• টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। যে কোনো নতুন আলোচনা শুরু করার আগে পুরোনো লিস্টি ধরে একবার একই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে কিনা দেখে নিলে ভালো হয়। পড়ুন, আর নতুন আলোচনা শুরু করার জন্য "নতুন আলোচনা" বোতামে ক্লিক করুন। দেখবেন বাংলা লেখার মতো নিজের মতামতকে জগৎসভায় ছড়িয়ে দেওয়াও জলের মতো সোজা।
  • আগামীর অবয়ব

    dri
    বিভাগ : অন্যান্য | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১১ | ৪১৬৬৪ বার পঠিত
  • আমার গুরুবন্ধুদের জানানকরোনা ভাইরাস

  • s | 162.158.78.49 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৮731134
  • "ইনি কিন্তু কোন ক্রেজি কনস্পিরেসি থিওরিস্ট নন। যেই সময় ফেডারাল রিজার্ভ অ্যাক্ট পাস হয়েছিল, তিনি সেই সময়কার সিটিং কংগ্রেসম্যান ছিলেন। বিলের বিরোধিতা করেছিলেন।"
    কংগ্রেসম্যান হলে কন্সপিরেসি থিওরিস্ট হওয়া যাবে না এমন কোনো আইন আছে নাকি? অন্তত এক ডজন রিপাব্লিকান কংগ্রেসম্যান আছে যারা রেগুলার বেসিসে কন্সপিরেসি থিওরি প্রচার করে। লুই গোমার্ট আর ম্যাট গেট্জ এর নাম মনে পড়্ল এখ্ন। একটু খুঁজলেই বাকিদেরো পাওয়া যাবে।
  • S | 108.162.245.183 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৮731135
  • " গভর্মেন্ট (বা ব্যাঙ্ক) যখন ফেডের থেকে টাকা ধার নেয়, ফেড ট্রেজারীকে বলে টাকা ছাপিয়ে গভর্মেন্ট বা ব্যাঙ্ককে দাও।"

    এই কথাটার কোনো মানে নেই.
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৩৯731136
  • জে পি মর্গ্যান নিয়ে কেন বলবেনা? জে পি মর্গ্যান তো গ্রেট ডিপ্রেশানের সময় খুব অ্যাক্টিভ ছিলেন, সে কথা কি ভোলা যায়।

    অন্য নন ইহুদীদের নিয়েও তো কত কি বলা হয়। রকাফেলার। বিল গেটস। ফাউচি।
  • S | 108.162.245.183 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৪০731137
  • জে পি মর্গান, রকফেলার, বিল গেটস, আর ফাউচি একই লাইনে?

    বোঝা গেছে।
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৪৪731138
  • একজন কংগ্রেসম্যান একটা বিল দেখে, পড়ে নিজের মত দিলে সেটাকে ঠিক কনস্পিরেসি থিওরি বলা যায় না। তাহলে তো আপনার যা যা পছন্দ নয় সব কিছুকেই কনস্পিরেসি থিওরি বলতে হয়।
  • S | 162.158.106.11 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৪৯731139
  • সরকারের যখন ধারের প্রয়োজন হয় তখন ট্রেজারি নিজেই বন্ড বিক্রি করে লোন তোলে। ট্রেজারিডিরেক্ট ডট গভ নামক একটি ওয়েবসাইটে গেলেই ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের কাছ থেকে সড়াসড়ি ট্রেজারি সিকিউরিটি কেনা যায়।

    এর সাথে ফেডের কোনও সম্পর্ক নেই। ফেড ট্রেজারি কেনা বেচা করে বেন্চমার্ক ইন্টারেস্ট রেট মেইনটেইন করে।
  • S | 162.158.106.11 | ০৫ মে ২০২০ ০০:৫৩731140
  • ফেড ট্রেজারি সিকিউরিটি কেনা বেচা করে ওপেন মার্কেটে।

    অনেক বুঝিয়েছি, বাট ইফ সামওয়ান ওয়ান্টস টু রিমেইন ব্লিসফুলি ইগনোর‌্যান্ট আর স্প্রেড হেটফুল রিউমার্স দ্যটস হিজ চয়েস। ইট জাস্ট রিফ্লেক্টস ওয়ান'স ইউ নো হোয়াট।
  • S | 162.158.106.11 | ০৫ মে ২০২০ ০১:১০731143
  • সেকি ফাউচি আর হিলারীর নাম নেই?
  • দ্রি | 162.158.50.254 | ০৫ মে ২০২০ ০১:১৯731144
  • "The Fed's income comes primarily from the interest on government securities that it has acquired through open market operations."

    এই কথাটা একটু আলোচনা করা যাবে? কংগ্রেস যখন ফেডের থেকে টাকা ধার করে এই হয়না কি?

    তার মানে কি এই নয় যে সরকারকে সুদ দিতে হয় ফেডকে?
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ০১:৩৮731145
  • না। আপনি প্রচুর গুলিয়ে ফেলছেন।
    আবারও লিখছি।

    সরকারের (কঙ্গ্রেস) পয়সা দরকার। ধার নিতে হবে। ট্রেজারির সিকিউরিটি বিক্রি করে। এই সিকিউরিটি মানে হল ট্রেজারি যার কাছ থেকে লোন নিচ্ছে তার সঙ্গে কন্ট্রাক্ট। অনেকটা শেয়ারের মতন। জনগণ (প্রাইভেট সিটিজেন, কোম্পানি, অন্যান্য ব্যান্ক, বিদেশি গভঃ সবাই) আমেরিকার সরকারকে ধার দিলো। উল্টে ট্রেজারি নিজের কাছে রাখলো যাতে লোনের ম্যাচিওরিটি হলে সেটা দেখিয়ে আম্রিগান সরকারের কাছ থেকে নিজের প্রাপ্য বুঝে নিতে পারে। বা ঐ ট্রেজারি সিকিওরিটি অন্য কাউকে বিক্রি করে দিয়ে লাভ লোকসান করতে পারে।

    এটা একটা আলাদা অপারেশান। এর সাথে ফেডের কোনও সম্পর্ক নেই।

    অন্যদিকে ফেডের সবথেকে বড় কাজ হল মনিটারি পলিসি। মানে বেন্চমার্ক ইন্টারেস্ট রেট নির্ধারণ করা। সেটা আমেরিকাতে একটু অন্যভাবে করা হয়। আমাদের দেশে সাধারণতঃ ডিক্লেয়ার করে দেওয়া হয়। আমেরিকাতে সেটা করা হয়্না। সেখানে ফেডারাল রিজার্ভ ওপেন মার্কেট থেকে (অর্থাত যাদের কাছে ট্রেজারি সিকিওরিটি আছে) ট্রেজারি কেনে বা ওপেন মার্কেটে (যারা ট্রেজারি সিকিওরিটি কিনতে চায়) তাদেরকে নিজেদের কাছে অলরেডি কিনে রাখা ট্রেজারি বিক্রি করে ইন্টারেস্ট রেট পরিবর্তন করে। সেইজন্য এটাকে ফেডারাল ওপেন মার্কেট অপারেশান বলে।
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ০১:৪০731146
  • এবারে ফেডের কাছে যদি ট্রেজারি থাকে তখন ফেড সুদ পায় সরকারের থেকে লাইক এনি আদার ট্রেজারি ইনভেস্টার। আবার যে সময় ধরে ট্রেজারি কিনে রাখে সেই সময়ে ট্রেজারির দাম কমে গেলে লোকসান হয়ে গেল।
  • S | 162.158.107.152 | ০৫ মে ২০২০ ০১:৪৮731147
  • ফেডারাল রিজার্ভ আসলে একটা ব্যান্ক। কাদের ব্যান্ক? ব্যান্কদের ব্যান্ক। যেকোনও সেন্ট্রাল ব্যান্কই তাই। ঐযে মেম্বার ব্যান্কগুলো দেখলেন ওদের জন্য ব্যান্ক। আমি জানিনা নন-মেম্বার ব্যান্কদেরও অ্যাকাউন্ট আছে কিনা। যেকোনও ব্যান্কেরই পয়সার দরকার হয়, তখন ফেডারাল রিজার্ভের কাছ থেকে ধার নেয় (নিতে পারে) এবং সুদ দেয়। আবার যখন অতিরিক্ত পয়সা হয়ে যায়, তখন তার একটা অংশ ফেডের কাছে রাখে এবং সুদ পায়। এই দুই সুদের হারকেই রেপোর রেট এবং রিভার্স রেপোর রেট বলা হয়।

    এই দুই সুদের পার্থক্য থেকে অপারেশান কস্ট বাদ দিলে যা থাকে সেটা লাভ। তার থেকে স্ট্যাটুটরি ডিভিডেন্ড দেওয়া হয়। বাকিটা ট্রেজারিকে ফিরত দেওয়া হয়। সেটা আমেরিকান সরকারের ব্যান্কিং থেকে প্রফিট।
  • PM | 162.158.165.31 | ০৫ মে ২০২০ ১৯:৫২731150
  • ফেড এর স্ট্রাকচার এই রকম--

    Structure
    Congress set up the Federal Reserve System to make it autonomous and to isolate it from day-to-day political pressures. For example, the members of the Board of Governors are appointed to serve 14-year terms that do not coincide with presidential terms. Key components of the Federal Reserve System are:

    1. The Board of Governors—Located in Washington, D.C., Board members are appointed by the U.S. President and confirmed by the U.S. Senate. Board members and staff are civil service employees.

    2. The 12 regional Reserve Banks—Located around the country, the 12 Federal Reserve Banks are chartered as private corporations. Employees are not civil service.

    3.The Federal Open Market Committee (FOMC)—Composed of the Federal Reserve Governors and the Federal Reserve Bank presidents, the FOMC is charged with conducting monetary policy.

    The 12 Federal Reserve Banks operate like other businesses; each has its own board of directors that selects the Reserve Bank president and first vice president, with approval from the Board of Governors.

    The regional Federal Reserve Banks are private corporations acting as agents of the government that are owned by their member banks.

    অফিসিয়ালি যা বলছে ফেড স্ট্রাকচার হল "পার্টলি প্রাইভেট আর পার্টলি গভরনমেন্ট"। সেই হিসেবে dri আর S দুজনেই ঠিক। কিন্তু পারসিয়ালি।

    "The Fed is governed by a seve n - m e m b e r B o a rd of Governors , each appointed by the President and confirmed by the Senate." এই হিসেবে সরকারী সংস্থা

    আবার Federal Reserve Bank গুলো সব প্রাইভেট , সে বেপারে কোনো সন্দেহ নেই।
    "Each Federal Reserve Bank has a board of directors represented by bankers, business owners, and other professionals. "
    এদের ক্ষমতা কতটুকু। কি কি করতে পারে - মনিটরি পলিসি তে কি ভুমিকা-- এইগুলো কারুর জানা থাকলে বলুন। তাহলে অনেক কিছু ক্লিয়ার হবে
  • S | 162.158.106.71 | ০৫ মে ২০২০ ১৯:৫৮731151
  • এইসব হাবিজাবি লিন্ক কোত্থেকে পাচ্ছে পিএম?
  • S | 162.158.106.71 | ০৫ মে ২০২০ ২০:০৪731152
  • ফেড নিয়ে অনেক লিখেছি। এর পরেও না বুঝতে পারলে সেটা তাদের ইগনোরেন্স আর ইডিঅসি ধরে নেব।
  • PM | 162.158.165.67 | ০৫ মে ২০২০ ২০:০৬731153
  • এদিকে একটা জোর কনফিউসন-

    দক্ষিনপন্থী দ্রি বলছেন আমেরিকার সব কিছু চালাচ্ছে মুষ্টিমেয় অর্থশালী, প্রভাবশালী ব্যক্তি

    বামপন্থী S বলছেন আমেরিকা হলো নেয়ার্লি ট্রু ডেমোক্রেসি। কোনো লুকোনো অ্যাজেন্ডা নেই। যা চোখের সামনে দেখা যাচ্ছে সেটাই সত্যি, তার বাইরে কিছুই নেই। তুমুল পাওয়ার ফুল ব্যান্কার, রথস্চাইল্ড ইত্যাদি রা পাবলিকের ভোট এ জিতে যে প্রেসিডেন্ট হয় তার কথা সুবোধ বালকের মত শোনে। একটু ও দুষ্টুমি করে না। এমন কি বিল গেট্স ইত্যাদি বড়লোকরা দুনিয়ার মানুষের ভালো ছাড়া আর কিছুই ভাবে না ।

    এই রোল রিভারসালে খুব ই চিন্তিত ঃ(
  • PM | 172.68.146.133 | ০৫ মে ২০২০ ২০:১০731154
  • এদিকে একটা জোর কনফিউসন-

    এদিকে দক্ষিনপন্থী দ্রি বলছেন আমেরিকার সব কিছু চালাচ্ছে মুষ্টিমেয় অর্থশালী, প্রভাবশালী ব্যক্তি । চোখের সামনে যা দেখছি তার কিছুই ঠিক নয়। এগুলো শুধু আই ওয়াশের নাট্য শালা। আসল কাজ হচ্ছে পেছনে, চোখের আড়ালে

    ওদিকে বামপন্থী S বলছেন আমেরিকা হলো নেয়ার্লি ট্রু ডেমোক্রেসি। কোনো লুকোনো অ্যাজেন্ডা নেই। যা চোখের সামনে দেখা যাচ্ছে সেটাই সত্যি, তার বাইরে কিছুই নেই। তুমুল পাওয়ার ফুল ব্যান্কার, রথস্চাইল্ড ইত্যাদি রা পাবলিকের ভোট এ জিতে যে প্রেসিডেন্ট হয় তার কথা সুবোধ বালকের মত শোনে। একটু ও দুষ্টুমি করে না। এমন কি বিল গেট্স ইত্যাদি বড়লোকরা দুনিয়ার মানুষের ভালো ছাড়া আর কিছুই ভাবে না ।

    এই রোল রিভারসালে খুব ই চিন্তিত ঃ(
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ২০:২০731155
  • কনস্পিরেসি থিওরি নিয়ে আধঘন্টা ঘাঁটলে এইসব হাবিজাবি কথা কেউ লেখেনা। কনস্পিরেসি থিওরির মূল অ্যাজেন্ডা হল অ্যান্টাই সেমিটিজম ছড়ানো। নইলে রথসচাইল্ড, যাদের এখন আর কিস্যু বাকী নেই, তাদের নাম আসেনা। ওদের থেকে অনেক বেশি ইনফ্লুয়েন্স ছিল আর রাখে জে পি মর্গান, যাদের নাম কনস্পিরেসি থিওরিস্টরা একবারও মুখে নেয়্না। আর এখন বিল গেটসের পিছনে পড়েছে কারণ সে পাবলিক হেলথে ইনভেস্ট করছে বলে। সেটা করলে যে প্রচুর মাইনরিটি এবং অন্যান্য দেশে নন-হোয়াইটরা একটু বেশিদিন বাঁচবে, সেইটা এইসব হোয়াইট সুপ্রিমেসিস্টরা চায় না।

    এসব নিয়ে আমি ২০০৯-২০১০ নাগাদ প্রচুর পড়াশুনা করেছিলাম। এই ইলুমিনাতি, ম্যাসনরি, সিক্রেট সোসাইটি। তখন দেখি সব নামই ইহুদী।

    দ্রি এগুলো না জেনে বুঝেই আগুনে ঝাঁপ দিয়েছে। এখন আর আগুন নেভাতে পারছেনা। পিএমও একই ভুল করছে। না জেনে বুঝেই করছে।

    এর একটা বড় কারণ হল সাধারণ বাঙালীরা ইহুদী আর ক্রিশ্চান সারনেমের মধ্যে পার্থক্য চিনতে পারেনা। এটা জাস্ট ইগনোরেন্স আর সেটা ধরা পড়ে গেলেই তখন ইগো সেন্ট্রিক তর্ক জুড়ে দেয় যাতে এদের ইগনোরেন্স আরো ভালো করে বোঝা যায়।

    এইসব কনস্পিরেসি থিওরিস্টরা যে সেকেন্ড অ্যামেন্ডমেন্ড, হোয়াইট সুপ্রিমেসিকে সাপোর্ট করে আর গ্লোবাল ওয়ার্মিংকে (যেকোনও সায়েন্টিফিক রিসার্চকেই) ডিনাই করে সেটা না বুঝলে ঐযে বলেছি ইগনোরেন্স আর ইডিওসি।

    রাইট উইঙ্গ কনস্পিরেসি থিয়োরিস্টরা আমেরিকার বর্তমান ডেমোক্র‌্যাটিক প্রসেস পছন্দ করেনা। তাই প্রচুর মিসইনফর্মেশান ছড়ায়। কেউ সেগুলো সাপোর্ট করলেই তাদেরকে অ্যাটাক করে। কারণ তারা মনে করে যে শুধু সাদাদের অধিকার থাকা উচিত ভোট দেওয়ার।

    এগুলো না জেনে বক্তব্য রাখলে বলব হয় ইগনোরেন্ট বা টাকা পাচ্ছে।
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ২০:২৫731156
  • আমেরিকাতে বহুকাল থেকেও বহুলোক আমেরিকাকে চেনেই না। সেটা এখানে বেশিরভাগ এনারাইদের কথায় বোঝা যায়। খুবই শ্যালো আইডিয়া। এমন জিনিস নিয়ে প্রবন্ধ লেখে যেগুলো পুরো জানতে একমাসও লাগার কথা না। এমনকি গোটা বিশেক হলিউডের সিনেমা একটু মন দিয়ে দেখলেই জানা যায়।
  • dc | 162.158.166.58 | ০৫ মে ২০২০ ২০:২৭731157
  • ফেড নিয়ে ছোট্ট করে সামারি পড়তে চাইলেঃ

    https://www.kansascityfed.org/aboutus/federalreservesystem

    আরও বিস্তারিত জানতে চাইলে, বোর্ড অফ গভর্নর আর FOMC ইত্যাদি নিয়ে জানতে চাইলেঃ

    https://www.federalreserve.gov/aboutthefed/pf.htm

    আর একেবারে বিস্তারিত জানতে চাইলে, সেন্ট্রাল ব্যাংকের রোল, কেন সেটা ইন্ডিপেনডেন্ট হওয়া উচিত, সেসব পড়তে চাইলে স্যামুয়েলসনের Economics পড়ে ফেলুন।

    তবে স্যামুয়েলসন বোধায় ডিপ স্টেট, ফ্ল্যাট আর্থের অন্য পিঠে কি হচ্ছে সেসব খোঁজ ওনার বইতে পাওয়া যাবে না।
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ২০:২৯731158
  • PM | 162.158.165.31 | ০৫ মে ২০২০ ১৯:৫২
    -----------------------------------------------------
    এই পোস্ট এর সোর্স কি? লিখেছে অফিসিয়ালি বলছে. দেখি সেই অফিসিয়াল সোর্স কি?
    এতে ইংলিশও ঠিক নেই. নিজে লিখে দিলে আলাদা কথা.
  • dc | 162.158.165.65 | ০৫ মে ২০২০ ২০:৩২731159
  • এইরে স্যামুয়েলসন তো জিউ! তাহলে চলবে না। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের অনুমোদিত কেউ আছে নাকি যে ফেড টেড নিয়ে লিখেছে?
  • S | 162.158.107.158 | ০৫ মে ২০২০ ২০:৩৬731160
  • এইসব কনস্পিরেসি থিয়োরিস্টদের বক্তব্যঃ

    ১) সব প্রাইভেট ব্যান্করা নাকি ফেডের মালিক। কোন ব্যান্ক? সব ইহুদীদের ব্যান্কগুলো।
    - অথচ এটা পাবলিক নলেজ যে শুধুমাত্র আমেরিকার কমার্শিয়াল ব্যান্করা ফেডের মেম্বার হতে পারে।

    ২) এর ফলে প্রাইভেট ব্যান্করা নাকি প্রচুর পাভ করে কোনও ইনভেস্টমেন্ট ছাড়াই।
    - দেখাই যাচ্ছে যে সবকটা মেম্বার মিলেও ১ বিলিয়নের কম ডিভিডেন্ড পায়।

    ৩) ফেডের স্ট্রাকচার নাকি এত কঠিন যে কেউ বুঝতেই পারেনা।
    - ফেডের স্ট্রাকচার খুব সহজ। আসলে নিজেরা বুঝতে পারেনি, তাই ভাবে আর কেউ বুঝবে না।

    ৪) মিথ্যা ধরা পরে যাওয়ার পরে এদিক সেদিক লক্ষাধিক লিন্ক আসে।
    - যেগুলো হয় তাদের মতনই কোনও কনস্পিরেসি থিওরিস্টদের বক্তব্য। চোরের সাঙ্গাত আরকি। বা সেগুলো অন্য কথা বলছে। প্রচুর টেকনিকাল টার্ম থাকে যেগুলোর মানে নিজেরা জানেনা।

    ৫) তারপরে বলবে যে সব সরকারি তথ্য মিথ্যা। সত্যি একমাত্র অ্যালেক্স জোন্স আর রাশ লিম্বো।
    - ঃ)
  • PM | 162.158.165.25 | ০৬ মে ২০২০ ০০:৩৫731161
  • S এর জন্য সোর্স-- বলছে ফেডেরল রিসার্ভ ব্যান্ক অফ সানফ্রান্সিস্কো । আগে ফেড এর স্ট্রাকচারের অংশ টা এখান থেকে নিয়েছিলাম। সোর্স মেন্সন করা উচিত ছিলো। কতোটা অথেন্টিক জানি না--

    https://www.frbsf.org/education/publications/doctor-econ/2003/september/private-public-corporation/

    https://www.federalreserve.gov/faqs/about_14986.htm

    " ৩) ফেডের স্ট্রাকচার নাকি এত কঠিন যে কেউ বুঝতেই পারেনা।
    - ফেডের স্ট্রাকচার খুব সহজ। আসলে নিজেরা বুঝতে পারেনি, তাই ভাবে আর কেউ বুঝবে না। " -- S

    এইটা নিয়ে একটা বক্তব্য আছে। আমেরিকান মোনিটারি ইন্স্টিটিউট বলছে-

    Students of our monetary system quickly encounter this important question, normally phrased as whether the Federal Reserve System is part of the U.S. Government or is a private organization. The importance people are placing on the answer is indicated by the over 36,000 web sites the question raises on internet search engines.

    বোকা আর না বোঝা লোকের সংখ্যা নেহাত কম নয় দেখা যাচ্ছে!!!

    কয়েকটা অন্য ওয়েব সাইট ও দেখলাম বোঝার জন্য-

    That is, the net earnings from the member banks seigniorage privilege are not turned over to our government but kept by the private member banks. For England this amount has been estimated at 41 Billion Pounds per year. For the US we think it’s between $100-200 billion per year; but we need to know the amount more precisely from the Fed itself.
    This money creation which is put into the system when the banks extend loans, eventually becomes a source of funding when our government’s bonds are sold to the public. Here is how Wright Patman, former House Banking and Currency Committee Chairman for 16 years criticized that process:
    “I have never yet had anyone who could, through the use of logic and reason, justify the Federal Government borrowing the use of its own money….I believe the time will come when people will demand that this be changed. I believe the time will come in this country when they will actually blame you and me and everyone else connected with the Congress for sitting idly by and permitting such an idiotic system to continue.”

    -----------------------------

    * Federal Reserve Employees are not part of the US Civil Service System and are not covered by government employees’ health insurance or pension programs. Who does the hiring and firing? Except for the highly publicized Chairman and 7 member Washington Board, this is in private, unelected hands.

    ------------------------------------

    Several legal proceedings further illuminate the private aspects of the Fed. This case refers to several of those cases.
    1) JOHN L. LEWIS, Plaintiff/Appellant, vs. UNITED STATES OF AMERICA, Defendant/Appellee.
    (No. 80-5905, UNITED STATES COURT OF APPEALS, NINTH CIRCUIT
    680 F.2d 1239; 1982 U.S. App. LEXIS 20002; March 2, 1982, Submitted; April 19, 1982, Decided)
    [Lewis had been injured by a car owned by the San Francisco Fed and sued the US Government for damages. Note that this ruling particularly applies to the regional Federal Reserve Banks, not necessarily the Federal Reserve Board. Thus even more ambiguity!]
    ----------------------------

    Is the Fed Operating in the Public Interest and Promoting Governmental Policy?
    Short answer: No.

    https://www.monetary.org/35-key-articles/97-is-the-federal-reserve-system-a-governmental-or-a-privately-controlled-organization

    এটাও একটা মজার লিন্ক। এখানে ফেড নিয়ে পড়াচ্ছে , পরীক্ষা ও নিচ্ছে --

    "The Federal Reserve is not a private corporation. It is part private and part public, with its Board of Governors an agency of the United States government.The regional Federal Reserve Banks are private corporations acting as agents of the government that are owned by their member banks."

    "Each Federal Reserve Bank has a board of directors represented by bankers, business owners, and other professionals. "
    https://www.philadelphiafed.org/-/media/education/teachers/resources/fed-today/fed-today_lesson-3.pdf

    সাইট গুলো দেখে মনে হয় অথেন্টিক। সত্যি কি জানি না। আপনারা বলতে পারবেন এগুলো আদতে কন্স্পিরেসি সাইট কিনা
  • S | 162.158.106.11 | ০৬ মে ২০২০ ০০:৪৫731162
  • না বুঝতে পারলে তো এরকম কনক্লুশান আসবেই। এসবিআই কি সরকারি বা বেসরকারি? কলেজ প্রফেসাররা কি সিভিল সার্ভিস এমপ্লয়ী? আইআইটিতে কোন কোন ছাত্রকে ভর্তি করা হবে সেটা কি প্রধান মন্ত্রী ঠিক করে দিতে পারেন?
  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০০:৫৬731163
  • আবারও লিখছি।

    ১) ফেডের গভর্ণরদের প্রেসিডেন্ট নিয়োগ করে।
    ২) ফেডের অন্যান্য এমপ্লয়িদের ফেড নিজেই নিয়োগ করে।
    ৩) ফেডের লোকেদের মাইনে (এবং অন্যান্য খরচ) আসে ফেডের নিজস্ব আয় থেকে। তাই তারা সিভিল সার্ভেন্ট নয়।
    ৪) ফেড একটি ব্যান্ক। সেই ব্যান্ক চালানোর জন্য যে ক্যাপিটাল লাগে, সেটা সব মেম্বার কমার্শিয়াল ব্যান্করা মিলে দেয়। কিন্তু তাদের কন্ট্রোল নেই বা স্বল্প। শুধু ডিভিডেন্ড পায় আর একটা-দুটো বোর্ডে নিজেদের কিছু রিপ্রেজেন্টেটেটিভ থাকে। (এইকারণের অনেকে ভুল মনে করে যে ফেড প্রাইভেট)
    ৫) ফেড নিজের মতন সিদ্ধান্ত নেয়। ইন্ডিপেন্ডেন্ট। সেখানে কেউ মাথা গলাতে পারেনা।
    ৬) ডিভিডেন্ড বাদ দিলে ফেডের সব লাভ ট্রেজারিতে ফেরত দেওয়া হয়।

    কঠিন কিছুই নেই।
    এটা না বোঝার কোনও কারণ নেইতো।

    এই শেষ পয়েন্টটা (৬) থেকেই বোঝা যায় যে ফেড সরকারি এজেন্সি। নইলে বছর বছর টেনস অব বিলিয়নস অব ডলার ট্রেজারিতে ট্রানসফার করত না।
  • S | 162.158.107.152 | ০৬ মে ২০২০ ০১:০৫731164
  • এইতো লেখাই আছে। প্রাইভেট হওয়ার কি কি ফিচার?

    ১) ফেডের নিজস্ব বোর্ড অব ডিরেক্টরস আছে যারা বিভিন্ন ওয়াকস অব লাইফ থেকে আসে। প্রাইভেট সিটিজেন।
    ২) ফেড ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস দেয়।
    ৩) ফেড ইজ সেল্ফ ফাইনান্সড।
    ৪) ফেডের এমপ্লয়িরা সরকারি কর্মচারি নয়। মানে নিয়োগ, মাইনে ইত্যাদি আলাদা।
    ৫) ফেড রিজার্ভ ব্যান্কের প্রেসিডেন্টরা সরকারি অ্যাপয়েন্টমেন্ট নয়।
    ৬) মেম্বার ব্যান্ক হতে গেলে স্টক কিনতে হয়।

    এগুলো আগেও আলোচনা হয়েছে।
    এগুলোর কোনোটাই এমনকিছু প্রমাণ করেনা। বেশিরভাগ সরকারি কলেজ-ইউনিভার্সিটিতেই এগুলো ফলো করা হয়। তাই বলে সেগুলো বেসরকারি হয়ে যায় না।
  • দ্রি | 162.158.158.180 | ০৬ মে ২০২০ ০২:১৩731165
  • "এই দুই সুদের পার্থক্য থেকে অপারেশান কস্ট বাদ দিলে যা থাকে সেটা লাভ। তার থেকে স্ট্যাটুটরি ডিভিডেন্ড দেওয়া হয়। বাকিটা ট্রেজারিকে ফিরত দেওয়া হয়। সেটা আমেরিকান সরকারের ব্যান্কিং থেকে প্রফিট।"

    তার মানে প্রতি বছরের শেষে ফেডের লাভ হয় শুন্য।

    "এবারে ফেডের কাছে যদি ট্রেজারি থাকে তখন ফেড সুদ পায় সরকারের থেকে লাইক এনি আদার ট্রেজারি ইনভেস্টার।"

    লাভ শুন্য হলে এত ট্রেজারি কেনার পয়সা ফেড পায় কোথা থেকে?
  • S | 162.158.107.96 | ০৬ মে ২০২০ ০২:৪৫731166
  • লাভ তো ৫৫ বিলিয়ন ডলার। আপনি যেটা বলছেন সেটা হল রিটেইন্ড আর্নিঙ্গস। মানে লাভের কতটা কোম্পানি নিজের কাছে রেখে দিল (অংশিদারদের ডিভিডেন্ড দেওয়ার পরে)। হ্যাঁ সেটা শুণ্য ঠিক নয়। সেটার লিমিট ছিল ১০ বিলিয়ন ডলার। গত বছর সেটা বদলে ৬.৮ বিলিয়ন মতন করে দিয়েছে। এটা কিন্তু এক বছরের প্রফিট নয়। এটা যত প্রফিট জমেছে, তার মধ্যে ফেড কতটা নিজের কাছে রাখতে পারে তার পরিমাণ (সারপ্লাস)। এই কারণে গত বছর প্রায় ৩.২ বিলিয়ন ডলার এককালীন ট্রেজারিকে ফেরত দেয় ফেড।

    এই ৬.৮ বিলিয়ন ডলার + মেম্বার ব্যান্কদের দেওয়া ক্যাপিটাল (সাড়ে ৩৮ বিলিয়ন ডলার) + প্রয়োজনে বিভিন্ন ব্যান্কের যে ডিপোজিট থাকে (দেড় ট্রিলিয়ন ডলার) সেই দিয়ে ফেড ট্রেজারি কেনে। এমনকি ট্রেজারিও তার টাকা ফেডের কাছে রাখে (৪০০ বিলিয়ন+)। এছাড়াও ফেডের অনেক অ্যাসেট আছে।

    মনে করুন আপনি ব্যান্ক অব আমেরিকার বড় ইনভেস্টার। বছরের শেষে ৫৫ বিলিয়ন প্রফিট পেয়েছেন। সেটা ব্যান্ক অব আমেরিকাতেই রাখলেন।
  • S | 108.162.245.183 | ০৬ মে ২০২০ ০৩:১৬731167
  • পিএম যে লেখাপড়া আর পরীক্ষার লিন্ক দিয়েছেন, সেটা হাইস্কুলের জন্য।
  • Dipanjan | 172.68.143.65 | ০৬ মে ২০২০ ০৬:৫২731168
  • ইম্পিরিয়াল কলেজের নিল ফার্গুসন, যার প্যানিকি মডেলের প্রেডিকশনের 500,000 UK তে আর 2 মিলিয়ন USA তে মরবে লক ডাউন না হলে -- ভিত্তিতে US UK লক ডাউন করে, আজ রিসাইন করেছে | কোয়ারান্টাইন ভেঙেছিল, ধরা পড়েছে |

    Prof Ferguson told the Telegraph: "I accept I made an error of judgment and took the wrong course of action. I have therefore stepped back from my involvement in Sage [the government's Scientific Advisory Group for Emergencies].

    https://www.telegraph.co.uk/news/2020/05/05/exclusive-government-scientist-neil-ferguson-resigns-breaking/

    কোরোনা কান্ড প্রথম না, এ আগেও দু তিন বার একই রকম প্যানিকি প্রেডিকশন করেছে -অর্ডার অফ ম্যাগ্নিচূড ভুল ছিল |
  • S | 108.162.245.81 | ০৬ মে ২০২০ ০৬:৫৮731169
  • সেইজন্য রিজাইন করেনি। রিজাইন করেছে সবাইকে সোশাল ডিস্ট্যান্সিংএর লেকচার দিয়ে নিজে বিবাহিতা মহিলার সঙ্গে প্রেম করতে গিয়েছিলেন সেইজন্য। এদিকে নিজে কোরোনা পজিটিভ।
  • Dipanjan | 172.68.143.65 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:০১731170
  • লিখলাম তো, কোয়ারান্টিন ভাঙার জন্য | লাভারের নাম Staats - "screwing with stats" আর কি |
  • lcm | 172.68.189.192 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:০৬731171
  • Mayer Amschel Rothschild (1743-1812)

    "Let me issue and control a nation's money, and I care not who writes its laws" - Mayer Amschel Rothschild

    It was Alexander Hamilton who lobbied for the first private Federal Bank, and in 1789 Congress chartered the bank.

  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:১১731172
  • The Federal Reserve System (also known as the Federal Reserve or simply the Fed) is the central banking system of the United States of America. It was created on December 23, 1913, with the enactment of the Federal Reserve Act, after a series of financial panics (particularly the panic of 1907) led to the desire for central control of the monetary system in order to alleviate financial crises.
  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:১২731173
  • December 12, 1791, was a red-letter day in the financial history of the young United States. That day a bank unlike any previously seen in America opened for business in Carpenters’ Hall in Philadelphia, then the seat of the federal government. The new bank was a national bank, authorized by Congress to hold $10 million in capital—an astronomical sum at the time—and operate across state borders. And it was a quasi-public institution, owned mostly by businessmen and lawyers motivated by profit, but also intended to serve the public interest by improving the financial standing of the federal government and fostering economic growth.
  • lcm | 172.68.189.192 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:১৩731174
  • Secretary of the US Treasury, US Treasury, 1789–1795...

    Alexander Hamilton served as the first US secretary of the Treasury (1789-95) and played a leading role in establishing the nation’s early financial infrastructure, including the First Bank of the United States.

    https://www.federalreservehistory.org/people/alexander_hamilton

  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:১৫731175
  • রথ্সচাইল্ড ফ্যামিলির সাথে আমেরিকার সম্পর্ক খুবই ক্ষীন। রথসচাইল্ড ফ্যামিলি যখ্ন মধ্যগগণে, তখন তাদের মূল কাজকর্ম সবই ইয়োরোপে। আর্মশেল রথসচাইল্ড বোধয় আমেরিকাতে কোনওদিনও পা রাখেননি।
  • lcm | 172.68.189.192 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:১৬731176
  • Hamilton's insights about central banking, money supply, and credit endured well beyond those years, and they eventually provided a foundation for the establishment of the Federal Reserve in 1913.

    Alexander Hamilton - first formed the idea of Federal Reserve

    It took long time for the country to give it an official stature

  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:১৯731177
  • Finally, in January 1811, both chambers of Congress engaged in a debate on whether to renew. Later that month, the House voted against renewal by just one vote. In February, Gallatin again recommended renewing the Bank’s charter. The Senate vote, however, resulted in a tie. The vice president, George Clinton of New York, cast the tie-breaking vote, and the charter renewal was again defeated by one vote.

    By 1811, many of those who had opposed the bank in 1790-91 still opposed it for the same reasons and said the charter should be allowed to expire. By this point, Alexander Hamilton was dead — killed in a duel with Aaron Burr — and his pro-Bank Federalist Party was out of power, while the Democratic-Republican Party was in control. Furthermore, by 1811, the number of state banks had increased greatly, and those financial institutions feared both competition from a national bank and its power.
  • lcm | 172.68.189.192 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:২১731179
  • Alexander Hamilton - the father of the concept of Federal Reserve. 

  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:২৭731180
  • The Rothschild family and politics have been intertwined for generations, ever since Nathan Rothschild, who founded the English branch of the family business, financed Britain's war against Napoleon two centuries ago. Nathan was the son of Mayer Rothschild, who founded the family business in the Jewish ghetto in Frankfurt during the 18th century.

    says it all.
  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৭:৩১731181
  • although Congress allowed certain nationally charted banks during the Civil War, the modern Federal Reserve system did not come into being until 1914.
  • lcm | 172.68.141.111 | ০৬ মে ২০২০ ০৮:০২731182
  • দেখো - ব্যাপারটা হল - টাকা ছাপা হবে, লোককে কাজের জন্য টাকা দেওয়া হবে, লোকে তাই দিয়ে জিনিসপত্র কেনাবেচা করবে। তো, এই সিস্টেম বহু পুরোনো।

    আগে রাজা ছিল সব টাকার মালিক, সব টাকা (সোনাদানা/স্বর্ণমুদ্রা) আসলে রাজার টাকা, রাজার ছবিও ছাপানো থাকত, মানুষকে তার পরিশ্রম/কাজের জন্য রাজকোষ থেকে টাকা দেওয়া হত।

    কিন্তু এই দেওয়াটা এক ধরনের লোন। মানুষ সেই টাকা দিয়ে অন্য কিছু কিনবে। টাকা লোকের হাতে হাতে ঘুরবে। মানুষ যা টাকা পাবে তা দিয়ে রাজস্ব দেবে। রাজা ইচ্ছেমতন রাজস্ব বাড়িয়ে কমিয়ে মানুষের থেকে টাকা রাজকোষে ফিরিয়ে আনতে পারে।

    এবারে, প্রশ্ন হল - যখন একটা দেশ নতুন তৈরি হচ্ছে, তখন এই টাকা ছাপানো আর ডিস্ট্রিবিউশনের ব্যাপরাটা কীভাবে ম্যানেজ করা হবে। স্ট্রিমলাইন করতে হবে। ব্যাপারগুলো নউত্ন কিছু না, রাজকোষ ব্যাপারটা হল অধুনা ট্রেজারি/ফেড রিজার্ভ/সেন্ট্রাল ব্যাংক - ইত্যাদি দিয়ে। এর প্রাথমিক একটা ডিজাইন - কিছু লোক মিলে করেছিল। হ্যামিলটন তাদের একজন। হাতিঘোড়া কিছু এরা করেন নি, যা ছিল মোনার্কিতে তাকেই একটু এদিক ওদিক।
  • dc | 172.69.134.122 | ০৬ মে ২০২০ ০৮:০৪731183
  • আচ্ছা ফেড নিয়ে এতো প্রশ্ন, এগুলো তো মোটামুটি বেশীর ভাগ টেক্সট বইতেই উত্তর দেওয়া থাকে। এরকম একটা টেক্সট বই পড়ে নিলে হয় না? যেমন আমার ইকোনমিক্স ফোল্ডারে একটা বই দেখতে পাচ্ছি, Macroeconomics by Dornbusch, Fischer, and Startz. যেকোন ইন্টারমিডিয়েট লেভেল ম্যাক্রোইকো বইতেই সেন্ট্রাল ব্যাংকের রোল নিয়ে বেশ বিস্তারিত আলোচনা থাকে।
  • S | 162.158.107.212 | ০৬ মে ২০২০ ০৮:১২731184
  • ১) হ্যামিলটনের সাথে রথসচাইল্ডের কোনও সম্পর্ক নেই।
    ২) হ্যামিলটন প্রথমে ব্যান্ক অব নিউ ইয়র্ক বানায়। তারপর ট্রেজারি সেক্রেটারি হয়ে প্রস্তাব দেয় ব্যান্ক অব ইউএস বানানোর।
    ৩) ব্যান্ক অব ইউএস হল প্রথম ন্যাশনাল ব্যান্ক। মানে আমেরিকার প্রথম ব্যান্ক যেটা একাধিক স্টেটে অপারেট করত।
    ৪) ব্যান্ক অব ইউএসের মাইনরিটি শেয়ারহোল্ডার ছিল ফেডারাল গভ। বাকি সব শেয়ার বাজারে বিক্রি করা হয়েছিল। অনেকটা এসবিআইয়ের মতন।
    ৫) সেন্ট্রাল ব্যান্কের কিছু রোল এই ব্যান্ক অবশ্যই প্লে করেছে। কিন্তু সেই ব্যান্ক শেষ হয়ে যায় ১৮১১ সালে। এর পর আসে সেকেন্ড ব্যান্ক অব ইউএস।
    ৬) আমেরিকাতে মডার্ণ সেন্ট্রাল ব্যান্কিং শুরু হয় ফেডের সঙ্গে। ১৯১৩তে।

    কথায় কথায় রথসচাইল্ড আনলে সে বক্তব্যের প্রায় কোনও মূল্যই থাকেনা। এই রথ্সচাইল্ডের নাম আনাটা একটা অ্যান্টাই-সেমিটিক ব্যাপার। এদের প্রভাব মূলত ইয়োরোপেই সীমাবদ্ধ ছিল। বিগত কয়েক দশকে এরা সেই পুরোনো জমিদার বংশ ছাড়া আর কিছু নয়।
  • S | 162.158.107.158 | ০৬ মে ২০২০ ০৮:২০731185
  • ডিসি যেটা বলেছেন সেটা করে দেখতে পারেন।
    আমেরিকার সেন্ট্রাল ব্যান্কিং বোধয় একটু আলাদা।

    ১) ফেড মনিটারি পলিসি নির্ধারণ করে। মানে ইন্টারেস্ট রেট নির্ধারণ করে। আমেরিকাতে ইন্টারেস্ট রেট আর মানি সাপ্লাই নির্ধারণ করা অনেকটাই ইন্টারটুইন্ড। অন্য দেশে বোধয় একটু আলাদা।
    ২) যেকোনও সেন্ট্রাল ব্যান্ক হল ব্যান্কদের ব্যান্ক। মানে ব্যান্কের টাকার প্রয়োজন হলে সেন্ট্রাল ব্যান্ক থেকে লোন নেয়, বেশি টাকা হলে সেন্ট্রাল ব্যান্কে জমা রাখে। সুদ আছে।
    ৩) ব্যান্ক এবং আরো কিছু ফাইনান্সিয়াল ইনস্টিটিউশানকে (যেমন আমাদের দেশে এনবিএফসি) রেগুলেট করে।

    এর বাইরে মনিটারি পলিসি এবং অর্থনীতি নিয়ে কিছু রিসার্চ করে। অনেক ক্ষেত্রে এক্সচেন্জ রেট মেইনটেইন করার অ্যাকাউন্টেবিলিটিও থাকে (দায়িত্ব বলব না)। ইন্ডিয়াতে একসময় কিছু মিন্ট ছিল আরবিআইয়ের, সেগুলো এখন আলাদা করা হয়েছে।

    ফেডের সাথে গোল্ডম্যান স্যাকসের কোনও সম্পর্ক নেই। গোল্ডম্যান একটা ইনভেস্টমেন্ট ব্যান্ক, কমার্শিয়াল ব্যান্ক নয়। এদেরকে রেগুলেট আর মনিটর করে এস ই সি। আমাদের দেশে সেবি।
  • S | 162.158.107.158 | ০৬ মে ২০২০ ০৮:২৪731186
  • আর লসাগুদা রাজকোষের কথা বলেছেন। সেটা আংশিক সত্যি। কারণ সরকারের ব্যান্ক হিসাবে সেন্ট্রাল ব্যান্ক কাজ করে। কিন্তু রাজকোষ মানে মূলত ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট। আমাদের দেশে ফাইনান্স মিনিস্ট্রি।

    কিন্তু এবারেই তো দেখা গেল যে ফেড ছাড়াও সরকার মানি সাপ্লাই বাড়াতে পারে, যখন সবাইকে আইআরেস থেকে (ট্রেজারির আন্ডারে) স্টিমুলাস চেক দেওয়া হল।
  • করোনা ভাইরাস

  • গুরুর মোবাইল অ্যাপ চান? খুব সহজ, অ্যাপ ডাউনলোড/ইনস্টল কিস্যু করার দরকার নেই । ফোনের ব্রাউজারে সাইট খুলুন, Add to Home Screen করুন, ইন্সট্রাকশন ফলো করুন, অ্যাপ-এর আইকন তৈরী হবে । খেয়াল রাখবেন, গুরুর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করতে হলে গুরুতে লগইন করা বাঞ্ছনীয়।
  • কি, কেন, ইত্যাদি
  • বাজার অর্থনীতির ধরাবাঁধা খাদ্য-খাদক সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে এসে এমন এক আস্তানা বানাব আমরা, যেখানে ক্রমশ: মুছে যাবে লেখক ও পাঠকের বিস্তীর্ণ ব্যবধান। পাঠকই লেখক হবে, মিডিয়ার জগতে থাকবেনা কোন ব্যকরণশিক্ষক, ক্লাসরুমে থাকবেনা মিডিয়ার মাস্টারমশাইয়ের জন্য কোন বিশেষ প্ল্যাটফর্ম। এসব আদৌ হবে কিনা, গুরুচণ্ডালি টিকবে কিনা, সে পরের কথা, কিন্তু দু পা ফেলে দেখতে দোষ কী? ... আরও ...
  • আমাদের কথা
  • আপনি কি কম্পিউটার স্যাভি? সারাদিন মেশিনের সামনে বসে থেকে আপনার ঘাড়ে পিঠে কি স্পন্ডেলাইটিস আর চোখে পুরু অ্যান্টিগ্লেয়ার হাইপাওয়ার চশমা? এন্টার মেরে মেরে ডান হাতের কড়ি আঙুলে কি কড়া পড়ে গেছে? আপনি কি অন্তর্জালের গোলকধাঁধায় পথ হারাইয়াছেন? সাইট থেকে সাইটান্তরে বাঁদরলাফ দিয়ে দিয়ে আপনি কি ক্লান্ত? বিরাট অঙ্কের টেলিফোন বিল কি জীবন থেকে সব সুখ কেড়ে নিচ্ছে? আপনার দুশ্‌চিন্তার দিন শেষ হল। ... আরও ...
  • বুলবুলভাজা
  • এ হল ক্ষমতাহীনের মিডিয়া। গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল যখন নিজের ঢাক নিজে পেটায়, তখন তাকেই বলে হরিদাস পালের বুলবুলভাজা। পড়তে থাকুন রোজরোজ। দু-পয়সা দিতে পারেন আপনিও, কারণ ক্ষমতাহীন মানেই অক্ষম নয়। বুলবুলভাজায় বাছাই করা সম্পাদিত লেখা প্রকাশিত হয়। এখানে লেখা দিতে হলে লেখাটি ইমেইল করুন, বা, গুরুচন্ডা৯ ব্লগ (হরিদাস পাল) বা অন্য কোথাও লেখা থাকলে সেই ওয়েব ঠিকানা পাঠান (ইমেইল ঠিকানা পাতার নীচে আছে), অনুমোদিত এবং সম্পাদিত হলে লেখা এখানে প্রকাশিত হবে। ... আরও ...
  • হরিদাস পালেরা
  • এটি একটি খোলা পাতা, যাকে আমরা ব্লগ বলে থাকি। গুরুচন্ডালির সম্পাদকমন্ডলীর হস্তক্ষেপ ছাড়াই, স্বীকৃত ব্যবহারকারীরা এখানে নিজের লেখা লিখতে পারেন। সেটি গুরুচন্ডালি সাইটে দেখা যাবে। খুলে ফেলুন আপনার খেরোর খাতা, লিখতে থাকুন, বানান নিজের বাংলা ব্লগ, হয়ে উঠুন একমেবাদ্বিতীয়ম হরিদাস পাল, এ সুযোগ পাবেন না আর, দেখে যান নিজের চোখে...... আরও ...
  • টইপত্তর
  • নতুন কোনো বই পড়ছেন? সদ্য দেখা কোনো সিনেমা নিয়ে আলোচনার জায়গা খুঁজছেন? নতুন কোনো অ্যালবাম কানে লেগে আছে এখনও? সবাইকে জানান। এখনই। ভালো লাগলে হাত খুলে প্রশংসা করুন। খারাপ লাগলে চুটিয়ে গাল দিন। জ্ঞানের কথা বলার হলে গুরুগম্ভীর প্রবন্ধ ফাঁদুন। হাসুন কাঁদুন তক্কো করুন। স্রেফ এই কারণেই এই সাইটে আছে আমাদের বিভাগ টইপত্তর। ... আরও ...
  • ভাটিয়া৯
  • যে যা খুশি লিখবেন৷ লিখবেন এবং পোস্ট করবেন৷ তৎক্ষণাৎ তা উঠে যাবে এই পাতায়৷ এখানে এডিটিং এর রক্তচক্ষু নেই, সেন্সরশিপের ঝামেলা নেই৷ এখানে কোনো ভান নেই, সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা তৈরি করার কোনো ঝকমারি নেই৷ সাজানো বাগান নয়, আসুন তৈরি করি ফুল ফল ও বুনো আগাছায় ভরে থাকা এক নিজস্ব চারণভূমি৷ আসুন, গড়ে তুলি এক আড়ালহীন কমিউনিটি ... আরও ...
যোগাযোগ করুন, লেখা পাঠান এই ঠিকানায় : [email protected]
মে ১৩, ২০১৪ থেকে সাইটটি বার পঠিত