Parichay Patra RSS feed

নিজের পাতা

Parichay Patraএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • দক্ষিণের কড়চা
    গরু বাগদির মর্মরহস্য➡️মাঝে কেবল একটি একক বাঁশের সাঁকো। তার দোসর আরেকটি ধরার বাঁশ লম্বালম্বি। সাঁকোর নিচে অতিদূর জ্বরের মতো পাতলা একটি খাল নিজের গায়ে কচুরিপানার চাদর জড়িয়ে রুগ্ন বহুকাল। খালটি জলনিকাশির। ঘোর বর্ষায় ফুলে ফেঁপে ওঠে পচা লাশের মতো। যেহেতু এই ...
  • বাংলায় এনআরসি ?
    বাংলায় শেষমেস এনআরসি হবে, না হবে না, জানি না। তবে গ্রামের সাধারণ নিরক্ষর মানুষের মনে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে। আজ ব্লক অফিসে গেছিলাম। দেখে তাজ্জব! এত এত মানু্ষের রেশন কার্ডে ভুল! কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানলাম প্রায় সবার ভোটারেও ভুল। সব আইকার্ড নির্ভুল আছে এমন ...
  • যান্ত্রিক বিপিন
    (১)বিপিন বাবু সোদপুর থেকে ডি এন ৪৬ ধরবেন। প্রতিদিন’ই ধরেন। গত তিন-চার বছর ধরে এটাই বিপিন’বাবুর অফিস যাওয়ার রুট। হিতাচি এসি কোম্পানীর সিনিয়র টেকনিশিয়ন, বয়েস আটান্ন। এত বেশী বয়েসে বাড়ি বাড়ি ঘুরে এসি সার্ভিসিং করা, ইন্সটল করা একটু চাপ।ভুল বললাম, অনেকটাই চাপ। ...
  • কাইট রানার ও তার বাপের গল্প
    গত তিন বছর ধরে ছেলের খুব ঘুড়ি ওড়ানোর শখ। গত দুবার আমাকে দিয়ে ঘুড়ি লাটাই কিনিয়েছে কিন্তু ওড়াতে পারেনা - কায়দা করার আগেই ঘুড়ি ছিঁড়ে যায়। গত বছর আমাকে নিয়ে ছাদে গেছিল কিন্তু এই ব্যপারে আমিও তথৈবচ - ছোটবেলায় মাথায় ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল ঘুড়ি ওড়ানো "বদ ছেলে" দের ...
  • কুচু-মনা উপাখ্যান
    ১৯৮৩ সনের মাঝামাঝি অকস্মাৎ আমাদের বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ(ক) শ্রেণী দুই দলে বিভক্ত হইয়া গেল।এতদিন ক্লাসে নিরঙ্কুশ তথা একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করিয়া ছিল কুচু। কুচুর ভাল নাম কচ কুমার অধিকারী। সে ক্লাসে স্বীয় মহিমায় প্রভূত জনপ্রিয়তা অর্জন করিয়াছিল। একটি গান অবিকল ...
  • 'আইনি পথে' অর্জিত অধিকার হরণ
    ফ্যাসিস্ট শাসন কায়েম ও কর্পোরেট পুঁজির স্বার্থে, দীর্ঘসংগ্রামে অর্জিত অধিকার সমূহকে মোদী সরকার হরণ করছে— আলোচনা করলেন রতন গায়েন। দেশে নয়া উদারবাদী অর্থনীতি লাগু হওয়ার পর থেকেই দক্ষিণপন্থার সুদিন সূচিত হয়েছে। তথাপি ১৯৯০-২০১৪-র মধ্যবর্তী সময়ে ...
  • সম্পাদকীয়-- অর্থনৈতিক সংকটের স্বরূপ
    মোদীর সিংহগর্জন আর অর্থনৈতিক সংকটের তীব্রতাকে চাপা দিয়ে রাখতে পারছে না। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন শেষ পর্যন্ত স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছেন যে ভারতের অর্থনীতি সংকটের সম্মুখীন হয়েছে। সংকট কতটা গভীর সেটা তার স্বীকারোক্তিতে ধরা পড়েনি। ধরা পড়েনি এই নির্মম ...
  • কাশ্মীরি পন্ডিত বিতাড়নঃ মিথ, ইতিহাস ও রাজনীতি
    কাশ্মীরে ডোগরা রাজত্ব প্রতিষ্ঠিত হবার পর তাদের আত্মীয় পরিজনেরা কাশ্মীর উপত্যকায় বসতি শুরু করে। কাশ্মীরি ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের মানুষেরাও ছিলেন। এরা শিক্ষিত উচ্চ মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেনি। দেশভাগের পরেও এদের ছেলেমেয়েরা স্কুল কলেজে পড়াশোনা করেছে। অন্যদিকে ...
  • নিকানো উঠোনে ঝরে রোদ
    "তেরশত নদী শুধায় আমাকে, কোথা থেকে তুমি এলে ?আমি তো এসেছি চর্যাপদের অক্ষরগুলো থেকে ..."সেই অক্ষরগুলোকে ধরার আরেকটা অক্ষম চেষ্টা, আমার নতুন লেখায় ... এক বন্ধু অনেকদিন আগে বলেছিলো, 'আঙ্গুলের গভীর বন্দর থেকে যে নৌকোগুলো ছাড়ে সেগুলো ঠিক-ই গন্তব্যে পৌঁছে যায়' ...
  • খানাকুল - ২
    [এর আগে - https://www.guruchan...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

Parichay Patra প্রদত্ত সর্বশেষ দু পয়সা

লেখকের আরও পুরোনো লেখা >> RSS feed

কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালঃ সাজেশন সম্ভার

এসে গেল মিলনদার সাজেশন, অথবা কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে কী কী দেখিবেন না তার তালিকা। সকলের সুবিধার্থে সাজিয়ে দিলাম।

সেন্টেনারি ট্রিবিউটঃ ইঙ্গমার বার্গম্যানের একগাদা পরিচিত ছবি দেখাচ্ছে। তবে প্রিন্টে যদি দেখায় তবে অবশ্যই দেখে নিন।

অস্ট্রেলিয়ান সিনেমাঃ দুটি সেকশন রয়েছে। হালফিলের ছবির সঙ্গে আলাপ নেই। আইকনিক অজি ছবি নামে পুরনো ছবির যে বিভাগ সেখানে 'প্রিসিলা, কুইন অব দ্য ডেজার্ট', 'টেন ক্যানুজ' এর মতো নামকরা ছবি ছাড়াও দেখাচ্ছে আমার অত্যন্ত প্রিয় 'পিকনিক অ্যাট হ্যাঙ্গিং রক'। শেষ ছবিটি

বুয়েনোস আইরেস ডায়ারিজ

১ম পর্ব
এই জার্নি মাসে ১-২ বার করে কাউকে করতে হলেই পঞ্চত্ব সুনিশ্চিত। এমিরেটস লাতিন আমেরিকায় দুটি উড়ান চালান, একটি, যাতে আমি এলাম, দুবাই থেকে ভায়া রিও বুয়েনোস আইরেস, অন্যটি দুবাই থেকে ভায়া সাও পাওলো সান্তিয়াগো, যেটার সময় আরও বেশি লাগা উচিত। প্রায় কুড়ি ঘণ্টা ফ্লাইটে বসে বসে (যার আগে মুম্বাই-দুবাই এবং দুবাইতে ঘণ্টা সাতেক বসে থাকা ছিল) মনে হচ্ছিল এইবারে নির্ঘাত মরুতীর্থ হিংলাজের কতদূর আর কতদূর গান ভেসে আসবে।

প্রায় ১৪ ঘণ্টা পরে রিও এল। রিও দূরে মেঘের মতো ঘিরে থাকা পাহাড়ের উপত্যকায় ঘাপট

তার বিজলি সে পতলে...

কলকাতায় বন্ধু যারা ছিলেন তারা হয় শহর ছেড়েছেন, নয় বন্ধুত্ব, কেউ কেউ দুটোই। শেষ বন্ধু যারা থেকে গেছেন তাদের সঙ্গে মাঝে মাঝে ফোনে কথা হত। মনে আছে মনাশে থাকার সময় একবার পুজোয় তাঁদের ফোন পেলাম, এবং আমি যে জঙ্গলে থাকতাম সেখানে যে পুজো ইত্যাদি হয়না, আমি যে মোটের ওপর পুজোর হাত এড়াতে পেরেছি সেটা জানিয়ে তাঁদের আমি আশ্বস্ত করেছিলাম, নিজেও আশ্বাস খুঁজে পেয়েছিলাম। এমনিতেও আমার বাড়ির কাছে এমন কোন বিরাট পুজো হয়না, মাইকের অত্যাচারও নেই। ছোটবেলায় সবারই একটু পুজোর গল্প থাকে, মাইক থাকে, কিছু লুপে শুনতে বাধ্য হওয়া

সিনেমাওয়ালা প্রসঙ্গে

এলিসিও সুবিয়েলার ‘ডোণ্ট ডাই উইদাউট টেলিং মী হোয়ার ইউ আর গোয়িং’ এ বন্ধ হতে বসা এক মুভি থিয়েটারের প্রোজেকশনিস্টের সঙ্গে দেখা হয় এক আপাত অশরীরী নারীর, যে এসেছে তার অতীত কোন এক জন্ম থেকে, যে জন্মে তারা দুজনে ছিল টমাস আলভা এডিসনের সহযোগী, সিনেমার জন্মরহস্যের সঙ্গে জড়িয়ে ছিল। সুবিয়েলার ছবিটিও সিনেমার তথাকথিত ১০০ বছর চলাকালীন সময়েই করা। অথবা সাই মিং-লিয়াং এর ‘গুডবাই, ড্রাগন ইন’। তাইপেইয়ের বন্ধ হতে বসা সে মুভি থিয়েটারে শেষ শোতে চলে ষাটের দশকের জনপ্রিয় মার্শাল আর্টস ছবি ‘ড্রাগন ইন’, আর সেই হণ্টেড থিয়েটার

'বেলাশেষে' সত্যান্বেষণ

গুরুচণ্ডালী ফেসবুকে গ্রুপে কদিন আগে গৌতমদা (দাশগুপ্ত) আমাকে তাঁর একটি পোস্টে ট্যাগ করেন। বিষয় ছিল 'বেলাশেষে'। ছবিটি তিনি বেশ কয়েকবার দেখেছেন। আমি দেখেছি কিনা, কি বক্তব্য তা জানতে চেয়েছিলেন। একজন সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন সেখানে যে আমি সম্ভবত এ জাতীয় ছবি দেখিনা। কাল আবার বাংলাদেশের একজন সদস্য একটি স্ট্যাটাস শেয়ার করেছেন সেখানে, যাতে বলা হয়েছে 'বেলাশেষে' আদতে নারীর সাবমিসিভ ভূমিকাই প্রতিষ্ঠিত করে এবং তাকে প্রেম বলে চালায়, নারীর ক্ষমতায়নের দিকে যায় না। উত্তর কোথাও দেওয়া হয়নি, এখানেই দিচ্ছি। এই পোস্ট আ

একটি স্পোর্টস ট্যুর এবং অন্যান্য গল্প

প্রস্তাবনাঃ যাদবপুর ইউনিভার্সিটির একটি দল কোন এক টুর্নামেন্টে খেলতে বেনারস গিয়েছিল, বেনারস হিন্দু ইউনিভার্সিটিতে। সেখানে ক্রমাগত এক অচেনা পরিবেশে নজরদারি এবং আক্রমণের শিকার হয় তারা, যাদবপুরে দেশবিরোধী কাজকর্মের অভিযোগ তুলে তাদের চিহ্নিত করা হয়। নিজেদের ওপরে শারীরিক আক্রমণের ভয়ে তারা ইউনিভার্সিটির জার্সি পরে খেলতেও পারেনি। প্রথম খেলায় হেরে তারা কলকাতায় ফিরে আসে পরের ট্রেনে।

একটি ছবির গল্পঃ দক্ষিণ ভারতের সিনেমা সম্পর্কে দীর্ঘদিনের অ্যাকাডেমিক উৎসাহ-পোষণকারী আমি মহেশ বাবু-ভূমিকা চাওলা অভিন

ভূতচতুর্দশী

কালীপূজো নাকি ভূতচতুর্দশী আরও যেন কিকিসব। সকলে কালচারাল অথেণ্টিসিটি আর নেটিভিটি নিয়ে উৎসাহী দেখছি সোশ্যাল মিডিয়ায়। বাঙালির কালীপূজা কেমন করে দিওয়ালী হয়ে উঠছে তা নিয়ে অনেকেই শঙ্কিত। এই দিনে ১৪ শাক খেতে হয়, ১৪ প্রদীপ দেখাতে হয় পিতৃপুরুষকে। বিশ্বাসী পরিবারে বড় হওয়ার মাশুল হিসেবে এইসব দেখতে এবং অল্পবিস্তর অংশ নিতে হয়েছে অতীতে। শাক-টাক কোনদিন খেতে ভাল লাগত না, একেবারে অসহ্য। ১৪ প্রদীপের কিন্তু একটা আধিভৌতিক আকর্ষণ আছে, এক ধরনের জাদুবাস্তবতা আছে। এই যে পূর্বপুরুষের সঙ্গে সংযোগের গল্প, এই 'মৃতের সহিত ক

অকুপাই ইউজিসি

দিল্লিতে অকুপাই ইউজিসি আন্দোলনে পুলিশি হামলা এবং লাঠিচার্জে অবাক হবার কিছু নেই, কেননা বহুদিন ধরেই দিল্লির কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে প্রতিপক্ষ মনে করতেন বিজেপি এবং সমমনা দলগুলি। প্রথম সুযোগেই তাঁরা নন-নেট ফেলোশিপ বন্ধের নামে আক্রমণ এনেছেন। তাঁরা মনে করেছিলেন যে এটা যেহেতু প্রধানত কেন্দ্রীয় ইউনির ব্যাপার, স্টেট ইউনিতে এমনিতেই এই ফেলোশিপ নেই, তাই বড় মাপের সাহায্য সমর্থন এরা পাবে না। তাছাড়া কেন্দ্রীয় ইউনি ছড়িয়ে আছে সারা দেশে, দিল্লির ছাত্রের পাশে গিয়ে হায়দরাবাদ বা পণ্ডিচেরি বা শিলচরের ছাত্রের দা

হারানো ফিল্ম ক্রিটিকের সন্ধানে

রাজকাহিনীর বেশকিছু রিভিউ বাজারে ঘুরছে, যার মধ্যে দুটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। একটি অনুজপ্রতিম বন্ধু সুয়াভোর রচনা, অন্যটি অভিলাষ রায় নামক একজনের। আমি সুয়াভোর লেখাটি পড়ে প্রচুর হেসেছি, মজা পেয়েছি, অভিলাষবাবুর লেখাটি আমার অপছন্দ হয়েছে, অপেশাদার মনে হয়েছে। রাজকাহিনী আমি দেখিনি, দেখার সুযোগ বা উৎসাহ নেই, তাই সে নিয়ে কিছু বলব না। কিন্তু সমস্যা হল এই যে বেশ কয়েকজন বন্ধু, যারা দর্শক হিসাবে সৃজিতের ছবি পছন্দ করেন, তারা কিছু আপত্তি তুলেছেন, কিছু কিছু কার্টুন ইত্যাদিও বানিয়েছেন। তাঁদের প্রধান বক্তব্য, যেমন অনিক

গুলাম আলি এবং শিবসেনা সমাচার

গুলাম আলির গজল অনুষ্ঠান মুম্বাইতে বন্ধ করা নিয়ে নানা কথা চলছে। শিবসেনা ঠাকরের মৃত্যুর পরে প্রায় উঠে যেতে বসেছিল, এককভাবে ভোটে লড়ে বিজেপিও তাদের একঘরে করে দিয়েছিল। শিবসেনা কেবল ধর্মীয় মৌলবাদী দলই নয়, তারা ভয়ঙ্কর রেসিস্ট প্রাদেশিক দল। নিজেদের জাতীয় পরিচিতি এবং প্যান-ইন্ডিয়ান হিন্দু জাতীয়তাবাদ নামক অস্ত্র নিয়ে সতর্ক বিজেপি এদের থেকে ধীরে ধীরে দূরত্ব বজায় রাখার চেষ্টায় ছিল পরেরদিকে। শিবসেনা তাই আগের চেহারায় ফিরে আসতে চেষ্টা করল, খবরে থাকতে চাইল। শিবসেনার কাছে এটা নতুন নয়, তাদের জন্মই হয়েছিল মুম্বাইয়
>> লেখকের আরও পুরোনো লেখা >>

এদিক সেদিক যা বলছেনঃ

28 Sep 2017 -- 10:24 AM:মন্তব্য করেছেন
শহর হচ্ছে হায়দরাবাদ।
08 Oct 2015 -- 05:28 PM:টইয়ে লিখেছেন
দুঃখিত, লেখাটি আমার খেরোর খাতায় দু-পয়সা হিসাবে দিয়েছি, সেটাই চেয়েছিলাম, ভুলে এখানে দেওয়া হয়ে গেছে। আ ...
08 Oct 2015 -- 05:21 PM:টইয়ে লিখেছেন
গুলাম আলির গজল অনুষ্ঠান মুম্বাইতে বন্ধ করা নিয়ে নানা কথা চলছে। শিবসেনা ঠাকরের মৃত্যুর পরে প্রায় উঠে ...
08 Oct 2015 -- 05:21 PM:টই খুলেছেন
গুলাম আলি এবং শিবসেনা সমাচার
28 Sep 2015 -- 05:06 PM:মন্তব্য করেছেন
ঈপ্সিতাদি, অনেকদিন পরে উত্তর দিতে পারছি। এক এক করে বলি। ১। পরের দিকের বাংলা পপুলার তার চেহ ...
19 Jul 2015 -- 06:19 PM:মন্তব্য করেছেন
সোশ্যালের বাস্তববাদী সেটিংয়ে হবে, বাস্তববাদে হয়ে গিয়েছে।
24 Sep 2014 -- 08:20 AM:মন্তব্য করেছেন
বন্ধুগণ, এইমাত্র জানা যাচ্ছে এক নির্ভীক 'ছাত্রী' জীবন বিপন্ন করে শঙ্কুদেবের মিছিলে চলতে চলতেই আমাদের ...
24 Sep 2014 -- 08:17 AM:মন্তব্য করেছেন
গতবছর হরিমোহন কলেজের ভোটে এক বয়স্ক পুলিশ অফিসার নিহত হন তৃণমূলের লোকেদের গুলিতে। তাঁর পরিবারের লোকের ...
24 Sep 2014 -- 08:16 AM:মন্তব্য করেছেন
যারা কলকাতা টিভির ফুটেজ দেখেছেন এবং দেখে দ্বিধায় পড়েছেন তাদের জন্য এই পোস্ট। কলকাতা টিভির রাজনৈতিক আ ...
08 Jul 2014 -- 08:14 PM:টইয়ে লিখেছেন
বিশ্বকাপ শেষ হলে নিস্তার পাই, ফেসবুক ভাসছে সকলের আবেগে, এদিকে বাঙালি নিজে বাজে ও দৃষ্টিকটু ফুটবল খেল ...
08 Jul 2014 -- 08:12 PM:টই খুলেছেন
ফুটবল বিশ্বকাপ ও বাঙ্গালির বাতুলতা