Salil Biswas RSS feed

[email protected]
নিজের পাতা

Salil Biswasএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
    ভারত আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র - মিল কতটুকু?একটি দেশ যদি বিশ্বের সবচাইতে শক্তিশালী অর্থনীতি হয়, আরেকটির হাল বেশ নড়বড়ে - মানুষের হাতে কাজ নেই, আদ্ধেক মানুষের পেটে খাবার নেই, মাথার ওপরে ছাদ নেই, অসুস্থ হলে চিকিৎসার বন্দোবস্ত নেই। অবশ্য দুর্জনেরা বলেন, প্রথম ...
  • দক্ষিণের কড়চা
    গরু বাগদির মর্মরহস্য➡️মাঝে কেবল একটি একক বাঁশের সাঁকো। তার দোসর আরেকটি ধরার বাঁশ লম্বালম্বি। সাঁকোর নিচে অতিদূর জ্বরের মতো পাতলা একটি খাল নিজের গায়ে কচুরিপানার চাদর জড়িয়ে রুগ্ন বহুকাল। খালটি জলনিকাশির। ঘোর বর্ষায় ফুলে ফেঁপে ওঠে পচা লাশের মতো। যেহেতু এই ...
  • বাংলায় এনআরসি ?
    বাংলায় শেষমেস এনআরসি হবে, না হবে না, জানি না। তবে গ্রামের সাধারণ নিরক্ষর মানুষের মনে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে। আজ ব্লক অফিসে গেছিলাম। দেখে তাজ্জব! এত এত মানু্ষের রেশন কার্ডে ভুল! কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানলাম প্রায় সবার ভোটারেও ভুল। সব আইকার্ড নির্ভুল আছে এমন ...
  • যান্ত্রিক বিপিন
    (১)বিপিন বাবু সোদপুর থেকে ডি এন ৪৬ ধরবেন। প্রতিদিন’ই ধরেন। গত তিন-চার বছর ধরে এটাই বিপিন’বাবুর অফিস যাওয়ার রুট। হিতাচি এসি কোম্পানীর সিনিয়র টেকনিশিয়ন, বয়েস আটান্ন। এত বেশী বয়েসে বাড়ি বাড়ি ঘুরে এসি সার্ভিসিং করা, ইন্সটল করা একটু চাপ।ভুল বললাম, অনেকটাই চাপ। ...
  • কাইট রানার ও তার বাপের গল্প
    গত তিন বছর ধরে ছেলের খুব ঘুড়ি ওড়ানোর শখ। গত দুবার আমাকে দিয়ে ঘুড়ি লাটাই কিনিয়েছে কিন্তু ওড়াতে পারেনা - কায়দা করার আগেই ঘুড়ি ছিঁড়ে যায়। গত বছর আমাকে নিয়ে ছাদে গেছিল কিন্তু এই ব্যপারে আমিও তথৈবচ - ছোটবেলায় মাথায় ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল ঘুড়ি ওড়ানো "বদ ছেলে" দের ...
  • কুচু-মনা উপাখ্যান
    ১৯৮৩ সনের মাঝামাঝি অকস্মাৎ আমাদের বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ(ক) শ্রেণী দুই দলে বিভক্ত হইয়া গেল।এতদিন ক্লাসে নিরঙ্কুশ তথা একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করিয়া ছিল কুচু। কুচুর ভাল নাম কচ কুমার অধিকারী। সে ক্লাসে স্বীয় মহিমায় প্রভূত জনপ্রিয়তা অর্জন করিয়াছিল। একটি গান অবিকল ...
  • 'আইনি পথে' অর্জিত অধিকার হরণ
    ফ্যাসিস্ট শাসন কায়েম ও কর্পোরেট পুঁজির স্বার্থে, দীর্ঘসংগ্রামে অর্জিত অধিকার সমূহকে মোদী সরকার হরণ করছে— আলোচনা করলেন রতন গায়েন। দেশে নয়া উদারবাদী অর্থনীতি লাগু হওয়ার পর থেকেই দক্ষিণপন্থার সুদিন সূচিত হয়েছে। তথাপি ১৯৯০-২০১৪-র মধ্যবর্তী সময়ে ...
  • সম্পাদকীয়-- অর্থনৈতিক সংকটের স্বরূপ
    মোদীর সিংহগর্জন আর অর্থনৈতিক সংকটের তীব্রতাকে চাপা দিয়ে রাখতে পারছে না। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন শেষ পর্যন্ত স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছেন যে ভারতের অর্থনীতি সংকটের সম্মুখীন হয়েছে। সংকট কতটা গভীর সেটা তার স্বীকারোক্তিতে ধরা পড়েনি। ধরা পড়েনি এই নির্মম ...
  • কাশ্মীরি পন্ডিত বিতাড়নঃ মিথ, ইতিহাস ও রাজনীতি
    কাশ্মীরে ডোগরা রাজত্ব প্রতিষ্ঠিত হবার পর তাদের আত্মীয় পরিজনেরা কাশ্মীর উপত্যকায় বসতি শুরু করে। কাশ্মীরি ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের মানুষেরাও ছিলেন। এরা শিক্ষিত উচ্চ মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেনি। দেশভাগের পরেও এদের ছেলেমেয়েরা স্কুল কলেজে পড়াশোনা করেছে। অন্যদিকে ...
  • নিকানো উঠোনে ঝরে রোদ
    "তেরশত নদী শুধায় আমাকে, কোথা থেকে তুমি এলে ?আমি তো এসেছি চর্যাপদের অক্ষরগুলো থেকে ..."সেই অক্ষরগুলোকে ধরার আরেকটা অক্ষম চেষ্টা, আমার নতুন লেখায় ... এক বন্ধু অনেকদিন আগে বলেছিলো, 'আঙ্গুলের গভীর বন্দর থেকে যে নৌকোগুলো ছাড়ে সেগুলো ঠিক-ই গন্তব্যে পৌঁছে যায়' ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

Salil Biswas প্রদত্ত সর্বশেষ দু পয়সা

লেখকের আরও পুরোনো লেখা >> RSS feed

কুর্নিশ

আজ ছিল নবমী। এই ৩রা সেপ্টেম্বর সন্ধ্যাবেলা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেমেয়েরা সল্ট লেকের লাবনী-র সামনে তাদের দাবী নিয়ে অকুতোভয়ে দাঁড়িয়েছিল উৎসবমুখর মানুষের সামনে, সবাইকে জানাতে যে তাদের শান্তিপূর্ণ সংগীতময় আন্দোলন ‘হোককলরব’ তাদের ন্যায্য সম্মান রক্ষার ন্যায্য দাবী। সেই ভয়হীনতা সহ্য হল না শাসকের। তারা পাঠিয়ে দিল তাদের ভাড়াটে পুলিশ বাহিনী। বন্ধ করতে হবে সাহসিকতা। চেষ্টা চলল ভীতিপ্রদর্শণের। বিশাল বাহিনী ধরে নিয়ে গেল তেরো জন তরুণ-তরুণীকে। আবার দাঁড়ালো লাঠির মুখে গানের সুর। আরও অনেক বার দাঁড়াবে। আরও

কলেজে ভর্তির মজারু গপ্পো

এখন সেপ্টেম্বর শেষ হতে চলল। ২০১৪ সাল।
সব কলেজে ভর্তি শেষ। প্রায় সব কলেজেই চলছে ঝরতি-পড়তিদের অনুনয়-বিনয়ের পালাও শেষ। যারা ভর্তি হয়েছে তাদের মধ্যে ভাগ্যবানেরা অন্য আরো “ভাল” কলেজে চলে গেছে। বাকিরা “টিউশনি স্যার/ম্যাডাম” খুঁজতে ব্যস্ত। অল্প কয়েকজন বই-টই কিনে ক্লাস করছে। অনেক কলেজে এই সদ্য “রুটিন” তৈরি হয়েছে।
নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়েছে।
শেক্সপীয়র সাহেব একটি নাটক লিখেছিলেন – “ম্যাকবেথ”। রাজা হবার লোভে আগের রাজা ডানকান-কে খুন করে নিজের রক্তাক্ত হাত দেখে ম্যাকবেথ স্বগতোক্তি করেছিল : This i

শিক্ষক দিবস ও সেই মেয়েটি

এই তো সেদিন, ৫ সেপ্টেম্বর, গেল “শিক্ষক দিবস”। বলছিলাম স্কুল থেকে ফেরার পথে এক বন্ধুকে, এই নিয়ে স্কুল কলেজ মিলিয়ে ৪৫টা শিক্ষক দিবসে হাজির থাকলাম আমি। ৪৫ বার ছাত্ররা আমাকে অভিনন্দিত করল, আমি তাদের এই নিয়ে ৪৫ বার স্নেহ ভালোবাসা জানালাম। আমার খুব ভালো লাগল এই নিয়ে ৪৫ বার। ওদেরও নিশ্চয় ভালো লাগল।
সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণাণকে স্মরণ করা হল। স্মরণ করা হল না লক্ষ লক্ষ গ্রামেগঞ্জে পড়ে থাকা সেই সব দরিদ্র সম্বলহীন শিক্ষকদের যাঁরা নানা প্রতিকূলতা আর স্থানীয় নেতাগুণ্ডাদের হস্তক্ষেপ সত্ত্বেও চেষ্টা করে চলেছেন ত

হরির গল্প

এটা দ্বিতীয় বার দিচ্ছি। আগের পোস্টটা ভুলভাল। এখানে ঠিক করে দিলাম।
( আর একটি পূর্ব-প্রকাশিত গল্প। কমলাদি-র কথা বলতে গিয়ে বাস্তবের উপরে একটা আস্তরণ টেনেছিলাম। এই কাহিনীতে স্থান-কাল-পাত্রের নাম শুধু বদলানো হয়েছে। আর কিছু নয়। বাকি ঘটনা প্রায় অবিকৃত। আসুন, আমরা ভাবি, কেমন করে আমাদের সংস্পর্শে তথাকথিত “অপর”-গণকে কেমন করে পরিবর্তিত করে। যে সংস্কৃতি অন্তজ নয়, কেবল স্বতন্ত্র, তাকে বদলে দেবার, সেখানে হস্তক্ষেপ করার অধিকার আছে কি আমাদের? জানি না। )

একটি ছেলে আর একটি লোকের কথা লিখব এখানে। এদের

হরির গল্প

( আর একটি পূর্ব-প্রকাশিত গল্প। কমলাদি-র কথা বলতে গিয়ে বাস্তবের উপরে একটা আস্তরণ টেনেছিলাম। এই কাহিনীতে স্থান-কাল-পাত্রের নাম শুধু বদলানো হয়েছে। আর কিছু নয়। বাকি ঘটনা প্রায় অবিকৃত। আসুন, আমরা ভাবি, কেমন করে আমাদের সংস্পর্শে তথাকথিত “অপর”-গণকে কেমন করে পরিবর্তিত করে। যে সংস্কৃতি অন্তজ নয়, কেবল স্বতন্ত্র, তাকে বদলে দেবার, সেখানে হস্তক্ষেপ করার অধিকার আছে কি আমাদের? জানি না। )



একটি ছেলে আর একটি লোকের কথা লিখব এখানে। এদের দু’জনের কেউই গুরুত্বপূর্ণ মানুষ নয়। এদের কথা না জানলে কারো

কমলাদি

এটি একটি পূর্ব-প্রকাশিত গল্প। ‘নবান্ন’ পত্রিকায়। সনতারিখ মনে নেই। এই মুহূর্তে দরকারও নেই। অবশ্য এটাকে শুধু ‘গল্প’ বললে ভুল হবে হয়ত। যা ঘটেছিল (বা বলা ভালো, যা ঘটেছিল ত্তার যতটা আমার মনে আছে) তাই লিখেছিলাম। মাঝে মাঝে ফাঁকফোকর ভরে দিয়েছিলাম কল্পনা থেকে। নামগুলো পাল্টে নিয়েছিলাম। তাছাড়া, ঘটনা যেমন ঘটে তেমন লিখে ফেললে কেমন যেন ম্যাড়মেড়ে লাগে। ঘটনা তো শিল্প মেনে ঘটে না। তাই রংগুলোকে একটু চড়িয়ে নিতে হয়, একটু সীবনশিল্পের আশ্রয় নিতে হয়। এখানেও তাই করা হয়েছে। তবে তেমন বেশি নয় সেই মিশ্রণের পরিমাণ। আর একটা

আঁধারে মলিন হল

কালো একটা ছায়া পড়ে আছে গোটা উপত্যকা জুড়ে। প্রতি মুহূর্তে বন্দুকের নল ক্রূঢ় দৃষ্টি নিয়ে তাকিয়ে আছে মানুষের দিকে। তুমি আতঙ্কবাদী, তুমি ভারতবিরোধী, তুমি ভারতের পক্ষে, তুমি দেশদ্রোহী, তুমি পাকিস্তানের পক্ষে, তুমি পাকিস্তানবিরোধী, তুমি দেশদ্রোহী, তুমি আমার শত্রু। তোমাকে শায়েস্তা রাখতে হবে।
ভূস্বর্গের অসামান্য নৈসর্গিক সৌন্দর্য ম্লান হয়ে থাকে ভীতির বাতাবরণে। শুধু প্রহরীদের নয়, তথাকথিত জঙ্গিদেরও কম ভয় পায় না মানুষ।
আমার খেরোর খাতার মূল বিষয় থেকে একটু সরে এসে লিখছি এটা। অল্প ক’টা কথা।
আমি এ

বছর পরে ফিরে দেখা

[এই লেখাটি আরও পরে এখানে দেব ভেবেছিলাম। কিন্তু, এক, আমি তথা আমরা সকলের মতামত চাই, নিজেদের বুঝে নিতে; দুই, এই লেখাটি অন্য নামে, কিছুটা অন্য রূপে ‘শ্রমজীবী স্বাস্থ্য’ পত্রিকায় ছাপা হয়েছে, কাজেই এখানে তা দিয়ে দেওয়া যায়। তাছাড়া, শুধু বিবরণ পড়তে আপনাদের সারাক্ষণ ভালো লাগবে না, সেটা স্বাভাবিক। আপনাদের অনুরোধ, এই লেখাটি এবং অন্য যা লিখব পড়ে, খোলাখুলি মতামত জানাবেন। সোজা আমাকে লিখুন এই ঠিকানায় – [email protected] . আপনাদের অকৃপণ উপদেশ আমাদের সঠিকতর হয়ে উঠতে সাহায্য করবে।]


শ্রমজীবী বিদ্

খুব সংক্ষেপে ঘটনাক্রম – যেখান থেকে শুরু স্কুলের পথচলা – লিখে দিয়েছেন কৃশানু মিত্র

১। দীর্ঘদিন ধরে শ্রমজীবী হাসপাতাল প্যারামেডিক্যাল শিক্ষাদানে সফল ভূমিকা নিয়েছিল। কিন্তু ডক্টরস অ্যাসিস্ট্যান্ট কোর্স নিয়ে চিন্তাভাবনা থাকলেও তা প্রয়োগে নিজেদেরই দ্বন্দ্ব ছিল, যা কাটিয়ে উঠতে আমাদের দীর্ঘ সময় লেগেছে।
২। এই বিষয়ে প্রথম মিটিং হয় ২০১২ সালে নভেম্বর মাসে। মিটিঙে অংশগ্রহণ করেন ডাক্তার গৌরীপদ দত্ত, দীপাঞ্জন রায়চৌধুরী, ডাক্তার তাপস ভট্টাচার্য, শুভাশীষ মুখার্জি ও বিশিষ্ট আরো কিছু ব্যক্তিবর্গ। মিটিং হয় শ্রমজীবী বেলুড় হাসপাতালে।
৩। কেজি টু পিজি ভাবনার কথা আমরা আগেই ঘোষণা করেছিলাম, কি

গন্তব্যের গোড়ায়

প্রথম জানতে পারি দীপাঞ্জনের (রায়চৌধুরি) কাছ থেকে, শ্রমজীবী হাসপাতাল একটি স্কুল তৈরির কথা ভাবছে। আমি কি আগ্রহী? আগ্রহী তো বটেই, এই রকম যে কোনো প্রচেষ্টায় আমি আগ্রহী। কিন্তু এই স্কুল তৈরির কথা শুনে শুনে কান পচে গেছে, ‘আপনাকে বলছি স্যার’ পড়লেই স্কুল করার কথা মনে পড়ে, আর ক’দিন পরেই আরও অনেক ভালো ইচ্ছার মত এও উপে যায়। না, না, এনাদের কথা শুনে মনে হচ্ছে এঁরা সিরিয়াস। স্কুলটা ওঁরা করতে চাইছেন আমাদের পদ্ধতি মেনে, আমাদের একেবারে ফ্রি হ্যান্ড দেবেন। দরিদ্র কিন্তু মেধাবী ছেলেমেয়েদের নিয়ে হবে স্কুল। পুরো ফ্র
>> লেখকের আরও পুরোনো লেখা >>

এদিক সেদিক যা বলছেনঃ

05 Oct 2014 -- 03:53 PM:মন্তব্য করেছেন
সত্যি কি কিছু করতে পারি না আমরা? আমার এক অগ্রজ অর্থনীতিবিদ বলেছিলেন, নিজের কাজটা নিজের মত করে যাওয়াট ...
25 Sep 2014 -- 01:02 PM:মন্তব্য করেছেন
সে = অনেক কিছুই তো তাও লিখিনি।
25 Sep 2014 -- 12:43 PM:মন্তব্য করেছেন
আর এক ছাত্র = কোন কথাটার কথা জানতে চেয়েছেন বুঝলাম না ... একটু উল্লেখ করে বলুন। এখানে কিছু কোনো বই থ ...
16 Sep 2014 -- 01:10 PM:মন্তব্য করেছেন
তুই তো অনেক জরুরী কাজ করছিস, খুকু। ওই কাজেই তো বাবার ভাবনা মিশে আছে। তোর স্কুল অনেক বড় হবে। বাবা খুব ...
15 Sep 2014 -- 10:57 PM:মন্তব্য করেছেন
না না, এভাবে লোককে হেনস্থা করা ঠিক না। কী আর করেছে? কটা টাকা মেরেছে, তার বেশি কিছু তো নয়!
09 Aug 2014 -- 07:35 PM:মন্তব্য করেছেন
http://www.guruchandali.com/blog/2014/08/08/1407511704850.html?author=salil.biswas#.U-Ypoi8cRMs = E ...
08 Aug 2014 -- 09:12 PM:ভাটে বলেছেন
আমি সলিল বিশ্বাস। আমার খেরোর খাতাতে শেষ পোস্টটা আমার ভুলে একদম ঘেঁটে গেছে। ওটা মুছে ফেলতেও পারছি না। ...
08 Aug 2014 -- 09:07 PM:মন্তব্য করেছেন
এই লেখাটা কেউ প্ড়বেন না। আগে পরে পোস্ট হয়ে সব গোলমাল হয়ে গেছে ... এটা আবার নতুন করে পোস্ট করতে হবে। ...
08 Aug 2014 -- 09:00 PM:মন্তব্য করেছেন
যে কোনো কারণেই হোক, বস্তিগুলিতে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, মহিলারা ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার ব্যাপারে ...
06 Jul 2014 -- 11:30 PM:মন্তব্য করেছেন
চমৎকার!
05 Jun 2014 -- 08:59 PM:মন্তব্য করেছেন
কল্লোল। আকারে বাড়াবার ইচ্ছে নেই আমার। কিন্তু এইট নাইন হতেই নতুন এইট এসে ঢুকে পড়েছে। দেখা যাক কী হয়। ...
15 Apr 2014 -- 02:48 PM:মন্তব্য করেছেন
রাস্তা নিয়ে বলে চলেছি, গন্তব্যর সঙ্গে তার যোগাযোগ গভীর বলে। তবে, রাস্তা (আপাতত) শেষ হয়ে আসছে।
31 Mar 2014 -- 09:21 PM:মন্তব্য করেছেন
সবটাই লেখার ইচ্ছে আছে। যখন যতটা পারি।
03 Oct 2013 -- 10:41 PM:ভাটে বলেছেন
শুরু করা যাক। এভারেট রাইমার নামে এক ভদ্রলোক একটা কথা বলেছিলেন যেটা আমার খুব পছন্দ। বলেছিলে ...
03 Oct 2013 -- 10:36 PM:ভাটে বলেছেন
শুরু করা যাক। এভারেট রাইমার নামে এক ভদ্রলোক একটা কথা বলেছিলেন যেটা আমার খুব পছন্দ। বলেছিলেন ...