• টইপত্তর  অন্যান্য

  • আগামীর অবয়ব

    dri
    অন্যান্য | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১১ | ১০৩২২৫ বার পঠিত
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:
  • দ্রি | 162.158.90.137 | ০৪ মে ২০২০ ২০:৪৩731121
  • চার্লস লিন্ডবার্গ বলেছিলেন,

    “This [Federal Reserve Act] establishes the most gigantic trust on earth. When the President (Woodrow Wilson) signs this bill, the invisible government of the monetary power will be legalized....the worst legislative crime of the ages is perpetrated by this banking and currency bill.”

    ইনি কিন্তু কোন ক্রেজি কনস্পিরেসি থিওরিস্ট নন। যেই সময় ফেডারাল রিজার্ভ অ্যাক্ট পাস হয়েছিল, তিনি সেই সময়কার সিটিং কংগ্রেসম্যান ছিলেন। বিলের বিরোধিতা করেছিলেন।
  • দ্রি | 172.68.174.9 | ০৪ মে ২০২০ ২১:৪৯731122
  • লুইস ম্যাকফ্যাডেন, নাইন্টিন থার্টিজে কংগ্রেসে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন,

    ""Mr. Chairman, we have in this Country one of
    the most corrupt institutions the world has ever known.
    I refer to the Federal Reserve Board and the Federal
    Reserve Banks, hereinafter called the Fed. The Fed
    has cheated the Government of these United States and
    the people of the United States out of enough money
    to pay the Nation's debt. The depredations and iniquities of the Fed has cost this Country enough money
    to pay the National debt several times over.

    "This evil institution has impoverished and ruined
    the people of these United States, has bankrupted it-
    self, and has practically bankrupted our Government.
    It has done this through the defects of the law under
    which it operates, through the maladministration of
    that law by the Fed and through the corrupt practices
    of the moneyed vultures who control it.

    "Some people who think that the Federal Reserve
    Banks are United States Government institutions.
    They are not Government institutions. They are
    private monopolies which prey upon the people of
    these United States for the benefit of themselves and
    their foreign customers; foreign and domestic specu-
    lators and swindlers; and rich and predatory money
    lenders. In that dark crew of financial pirates there
    are those who would cut a man's throat to get a dol-
    lar out of his pocket; there are those who send money
    into states to buy votes to control our legislatures;
    there are those who maintain International propa-
    ganda for the purpose of deceiving us into granting
    of new concessions which will permit them to cover up
    their past misdeeds and set again in motion their gi-
    gantic train of crime.

    এগুলোকে যদি কনস্পিরেসি থিওরি বলেন, তাহলে বলতে হয় এই কনস্পিরেসি ফেডেরাল রিজার্ভের ইতিহাসেই জড়িয়ে আছে।

    ম্যাকফ্যাডেনের ওপর দুবার মার্ডার অ্যাটেম্পট হয়। একবার শুটিং। একবার ফুড পয়জনিং।
  • S | 162.158.107.158 | ০৪ মে ২০২০ ২২:২৫731123
  • উইকি থেকেঃ

    In 1934, he made several anti-Semitic comments from the floor of the house and in newsletters to his constituents wherein he cited the Protocols of the Elders of Zion, claimed the Roosevelt administration was controlled by Jews, and objected to Henry Morgenthau, Jr., a Jew, becoming Secretary of the Treasury.
  • S | 162.158.107.158 | ০৪ মে ২০২০ ২২:৩৬731124
  • অনেকে ফেডের সমালোচনা করে, বিশেষ করে লিবারেটেরিয়ান ইকনমিস্টরা, কারণ তারা মনে করে যে সরকারে কোনওরকম ব্যান্কিং সিস্টেমি থাকা উচিত নয়, ইনক্লুডিং সেন্ট্রাল ব্যান্ক। ফেড ইন্টারেস্ট রেট ঠিক করারই বা কে? এরা মনে করে মার্কেট ঠিক করবে। ব্যান্কদের আবার রেগুলেট করার কি আছে, ওরা সেল্ফ রেগুলেটেড হবে (আগের ক্রাইসিসের সময় দেখা গেছে ব্যান্কিং সেক্টরে ডিরেগুলেশনের ফলাফল)। এমনকি এরা মনে করে যে ডলার ছাপানোর মনোপলি শুধুমাত্র সরকারের কাছে থাকবে কেন?

    তা এরা খুবেকটা পাত্তা পায় না। কারণ সবার মাথা এখনও গাঁজা খেয়ে খারাপ হয়নি।
  • dc | 162.158.50.241 | ০৪ মে ২০২০ ২৩:১১731126
  • "এই টেস্টিমনিটা বিশ্বাস করা আর চাঁদে এক বুড়ি চড়্কা চালাচ্ছে বিশাস করা একই ব্যাপার।"

    এবাবা S জানেন না যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর নাজিরা চাঁদে চলে গেছিল? এই ডকুমেন্টারিটা দেখুন। ডিপ স্টেট এটা ডিলিট করার অনেক চেষ্টা করেছিল, কিন্তু কিভাবে যেন ডকুটা ভেসে উঠেছেঃ

  • দ্রি | 162.158.90.137 | ০৪ মে ২০২০ ২৩:৫৪731127
  • থ্মাস আলভা এডিসন এ ব্যাপারে কি মনে করতেনঃ

    "If our nation can issue a dollar bond (interest bearing) it can issue a dollar bill (interest-free). The element that makes the bond good makes a bill good also. The difference between the bond and the bill is that the bond lets money brokers collect twice the amount of the bond and an additional 20 percent, whereas the currency pays nobody but those who contribute directly in some useful way. It is absurd to say that our country can issue $30 million in bonds and not $30 million in currency. Both are promises to pay: But one promise fattens the usurers (interest collectors) and the other helps the people."

    এটা কোন কনস্পিরেসি থিওরি নয়। এই আইডিয়াটা ফেডারাল রিজার্ভ অ্যাক্টের জন্ম থেকেই ছিল।
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০০:০২731128
  • ব্যাংকিং কার্টেলের বিরুদ্ধে বলাটা একটু অ্যান্টি সেমিটিক শোনায়। সেটা কিছু করার নেই। ব্যাঙ্কিং এর একদম উঁচু লেভেলে ইহুদীদের রিপ্রেজেন্টেশানটা একটু বেশী। সেটার কারণ ক্রিশ্চান ধর্মে সুদ নেওয়া খারাপ ধরা হত। তাই দীর্ঘদিন থেকে ঐ বিজনেসে ইহুদীদের ডিসপ্রোপোর্শানেট রিপ্রেজেন্টেশান ছিল। ঐসব ফ্যামিলি গুলোই এখন প্রমিনেন্ট ব্যাংকিং হাউস। ইওরোপে অ্যান্টিসেমিটিজমের রুটস ও ছিল ঐ।

    কিন্তু অ্যান্টিসেমিটিজমের ভয়ে তো ব্যাংকিং কার্টেলের সম্বন্ধে কথা বলা থামানো যায় না।
  • S | 162.158.107.96 | ০৫ মে ২০২০ ০০:১৯731130
  • আমেরিকাতে প্রচুর প্রচুর ব্যান্ক এবং ফাইনান্সিয়াল ইনস্টিটিউশান আছে যেগুলো ইহুদীদের নয়। সেই নিয়ে তমন কোনও বক্তব্য রাখা হয়্না। গোল্ডম্যানকে নিয়ে লোকের যত উৎসাহ, জে পি মর্গানকে নিয়ে কেউ কোনও কথাই বলেনা।

    রিপ্রেজেন্টেশান যতটা না জিউদের, এইসব কনস্পিরেসি থিয়োরিস্টদের আক্রমণ খুব স্পেসিফিকালি এবং ডিসপ্রোপোর্শনেটলি ইহুদীদের বিরুদ্ধে। সেটা শার্লটসভিলেই দেখা গেছে।
  • S | 108.162.245.183 | ০৫ মে ২০২০ ০০:২৭731131
  • থমাস আলভা এডিশনের বক্তব্য কিনা জানিনা। তবে যিনি বলেছেন অনেক কিছু না বুঝেই বলেছেন। এর মানে হলঃ

    কেউ আমেরিকান সরকারের কাছ থেকে বন্ড কিনলে (মানে আমেরিকান সরকারকে ধার দিলে, একেই ট্রেজারি বলা হয়) আমেরিকার সরকারের কাছ থেকে ইন্টারেস্ট পাবে। কিন্তু কেউ আমেরিকান ডলার (বিল, মানে ফিজিকাল কারেন্সি) হাতে রাখলে তো কই ইন্টারেস্ট পায়্না। একটা যে ইনভেস্টমেন্ট ভেহিকল আর আরেকটা কারেন্সি, সেটা না বুঝলে মুশকিল। তাছাড়া ডলার বিল ব্যান্কে রাখলেই ইন্টারেস্ট পাওয়া যায়। এমনকি ফেডেও ডলার রাখা যায়। বা সেই ডলার দিয়ে ট্রেজারি কিনলেই ইন্টারেস্ট পাওয়া যায়।

    অনেকগুলো ইংরেজি কঠিন টার্ম দিয়ে লেখা হয়েছে বটে, কিন্তু সারমর্ম তেমন কিছুই নেই।

    আমেরিকাতে বহু লোক প্রচুর সফিস্টিকেশানের সঙ্গে ভুলভাল কথাবার্তা বলে। তাদের লেখা বইও ছাপা হয়। এদিক সেদিক লেকচারও দেয়।
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৭731133
  • না, সেটা বলা হচ্ছে না মনে হয়। বলা হচ্ছে যে গভর্মেন্ট (বা ব্যাঙ্ক) যখন ফেডের থেকে টাকা ধার নেয়, ফেড ট্রেজারীকে বলে টাকা ছাপিয়ে গভর্মেন্ট বা ব্যাঙ্ককে দাও। এবং সেই দেওয়া বাবদ ইন্টারেস্ট ক্লেম করে।

    এইটা নিয়েই লোকের এত প্রবলেম।
  • s | 162.158.78.49 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৮731134
  • "ইনি কিন্তু কোন ক্রেজি কনস্পিরেসি থিওরিস্ট নন। যেই সময় ফেডারাল রিজার্ভ অ্যাক্ট পাস হয়েছিল, তিনি সেই সময়কার সিটিং কংগ্রেসম্যান ছিলেন। বিলের বিরোধিতা করেছিলেন।"
    কংগ্রেসম্যান হলে কন্সপিরেসি থিওরিস্ট হওয়া যাবে না এমন কোনো আইন আছে নাকি? অন্তত এক ডজন রিপাব্লিকান কংগ্রেসম্যান আছে যারা রেগুলার বেসিসে কন্সপিরেসি থিওরি প্রচার করে। লুই গোমার্ট আর ম্যাট গেট্জ এর নাম মনে পড়্ল এখ্ন। একটু খুঁজলেই বাকিদেরো পাওয়া যাবে।
  • S | 108.162.245.183 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৮731135
  • " গভর্মেন্ট (বা ব্যাঙ্ক) যখন ফেডের থেকে টাকা ধার নেয়, ফেড ট্রেজারীকে বলে টাকা ছাপিয়ে গভর্মেন্ট বা ব্যাঙ্ককে দাও।"

    এই কথাটার কোনো মানে নেই.
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৯731136
  • জে পি মর্গ্যান নিয়ে কেন বলবেনা? জে পি মর্গ্যান তো গ্রেট ডিপ্রেশানের সময় খুব অ্যাক্টিভ ছিলেন, সে কথা কি ভোলা যায়।

    অন্য নন ইহুদীদের নিয়েও তো কত কি বলা হয়। রকাফেলার। বিল গেটস। ফাউচি।
  • S | 108.162.245.183 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৪০731137
  • জে পি মর্গান, রকফেলার, বিল গেটস, আর ফাউচি একই লাইনে?

    বোঝা গেছে।
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৪৪731138
  • একজন কংগ্রেসম্যান একটা বিল দেখে, পড়ে নিজের মত দিলে সেটাকে ঠিক কনস্পিরেসি থিওরি বলা যায় না। তাহলে তো আপনার যা যা পছন্দ নয় সব কিছুকেই কনস্পিরেসি থিওরি বলতে হয়।
  • S | 162.158.106.11 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৪৯731139
  • সরকারের যখন ধারের প্রয়োজন হয় তখন ট্রেজারি নিজেই বন্ড বিক্রি করে লোন তোলে। ট্রেজারিডিরেক্ট ডট গভ নামক একটি ওয়েবসাইটে গেলেই ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের কাছ থেকে সড়াসড়ি ট্রেজারি সিকিউরিটি কেনা যায়।

    এর সাথে ফেডের কোনও সম্পর্ক নেই। ফেড ট্রেজারি কেনা বেচা করে বেন্চমার্ক ইন্টারেস্ট রেট মেইনটেইন করে।
  • S | 162.158.106.11 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৫৩731140
  • ফেড ট্রেজারি সিকিউরিটি কেনা বেচা করে ওপেন মার্কেটে।

    অনেক বুঝিয়েছি, বাট ইফ সামওয়ান ওয়ান্টস টু রিমেইন ব্লিসফুলি ইগনোর‌্যান্ট আর স্প্রেড হেটফুল রিউমার্স দ্যটস হিজ চয়েস। ইট জাস্ট রিফ্লেক্টস ওয়ান'স ইউ নো হোয়াট।
  • S | 162.158.106.11 | ০৫ মে ২০২০ ০১:১০731143
  • সেকি ফাউচি আর হিলারীর নাম নেই?
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০১:১৯731144
  • "The Fed's income comes primarily from the interest on government securities that it has acquired through open market operations."

    এই কথাটা একটু আলোচনা করা যাবে? কংগ্রেস যখন ফেডের থেকে টাকা ধার করে এই হয়না কি?

    তার মানে কি এই নয় যে সরকারকে সুদ দিতে হয় ফেডকে?
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ০১:৩৮731145
  • না। আপনি প্রচুর গুলিয়ে ফেলছেন।
    আবারও লিখছি।

    সরকারের (কঙ্গ্রেস) পয়সা দরকার। ধার নিতে হবে। ট্রেজারির সিকিউরিটি বিক্রি করে। এই সিকিউরিটি মানে হল ট্রেজারি যার কাছ থেকে লোন নিচ্ছে তার সঙ্গে কন্ট্রাক্ট। অনেকটা শেয়ারের মতন। জনগণ (প্রাইভেট সিটিজেন, কোম্পানি, অন্যান্য ব্যান্ক, বিদেশি গভঃ সবাই) আমেরিকার সরকারকে ধার দিলো। উল্টে ট্রেজারি নিজের কাছে রাখলো যাতে লোনের ম্যাচিওরিটি হলে সেটা দেখিয়ে আম্রিগান সরকারের কাছ থেকে নিজের প্রাপ্য বুঝে নিতে পারে। বা ঐ ট্রেজারি সিকিওরিটি অন্য কাউকে বিক্রি করে দিয়ে লাভ লোকসান করতে পারে।

    এটা একটা আলাদা অপারেশান। এর সাথে ফেডের কোনও সম্পর্ক নেই।

    অন্যদিকে ফেডের সবথেকে বড় কাজ হল মনিটারি পলিসি। মানে বেন্চমার্ক ইন্টারেস্ট রেট নির্ধারণ করা। সেটা আমেরিকাতে একটু অন্যভাবে করা হয়। আমাদের দেশে সাধারণতঃ ডিক্লেয়ার করে দেওয়া হয়। আমেরিকাতে সেটা করা হয়্না। সেখানে ফেডারাল রিজার্ভ ওপেন মার্কেট থেকে (অর্থাত যাদের কাছে ট্রেজারি সিকিওরিটি আছে) ট্রেজারি কেনে বা ওপেন মার্কেটে (যারা ট্রেজারি সিকিওরিটি কিনতে চায়) তাদেরকে নিজেদের কাছে অলরেডি কিনে রাখা ট্রেজারি বিক্রি করে ইন্টারেস্ট রেট পরিবর্তন করে। সেইজন্য এটাকে ফেডারাল ওপেন মার্কেট অপারেশান বলে।
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ০১:৪০731146
  • এবারে ফেডের কাছে যদি ট্রেজারি থাকে তখন ফেড সুদ পায় সরকারের থেকে লাইক এনি আদার ট্রেজারি ইনভেস্টার। আবার যে সময় ধরে ট্রেজারি কিনে রাখে সেই সময়ে ট্রেজারির দাম কমে গেলে লোকসান হয়ে গেল।
  • S | 162.158.107.152 | ০৫ মে ২০২০ ০১:৪৮731147
  • ফেডারাল রিজার্ভ আসলে একটা ব্যান্ক। কাদের ব্যান্ক? ব্যান্কদের ব্যান্ক। যেকোনও সেন্ট্রাল ব্যান্কই তাই। ঐযে মেম্বার ব্যান্কগুলো দেখলেন ওদের জন্য ব্যান্ক। আমি জানিনা নন-মেম্বার ব্যান্কদেরও অ্যাকাউন্ট আছে কিনা। যেকোনও ব্যান্কেরই পয়সার দরকার হয়, তখন ফেডারাল রিজার্ভের কাছ থেকে ধার নেয় (নিতে পারে) এবং সুদ দেয়। আবার যখন অতিরিক্ত পয়সা হয়ে যায়, তখন তার একটা অংশ ফেডের কাছে রাখে এবং সুদ পায়। এই দুই সুদের হারকেই রেপোর রেট এবং রিভার্স রেপোর রেট বলা হয়।

    এই দুই সুদের পার্থক্য থেকে অপারেশান কস্ট বাদ দিলে যা থাকে সেটা লাভ। তার থেকে স্ট্যাটুটরি ডিভিডেন্ড দেওয়া হয়। বাকিটা ট্রেজারিকে ফিরত দেওয়া হয়। সেটা আমেরিকান সরকারের ব্যান্কিং থেকে প্রফিট।
  • PM | 162.158.165.31 | ০৫ মে ২০২০ ১৯:৫২731150
  • ফেড এর স্ট্রাকচার এই রকম--

    Structure
    Congress set up the Federal Reserve System to make it autonomous and to isolate it from day-to-day political pressures. For example, the members of the Board of Governors are appointed to serve 14-year terms that do not coincide with presidential terms. Key components of the Federal Reserve System are:

    1. The Board of Governors—Located in Washington, D.C., Board members are appointed by the U.S. President and confirmed by the U.S. Senate. Board members and staff are civil service employees.

    2. The 12 regional Reserve Banks—Located around the country, the 12 Federal Reserve Banks are chartered as private corporations. Employees are not civil service.

    3.The Federal Open Market Committee (FOMC)—Composed of the Federal Reserve Governors and the Federal Reserve Bank presidents, the FOMC is charged with conducting monetary policy.

    The 12 Federal Reserve Banks operate like other businesses; each has its own board of directors that selects the Reserve Bank president and first vice president, with approval from the Board of Governors.

    The regional Federal Reserve Banks are private corporations acting as agents of the government that are owned by their member banks.

    অফিসিয়ালি যা বলছে ফেড স্ট্রাকচার হল "পার্টলি প্রাইভেট আর পার্টলি গভরনমেন্ট"। সেই হিসেবে dri আর S দুজনেই ঠিক। কিন্তু পারসিয়ালি।

    "The Fed is governed by a seve n - m e m b e r B o a rd of Governors , each appointed by the President and confirmed by the Senate." এই হিসেবে সরকারী সংস্থা

    আবার Federal Reserve Bank গুলো সব প্রাইভেট , সে বেপারে কোনো সন্দেহ নেই।
    "Each Federal Reserve Bank has a board of directors represented by bankers, business owners, and other professionals. "
    এদের ক্ষমতা কতটুকু। কি কি করতে পারে - মনিটরি পলিসি তে কি ভুমিকা-- এইগুলো কারুর জানা থাকলে বলুন। তাহলে অনেক কিছু ক্লিয়ার হবে
  • S | 162.158.106.71 | ০৫ মে ২০২০ ১৯:৫৮731151
  • এইসব হাবিজাবি লিন্ক কোত্থেকে পাচ্ছে পিএম?
  • S | 162.158.106.71 | ০৫ মে ২০২০ ২০:০৪731152
  • ফেড নিয়ে অনেক লিখেছি। এর পরেও না বুঝতে পারলে সেটা তাদের ইগনোরেন্স আর ইডিঅসি ধরে নেব।
  • PM | 162.158.165.67 | ০৫ মে ২০২০ ২০:০৬731153
  • এদিকে একটা জোর কনফিউসন-

    দক্ষিনপন্থী দ্রি বলছেন আমেরিকার সব কিছু চালাচ্ছে মুষ্টিমেয় অর্থশালী, প্রভাবশালী ব্যক্তি

    বামপন্থী S বলছেন আমেরিকা হলো নেয়ার্লি ট্রু ডেমোক্রেসি। কোনো লুকোনো অ্যাজেন্ডা নেই। যা চোখের সামনে দেখা যাচ্ছে সেটাই সত্যি, তার বাইরে কিছুই নেই। তুমুল পাওয়ার ফুল ব্যান্কার, রথস্চাইল্ড ইত্যাদি রা পাবলিকের ভোট এ জিতে যে প্রেসিডেন্ট হয় তার কথা সুবোধ বালকের মত শোনে। একটু ও দুষ্টুমি করে না। এমন কি বিল গেট্স ইত্যাদি বড়লোকরা দুনিয়ার মানুষের ভালো ছাড়া আর কিছুই ভাবে না ।

    এই রোল রিভারসালে খুব ই চিন্তিত ঃ(
  • PM | 172.68.146.133 | ০৫ মে ২০২০ ২০:১০731154
  • এদিকে একটা জোর কনফিউসন-

    এদিকে দক্ষিনপন্থী দ্রি বলছেন আমেরিকার সব কিছু চালাচ্ছে মুষ্টিমেয় অর্থশালী, প্রভাবশালী ব্যক্তি । চোখের সামনে যা দেখছি তার কিছুই ঠিক নয়। এগুলো শুধু আই ওয়াশের নাট্য শালা। আসল কাজ হচ্ছে পেছনে, চোখের আড়ালে

    ওদিকে বামপন্থী S বলছেন আমেরিকা হলো নেয়ার্লি ট্রু ডেমোক্রেসি। কোনো লুকোনো অ্যাজেন্ডা নেই। যা চোখের সামনে দেখা যাচ্ছে সেটাই সত্যি, তার বাইরে কিছুই নেই। তুমুল পাওয়ার ফুল ব্যান্কার, রথস্চাইল্ড ইত্যাদি রা পাবলিকের ভোট এ জিতে যে প্রেসিডেন্ট হয় তার কথা সুবোধ বালকের মত শোনে। একটু ও দুষ্টুমি করে না। এমন কি বিল গেট্স ইত্যাদি বড়লোকরা দুনিয়ার মানুষের ভালো ছাড়া আর কিছুই ভাবে না ।

    এই রোল রিভারসালে খুব ই চিন্তিত ঃ(
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ২০:২০731155
  • কনস্পিরেসি থিওরি নিয়ে আধঘন্টা ঘাঁটলে এইসব হাবিজাবি কথা কেউ লেখেনা। কনস্পিরেসি থিওরির মূল অ্যাজেন্ডা হল অ্যান্টাই সেমিটিজম ছড়ানো। নইলে রথসচাইল্ড, যাদের এখন আর কিস্যু বাকী নেই, তাদের নাম আসেনা। ওদের থেকে অনেক বেশি ইনফ্লুয়েন্স ছিল আর রাখে জে পি মর্গান, যাদের নাম কনস্পিরেসি থিওরিস্টরা একবারও মুখে নেয়্না। আর এখন বিল গেটসের পিছনে পড়েছে কারণ সে পাবলিক হেলথে ইনভেস্ট করছে বলে। সেটা করলে যে প্রচুর মাইনরিটি এবং অন্যান্য দেশে নন-হোয়াইটরা একটু বেশিদিন বাঁচবে, সেইটা এইসব হোয়াইট সুপ্রিমেসিস্টরা চায় না।

    এসব নিয়ে আমি ২০০৯-২০১০ নাগাদ প্রচুর পড়াশুনা করেছিলাম। এই ইলুমিনাতি, ম্যাসনরি, সিক্রেট সোসাইটি। তখন দেখি সব নামই ইহুদী।

    দ্রি এগুলো না জেনে বুঝেই আগুনে ঝাঁপ দিয়েছে। এখন আর আগুন নেভাতে পারছেনা। পিএমও একই ভুল করছে। না জেনে বুঝেই করছে।

    এর একটা বড় কারণ হল সাধারণ বাঙালীরা ইহুদী আর ক্রিশ্চান সারনেমের মধ্যে পার্থক্য চিনতে পারেনা। এটা জাস্ট ইগনোরেন্স আর সেটা ধরা পড়ে গেলেই তখন ইগো সেন্ট্রিক তর্ক জুড়ে দেয় যাতে এদের ইগনোরেন্স আরো ভালো করে বোঝা যায়।

    এইসব কনস্পিরেসি থিওরিস্টরা যে সেকেন্ড অ্যামেন্ডমেন্ড, হোয়াইট সুপ্রিমেসিকে সাপোর্ট করে আর গ্লোবাল ওয়ার্মিংকে (যেকোনও সায়েন্টিফিক রিসার্চকেই) ডিনাই করে সেটা না বুঝলে ঐযে বলেছি ইগনোরেন্স আর ইডিওসি।

    রাইট উইঙ্গ কনস্পিরেসি থিয়োরিস্টরা আমেরিকার বর্তমান ডেমোক্র‌্যাটিক প্রসেস পছন্দ করেনা। তাই প্রচুর মিসইনফর্মেশান ছড়ায়। কেউ সেগুলো সাপোর্ট করলেই তাদেরকে অ্যাটাক করে। কারণ তারা মনে করে যে শুধু সাদাদের অধিকার থাকা উচিত ভোট দেওয়ার।

    এগুলো না জেনে বক্তব্য রাখলে বলব হয় ইগনোরেন্ট বা টাকা পাচ্ছে।
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ২০:২৫731156
  • আমেরিকাতে বহুকাল থেকেও বহুলোক আমেরিকাকে চেনেই না। সেটা এখানে বেশিরভাগ এনারাইদের কথায় বোঝা যায়। খুবই শ্যালো আইডিয়া। এমন জিনিস নিয়ে প্রবন্ধ লেখে যেগুলো পুরো জানতে একমাসও লাগার কথা না। এমনকি গোটা বিশেক হলিউডের সিনেমা একটু মন দিয়ে দেখলেই জানা যায়।
  • মতামত দিন
  • বিষয়বস্তু*:

কুমুদি পুরস্কার   গুরুভারআমার গুরুবন্ধুদের জানান


  • কোনোরকম কর্পোরেট ফান্ডিং ছাড়া সম্পূর্ণরূপে জনতার শ্রম ও অর্থে পরিচালিত এই নন-প্রফিট এবং স্বাধীন উদ্যোগটিকে বাঁচিয়ে রাখতে
    গুরুচণ্ডা৯-র গ্রাহক হোন
    গুরুচণ্ডা৯তে প্রকাশিত লেখাগুলি হোয়াটসঅ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন। টেলিগ্রাম অ্যাপে পেতে চাইলে এখানে ক্লিক করে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলটির গ্রাহক হোন।
    • কি, কেন, ইত্যাদি
    • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
    • আমাদের কথা
    • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
    • বুলবুলভাজা
    • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
    • হরিদাস পালেরা
    • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
    • টইপত্তর
    • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
    • ভাটিয়া৯
    • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
    গুরুচণ্ডা৯-র সম্পাদিত বিভাগের যে কোনো লেখা অথবা লেখার অংশবিশেষ অন্যত্র প্রকাশ করার আগে গুরুচণ্ডা৯-র লিখিত অনুমতি নেওয়া আবশ্যক। অসম্পাদিত বিভাগের লেখা প্রকাশের সময় গুরুতে প্রকাশের উল্লেখ আমরা পারস্পরিক সৌজন্যের প্রকাশ হিসেবে অনুরোধ করি। যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
    মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত


    পড়েই ক্ষান্ত দেবেন না। লুকিয়ে না থেকে মতামত দিন