ভাটিয়ালি | টইপত্তর | বুলবুলভাজা | হরিদাস পাল | খেরোর খাতা | বই
  • টইপত্তর  অন্যান্য

  • অথ বুনো মোষ তাড়ানোর কথা

    π
    অন্যান্য | ১৫ জুন ২০১২ | ২৫৫৮ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ০৯:৫০547825
  • দুখে এ এ এ এ এ এ এ এ এ, কোথায়????
  • প্পন | 190.215.36.140 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ০৯:৫৪547827
  • ওয়েস্টের ক্লাসিফিকেশন কী হবে তাই নিয়ে কি বিবিএম্পির কোন ডাইরেকশন আছে?

    আমাদের অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সে যেমন তিনটে বিন রেখেছে - কিচেন ওয়েস্ট, ড্রাই ওয়েস্ট আর স্যানিটারি ওয়েস্ট। ই-ওয়েস্ট এরা ড্রাই ওয়েস্টের মধ্যেই ফেলছে।
  • dukhe | 212.54.74.119 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ০৯:৫৪547826
  • কোথায় মানে? বেঙী কি আশা করছেন দুখে ঐ মিটিংয়ের ত্রিসীমানাতেও থাকবে?
    দুখে যেখানে ছিল, সেখানেই। খাটের তলায়।
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:০১547828
  • প্পন, হ্যাঁ আছে, একটা লম্বা লিস্টি, আমার মেইলবক্সে থাকার কথা। খুঁজেপেতে এই পাতায় দিয়ে দেব। ড্রাই ওয়েস্ট আর স্যানিটারি ওয়েস্টের মধ্যে আবার আলাদা শ্রেণীবিভাগ আছে। কিন্তু এখন একদম সময় নেই। থানায় যেতে হবে এখন।
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:০৪547829
  • দুখে, ঃ-))))))))

    আমি আজই মেয়েদের বলে দুখের জন্য একটা ইনভিটেশন পাঠানোর ব্যবস্থা করছি, পরের মিটিংয়ে উপস্থিত থেকে মেয়েদের আলোকিত করার জন্য।
  • প্পন | 190.215.36.140 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:০৫547830
  • ইসে, পুসি (অরিজিনাল) লুরুতে পদার্পণ করছেন ক'দিনের মধ্যেই।
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:০৮547832
  • অভাবী
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:০৮547831
  • জানি, আমাকে ওনাদের সাথে বাড়ি দেখতে যেতে বলেছিলেন, এই মর্মে লিখেছিলেন যে আমার মত জাঁদরেল মহিলা থাকলে নাকি বাড়িওয়ালার মনে ত্রাসের সঞ্চার হবে এবং বাড়িভাড়া হু হু করে নেমে যাবে। আমিও খুশিই হতাম এমন অভাবে লোকের উপকারে লাগতে পারলে, কিন্তু শনি-রবি জাস্ট কোনো সময় থাকে না।
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:১৩547833
  • অজ্জিনাল পুসির রাগে ফেটে পড়ার অপেক্ষায় থাকলাম। :-p

    ঝুমঝুমি, এবার থেকে দুখে ত্যান্ডাইম্যান্ডাই করলেই লুরুর মিটিংয়ের কথা মনে করিয়ে দিও।
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:১৫547835
  • আমি এখন থানায় চল্লুম। তোমরা সব পারলে একটু প্রেয়ার কোরো আমার জন্য। সুখের কথা এই যে ঐ থানায় মহিলা পুলিশও নেই, মহিলাদের লকাপও নেই।
  • ব্যাং | 132.172.245.129 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:১৬547836
  • চিন্তার কথা এই যে ঐ থানার বাথ্রুমটা নিশচয়ই খুব নোংরা হবে।
  • sch | 125.184.61.127 | ১৫ নভেম্বর ২০১২ ১০:২৪547837
  • প্রার্থনা কার জন্যে করব? থানার পুলিশদের জন্যে? করলাম
  • sch | 132.160.114.140 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১২:৫৪547839
  • একটু হয়তো অপ্রাসঙ্গিক - তাও লিঙ্কটা দিয়ে রাখলাম
    http://www.dnaindia.com/bangalore/report_human-entry-into-manholes-will-be-banned-says-bwssb_1710828

    এখন আইন করে ব্যাঙ্গালোরে ম্যানহোলের manual cleaning বন্ধ করা হয়েছে অর্থাৎ রাস্তার ম্যানহোল পরিষ্কার করার জন্যে আর মানুষ ঢুকবে না ম্যানহোলের মধ্যে, যান্ত্রিক পদ্ধতিতে হবে পরিষ্কার করার কাজ, খুব ভালো উদ্যোগ। এবার প্রশ্ন হল যে মানুষগুলো এই কাজ করছিলেন তাদের পেশাগত পুন্ররবাসনের বিষয়ে সরকার কিছু ভাবছেন কি?

    ব্যাঙ্গালোরে যাঁরা আছেন তারা কেউ কি এই বিষয়ে খোঁজ দিতে পারবেন? নিছক কৌতুহল
  • pi | 127.194.10.160 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৬:৫৯547840
  • ম্যানুয়াল স্ক্যাভেঞ্জারদের নিয়ে কোথায় কী কাজ হচ্ছে, জানতে চাই।
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৭:৩৯547841
  • ভবি ভোলবার নয়। ভেবেছিলাম এই টই ডুবেমুবে গেছে। আপদ গেছে। কিন্তু এই এসসিএইচ তা হতে দিলে তো!

    যাগ্গে, শেষ দুটি পোস্ট পড়লাম। আমি ম্যানুয়াল স্ক্যাভেঞ্জারদের ব্যাপারে এখনো কিছু জানি না। ব্যাঙ্গালোর শহরটি এত নোংরা , ম্যানুয়াল স্ক্যাভেঞ্জার তো দূরের কথা, হাজার হাজারে শকুন ছেড়ে দিলেও এই শহর পরিষ্কার হওয়া সম্ভব না।

    আমি পরের পোস্ট যতক্ষণে টাইপাই, আপনারা ততক্ষণ ডেলের লোকদের আদিখ্যেতাটা একবার দেখুন।
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৭:৪৮547842
  • আর এই পুরনো ভিডিওটাও দেখুন।
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:০৩547843
  • সেই মিটিংয়ের পরের কথায় ফিরে আসি। সিদ্ধান্ত তো নেওয়া হল যে রিসাইক্লেবল ড্রাই ওয়েস্ট আইটিসি কিনে নিয়ে যাবে। কিন্তু দুই হাজার ফ্ল্যাট থেকে সংগ্রহ করা হবে কীভাবে? সেগ্রিগেশনই বা কীভাবে হবে, কোথায় হবে? আগে বলে নিই,রিসাক্লিং প্লান্টগুলি কী কী ড্রাই ওয়েস্ট সংগ্রহ করে শহরের বাসিন্দাদের থেকে।
    যে কোনোধরণের কাগজ।
    কার্ডবোর্ড, কার্টন। (তাদের সবচেয়ে বেশি লোভ এই বস্তুটির উপরে)
    প্লাস্টিক। প্লাস্টিক বলতে যে কোনো ধরণের র‌্যাপার, বোতল, ভাঙা খেলনা, ইত্যাদি। কিন্তু সেগুলি ধুয়েমুছে শুকনো করে দিলে তবেই তারা নবে। মানে দুধের প্যাকেটে দুধ লেগে থাকলে চলবে না, প্লাস্টিকের বোতলে পেপসির তলানি চলবে না, জুসের বোতলেও তলানি চলবে না, তেলের বোতল সাবা দিয়ে ধুয়ে শুকিয়ে দিলে তবে তারা নেবে।চকোলেটের র‌্যাপারে চকোলেট লেগে থাকা চলবে না। প্লাস্টিকের ঝাঁটা বা মপ তারা নেবে না।
    এই করতে করতে দেখা গেল তাদের না নেওয়ার লিস্টিটা এতটা লম্বা যে রেসিডেন্টদের কাছে যে ফ্লায়ার পাঠানো হবে, তাতে কী কী নেওয়া হবে না, শুধু তার লিস্টিই হবে এক পাতা লম্বা।
    রবারের কোনো জিনিস তারা নেবে না। মাটির তৈরি গাছের টব তারা নেবে না। নারকেলের দড়ি বা ছোবড়া দিয়ে তৈরি কোনো জিনিস তারা নেবে না। কাঁচের ভাঙা বাসন তারা নেবে না। তার, প্লাস্টিকের সুইচ, এসবও তারা নেবে না। পুরনো কাপড় বা জুতো-ও তারা নেবে না। ব্যাগও না।
    কাঁচের বোতল তারা নেবে, তবে ভাঙা হলে তারা নেবে না। মেটালের ক্যানও তারা নেবে।

    ঝগড়ুটেরা ঝগড়া ছেড়ে লিস্টি বানাতে বসল। একেকজনের একেকেটা জিনিসের নাম মনে পড়ে, সে সেটা বলে আর আইটিসির লোকরা অম্নি ঘাড় নেড়ে বলে তারা সেটা নেবে না। অনেক মগজঝড়ের পরে দেখা গেল, মূলতঃ কাগজ, প্লাস্টিকের র‌্যাপার আর প্লাস্টিকের বোতলই সংগ্রহ করা হবে এই ড্রাইভে।
  • sch | 132.160.114.140 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:১১547844
  • পাই দিদি, ১৯৯৩ সালে একটা আইন হয় - তাতেই বলা হয় এই কাজের জন্যে যদি কোনো সাফাই কর্মীকে কেউ নিয়োগ করেন তাহলে তাকে জরিমানা করা হবে - কিন্তু আইন থাকলেও তার বিশেষ ফল হয় নি
    http://articles.timesofindia.indiatimes.com/2012-04-20/india/31373106_1_manual-scavengers-dry-latrines-manual-cleaning

    http://www.firstpost.com/india/delay-in-manual-scavenging-act-why-we-must-all-be-ashamed-414245.html

    সম্প্রতি ২০১২ তে আরো শক্তিশালী ভাবে এই আইনটি আনা হয় পার্লামেন্টে, নাম হল "The Prohibition of Employment as Manual Scavengers and their Rehabilitation Bill, 2012"
    নিচের লিঙ্কে বিলটির সম্বন্ধে অনেক তথ্য আছে
    http://www.prsindia.org/billtrack/prohibition-of-employment-as-manual-scavengers-and-their-rehabilitation-bill-2012-2449/

    আর পূর্নাংগ বিলটি আছে এইখানে
    http://www.prsindia.org/uploads/media/Manual%20Scavengers/Prohibition%20of%20Employment%20as%20Manual%20Scavengers%20and%20their%20Rehabilitation%20Bill,%202012.pdf

    তবে আমার কাছে এখনো একটু খটকা আছে - এখানে মানুয়াল স্কাভেঞ্জার বলতে যাদের বোঝানো হয়েছে

    "A “manual scavenger” is defined as a person who is engaged for manually cleaning or disposing of human excreta in an insanitary latrine or in an open drain or on a railway track. “Insanitary latrine” means a latrine which requires human excreta to be cleaned manually (except water flush latrine in a railway passenger coach which is cleaned by an employee using protective gear as notified by the central government). "

    অর্থাৎ এই সংজ্ঞায় কিন্তু sewer pipe আর septic tank যারা পরিষ্কার করেন তারা কিন্তু সরাসরি এলেন না। তাদের জন্যে বলা হয়েছে "prohibited from employing a person for hazardous cleaning (manual cleaning without protective gear and other safety precautions) of a sewer or a septic tank." অর্থাৎ তারা প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে কাজটা করতে পারবে। কিন্তু অধিকাংশ দুর্ঘটনা ঘটে ম্যানহোল বা সেপ্টীক ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করার সময় - কারণ যে সব সংস্থা আছেন তাদের কারোরই এই সব বন্দোবস্ত থাকে না। অন্য দিক থেকে বলা যায় যে onsite sanitation system এর উন্নতি হওয়ার ফলে অধিকাংশ জায়গাতে কিন্তু insanitary latrine অপ্রাসঙ্গিক হয়ে গেছে। তাই আইনটি খুব কিছু নতুন কথা বলল না।
    সুয়ার ক্লিনিংয়ে manual labour লাগবে - কিন্তু hazardous cleaning যাতে না হয় তার জন্যে আইন আরো কঠিন হওয়া দরকার

    এবার এই সুয়ার আর সেপ্টিক ট্যাঙ্ক পরিষ্কারের ক্ষেত্রে ব্যাঙ্গালোরে BWSSB তাদের সেফটি ম্যানুয়ালে সরাসরি বলেছে
    "Direct involvement of human interference was eliminated in handling human waste in the present system of UGD. But definitely labour force is required for day to day operation and maintenance of UGD. This can be minimized to maximum extent but cannot be eliminated completed with the usage of mechanical equipment or by adopting advanced technologies."

    ব্যাঙ্গালোরের কথা তো আগেই লিখেছি, পুনের খবর রয়েছে এখানে
    http://www.indianexpress.com/news/ban-on-manual-cleaning-of-sewers-civic-body-achieves-60--mechanisation/939681
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:১৩547846
  • মিটিংয়ের শেষে সর্বসম্মতিক্রমে যেটা দাঁড় করানো গেল সেটা হল নীচের খসড়াটা। এটা দেখলে একটু আন্দাজ পাওয়া আয়, সাধারণ শহুরে জীবনে শুধু কতরকমের আবর্জনা তৈরি হতে পারে প্রতিটি সংসারে।

    DRY WASTE that will be taken and recycled weekly :
    Paper - Paper plates and cups, cardboard boxes and cartons, cardboard (e.g. pizza boxes), mail, loose paper (envelopes covers, ATM slips).
    Plastic - Bags, covers, pouches, milk sachets, all types of plastic bottles, containers, plastic wrappers (chocolate, biscuits, chips), plastic toys, plastic cups and glasses, plastic plates and cutlery, toothpaste/ointment tubes.
    Metal - Pots and pans, metal cans, Aluminum foil and containers, broken metal articles
    Glass - Bottles, Jars

    DRY WASTE that will NOT be taken
    Old shoes, old cloth, leather, rexine, wood, thermocol, broken glass/crockery, areca plates, mud plant pots.
    Drop these non-recyclables in the DRY waste bins kept in your block.
    Newspaper, magazines and books (This will be collected for charity once a month as it is happening now)

    eWaste and WET WASTE will NOT be taken
    Drop WET waste in the WET waste bin.
    এর বাইরে পরে থাকল আরো হাজার রকমের আবর্জনা যা রোজ আমাদের ঘরেই তৈরি হয়, ভলান্টিয়াররা সেই সব বস্তুর লিস্ট করতে এমনকি সেগুলো নিয়ে চিন্তা করতে অস্বীকার করল সেই মুহুর্তে। বাড়ি যেতে হবে না! বাড়ি গিয়ে ছানাপোনাদের খেতে দিতে হবে না! কালকে সকালে পরে বেরোনোর জামাকাপড়গুলো ইস্ত্রি করতে হবে না!
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:২১547847
  • পরের দিন বিকেলে আবার সবাই জড়ো হল। কী কী নেওয়া হবে রেসিডেন্টদের থেকে তার লিস্টি তো বানানো হল।
    কিন্তু নেওয়া হবে কীভাবে?
    কবে কবে নেওয়া হবে? হপ্তার কোনদিন? কটার সময়?
    বাড়ি বাড়ি গিয়ে সংগ্রহ করা হবে? নাকি রেসিডেন্টদের নিজেদের নিয়ে আসতে বলা হবে? সবাই একসাথে কীভবে নিয়ে আসবে? লিফট তো বেশিক্ষণ আটকে রাখা যাবে না?
    এই সব প্রশ্নগুলো সবাই সবাইকে ছুঁড়ে দিতে লাগল শুধু মাত্র একটা অ্যাজাম্পশনের উপর ভর করে। তা হল - সেগ্রিগেশন হবে অ্যাট সোর্স, পার হাউসহোল্ড। প্রতিটা ফ্ল্যাটের বাসিন্দাদের নিজেদেরকেই আলাদাভাবে এইসব জিনিসগুলো সংগ্রহ করে রাখতে হবে সারা হপ্তা ধরে। বাসিন্দাদেরই দায়িত্ব, প্লাস্টিকের জিনিসগুলোর থেকে খ্যাদাংশটুকু ধুয়েমুছে দিয়ে প্লাস্টিকের জিনিসগুলি শুকনো করে রাখার।
    শুধুমাত্র এই একটা জিনিস ধরে নেওয়া হল, রেসিডেন্তদের মতামতের তোয়াক্কা না করে।
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:২৮547848
  • কিন্তু এই ব্যবস্থা ভলান্টিয়ারদের সবার মনোমত হল না। নানারকম মতবিরোধ দেখা দিতে লাগল।
    এক ব্যাদড়া মহিলা বলে বসলেন, "রিসাইক্লিংয়ের জন্য পাঠিয়ে খুব তো পরিবেশবান্ধব সাজা হচ্ছে। কিন্তু দুধের প্যাকেট ধোয়া, হারপিকের বোতল ধোয়া, তেলের শিশি ধোয়া এইসবে জল কতটা খরচা হবে, সে খেয়াল কী আছে?"
    এ ওর মুখ চায়, সত্যি তো ফেলে দেওয়া জিনিসের পিছনে এতটা পরিশোধিত জল নষ্ট করা কি উচিৎ?
    "জলের খরচার কথা ছেড়েই দাও। কার এতটা সময় আছে যে ফেলে দেওয়া শিশিবোতল সাবান দিয়ে ধুতে বসবে কারণ সেটা রিসাইক্লিং প্লান্টে পাঠানো হবে!! আমরা নিজেরাও কি এইটা করতে ইচ্ছুক? এতটা সময় এবং জল ব্যয় করতে?"
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:২৯547849
  • 6:21PMয়ের পোস্ট, শেষের আগের লাইন। *খাদ্যাংশটুকু
  • sch | 125.241.104.227 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:৩০547850
  • এই "ব্যাদড়া" মহিলাটি খুবই বুদ্ধিমান
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:৩৯547851
  • আরেকজন প্রশ্ন করেন "রেসিডেন্টদের বলা তো হবে, নিজের নিজের বাড়িতে আলাদা করে রাখতে ড্রাই ওয়েস্ট, কিন্তু এক হপ্তায় একেকটা হাউসহোল্ডে কতটা জেনারেট হবে, সেই বিষয়ে কি কোনো ধারণা আছে? সাত দিন ধরে এইগুলো জমিয়ে রাখা! সম্ভব কি?"
    দেখা যায় পরিমাণ নিয়ে কারুরই কোনো পরিষ্কার ধারণা নেই।
    আরো সমস্যা আছে। কে ওগুলো নীচে নিয়ে আসবে? কবে আর কখন? কীভাবে? এইবারের ভলান্টিয়ারদের দুই লবির মধ্যে ঝগড়াটা আরো প্রকট হয়ে ওঠে। এক লবির বক্তব্য, প্রথম থেকে হাউসকিপিং স্টাফদের কাজটা (বাড়ি বাড়ি থেকে আবর্জনা সংগ্রহ করার কাজটা) রেসিডেন্টদের ঘাড়ে তথা কাজের লোকদের ঘাড়ে চাপানোর পলিসিটাই ভুল ছিল। রেসিডেন্টরা কিছুতেই রাজি হবে না বাড়িতে রিসাইক্লেবল ড্রাইওয়েস্ট সেগ্রিগেট করে নীচে নিয়ে আসতে। আমরা যদি এখন বাড়ি বাড়ি থেকে এটা সংগ্রহ করি, তবেই সেগ্রিগেটেড ড্রাই ওয়েস্ট পাওয়া সম্ভব, কারন কেউ মিক্সড ওয়েস্টের ব্যাগ ধরালেই সেই মুহুর্তে তাদের গারবেজ ব্যাগ নিতে অস্বীকর করা হবে। তাছড়া বাড়ি বাড়ি গিয়ে কালেক্ট করার আরেক্তা মস্ত সুবিধে হল, জানা যাবে কোন হাউসহোল্ড কী ধরণের ওয়েস্ট জেনারেট করছে, এবং পরিমাণে সেটা কতটা। আর এর ফলে আরেকটা সুবিধে হবে, আমরা যারা এত বছর ধরে কিচেনোয়েস্ট সংগ্রহ করে কম্পোস্টিং করতে ইচ্ছুক, তারাও একদম সেগ্রিগেটেদ কিচেন ওয়েস্ট পাবে।
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৮:৪১547852
  • তাছাড়া, অস্বীকার, আরেকটা, কিচেন ওয়েস্ট, সেগ্রিগেটেড
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৯:০০547853
  • তারা বলল "আমরা প্রতিটা ব্লকের ভলান্টিয়াররা দুইজন করে হাউজকিপিং স্টাফকে সঙ্গে নিয়ে আর দুটো করে বিন নিয়ে সব বাড়িতে বেল দিয়ে দিয়ে ড্রাই ওয়েস্ট সংগ্রহ করব, কেউ মিকস্ড ওয়েস্ট দিলেই হাতেফেরৎ।

    এরা বলে কী রে!! এত সময় কার আছে? লোকের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ময়্লা চাইব? শেষে এইখানে টেনে নামাবি আমাদের?

    কেন রে? তোরা কি অলরেডি করিস না? কেউ এখানে সেখানে ব্যাগ নামিয়ে রাখলে খুলে , হাত চালিয়ে ভিতর থেকে বিল, কাগজ এসব বার করে ফ্ল্যাট নম্বর দেখে, সেই ব্যাগ বয়ে নিয়ে গিয়ে আবার তাদের ফ্ল্যাটে নামিয়ে আসিস না?

    না, আমরা তোদের মত নই। তুই, রমা আর তৃষ্ণা তোরা তিনজন এই অসভ্যতাটা করিস। ফ্ল্যাটের ভিতর গিয়ে ঐ ব্যাগ নামিয়ে আসিস। আমরা ভদ্র। আমরা মুখে বলি। ফোন করে বলি এরকম না করতে। তোরা গায়ের জোরে ঝগড়া করে বেড়াস।

    ঠিক আছে তোরা তোদের ব্লকগুলোয় যা ইচ্ছে কর গে যা! আমরা আমাদের ব্লকগুলোয় হাউজকিপিং স্টাফদের সাহায্য নিয়েই ড্রাই ওয়েস্ট কালেক্ট করব। এতে যখন হাত লাগাচ্ছিই, এর একদম তলানি অব্দি পৌঁছে ছাড়ব।

    যারা হোতা ছিল "নিজের আবর্জনা নিজে নীচের বিনে নামাও" কালচারের, তারা তো এই প্রতিবাদীদের এই মারে কি সেই মারে! এত বছর ধরে আমরা যে এত খেটেছি সেই সব তাহলে ফালতু হয়ে যাবে!! লোকের বাড়ি বাড়ি গেছি, মিটিং করেছি, কাজের মেয়েদের শিখিয়েছি, পড়িয়েছি, সেই সব ফালতু! আবার তোরা দশ বছর পিছনে হেঁটে যাবি?

    হ্যাঁ যাব। তোরা কতটা সাকসেসফুল, সে তোরাও জানিস। আজও কি লিফটের পাশের কর্ণারে গারবেজ ব্যাগ পড়ে থাকে না? আজও কি আমরা নীচের বিভিন্ন রঙের বিনগুলোয় আনসেগ্রিগেটেড, মিক্সড ওয়েস্ট পাই না? তোদের উদ্দেশ্য যদি সেগ্রিগেশন, তাহলে সেটা ঠিকভাবে ইমপ্লিমেন্ট কর! রেসিডেন্টদের উপর হুকুম চাপিয়ে না দিয়ে কীভাবে হান্ড্রেড পারসেন্ট সেগ্রিগেশান এনশিওর করা সম্ভব, সেটা দেখ!
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৯:৪৮547854
  • পুরোনোপন্থীরা সংখ্যায় বেশি হওয়ায় প্রচন্ড চেঁচিয়ে প্রতিবাদীদের সব আপত্তি, সব প্রস্তাব নাকচ করে দেন। ঠিক হয়, রেসিডেন্টরা নিজেরাই সারা সপ্তাহ ধরে জমিয়ে রাখা ড্রাই ওয়েস্ট নিজেরাই নামিয়ে নিয়ে আসবেন সপ্তাহের একটা নির্দিষ্ট দিনে, যেদিন আইটিসির ট্রাক এসে এগুলো কালেক্ট করে নিয়ে যাবে। প্রতিটি লকের একটি করে নিজস্ব কালেকশন পয়েন্ট থাকবে, যেখানে ভলান্টিয়াররা নিজের নিজের ব্লকের কালেকশন পয়েন্টে দাঁড়িয়ে থাকবেন, কেউ ব্যাগ নিয়ে এলে চেক করবেন কে কী নিয়ে আসছে, একটা খাতায় নোট রাখবেন, কোন কোন ফ্ল্যাট থেকে এই ড্রাইভে যোগ দিল আর কারা দিল না।
    প্রতিবাদীদের মনোমত হয় না এই সিদ্ধান্ত, তারা নিশ্চিৎ, এই নিয়মে কিছুতেই সব রেসিডেন্টদের থেকে ড্রাই ওয়েস্ট পাওয়া যাবে না।
    তাদেরকে চুপ করিয়ে দেওয়াটা তারা মোটেই ভালোভাবে নেয় না। তারা ভলান্টিয়ার গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেয়। বাড়ি এসে তারা নেত্রীকে ফোন করে জানিয়ে দেয়, তোমাদের সঙ্গে কোনোরকম সংস্রব রাখতে চাই না। খবরদার, আমাদের ফোন করে করে মিটিংয়ে ডাকবে না। মিটিংয়ে আমাদের কথা বলতে দেওয়া না হলে, আমাদের ন্যাকামো করে ডাকারও দরকার নেই। আর হ্যাঁ, ইমেলগ্রুপ থেকে আমাদের বাদ্দাও ভাই! আমাদের সাথে তোমাদের পোষাবে না, বোঝাই যাচ্ছে।
    নেত্রীও তে এঁটে, সে বলে, আমি তো বাদ দেব না, তোমরা আমাদের সহ্য করতে না পারলে তোমরা আমাদের ব্লক করে দাও।
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ১৯:৫২547855
  • কয়েকদিন সব চুপচাপ। কিছুদিন পরে দেখা যায় প্রতিবাদীদের নেত্রী আর আদি নেত্রী গলা জড়াজড়ি করে মেন্টেনান্স অফিসে হত্যে লাগিয়েছেন, "আমাদের ড্রাই ওয়েস্ট জমা রাখার জন্য একটা গুদোমঘর দেবেন প্লিজ?"
  • ব্যাং | 132.178.241.161 | ২৮ নভেম্বর ২০১২ ২০:০০547857
  • মেন্টেনান্স ম্যানেজার তাদের পাঠিয়ে দিলেন এস্টেট ম্যানেজারের ঘরে। এস্টেট ম্যানেজারই মা-বাপ, উনি ঘর দেওয়ার মালিক, আমি নই।
    এস্টেট ম্যানেজার কী বললেন সে গল্প আবার পরে বলব। তার আগে একটা জরুরি কথা বলা হয় নি। সেটা আগে বলে নিই।

    ইতিমধ্যে ব্যাকগ্রাউন্ডে একটা আলাদা গল্প চলছিল। কোলকাতার যেমন ধাপার মাঠ, ব্যাঙ্গালোরের সেরকম ছিল
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]


মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত
পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। যা মনে চায় মতামত দিন