে মাঝারি আঁচে সবগুলো রুটি সেঁকে নিন।
    -ধনে পাতার চাটনির সাথে পরিবেশন করুন।
  • T | 55.64.238.127 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:০২633986
  • ব্রেড রোল

    পাউরুটি নিন ।

    চারপাশের লালচে অংশ কেটে ফেলুন ।
    পাউরুটি বেলুন দিয়ে হালকা করে চেপে নিন ।
    ভিতরে আপনার পছন্দমতো ফিলিং দিন ।
    ডিমের সাদা অংশে ভিজিয়ে নিন।
    বিস্কুটের/চিপ্স এর গুঁড়ায় গড়িয়ে নিন ।
    ডুবো তেলে ভাজুন ।
  • T | 55.64.238.49 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:০৪633987
  • গারলিক বাটার নান...........

    উপকরন
    ময়দা ২-৩ কাপ
    লবন পরিমান মত
    চিনি ১ চা চামচ
    ২ পিঞ্চ খাবার সোডা
    দেড কাপ হালকা গরম দুধ + ঈস্ট ১ টেবিল চামচ গুলে ফুলে উঠা পর্যন্ত রাখুন এক পাশে
    বাটার , ঘি বা তেল ৫০ গ্রাম
    গারলিক বাটার তৈরি :-
    ৫০-৬০ গ্রাম বাটার বা ঘি
    রসূন মিহি কুচি ১ টেবিল চামচ
    ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ
    একটি প্যানে বাটার গরম করে , চুলা বন্ধ করে রসূন কুচি ও ধনেপাতা কুচি দিন ,নেড়ে মিশান তারপর একটি বাটিতে ঢেলে নিন এবং পাশে রাখুন নান ছেঁকার সময় লাগবে ।

    এবার নানের খামির ও নান তৈরি :-
    ১। প্রথমে একটি বড় বলে , ময়দা + লবন + চিনি +২ই পিঞ্চ খাবার সোডা হাত দিয়ে ভাল করে মিক্স করে নিন ।
    ২। এখন গলানো বাটার ও দুধে গুলে রাখা ঈস্ট ঢেলে হাত দিয়ে ভাল করে মিশায় নিন ।প্রয়োজনে খামিরে আরও দুধ দিন নরম স্মুথ খামির হবে ।
    ৩। খামির টা কে ঢেকে গরম জায়গায় কম পক্কে ১ ঘণ্টা রাখুন ।
    ১ ঘণ্টা পর নান বানিয়ে নিন ।খামির কে ছোট ছোট বল বানিয়ে নিন । একটি বল নিন , ময়দা ছিটায় রুটি বেলুন ছোট করে তারপর রুটিকে ভাজ করুন । ওই ভাজের উপর আবার তিন কোনা করে বেলে নিন ।কারন বাটার নান তিন কোনায় হয় শেইপে । রুটি বানিয়ে রুটির উপর পানি ব্রাশ করুন এবং গরম তাওয়ায় পানি লাগান দিকটা দিন ।চুলার আঁচ মিডিয়াম রাখতে হবে ।ঢেকে দিন , ঢাকনা তুলে দেখুন রুটির উপরে বাবল উঠলে বা ফুলে উঠলে তৈরি করে রাখা বাটার গারলিক ব্রাশ করুন । তারপর উল্টায় দিন । অপর দিক হওয়া পর্যন্ত ছেঁকে নিন । এভাবে সব তৈরি করে নিন । হয়ে গেলে পরিবেশন করুন নিহারি , মাংশ কিংবা পছন্ধ মত কারি দিয়ে।
  • T | 212.78.238.90 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:০৮633988
  • থাই চিলি চিকেন..............

    যা যা লাগবেঃ
    মুরগির মাংস - ১টি মুরগি,
    সাদা গোলমরিচ- কোয়ার্টার চা চামচ,
    ডিম- ১ টি
    গাজর- ১টি
    ক্যাপ্সিকাপ-১/২ টি
    [ গাজর, ক্যাপসিকাম জুলিয়ান কাট হবে]
    কোয়া ছাড়ানো পিয়াজ- ১ কাপ
    আদা বাটা,রসুন বাটা-১/২ চা চামচ করে
    সয়া সস/ অয়েস্টার সস- ১ চা চামচ করে
    টমাটো সস- পছন্দ মতো
    তেল- ১/২ কাপ
    কর্ণফ্লাওয়ার/পানি- পরিমানমতো
    কাঁচামরিচ ফালি- ৩/৪ টি,
    শুকনামরিচ ফালি- ২টি
    যেভাবে করতে হবে ঃ
    মুরগি ডিম বাটা মসলা দিয়ে মেখে ৩০মি, রাখতে হবে।
    তারপর তেলে ভাজতে হবে। তারপর ভাজা মুরগি তুলে রাখতে হবে।এরপর একই তেলে গাজর,পিয়াজ,ভাজা হলে মুরগি দিয়ে দিতে হবে।সসগুলি দিয়ে তারপর জলে গোলানো cornflour,মরিচ দিয়ে দিয়ে নামাতে হবে ।
  • T | 55.64.238.150 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:১০633989
  • স্পাইসি চিকেন মাঞ্চুরিয়ান
    উপকরণঃ
    মুরগির বুকের মাংস(ছোট টুকরা)- ২ কাপ
    রসুন+আদা মিহি কিমা ১ চা চামচ
    কর্ণ ফ্লাওয়ার -৩ টেবিল চামচ
    ময়দা – ২ টেবিল চামচ
    ডিম – ১ টি
    গোল মরিচ -১ চা চামচ
    কাঁচা মরিচ – ৫-৬ টি
    চিকেন স্টক – ১ কাপ
    সয়া সস -২ চা চামচ
    টমেটো সস ২ টেবিল চামচ
    চিনি -১/৪ চা চামচ
    লবণ পরিমাণমতো
    টেস্টিং সল্ট- ১ চা চামচ
    পেঁয়াজ কুচি – ১ টি মাঝারি
    পেঁয়াজ পাতা পাতা -২ টেবিল চামচ (কুচানো )
    তেল – ভাজার জন্য
    প্রস্তুত প্রণালী:
    মুরগির মাংস ছোট ছোট টুকরো করে কেটে ধুয়ে নিয়ে তাতে ১ চা চামচ সয়া সস,২ টেবিল চামচ কর্ণ ফ্লাওয়ার,লবন,১/২ চা চামচ গোল মরিচের গুঁড়া,ময়দা , ও ফেটানো ডিম দিয়ে ভালভাবে মাখিয়ে রাখুন ১০ মিনিট।
    প্যানে মাঝারি আঁচে তেল গরম করে মাংসের টুকরা বাদামি না হওয়া পর্যন্ত ভাজতে হবে।
    মাঞ্চুরিয়ান সস এর জন্য প্যানে ২-৩ টেবিল চামচ তেল মাঝারি আঁচে গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুঁচি ,আদা,রসুন কুঁচি দিয়ে হাল্কা বাদামি না হওয়া পর্যন্ত ভাজুন।চুলার আঁচ কমিয়ে তাতে চিকেন স্টক,বাকি সয়া সস,টমেটো সস,লবন,চিনি,গোল মরিচের গুঁড়া,টেস্টিং সল্ট দিন ও ফুটে ওঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন ।
    এরপর স্টক ফুটে উঠলে এর মধ্যে আগে ভেজে রাখা ফ্রাইড চিকেন দিয়ে ৫ মিনিট রান্না করুন।ইচ্ছে করলে এড় সাথে সবজিও দিতে পারবেন। (সিদ্ধ করা গাজর,বেবি কর্ণ,ফুলকপি ও সিদ্ধ ছাড়া ক্যাপ্সিকাম ইত্যাদি সবজি দেয়া যায়।
    সবশেষে ১/৪ কাপ পানিতে ১-২ টেবিল চামচ কর্ণ ফ্লাওয়ার মিশিয়ে চিকেন এর মধ্যে দিয়ে আবার ২-৩ মিনিট রান্না করুন ।এরপর কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজ পাতা ছিটিয়ে নামিয়ে নিন।এরপর পরিবেশন করুন গরম গরম।
  • T | 55.64.238.35 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:১২633990
  • চিলি প্রন
    -----------------
    উপকরন:
    চিংড়ি – ২০০ গ্রাম(মাথা ছাড়িয়ে পরিষ্কার করে ধুয়ে রাখা)
    ডিম – ১ টি
    কর্ণ ফ্লাওয়ার – পরিমান মতো
    ক্যাপসিকাম – ১ টি ( লম্বা টুকরা করা )
    পেঁয়াজ টুকরা করা – ১ টি
    আদা কুচানো – আধা চা চামচ
    রশুন কুচানো – আধা চা চামচ
    কাঁচা মরিচ বাটা – আধা চা চামচ
    টমেটো কেচাপ – আধা চা চামচ
    অয়েস্টার সস – আধা চা চামচ
    সাদা ভিনেগার – আধা চা চামচ
    আদা ও রশুন বাটা – ১ চা চামচ
    গাজর কুচি – ছোট ১ টি
    তেল – পরিমান মতো
    লবন – স্বাদ মতো
    চিনি – অল্প
    পেঁয়াজ পাতা কুচি – সাজাবার জন্য
    প্রণালী:
    -কর্ণ ফ্লাওয়ারে ডিম মিশিয়ে মসৃণ ব্যাটার তৈরি করুন। এর ভেতর আদা, রসুন বাটা ও লবন মেশান। এই মিশ্রণের ভেতর চিংড়ি দিয়ে এক ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন।
    -এক ঘণ্টা পর গরম তেলে ম্যারিনেট করা চিংড়িগুলো ভেজে তুলে রাখুন।
    -এবার অন্য একটি কড়াইতে ২ চা চামচ তেল গরম করুন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ টুকরা ও ক্যাপসিকাম দিন। একটু নাড়াচাড়া করে এর ভেতর গাজর কুচি, আদা কুচি ও রশুন কুচি দিয়ে ভাল মতো মিশিয়ে নিন। এরপর কাঁচামরিচ বাটা দিয়ে একটু কষিয়ে নিন।
    -তেল বের হতে শুরু করলে টমেটো সস ও অয়েস্টার সস দিয়ে দিন। এরপর ভেজে রাখা চিংড়ি এর ভেতর দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। চিংড়ি ও সবজীর সাথে সব মসলা ভাল মতো মিশে গেলে এর ভেতর সাদা ভিনেগার ও সামান্য চিনি দিন।
    -কিছু সময় নাড়াচাড়া করে সারভিং ডিশে ঢেলে পেঁয়াজ পাতা কুচি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন
  • T | 212.78.238.90 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:১৪633991
  • ঝাল টোস্ট
    ---------------------
    উপকরনঃ
    ডিম- ২
    পাউরুটি -৪ টুকরা
    পেঁয়াজকুচি - ২ টেবিল চামচ
    কাঁচামরিচকুচি - ১ টেবিল চামচ
    দুধ - ১ টেবিল চামচ (ইচ্ছা)
    লবন - ১/২ চা চামচ
    চিনি - ১/৪ চা চামচ
    তেল- ৪ টেবিল চামচ
    পদ্ধতিঃ
    - তেল ছাড়া সব উপকরন বাটিতে নিয়ে ভালকরে বিট করুন।
    - এবার একটি প্যানে ১ টেবিল চামচ তেল গরম করুন।
    - একটি পাউরুটি বিট করা ডিমে ডুবান এবং কিছু পেঁয়াজকুচি ও কাঁচামরিচকুচি ডিম
    থেকে পাউরুটির উপর ছড়িয়ে দিন।
    - তারপর সাবধানে তা গরম তেলে দিন।
    - ৩০-৪০ সেকেন্ড বা সুন্দর বাদামী রঙ আসা পর্যন্ত ভাজুন।
    - তারপর অপর পাশ উল্টিয়ে বাদামী রঙ আসা পর্যন্ত ভাজুন।
    - ভাজা হয়ে গেলে কিচান টিস্যুতে উঠিয়ে নিন।
    - একইভাবে বাকি পাউরুটিগুলো ভাজুন।
    - সব ভাজা হয়ে গেলে গরম গরম কেচাপ দিয়ে পরিবেশন করুন।
  • T | 212.78.238.90 | ৩০ জানুয়ারি ২০১৫ ১৬:১৫633993
  • ঝটপট মজাদার স্ন্যাকস ‘আলু টিক্কি
    উপকরণঃ
    - ৪০০ গ্রাম আলু
    - ১০০ গ্রাম চীজ কুঁচি (ইচ্ছা)
    - ২/৩ টুকরো বড় আকৃতির মুরগীর হার ছাড়া মাংস
    - ২ টেবিল চামচ কাঁচা মরিচ কুঁচি
    - ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজ কুঁচি
    - ১ চিমচি হলুদ
    - ১ টি ডিম ফেটানো
    - লবণ ও টেস্টিং সল্ট স্বাদমতো
    পদ্ধতিঃ
    - আলু সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে সামান্য লবণ, মরিচ কুঁচি এবং পেঁয়াজ দিয়ে ভর্তা করে নিন ভালো করে। খেয়াল রাখবেন যাতে আলু দলা না থাকে।
    - মুরগীর হার ছাড়া মাংস সেদ্ধ করে নিন। এবং সেদ্ধ মাংস হাতে ছাড়িয়ে ঝুরি করে নিন।
    - একটি প্যানে তেল দিয়ে গরম করে এতে পেঁয়াজ কুঁচি, মরিচ কুঁচি, লবণ, টেস্টিং সল্ট এবং ১ চিমচি হলুদ দিয়ে ভালো করে নেড়ে চেড়ে এতে ঝুরি করা মাংস দিয়ে দিন।
    - মাংস কিছুটা ভাজিভাজি হয়ে এলে নামিয়ে নিন।
    - আলু ভর্তা সমান করে ২০ টি অংশে ভাগ করে নিন। এরপর একটি অংশ নিয়ে হাতের তালুতে নিয়ে ভালো করে ময়ান করে মাঝে গোল করে নিন।
    - মাঝের গোল অংশে মাংস ঝুরি দিয়ে আলু দিয়ে ঢেকে দিয়ে গোল বলের মতো তৈরি করে নিন। খেয়াল রাখবেন মাংস ঝুরি যাতে বের না হয়ে যায়। ইচ্ছে হলে মাংস ঝুরির সাথে চীজ কুঁচি দিয়ে দিতে পারেন। তবে লক্ষ্য রাখবেন যাতে আলুর বল থেকে যেন বের না হয়ে যায়।
    - এই গোল বলটি এবার হাতের আলতো চাপে একটু চ্যাপ্টা করে টিক্কির আকার দিয়ে দিন।
    - ফ্রাইং প্যানে তেল গরম হতে দিন। তেল এমন ভাবে দেবেন যাতে ডুবো তেল না হয় আবার একবারে কম তেল না হয়।
    - তেল গরম হয়ে এলে আলুর টিক্কিটি ফেটানো ডিমের মধ্যে চুবিয়ে তেলে দিয়ে দিন। এভাবে প্রতিটি টিক্কি লালচে করে ভেজে তুলুন।
    - এক কাপ ধোঁয়া ওঠা চা/কফির সাথে সস দিয়ে গরম গরম মজা নিন এই আলু টিক্কির।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। সুচিন্তিত প্রতিক্রিয়া দিন